Jump to content

BDPIPS - Forex Bangladesh

জার্মান রাজনৈতিক উত্তেজনায় EURGBP পেয়ারের বিয়ারিশ শক্তিশালী হচ্ছে

আসন্ন জার্মান সাধারণ নির্বাচনের পূর্বে EURGBP পেয়ারের প্রাইস কমতে শুরু করেছে। দ্বিতীয় দিনের মতো পাউন্ডের বিপরীতে ইউরো দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। আর্টিকেল লেখার সময় EURGBP এক্সচেঞ্জ ০.৮৫১০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। জার্মান সাধারণ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দেশটির মধ্যে রাজনৈতিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা ইউরোর প্রাইসকে প্রভাবিত করছে। ২৬ সেপ্টেম্বরের নির্বাচনে অ্যাঙ্গেল মার্কেলের দল ক্ষমতা থেকে অপসরণ হলে টানা ১৬ বছর পর ক্ষমতা থেকে অপসরণ হবে। নির্বাচনের পরবর্তীতে ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এ

ডাউনসাইড শক্তিশালী হয়ে ১২৮.৫০ প্রাইসে যাচ্ছে EURJPY

আজ বৃহস্পতিবার EURJPY ১২৯.২০ প্রাইসে ওপেন হলেও বর্তমানে প্রাইস কমে ১২৮.৭৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। পেয়ারের ক্ষেত্রে জুলাই মাসের নিন্ম প্রাইস ১২৮.৫০ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে।  পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে আগস্ট মাসের নিন্ম প্রাইস ১২৭.৯২। অপরদিকে পেয়ার ২০০ দিনের SMA অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। সেক্ষেত্রে ১২৯.৫৪ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। EURJPY ডেইলি চার্ট সবচেয়ে কম স্প্রেডে EURJPY পেয়ারটি ট্রেড করতে XM Ultra Low অ্যাকাউন্ট খুলুন এখান থে

চার ঘন্টার চার্টের আলোকে NZDUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

NZDUSD পেয়ার গতকাল ডজি ক্যান্ডেল তৈরির পরবর্তীতে আজকের সেশনে প্রাইস বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। আজ বৃহস্পতিবার পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ০.৭১১৫ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। চার ঘন্টার চার্টে দেখা যাচ্ছে, পেয়ার শর্ট-টার্মে বুলিশ ট্রেন্ড তৈরি করেছে। তবে গত দুই ক্যান্ডেল বিয়ারিশ মুভমেন্ট তৈরির চেষ্টা করছে। সেক্ষেত্রে পেয়ার আজকের সেশনে নতুন করে বিয়ারিশ মুভমেন্ট তৈরিতে সক্ষম হতে পারে। চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের উপরে অবস্থান করলেও বর্তমানে নিচের দিকে বাক দিচ্ছে। সেক্ষেত্রে প্রাইস

১.১৭৫০ প্রাইসের নিচে যেতে পারে EURUSD- কমার্জব্যাংক

EURUSD পেয়ারের প্রাইস গতকাল বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে পুনরায় কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.১৭৯০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট কারেন জনসের মতে, পেয়ারের প্রাইস কমে ১.১৭৫০ এর নিচে যেতে পারে। পেয়ারটি মার্চ মাসের নিন্ম প্রাইস ১.১৭০৪ অতিক্রমের পরবর্তীতে আগস্ট মাসের নিন্ম প্রাইস ১.১৬৬৪ যেতে পারে। অপরদিকে EURUSD পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স গতকালের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.১৮৩০। পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.১৮৬৩ অতিক্রমের পরবর্তীতি ১.১৯০৯।  ২০০ দ

FOMC মিটিংয়ের পূর্বে বৃদ্ধি পাচ্ছে ডলারের প্রাইস

গত কয়েকদিন মার্কিন ডলারের প্রাইস কমলেও আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিনিয়োগকারীদের বর্তমান নজর আগামী সপ্তাহের ফেডারেল রিজার্ভের পলিসি মিটিংয়ের দিকে। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক খুব তাড়াতাড়ি উদ্দীপনা হ্রাস করবে কিনা তা মিটিংয়ের মাধ্যমে জানা যেতে পারে। বর্তমানে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ৯২.৫০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ফেডারেল ওপেন মার্কেট কমিটি (FOMC) টেপারিংয়ের সাথে সাথে ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির ব্যাপারে ইঙ্গিত দিতে পারে। ইউরোর বিপরীতে ডলারের প্রাইস বৃদ

AUDUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনে AUDUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ০.৭৩২৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। অস্টেলিয়ান পেয়ারের প্রাইস গতকাল বৃদ্ধি পেলেও ১০০ SMA রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমে সক্ষম হয়নি। পেয়ারটি ০.৭৩৪০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১০০ SMA অনুযায়ী ০.৭৩৫০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে।  পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্সগুলো হতে পারে ০.৭৪৪০ ও ০.৭৫০০। অপরদিকে পেয়ার ২৭ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ০.৭২৮৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ০.৭২২০ যেতে পারে। পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৭১০০। AUDUSD চার ঘন্টার চার্ট স

মার্কিন রিটেইল সেলস রিপোর্টের পূর্বে ১.৩৮৫০ প্রাইসের কাছাকাছি GBPUSD

GBPUSD পেয়ারের প্রাইস দ্বিতীয় দিনের মতো বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.৩৮৫০ এর সামান্য নিচে ১.৩৪৩৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। আগস্ট মাসে মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি ৯ বছরের সর্বোচ্চে এসেছে। জুলাইয়ে ব্রিটিশ মুদ্রাস্ফীতি ২% আসলেও আগস্টে বেড়ে ৩.২% এসেছে। যা প্রত্যাশিত  ২.৯% এর উপরে ছিল। সাধারণত যে কোন দেশের মুদ্রাস্ফীতি ২% বা এর সামান্য উপরে থাকা ইকোনমির জন্য ভাল। সর্বশেষ সংবাদ অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন তার মন্ত্রিসভায় পরিবর্তন এনেছেন।  লিজ ট্রাসকে পররাষ্ট্র সচিব এবং

বুলিশ ফ্ল্যাগে EURUSD

আজ বৃহস্পতিবার এশিয়ান সেশনে EURUSD পেয়ার ১.১৮০০ প্রাইসের উপরে মুভমেন্ট করছে। মেজর কারেন্সি পেয়ারটি ২০০- SMA এর উপরে অবস্থান করছে। যা ঊধ্বমূখীতাকে নির্দেশ করছে। EURUSD বুলিশ চ্যালেঞ্জ ৫০- SMA অনুযায়ী ১.১৮৩০ অতিক্রম করা। পরবর্তীতে পেয়ার সেপ্টেম্বরের নিন্ম প্রাইস ১.১৮৪৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১৮৫৫ প্রাইসে যেতে পারে। পেয়ারটি একটি বুলিশ ফ্ল্যাগ তৈরি করেছে। ফ্ল্যাগ অতিক্রমে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। অন্যথায় পেয়ার ফ্ল্যালের উপরের চ্যানেলে বাধা পেয়ে পুনরায় ডাউনট্রেন্ডে আসতে পারে। পেয়া

গোল্ড সাইডওয়ে রেঞ্জে মুভমেন্ট করছে

মার্কিন কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স ( মুদ্রাস্ফীতি) রিলিজের পরবর্তীতে গোল্ডের প্রাইস কমে ১৭৮৫.০০ এর নিচে আসলেও বর্তমানে পেয়ারটি ১৮০২.০০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। বেশ কয়েকদিন গোল্ড সাইডওয়ে মুভমেন্ট করছে। সাইডওয়ে রেঞ্জ অতিক্রমে গোল্ডের আপ-ডাউন মুভমেন্ট শক্তিশালী হতে পারে। গোল্ড ২০০ ঘন্টার SMA অনুযায়ী ১৮০০.০০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। হলুদ ধাতবের ক্ষেত্রে ৫৫ ও ১০০ SMA অনুযায়ী ১৭৯৫ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে। গোল্ডের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১৭৮৫।   অপরদিকে গোল্ড ২০০ ঘন্ট

দ্বিতীয় সপ্তাহের মতো ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে EURJPY

EURJPY পেয়ারের প্রাইস দ্বিতীয় সপ্তাহের মতো কমছে। পেয়ারটি ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১২৯.৫২ অতিক্রমে সক্ষম হয়েছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১২৯.২৮ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট ১২৯.০০। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১২৮.০০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১৯ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ১২৭.৯০ যেতে পারে। ডেইলি চার্টে RSI এবং MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। সবচেয়ে কম স্প্রেডে EURJPY পেয়ারটি ট্রেড করতে XM Ultra Low অ্যাকাউন্ট খুলুন এখান থেকে।

সুইস ফ্রাঙ্কের বিপরীতে শক্তিশালী অবস্থানে মার্কিন ডলার

সপ্তাহের প্রথমদিন USDCHF পেয়ারের প্রাইস কমলেও দুদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। পেয়ারের দুদিনের আপট্রেন্ড প্রথম দিনের বিয়ারিশ রিকভারে সক্ষম হবে কিনা সেটা দেখার বিষয়। বর্তমানে USDCHF পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ০.৯১৮০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে।  ডেইলি চার্টে লক্ষ করে দেখা যাচ্ছে, USDCHF পেয়ারের শক্ত কিছু রেজিস্ট্যান্স রয়েছে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স গতকালের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯২৪০। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে

নমনীয় CPI রিপোর্টের পরবর্তীতে ফেড মিটিংয়ে নজর

মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি নমনীয় হওয়ার পরবর্তীতে ডলারের প্রাইস কমতে শুরু করেছে।  নমনীয় মুদ্রাস্ফীতি ফেডারেল রিজার্ভের চলতি বছরের উদ্দীপনা উইথড্রোর ক্ষেত্রে উদ্বিগ্নতা তৈরি করেছে। আজকের সেশনে মার্কিন ডলারের প্রাইস কমে ৯২.৫০-এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। আগস্টে মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি প্রত্যাশার নিচে এসেছে। যা মার্কিন ডলারের ভোলাটিলিটি তৈরি করেছে। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক বছরের শেষের দিকে ঋণ সিকিউরিটিজ কমানোর অফিসিয়ালি ঘোষণা দিতে পারে। তবে ননফার্ম পেরোলসের দুর্বল রিপোর্ট এবং নমনীয় মুদ্রাস্ফীতি এ ক

NZDUSD পেয়ারের ক্ষেত্রে ২০০ DMA রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করছে

গতকাল NZDUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজ বৃদ্ধির চেষ্টা করছে।  NZDUSD পেয়ারের প্রাইস মঙ্গলবার কমে ০.৭০৮২-তে গেলেও বর্তমানে বৃদ্ধি পেয়ে ০.৭১০০ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ১০০ DMA অনুযায়ী ০.৭০৭৭ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করছে। পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৭০৪৫। পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হলে সেক্ষেত্রে ০.৬৯৪৫ প্রাইসে যেতে পারে।   অপরদিকে ২০০ DMA অনুযায়ী ০.৭১২০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ০.৭১৩৫ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৭১৭১। NZDUSD ডেইল

মাসের নিন্ম প্রাইস থেকে রিকভারের চেষ্টায় AUDUSD

ডেইলি ক্যান্ডেলে দেখা যাচ্ছে, পেয়ারটি অষ্টম দিনের মতো ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে মাসের নিন্ম প্রাইস থেকে রিকভারের চেষ্টা করছে। আজ বুধবার সেশনের শুরুর দিকে পেয়ার মাসের নিন্ম প্রাইস ০.৭৩ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। চার ঘন্টার চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ওভারসোল্ডে অবস্থান করছে। ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী পেয়ার আপট্রেন্ডে আসার ক্ষেত্রে ০.৭৩৩০ অতিক্রম করা প্রয়োজন। AUDUSD ০.৭৩৩০ অতিক্রমে সক্ষম হলে ৭ সেপ্টেম্বরের রেজিস্ট্যান্স ০.৭৩৬০ যেতে পারে। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৭৪৭৫। অপর

৩ সপ্তাহের নিন্ম প্রাইসে USDJPY

বেশ কিছুদিন USDJPY পেয়ারের প্রাইস কমলেও গত ‍দুদিন ধারাবাহিক কমছে। গতকাল পেয়ারটি ১০৯.৫২ প্রাইসে নামলেও আজ নতুন করে ৩ সপ্তাহের নিন্ম প্রাইস ১০৯.৫০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। মঙ্গলবার প্রকাশিত মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্ট ফেডারেল রিজার্ভের প্রত্যাশার নিচে আসায় টেপারিংয়ের উদ্বিগ্নতা কিছুটা শীথিল হয়েছে।  যা USDJPY পেয়ারের সেলিং প্রেসার বাড়িয়ে দিয়েছে। তবে বেশ কিছু  কারেন্সির বিপরীতে ডলার রিকভার হতে শুরু করেছে। এছাড়াও আজ বুধবার চীনের ডাটাগুলো হতাশাজনক আসায় বিশ্ব অর্থনীতির স্থবিরতা সম্পর্

GBPUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

শুক্রবার GBPUSD পেয়ার ডজি ক্যান্ডেল তৈরির পরবর্তীতে চলতি সপ্তাহে বিয়ারিশ অবস্থান ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। গতকাল পেয়ারটি সর্বোচ্চ ১.৩৯১৩ প্রাইসে উঠলেও আজকের সেশনে ১০০ পিপস কমে ১.৩৮১৩ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ডেইলি চার্টে লক্ষ করে দেখা যাচ্ছে, GBPUSD ২০ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ১.৩৬০২ থেকে রিকভার করে ১.৩৯০০ প্রাইসে উঠেছে। যা চলতি মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস।  টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী  পেয়ার গতকালের নিন্ম প্রাইস ১.৩৭৯২ অতিক্রমে  সক্ষম হলে ১.৩৭৫০ হরিজোনটাল সাপোর্টে যেতে পারে। পেয়

ব্রিটিশ মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের পূর্বে ০.৮৫৫০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে EURGBP

চলতি সপ্তাহের দ্বিতীয় দিন EURGBP পেয়ার আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখে আজ বুধবার এশিয়ান সেশনে পেয়ারটি ০.৮৫৫০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে এবং ২০০ SMA অনুযায়ী ০.৮৫৪০ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে।  পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ৬১.৮% ফিবোনাসি অনুযায়ী ০.৮৫১০ সাপোর্ট অতিক্রমের পরবর্তীতে ০.৮৫০০ সাপোর্টে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ার ২৮.২% ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট অনুযায়ী ০.৮৫৫০ রেজিস্ট্যান্সে অবস্থান করছে।  পেয়ারের পরবর্তী হরিজোনটাল রেজিস্

EURJPY প্রাইস অ্যানালাইসিস

আজ মঙ্গলবার তৃতীয় দিনের মতো EURJPY পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১৩০.০০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। EURJPY পেয়ারের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ১৩০.২৯ প্রাইসে যেতে পারে।  পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে মাসের  সর্বোচ্চ প্রাইস  ১৩০.৭০। অপরদিকে ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১২৯.৫১ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে।  পেয়ারটি ১২০.৫০ প্রাইসের নিচে আসলে পুনরায় ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  EURJPY ডেইলি চার্ট সবচেয়ে কম স্প্রেডে EURJPY পেয়ারটি ট্রেড করতে XM Ultra Low অ্যাকাউন্ট খুলুন এখা

গোল্ডের সম্ভাব্য সাপোর্ট- রেজিস্ট্যান্স

গত কয়েকদিন গোল্ডের মুভমেন্ট বিভিন্ন দিকে গেলেও আজকের সেশনে মুভমেন্ট সীমিত মনে হচ্ছে।  নিচে গোল্ডের কয়েকটি সম্ভাব্য সাপোর্ট ও রেজিস্ট্যান্স নির্ধারণ করা হয়েছে। গোল্ড ১৭৮৭ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। গোল্ডের বর্তমান সাপোর্ট ১৭৮২ এবং পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ৯ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ১৭৫২। অপরদিকে পেয়ার ৫০ এবং ১০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১৮০৪ ও ১৮৩৪ প্রাইসে যেতে পারে।  গোল্ড বিনিয়োগকারীদের নজর থাকবে মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের দিকে। গোল্ড চার ঘন্টার চার্ট সবচেয়ে কম স্প্রে

কমার্জব্যাংকের আলোচনায় GBPUSD

কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট টিম প্রধান কারেন জনসের মতে, গত দুদিন পেয়ারের মুভমেন্ট সীমিত থাকলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ার ১.৩৮৬০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে।  জনসের  মতে, পেয়ার ১.৩৯৮৪ প্রাইসে যাওয়া কঠিন হবে । তবে উক্ত প্রাইস অতিক্রমে সক্ষম হলে পুনরায় আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। এক্ষেত্রে পেয়ার ১.৩৯৮৪ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.৪০১৮ প্রাইসে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ার ১.৩৭৩৪ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। সবচেয়ে কম স্প্রেডে GBPUSD পেয়ারটি

কেমন হচ্ছে গোল্ডের মুভমেন্ট

গতকাল গোল্ড ১৭৯৪.৫৫ প্রাইসে ক্লোজ হয়ে সর্বোচ্চ ১৮০০.০৫-তে উঠেছিল। গোল্ডের প্রাইস কমে সর্বনিন্ম ১৭৮৫.১০ প্রাইসে গিয়েছিল। বিনিয়োগকারীদের বর্তমান নজর মার্কিন কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স রিপোর্টের দিকে। আজ মঙ্গলবার গোল্ড ১৭৯৬ – ১৭৮৪ প্রাইসের মধ্যে মুভমেন্ট করছে। মার্কিন ডলার বর্তমানে ৯২.৮৯ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। যা ২৭ আগস্টের সর্বোচ্চ প্রাইস। ডলারের ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ৯২.৬ প্রাইসে যেতে পারে। যা গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করতে পারে। গোল্ডের বর্তমান রেজিস্ট্

তেলের প্রাইস বেড়ে ৬ সপ্তাহের সর্বোচ্চে

তেলের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ৬ সপ্তাহের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে। যদিও গত দুদিন তেলের মুভমেন্ট সীমিত ছিল। ঘুর্ণিঝড় আইডিয়া এর ফলে টেক্সাস আউটপুট বাধা প্রাপ্ত হলেও বর্তমানে কিছুটা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। ব্রেন্ট ক্রুড তেলের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ২ আগস্টের সর্বোচ্চ প্রাইসের দিকে যাচ্ছে।  ব্রেন্ট ক্রুড ৪৮ সেন্ট বৃদ্ধি পেয়ে প্রতি ব্যারেল ৭৩.৯৯ ডলারে অবস্থান করছে। মার্কিন ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ( WTI) ৪৯ সেন্ট বৃদ্ধি পেয়ে প্রতি ব্যারেল ৭০.৯৪ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। যা ৩ আগস্টের সর্বো

৫০ দিনের SMA- এর নিচে EURGBP

চতুর্থদিনের মতো EURGBP পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। আর্টিকেলটি লেখার সময় পেয়ার ০.৮৫৩৩ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ওভারবট জোনে রয়েছে।  ফান্ডামেন্টাল ইভেন্টের কারণে পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হলে সেক্ষেত্রে ১২ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ০.৮৪৫৫ যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারের আপট্রেন্ড শক্তিশালী হলে সেক্ষেত্রে ৫০ দিনের সিম্পল মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী ০.৮৫৪৬ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৮৫৬০ এব


বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...