Jump to content

ফরেক্সে মানি ম্যানেজমেন্ট টিপস


Recommended Posts

মানি ম্যানেজমেন্ট হল এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে ফরেক্স ট্রেডাররা তাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজ করে থাকে। ফরেক্স ট্রেডারদের জন্য মানি ম্যানেজমেন্ট খুবই জরুরী। একটি ভাল মানি ম্যানেজমেন্ট আপনার অ্যাকাউন্টকে ব্যাঙ্কর*্যাপ্টসি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে। একটি ভাল মানি ম্যানেজমেন্ট ফলো করলে আপনার ক্যাপিটাল হারানোর সম্ভাবনা খুব কম।

ভাল মানি ম্যানেজমেন্টের কিছু নিয়ম রয়েছেঃ

১. অ্যাকাউন্টের ছোট পার্সেনটেজ নিয়ে রিস্ক নিনঃ

অ্যাকাউন্টের ছোট পার্সেনটেজ রিস্ক নেয়া কেন গুরুত্বপূর্ণ? এর কারন হচ্ছে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে হবে। প্রথমে আপনার অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে হবে, তারপর প্রফিটের কথা ভাবতে হবে।
ভালো ট্রেডার তারাই যারা তাদের অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে পারে এবং এ ব্যাপারে সচেতন।
যদি আপনি কম রিস্ক নিয়ে ট্রেড করেন তবে কোন ট্রেডে আপনার লস অনেক বেশী হলেও চাইলে আপনি আপনার ট্রেডটিকে হোল্ড করতে পারবেন।

ট্রেডে আপনার অ্যাকাউন্টের মোট পার্সেনটেজের কম এবং বেশী রিস্ক নিয়ে ট্রেডের একটি উদাহরন নিচে দেখা যাক। দেখুন টানা ১০টি ট্রেডে লস আপনার অ্যাকাউন্টের কতটুকু ক্ষতি করতে পারে।

বিঃ দ্রঃ নতুন বছর শুরু হোক লাইটফিনান্স এবং iphone13 Pro MAX এর সাথে (বিস্তারিত লাইটফিনান্স এ)

২. হারান ক্যাপিটাল পুনরুদ্ধার করা কঠিনঃ

কেউ যদি তার অ্যাকাউন্টের কিছু অংশ হারায়, তাহলে তা পুনরুদ্ধার করা কতটা কঠিন?

আপনি যদি আপনার অ্যাকাউন্টের ৫০% হারান, তাহলে আপনাকে লস রিকভার করতে আপনার নতুন ব্যালেন্সের ১০০% লাভ করতে হবে। আর যদি ৭৫% হারান, তবে নতুন ব্যালেন্সের ৩০০% প্রফিট করতে হবে শুধুমাত্র পূর্বের লস রিকভার করার জন্য। তাই আপনি যদি একবার বিরাট লস করে তারপর সেই লস রিকভার নিয়ে ব্যস্ত থাকেন, তবে প্রফিট করবে কে?

এখানেই চ্যালেঞ্জ। চেষ্টা করে দেখুন ডেমো অ্যাকাউন্টে ৩০০% অথবা আপনার রিয়েল অ্যাকাউন্টে অন্তত ১০০% প্রফিট করতে পারেন কিনা। এটা অতটা সহজ হবেনা। মানি ম্যানেজমেন্ট এই জন্যেই গুরুত্বপূর্ণ।

৩. ট্রেড করার আগে রিস্কঃরিওয়ার্ড রেশিও হিসাব করুনঃ

যখন একটি ট্রেডে লস করার সম্ভবনা প্রফিট করার থেকে বেশী, তখন ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন। সবসময় ট্রেড করতে হবে এমন কোন কথা নেই।

উদাহরনসরূপঃ
১. ৪০ পিপস লস vs ৩০ পিপস প্রফিট
২. ২০ পিপস লস vs ২০ পিপস প্রফিট

২টি উদাহরনই বাজে রিস্ক ম্যানেজমেন্টের উদাহরন।

একটি ট্রেড ওপেন করার আগে এটা নিশ্চিত করুন যে রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও অন্তত ১:২ (১:৩ রেশিও বা এর থেকে বেশী ভাল)।
এর মানে হচ্ছে আপনার এমন একটি ট্রেডই ওপেন করা উচিত যেটাতে আপনার লস করার সম্ভবনা থেকে লাভের সম্ভবনা ততগুন হবে। যেমনঃ আপনি ৩০ পিপস লস করার পরিপেক্ষিতে ১০০ পিপস লাভ করতে পারবেন এমন ট্রেডে এন্ট্রি করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

আপনি যদি মানি ম্যানেজমেন্টের এই রুলসটি সঠিকভাবে মেনে চলেন, তবে তা পরবর্তীতে আপনাকে সাফল্য পেতে এবং স্ট্যাবল প্রফিট পেতে সাহায্য করবে।


রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিওর নিচের চার্টটি দেখুন। এখানে ১:৩ রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও নিয়ে ১০টি ট্রেড করা হয়েছে।
একজন যখন কোন ট্রেডে লস করে, তখন সে $১০০ ডলার হারিয়েছে। কিন্তু তার প্রতিটি প্রফিটেবল ট্রেডে সে $৩০০ ডলার প্রফিট করেছে।

সুতরাং, দেখা যাচ্ছে কোন ট্রেডার যদি ১:৩ রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও নিয়ে যদি ৫০% ট্রেডেও সফল হয়, তবুও সে ভাল পরিমান লাভ করতে পারে।

Link to comment
Share on other sites

On ৭/১/২০২২ at বিকেল 6:49 সময়, dianamalkova said:

মানি ম্যানেজমেন্ট হল এমন একটি পদ্ধতি যার মাধ্যমে ফরেক্স ট্রেডাররা তাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজ করে থাকে। ফরেক্স ট্রেডারদের জন্য মানি ম্যানেজমেন্ট খুবই জরুরী। একটি ভাল মানি ম্যানেজমেন্ট আপনার অ্যাকাউন্টকে ব্যাঙ্কর*্যাপ্টসি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে। একটি ভাল মানি ম্যানেজমেন্ট ফলো করলে আপনার ক্যাপিটাল হারানোর সম্ভাবনা খুব কম।

ভাল মানি ম্যানেজমেন্টের কিছু নিয়ম রয়েছেঃ

১. অ্যাকাউন্টের ছোট পার্সেনটেজ নিয়ে রিস্ক নিনঃ

অ্যাকাউন্টের ছোট পার্সেনটেজ রিস্ক নেয়া কেন গুরুত্বপূর্ণ? এর কারন হচ্ছে আপনাকে আপনার অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে হবে। প্রথমে আপনার অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে হবে, তারপর প্রফিটের কথা ভাবতে হবে।
ভালো ট্রেডার তারাই যারা তাদের অ্যাকাউন্ট টিকিয়ে রাখতে পারে এবং এ ব্যাপারে সচেতন।
যদি আপনি কম রিস্ক নিয়ে ট্রেড করেন তবে কোন ট্রেডে আপনার লস অনেক বেশী হলেও চাইলে আপনি আপনার ট্রেডটিকে হোল্ড করতে পারবেন।

ট্রেডে আপনার অ্যাকাউন্টের মোট পার্সেনটেজের কম এবং বেশী রিস্ক নিয়ে ট্রেডের একটি উদাহরন নিচে দেখা যাক। দেখুন টানা ১০টি ট্রেডে লস আপনার অ্যাকাউন্টের কতটুকু ক্ষতি করতে পারে।

বিঃ দ্রঃ নতুন বছর শুরু হোক লাইটফিনান্স এবং iphone13 Pro MAX এর সাথে (বিস্তারিত লাইটফিনান্স এ)

২. হারান ক্যাপিটাল পুনরুদ্ধার করা কঠিনঃ

কেউ যদি তার অ্যাকাউন্টের কিছু অংশ হারায়, তাহলে তা পুনরুদ্ধার করা কতটা কঠিন?

আপনি যদি আপনার অ্যাকাউন্টের ৫০% হারান, তাহলে আপনাকে লস রিকভার করতে আপনার নতুন ব্যালেন্সের ১০০% লাভ করতে হবে। আর যদি ৭৫% হারান, তবে নতুন ব্যালেন্সের ৩০০% প্রফিট করতে হবে শুধুমাত্র পূর্বের লস রিকভার করার জন্য। তাই আপনি যদি একবার বিরাট লস করে তারপর সেই লস রিকভার নিয়ে ব্যস্ত থাকেন, তবে প্রফিট করবে কে?

এখানেই চ্যালেঞ্জ। চেষ্টা করে দেখুন ডেমো অ্যাকাউন্টে ৩০০% অথবা আপনার রিয়েল অ্যাকাউন্টে অন্তত ১০০% প্রফিট করতে পারেন কিনা। এটা অতটা সহজ হবেনা। মানি ম্যানেজমেন্ট এই জন্যেই গুরুত্বপূর্ণ।

৩. ট্রেড করার আগে রিস্কঃরিওয়ার্ড রেশিও হিসাব করুনঃ

যখন একটি ট্রেডে লস করার সম্ভবনা প্রফিট করার থেকে বেশী, তখন ট্রেড করা থেকে বিরত থাকুন। সবসময় ট্রেড করতে হবে এমন কোন কথা নেই।

উদাহরনসরূপঃ
১. ৪০ পিপস লস vs ৩০ পিপস প্রফিট
২. ২০ পিপস লস vs ২০ পিপস প্রফিট

২টি উদাহরনই বাজে রিস্ক ম্যানেজমেন্টের উদাহরন।

একটি ট্রেড ওপেন করার আগে এটা নিশ্চিত করুন যে রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও অন্তত ১:২ (১:৩ রেশিও বা এর থেকে বেশী ভাল)।
এর মানে হচ্ছে আপনার এমন একটি ট্রেডই ওপেন করা উচিত যেটাতে আপনার লস করার সম্ভবনা থেকে লাভের সম্ভবনা ততগুন হবে। যেমনঃ আপনি ৩০ পিপস লস করার পরিপেক্ষিতে ১০০ পিপস লাভ করতে পারবেন এমন ট্রেডে এন্ট্রি করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

আপনি যদি মানি ম্যানেজমেন্টের এই রুলসটি সঠিকভাবে মেনে চলেন, তবে তা পরবর্তীতে আপনাকে সাফল্য পেতে এবং স্ট্যাবল প্রফিট পেতে সাহায্য করবে।


রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিওর নিচের চার্টটি দেখুন। এখানে ১:৩ রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও নিয়ে ১০টি ট্রেড করা হয়েছে।
একজন যখন কোন ট্রেডে লস করে, তখন সে $১০০ ডলার হারিয়েছে। কিন্তু তার প্রতিটি প্রফিটেবল ট্রেডে সে $৩০০ ডলার প্রফিট করেছে।

সুতরাং, দেখা যাচ্ছে কোন ট্রেডার যদি ১:৩ রিস্ক:রিওয়ার্ড রেশিও নিয়ে যদি ৫০% ট্রেডেও সফল হয়, তবুও সে ভাল পরিমান লাভ করতে পারে।

vai ai porjonto emon kauke khuje paisen , jini protita Trade a 1:3 RR bebohar kortase ? parle tar MyFxBook Link t dien vai ! ami ta choron dhuli nia asbo ! r jodi na diteparen, tahole aisob galgolpo mara alochona na korlei valo lagbe vaia ! 

Link to comment
Share on other sites

Guest
Reply to this topic...

×   Pasted as rich text.   Paste as plain text instead

  Only 75 emoji are allowed.

×   Your link has been automatically embedded.   Display as a link instead

×   Your previous content has been restored.   Clear editor

×   You cannot paste images directly. Upload or insert images from URL.

Loading...
 Share

  • Similar Content

    • By dianamalkova
      Forex (বৈদেশিক মুদ্রার বাজার) মুদ্রা বিনিময়ের একটি তরুণ এবং বিকাশমান মার্কেট, যার দৈনিক টার্নওভার বিশ্বের সকল ফিনান্সিয়াল মার্কেটকে ছাড়িয়ে যায়। ব্যাংক ফর ইন্টারন্যাশনাল সেটেলমেন্টস এর মতে, আমেরিকান স্টক এক্সচেঞ্জের দৈনিক টার্নওভার, যা মাত্র 300 বিলিয়ন মার্কিন ডলার, এর তুলনায় দৈনিক টার্নওভার 2010 সালে 4 ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলার লেভেলে পৌঁছেছে।
      Forex মার্কেটে পরিচালিত সকল অপারেশনকে কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত করা যেতে পারেঃ Speculative, Hedging, Trading এবং Regulating.
      Forex এর ইতিহাসঃ কিভাবে বৃহত্তম ওয়ার্ল্ডয়াইড ফিনান্সিয়াল মার্কেট প্রদর্শিত হয়েছিল?
      কারেন্সি এক্সচেঞ্জ মার্কেটটি ১৯৭১ সালে স্বর্ণের মান বাতিলকরণের সময়কাল থেকে এর ইতিহাস শুরু করেছিল। আমেরিকার ৩৭তম রাষ্ট্রপতি রিচার্ড নিকসন ছিলেন এই মার্কেটের দীক্ষক। স্বর্ণের মান বাতিল হওয়ার কারণে, স্থিতিশীল মুদ্রার হারের সিস্টেমটি বিধস্ত হয়ে গিয়েছিল। ১৯৭১ সালের ডিসেম্বরে স্মিথসোনিয়ান চুক্তির ফলস্বরূপ, মূদ্রার ওঠানামার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল ৪.৫% (মার্কিন ডলারের বিপরীতে) এর মধ্যে (অন্যান্য মুদ্রা জোড়ার জন্য ৯% এর মধ্যে)। কেবলমাত্র 8 জানুয়ারী ১৯৭৬ সালে জামাইকার কিংস্টনে একটি নতুন মুদ্রা ব্যবস্থার নীতি সম্পর্কিত সিদ্ধান্তটি নেওয়া হয়েছিল । আইএমএফ-এর সমস্ত অংশগ্রহণকারী-সদস্যগণ স্বর্ণের সরকারী মূল্য নির্ধারণ করতে এবং মুদ্রার হার পরিবর্তনের সীমাবদ্ধতা প্রত্যাখান করেছিলেন। এই সিদ্ধান্তের সাথে মুদ্রা মার্কেটের বিকাশ শুরু হয়।
      Forex মার্কেটে পরিচালিত সকল অপারেশনকে কয়েকটি গ্রুপে বিভক্ত করা যেতে পারেঃ Speculative, Hedging, Trading এবং Regulating.
      স্টকের বিপরীতে Forex হলো একটি ওভার-দ্য কাউন্টার (OTC) মার্কেট, যার ট্রেডিংয়ের জন্য নির্দিষ্ট কোনো স্থান এবং কাজের সময় নেই । এর কারণ হলো যে সমস্ত লেনদেনের মূল ভলিউম বিশ্বের বড় বড় ব্যাংকগুলির মধ্যে হয়ে থাকে। সকল ব্যাংক বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে অবস্থিত হওয়ায়, ২৪ ঘন্টা (ব্যাংক ছুটির দিন বাদে) অপারেশন পরিচালিত হয়।
      Forex এ অংশগ্রহণকারী – কে মার্কেট নিয়ন্ত্রণ করে?

      Forex মার্কেটের প্রধান অংশগ্রহণকারীরা হলো বিশ্বের ব্যাংকসমূহ (বাণিজ্যিক এবং কেন্দ্রীয়)। বড় কর্পোরেশনগুলি যারা বিদেশী অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপে, বিনিয়োগে জড়িত এবং হেজ ফান্ড, ব্রোকারেজ ফার্ম, ডিলিং সেন্টার এবং ব্যক্তিরাও এই প্রক্রিয়াতে অংশ নেয়।
      Note: Check out the New Year Promo Event of LiteFinance!

      বাণিজ্যিক ব্যাংক
      বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলি ট্রেডিংয়ের মূল ভলিউম বহন করে। তারা ব্যক্তি এবং আইনী সত্তাদের কাছ থেকে আমানত গ্রহণ এবং তাদের লক্ষ্য অনুসারে মালিকদের কাছে পরবর্তী অর্থ ফেরতের পরিচালনার সাথে জড়িত।
      কেন্দ্রীয় ব্যাংক
      কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলির মূল লক্ষ্য হচ্ছে তাদের দেশের সরকারী এবং বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলিতে আর্থিক পরিষেবা প্রদান করা।
      তাদের প্রধান কাজগুলি হলোঃ
      অর্থ সরবরাহ এবং এক্সচেঞ্জ রেট নিয়ন্ত্রণ; জাতীয় মুদ্রার নোট প্রকাশের নিয়ন্ত্রণ; বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলি থেকে আমানত গ্রহণ এবং ঋণদান, পাশাপাশি তাদের কার্যকলাপের নিয়ন্ত্রণ; দেশের ঋণ পরিচালনা; দেশের স্বর্ণ মুদ্রার মজুদ রক্ষণাবেক্ষণ; অন্যান্য কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলির সাথে মিথস্ক্রিয়া। আপনি এই নিবন্ধ থেকে কেন্দ্রীয় ব্যাংক এবং তাদের কার্যাদি সম্পর্কে আরও তথ্য জানতে পারেন। Forex দিনের পর দিন আরও বেশি লোককে আকর্ষণ করে কারণ অনেক লোক রেট ওঠানামা থেকে উপকৃত হতে চান।
      বড় কর্পোরেশন

      বড় কর্পোরেশনগুলি বিদেশী অর্থনৈতিক ক্রিয়াকলাপে নিযুক্ত, তারা বিদেশী মুদ্রায় জাতীয় মুদ্রা বিনিময় করতে ও স্বল্প-মেয়াদী আমানত পরিচালনা করতে এবং তাদের ভবিষ্যতের চুক্তিগুলি হেজেড করতে Forex ব্যবহার করে। এই সংস্থাগুলি বাণিজ্যিক ব্যাংকের পরিষেবাগুলি ব্যবহার করে, কারণ কারেন্সি এক্সচেঞ্জ মার্কেটের সাথে তাদের সরাসরি কোনো অভিগমন নেই।
      বিনিয়োগ এবং হেজ ফান্ড
      বিদেশী সম্পদ বহনকারী সংস্থাগুলি বিনিয়োগকারীদের তহবিলগুলিকেও বিভিন্ন নিরাপত্তার মধ্যে রাখে।
      Forex কোম্পানিগুলি (দালাল ও বেচাকেনা কেন্দ্রগুলো)
      এজেন্টরা ক্রেতা এবং বিক্রেতাদের একসাথে লেনদেন রূপান্তর করার জন্য নিয়ে আসেন। তারা কোনও ট্রেডিংয়ের জন্য একটি স্প্রেড যুক্ত করে বা কমিশন ফি নিয়ে তাদের কাজের জন্য অর্থ গ্রহণ করে।
      ব্যক্তিগত
      এরা হলো যারা মুদ্রা বিনিময়ের বাণিজ্যিক ক্রিয়াকলাপে জড়িত নয়, উদাহরণস্বরূপ; অর্থ স্থানান্তর, বিদেশে সফরকালে মুদ্রা বিনিময় ইত্যাদি। এই ব্যক্তিরা শুধুমাত্র ১৯৮৬ সালে অনুমানমূলক উদ্দেশ্যে Forex ব্যবহারের সুযোগ পেয়েছিল। তারা Forex সংস্থাগুলির মাধ্যমে অনুমানমূলক অপারেশন পরিচালনা করতে পারে।
      Forex দিনের পর দিন আরও বেশি লোককে আকর্ষণ করে কারণ অনেক লোক রেট ওঠানামা থেকে উপকৃত হতে চান। তবে, আপনি কাজ শুরু করার আগে, আপনাকে অবশ্যই প্রাথমিক জ্ঞান অর্জন করতে হবে যা আপনাকে এই কাজে সহায়তা করবে।
    • By Ronald Ray
      Lite Finance বেশ কিছুদিন পর পর এই এরকম অফার এবং ক্যাম্পেইন দিয়ে থাকে। তবে এবার এর ক্যাম্পেইন বেশ আকর্ষণীয় মনে হয়েছে আমার।  মাত্র ৩ ক্লিক এ জিতে নিন  iPhone 13 Pro Max, MacBook Pro এবং iPad Pro বিস্তারিত LiteFinance এ।
    • By shopnil
      বছরে আটবার , সাধারনত  সবসময়ই বুধবার, গুণে গুণে  ঠিক বাংলাদেশ সময় রাত ১২ টায় যুক্তরাষ্ট্রের  কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ফেড (FED)  তার গুরুত্বপূর্ণ পদস্থ কর্মকর্তাদের নিয়ে বৈঠকে বসার পর একটি বিবৃতি দেয়। সেই বিবৃতির  প্যাটার্ন  কি, তাও আবার আগে থেকেই ঠিক করা। এই বৈঠকই Federal Open Market Committee Meeting বা সংক্ষেপে FOMC মীটিং নামে  পরিচিত।  ফেড হয় এক বিশেষ  ধরনের সুদের হার বাড়াবে , কমাবে অথবা আগের মতই রাখবে। এই বিশেষ ধরনের সুদের হারের নাম হচ্ছে Overnight Borrowing Rate. মানে, একদিনের জন্য কোন ব্যাংক অপর ব্যাংকের কাছ থেকে তার জন্য যে সুদ দিতে হবে। কিন্তু,  এই এতটুকু সিদ্ধান্তই যে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষের  জীবনে কি ব্যাপক প্রভাব রাখতে পারে, তা বলাই বাহুল্য়। কিভাবে, তা জানতে চান?
      কারণ এই একদিনের জন্য টাকা ধার করাটাই অর্থনীতির অন্যতম ঝুকিপূর্ণ কাজ। আর সেই ধার করার পেছনে খরচ যত বাড়বে, তার উপর ভিত্তি করে মানুষ যা যা করতে চায়, সেগুলোর খরচও বাড়বে। আর তাই, ব্যাঙ্ক, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান অথবা ব্যক্তিবিশেষ কেউই বেশি একটা এই ঝুকিতে যেতে চাইবে না। ফলশ্রুতিতে কি হবে? তারা ধারও কম করবে, বিনিয়োগ ও কম করবে। তার মানে, সামগ্রিকভাবে কমে যাবে অর্থনৈতিক কর্মকান্ড। 
      তো ফেড তাহলে সুদের হার বাড়ায়  কেন? সবসময় কমিয়ে রাখতে পারে না? আসলে অর্থনীতি বেশি চাঙ্গা থাকলে প্রবলেম (মূল্যস্ফীতি  বেড়ে যাবে), আবার বেশি স্থবির হলেও প্রবলেম (ব্যবসা বাণিজ্য ক্ষতির সম্মুখীন হবে). তাই, সুদের হার বাড়িয়ে  কমিয়ে সবসময় একটা ভারসাম্য তৈরি করার চেস্টা করা হয়.  এখন দেখুন, একজন সাধারণ কৃষকের কাছেও ফেডের  এই Overnight Borrowing Rate কতটা গুরুত্বপূর্ণ:
      থমাস মুলার যুক্তরাষ্ট্রের একজন কৃষক। পৈত্রিক সূত্রে  বেশ ভালো পরিমাণ জমিরই মালিক তিনি। এই জমিতে তিনি চাইলে সয়াবিনও চাষ  করতে পারেন আবার অন্যান্য শস্য়ও চাষ  করতে পারেন। সয়াবিনে লাভ অনেক বেশি, কিনতু  এর জন্য তাকে আন্তর্জাতিক বাজারের দিকেও লক্ষ্য রাখতে হয়. কারণ, আন্তর্জাতিক  বাজারে সয়াবিন রপ্তানীতে  ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনাও  যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিদ্বন্দী।  বাপ দাদার মত তাই তাকেও ফেডের  Overnight Borrowing Rate এর দিকে লক্ষ্য রাখতে হয়, কারন তার যে ব্যবসা  তার জন্য ব্যাঙ্ক লোনের প্রয়োজন। আর সুদের হার বেড়ে গেলে তার উত্পাদন খরচ ও বেড়ে যাবে। মড়ার  উপর খরার ঘা হচ্ছে সুদের হার বেড়ে  গেলে বেশি সুদের আশায় মানুষ ডলারও ব্যাংকে বেশি রাখে, আবার অনেক বিদেশী বিনিয়োগকারীয়  বেশি  ডলার কিনতে চায়. ফলে, বাজারের  সরবরাহ যায় কমে, আর ডলারের  দামও যায়  বেড়ে। ফলে, অন্য়  দেশের আমদানীকারকদের যুক্তরাষ্ট্র থেকে সয়াবিন কিনতে গেলে অনেক বেশি খরচ পড়বে,আর তাই তারা চিন্তা করবে সস্তায়  ব্রাজিল  বা আর্জেন্টিনা থেকে কিনতে। ফলে, যুক্তরাষ্ট্রের সয়াবিন উত্পাদকেরা মার খেয়ে যাবে। 
      তাই, সবারই জানার আগ্রহ থাকে, সামনের দিনগুলোতে  Overnight Borrowing Rate কিরকম থাকবে। আর তা জানার একমাত্র উপায় ওই FOMC মিটিংই। কিনতু , তার অপেক্ষায়  কি আর সবসময় বসে থাকলে চলে? সাংবাদিকরা তাই সবসময় ফেডের  উচ্চপদস্থ  কর্মকর্তাদের  পেছনে লেগে থাকেন। তাদের কথাবার্তা  থেকেই তো ইঙ্গিত  পাওয়া যায়, কি হতে যাচ্ছে পরবর্তী  FOMC মিটিংএ। ফেড  সুদের হার বছরে ওই একদুইবারই বাড়ায়  বা কমায়। কিনতু, সেটা কখন, তা জানাই  থমাস বা অন্যদের  কাছে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেভাবেই তারা ব্যবসার পরিকল্পনা সাজান, সয়াবিন চাষ  করবেন নাকি আলু, টমেটো যা কম লাভ হলেও ডলারের দামের উপর নির্ভরশীল না, স্থানীয় বাজারেই বিক্রি করা যায়। তাই, বছরে ফেডের আটটি মিটিং এর প্রতিই খুব আগ্রহ থাকে সবার। 
      এবার, আপনিই বলুন, টমাসের কাছে যদি FOMC মিটিং এত গুরুত্বপূর্ণ  হয়, তাহলে আমরা যারা ডলার পাউন্ড নিয়েই ফরেক্স মার্কেটে ব্যবসা করি, তাদের জন্য FOMC মিটিং কতটা গুরুত্বপূর্ণ? বুঝতেই পারছেন, সুদের হার বাড়ল  নাকি কমল, শুধু  সেটার উপর ভিত্তি করেই FOMC মিটিং এর পর ডলার শক্তিশালী অথবা দুর্বল  হয় না।  FED সুদের  হার অপরিবর্তিত রাখলেও তা ডলারকে শক্তিশালী অথবা দুর্বল  করতে পারে, যদিনা শুধু এমন জোরালো কোন ইঙ্গিত  পাওয়া যায় যে, কখন সুদের হার বাড়তে বা কমতে যাচ্ছে। সেটা FOMC মিটিং থেকেই জানা যাক, অথবা তার আগে পরে কোন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা থেকে জানা যাক।
      ভালো কথা, আগামী বুধবারেই (২৮ অক্টোবর ) কিনতু  রয়েছে পরবর্তী FOMC মিটিং। আমরা দেখব, এবারের FOMC মিটিং কিরকম প্রভাব ফেলে মার্কেটের উপর।
       
    • By Kazi Rasel Abedin
      USD/JPY পেয়ারটি কি হতে পারে ? আসুন আ্রলোচনা করি ।
      এই পেয়ারটি বেশ কিছুদিন ধরে আপট্রেন্ডে আছে । বর্তমানে ১১০.৯৬৮ এই প্রাইজটি H1 টাইম ফেমে হায়ার হাই । আমার ধরন অনুযায়ী মাকেট ১১০.৯৮৬ এই প্রাইজ থেকে ১০৯.৮৬০ এই প্রাইজে মাকেট কারেকশন করবে । এই দুইট প্রাইজে যারা সাপোট রেজিষ্টেন্স এ ট্রেড করেন তারা ভাল ট্রেড পাবেন । ১১০.৯৬৮ থেকে যদি কোন স্টং সেল ক্যান্ডেল হয় তাহলে তাহলে একটি সেল ট্রেড হবে স্টপ লস হবে ১১০.৯৬৮ এর থেকে দুই পিপস উপরে এবং টিপি হবে স্টপ লসের ২ গুন । এবং যদি ১১০.৮৬০ থেকে যদি কোন স্টং বাই ক্যান্ডেল পাই তাহলে  উক্ত বাই ক্যান্ডেল শেষে একটি বাই ট্রেড হবে স্টপ লস হবে ১১০.৮৬০ এর ২ পিপস নিচে এবং টিপি হবে স্টপ লসের ২ গুন । আর যদি মাকেট ১১০.৯৬৮ কে ব্রেক করে উপরে যায় তাহলে লং বাই এবং ১১০.৮৬০ এই প্রাইজকে ব্রেক করে যদি নিচে নেমে যায় তাহলে লং সেল হবে বলে আশা করা য়ায় । ধন্যবাদ ।

    • By Kazi Rasel Abedin
      আজকের ফরেক্স সিগন্যাল ।
      GBPUSD
      গত সাপ্তাহে এই পেয়ারটি ১.৩৭০৩৮ এই প্রাইজ হাই করে ১.৩৫২৬৮ এই প্রইজে মধ্যে কারেকশন করে । আজ সোমবার মাকেট ১.৩৫২৬৮ এই প্রইজ কে ব্রেক করে ডাউন ট্রেন্ড এর নিদেশ দিচ্ছে । তাই আমারা এই পেয়ার টিতে একটি সেল ট্রেড নিতে পারি ।
      এন্টি সেল
      এন্টি প্রাইজ ১.৩৫০০৪
      এস এল : ১.৩৬৭৪৮
      টি পি : ১.৩০৯৬৫
      আশা করছি এই ট্রেড থেকে ভাল একটি লাভ হবে ।



বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...