Jump to content

ফরেক্স নিউজ

  • entries
    1,092
  • comments
    16
  • views
    9,160

Contributors to this blog

  • মার্কেট আপডেট 1092

About this blog

ফরেক্স ট্রেডিং সংক্রান্ত সব নিউজ, অ্যানালাইসিস এবং মার্কেট আপডেট পাবেন এখানেই।

Entries in this blog

এক ঘন্টার চার্টে AUDUSD পেয়ারের আলোচনা

AUDUSD পেয়ারের প্রাইস দ্বিতীয় দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ০.৭৩২০ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এক ঘন্টার চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী, পেয়ার ০ পয়েন্টের উপরে অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ০.৭২৮৫ এবং ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৭২৪৫। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ০.৭২২৫ সাপোর্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে বিবেচ

USDCAD সাপোর্ট হিসেবে কাজ করছে ১.২৮০০

চারদিন USDCAD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও গতকাল পেয়ারটি U টার্ন সৃষ্টি করেছিল। অর্থাৎ পেয়ারটি ডাউনট্রেন্ডে ছিল। আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ১.২৮১০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ২০২১ সালের ডিসেম্বরের শেষের দিক থেকে পেয়ারের বিয়ারিশ অবস্থান একদিনে সর্বোচ্চ এসেছে। পেয়ারের পুলব্যাক চাপ বৃদ্ধি পেয়ে আরও দুর্বল হতে পারে। ৫০-DMA অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ১.২৬৮৫। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১.২৬০০ সাপোর্ট হতে পারে। ২০০-DMA অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ১.২৫৮৯।

১.১০৫০ প্রাইসে আটকে আছে EURUSD

আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনের শরুর দিকে EURUSD পেয়ারটি ১.১০৫০ প্রাইস কেন্দ্র করে মুভমেন্ট করছে। ইউক্রেন-রাশিয়া শান্তি চুক্তির ক্রমবর্ধমান আশার উপর গতকাল EURUSD ২০১৬ সালের পরবর্তীতে সবচেয়ে বড় দৈনিক লাভ অর্জন করেছে। ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংক (ECB)-এর মুদ্রানীতি সভা বা ইন্টারেস্ট রেট ডিসিশনের পূর্বে বিনিয়োগকারীরা উদ্বিগ্ন রয়েছে। ইউক্রেনের সমঝোতার প্রস্তুতি, যদি রাশিয়া একই কাজ করে ন্যাটোর পরিকল্পনা থেকে ইউক্রেনের পশ্চাদপসরণের সংবাদ নিশ্চিত হয় তাহলে ডলারের বিপরীতে ইউরোর প্রাইস আরও বৃদ্ধি পেত

বাইডেন ক্রিপ্টো নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করায় LUNA- এর প্রাইস বেড়ে নতুন উচ্চতায়

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ক্রিপ্টোকারেন্সির উপর একটি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেছেন এমন নিউজে LUNA সর্বকালের উচ্চতায় পৌঁছেছে। বাইডেন চান তার সরকার ক্রিপ্টোর ‘‘ঝুঁকি এবং সুবিধা’’ পরীক্ষা করুক। প্রায় সাতদিন ধরে ক্রিপ্টোকারেন্সি LUNA বিয়ারিশে থাকার পর দুদিন ধরে বুলিশে আসতে শুরু করেছে। এর ফলে বুধবার LUNA বিশ্বের ষষ্ঠ বৃহত্তম ক্রিপ্টোকারেন্সি হিসেবে তার অবস্থান পুনরুদ্ধারে সক্ষম হয়। LUNA /USDT গতকাল ৮৬.২৫ রেজিস্ট্যান্স ব্রেকে সক্ষম হয়ে ২৫% আপ হয়েছিল। এর ফলে বুধবার কয়েনটি তার সর্ব

ক্রিপ্টো সম্পর্কে বাইডেনের নির্বাহী আদেশে যে বিষয়গুলো থাকছে

হোয়াইট হাউসের একটি ঘোষণা অনুযায়ী, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গতকাল ক্রিপ্টোতে একটি দীর্ঘ প্রতীক্ষিত নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেছেন। বাইডেন ফেব্রুয়ারির শেষে নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করবেন বলে আশা করা হয়েছিল, রাশিয়া ঐ সপ্তাহে ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করেছিল। হোয়াই হাউসের নির্বাহী আদেশে বলা হয়েছে, উল্লেখ্য যুক্তরাষ্ট্রকে এই দ্রুত বর্ধনশীল স্থানে প্রযুক্তিগত নেতৃত্ব বজায় রাখতে হবে। ঝুঁকি মোকাবেলা এবং ডিজিটাল সম্পদ ও তাদের প্রযুক্তির সম্ভাব্য সুবিধাগুলোকে কাজে লাগানোর জন্য সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ-সরকার

বাইডেন সরকারের জিডিটাল ডলার অন্যান্য ক্রিপ্টোকারেন্সির ঝুঁকি বৃদ্ধি করতে পারে

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আজ একটি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করবেন যা কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ডিজিটাল ডলার তৈরির ঝুঁকি এবং সুবিধার পাশাপাশি অন্যান্য ক্রিপ্টোকরেন্সি সমস্যাগুলো মূল্যায়নে ভূমিকা রাখবে। প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের থেকে এমন তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। বাইডেনের আদেশের জন্য ট্রেজারি বিভাগ, বাণিজ্য বিভাগ এবং অন্যান্য মূল সংস্থাগুলোকে অর্থের ভবিষ্যত এবং ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলো কী ভূমিকা পালন করবে সে সম্পর্কে প্রতিবেদন তৈরি করতে হবে। কর্মকর্তারা বলেন, ক্রিপ্টোকারেন্সি মার্কেটে বিস্তৃত তাদারকি, যা নভেম্

কয়েক সপ্তাহের সর্বোচ্চ প্রাইসে USDJPY বর্তমান নজর ১১৬.০০ প্রাইসে

USDJPY পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে তিন সপ্তাহের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে। আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ১১৫.৮৫ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। চলতি সপ্তাহের শুরু থেকে USDJPY তার ঊর্ধ্বগামী গতিপথকে দীর্ঘায়িত করেছে এবং আজকের দিনসহ টানা তৃতীয় দিনের জন্য ফলো-থ্রু ট্র্যাকশন অর্জন করেছে। অভ্যন্তরীণ প্রবৃদ্ধির একটি নিন্মগামী সংশোধন জাপানি ইয়েনকে দুর্বল করেছে। আজ সকালে প্রকাশিত সংশোধিত তথ্য অনুসারে, জাপানের অর্থনীতি অক্টোবর-ডিসেম্বর সময়কালে ১.৩% এর প্রাথমিক ডেটার বিপরীতে ১.১% বৃদ্ধি পেয়েছে।  বার্ষ

বিশ্বের বৃহত্তম চিপ প্রস্তুতকারক কোম্পানি আরেকটি মাইনিং চিপ চালু করবে

বিশ্বের বৃহত্তম বহুজাতিক প্রযুক্তি কোম্পানি ঘোষণা করেছেন, প্রথম মাইনিং চিপ চালু করার পরপরই ক্রিপ্টোকারেন্সির জন্য আরেকটি মাইনিং চিপ চালু করছে। নিউজটি তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট এবং টুইটারে শেয়ার করেছেন। তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের ঘোষণায় ব্যাখ্যা করা হয়েছে তাদের মাইনিং প্রথম Agilex M-Series FPGA সিরিজে হবে। M সিরিজের সদস্য সহ সমস্ত ইন্টেল Agilex FPGA এবং ২০ হাজার SRAM ব্লকের আকারে দ্রুত অন-চিপ অন্তর্ভূক্ত করে। এই SRAM গুলো FPGA-এর প্রোগ্রামেবল-লজিক অ্যাব্রিকের সাথে একত্রিত করা হয়েছে এবং

পাকিস্তান ক্রিপ্টোকারেন্সি যেভাবে দেখছে

পাকিস্তানের জাতীয় পত্রিকা ডন এর নিউজ অনুযায়ী, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গর্ভনর রেজা বাকির রবিবার ১৩তম করাচি সাহিত্য উৎসবের একটি প্যানেলে আলোচনার সময় ক্রিপ্টোকারেন্সি সম্পর্কে কথা বলেছেন। তিনি দাবি করেছেন, ক্রিপ্টোকারেন্সির কিছু ভাল দিক এবং খারাপ দিক রয়েছে। তিনি আরও বলেন, বর্তমানে আমরা ক্রিপ্টো কারেন্সির দিকে তাকালে শুধু বিনিময়ের মাধ্যম হিসেবে দেখতে পাচ্ছি। এসবিপি (SBP) গর্ভনর ক্রিপ্টোকারেন্সির সাথে যুক্ত ঝুঁকি সম্পর্কে কথা বলতে গিয়ে বলেন, ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়ন্ত্রণের তেমন কোন আইন নেই।

০.১৬ প্রাইসের উপরে গেলে ডোজকয়েন রিকভার করতে পারে

২০২১ সালের মে মাসে ডোজকয়েনের প্রাইস সর্বকালের সর্বোচ্চে উঠলেও পরবর্তীতে কমতে থাকে এবং চলমান ডাউনসুইং থামানোর কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।  ২০২১ সালের ৭ মে কয়েনের প্রাইস বেড়ে ০.৭৪৪ –তে উঠেছিল এবং তখন থেকেই কয়েনটি নিন্মমূখী। এই দশ মাসের বিয়ারিশ রেলি ডোজকয়েনের মূল্যকে ৮৪% কমিয়ে দিয়েছে। বর্তমানে কয়েনটি ০.১১৮ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। FVG-এর কারণে বিনিয়োগকারীরা আশা করছেন, ডোজকয়েনের প্রাইস কমে ০.০৭৪-তে নেমে আসতে পারে। টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী ডোজকয়েন ০.৭৪ প্রাইসের নিচে নাম

ডলারের প্রাইস কমছে, বিনিয়োগকারীদের নজর ECB মিটিংয়ে

আজ বুধবার এশিয়ান সেশনে ডলারের প্রাইস কমছে। কমোডিটি কারেন্সিও সাম্প্রতি সর্বোচ্চ প্রাইস থেকে কমতে শুরু করেছে। মার্কিন ডলার ২২ মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস থেকে কমে ৯৯.০৩৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। এদিকে EURUSD পেয়ার সোমবার ২২ মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.০৮০৬-তে গেলেও গতকাল থেকে রিকভার করতে শুরু করেছে। ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন যৌথ বন্ড ইস্যু নিয়ে আলোচনা করছে এমন নিউজের ফলে একক মুদ্রা হিসেবে ইউরোর প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিছু বিনিয়োগকারী সতর্ক করেছেন যে ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন অব্যাহত থাকাকালীন ইউরো

EURUSD বুলিশের জন্য ১.০৯৩০ অতিক্রম প্রয়োজন

EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ১.০৯০০-এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। প্রধান কারেন্সি পেয়ারটি ২০২০ সালের মে মাসের সর্বনিন্ম প্রাইসে গিয়েছিল। গতকাল পেয়ারের প্রাইস সামান্য রিবাউন্ড করেছিল। চার ঘন্টার চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার বুলিশ সিগন্যাল দিচ্ছে। যা বায়ারদের প্রত্যাশাকে কিছুটা তরান্বিত করবে। ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝিতে ১.০৯৩০ শক্ত সাপোর্ট হিসেবে কাজ করেছিল। পেয়ারটির আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ২০০-SMA অনুযায়ী ১.১২৬০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১৩০০ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। পেয়ারের পরব

রাশিয়া-ইউক্রেন আলোচনায় গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ২,০০০ ডলারের উপরে অবস্থান করছে

স্বল্প মেয়াদে গতকাল গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ২,০০২ ডলারে উঠলেও পরবর্তীতে ১৯৬০ প্রাইসে ক্লোজ হয়েছিল। আজকের সেশনে গোল্ড ২০০৬ ডলারে অবস্থান করছে। রয়টার্স প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউক্রেন-রাশিয়া সংঘাতে গোল্ডের প্রাইস বেড়ে চলেছে। ইউক্রেন-রাশিয়া আলোচনার মধ্যে যুদ্ধবিরতি এবং মানব করিডোর নিয়ে অচলাবস্থা গোল্ডের প্রাইস বাড়িয়ে দিচ্ছে। ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, সোমবার উত্তর ইউক্রেনের একটি রুটি কারখানায় রুশ বিমান হামলায় কমপক্ষে ১৩ জন বেসামরিক লোক নিহত হয়েছে যখন কিয়েভ এবং মস্কোর মধ্যে আলোচনায় সংঘাত কমানোর দ

শীর্ষ ৩টি ক্রিপ্টোকারেন্সি BTC, XRP, NEAR

৪ মার্চ বিটকয়েনের প্রাইস কমে ৪০,০০০ হাজার ডলারের নিচে এসেছিল। পরবর্তীতে সপ্তাহজুড়ে কয়েনটি ৪০,০০০ হাজার ডলারের নিচে অবস্থান করছে। ব্লুমবার্গ ইন্টেলিজেন্স ৪ মার্চ তাদের ক্রিপ্টো মার্কেট আউটলুক রিপোর্টে বলেছিলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্টক মার্কেটের পতন অব্যাহত থাকলে বিটকয়েন চাপের  মধ্যে থাকতে পারে কিন্তু অবশেষে ক্রিপ্টোর প্রাইস বৃদ্ধি পাবে। অপরদিকে যদি স্টক মার্কেট পুনরুদ্ধার হয়, তাহলে বিটকয়েন অতীতের নিদর্শনগুলোর পুনরাবৃত্তি হতে পারে। অর্থাৎ দ্রুত গতিতে প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে। আজকের

ইউরোর বিপরীতে মার্কিন ডলার শক্তিশালী হচ্ছে

ইউক্রেন-রাশিয়া উদ্বিগ্নতা ইউরোপের দেশগুলোতে স্থবিরতামূলক অবস্থা বিরাজ করছে। এর ফলে মার্কিন ডলারের বিপরীতে ইউরোর প্রাইস কমে বেশ কয়েক মাসের নিন্মে অবস্থান করছে। আজকের সেশনে মার্কিন ডলার প্রধান ছয়টি কারেন্সির বিপরীতে ০.৩% বৃদ্ধি পেয়ে ৯৮.৯৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। শক্তিশালী মার্কিন জব রিপোর্টের ফলে গত সপ্তাহে ডলারের প্রাইস বেড়ে ২২ মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ৯৯.২২ উঠেছিল। আজ ইউরোপিয়ান সেশনে EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ১.০৮৭১ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। আপাতসৃষ্টিতে মনে হচ্ছে, পেয়ারটি ২০২০ সালের নিন্ম

এক সপ্তাহে ইউক্রেন সরকার মিলিটারি সহায়তায় ৫০ মিলিয়ন ডলারের ক্রিপ্টো সংগ্রহ করেছে

ইউক্রেন সরকার ঘোষণা করেন, রাশিয়া ইউক্রেনে আক্রমণ শুরু করার পর থেকে এক সপ্তাহের মধ্যে ৫০ মিলিয়ন ডলারের ক্রিপ্টোকারেন্সি সংগ্রহ করা হয়েছে। সরকার এ পর্যন্ত সামরিক অস্ত্র কিনতে ১৫ মিলিয়ন ডলারের ক্রিপ্টোকারেন্সি খরচ করেছে। ব্লুমবার্গ রিপোর্ট অনুযায়ী, ইউক্রেনের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশনের ডেপুটি মিনিস্টার অ্যালেক্স বার্নিয়াকভ শুক্রবারের একটি নিউজে বলেন, তার সরকার বুলেটপ্রুফ ভেস্ট সহ সামরিক সরবরাহের জন্য ক্রিপ্টোকারেন্সিতে ১৫ মিলিয়ন ডলার খরচ করেছে। ইউক্রেনের একটি অজ্ঞাত স্থান থেকে জুম সাক্ষাৎকা

IMF-এর সতর্কতা চলমান যুদ্ধ বিশ্ব ইকোনমিতে প্রভাব ফেলতে পারে

শনিবারের প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) সতর্ক করেছে যে ইউরোপে চলমান যুদ্ধ এবং সংশ্লিষ্ট নিষেধাজ্ঞাগুলো ‘‘বিশ্ব অর্থনীতিতে মারাত্মক প্রভাব ফেলবে’’। অনেক বিশ্লেষক এবং অর্থনীতিবিদ ইউক্রেনে সংঘটিত যুদ্ধের ফলাফল নিয়ে উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেছে। শনিবার অর্থাৎ ৪ মার্চ IMF বৈঠকের পর ইউক্রেনে যুদ্ধের অর্থনৈতিক প্রভাব সম্পর্কে IMF এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ক্রিস্টালিনা জার্জিভা সভাপতিত্ব করেন। তাদের মতে, এ ধরনের পরিস্থিতি মুদ্রাস্ফীতি চাপ বাড়িয়ে দিতে পারে। যা কোভিড-১৯ মহা

GOLD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট (০৭ – ১১ মার্চ, ২০২২)

ইউক্রেন-রাশিয়া উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে গোল্ড পঞ্চম সপ্তাহের মতো আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। গোল্ড ইতিমধ্যে ২০২০ সালের নভেম্বরের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৯৫০ অতিক্রম করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, যুক্তরাজ্য এবং অন্যান্য পশ্চিমা দেশগুলো রাশিয়ান আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে বিশ্বব্যাপী অর্থপ্রদান ব্যবস্থা SWIFT ব্যবহারে নিষেধাজ্ঞা দেয়ার পর গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। এই সপ্তাহে রাশিয়া ও ইউক্রেনীয় প্রতিনিধিদের মধ্যে ‘‘শান্তি আলোচনার’’ দ্বিতীয় দফার আয়োজন করা হয়েছিল। যা বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আগ্রহ

USDJPY সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট (০৭ – ১১ মার্চ, ২০২২)

রাশিয়া-ইউক্রেন উত্তেজনার মধ্যে বেশ কয়েক সপ্তাহ USDJPY পেয়ার নিরপেক্ষ অবস্থানে রয়েছে। ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ মার্চ পর্যন্ত পেয়ার ১১৫.৬৭- ১১৪.৭০ রেঞ্জের মধ্যে মুভমেন্ট করেছিল। পেয়ারটি উক্ত রেঞ্জ অতিক্রমে সক্ষম হলে আপ-ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। জাপান তার উন্নত অর্থনীতি অত্যাধুনিক আর্থিক ব্যবস্থা এবং সামাজিক ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতার কারণে এশিয়ান মার্কেটে জাপানী ইয়েন নিরাপদ মুদ্রা হিসেবে পরিচিত। তবে গত কয়েক সপ্তাহ পেয়ারটি একটি নির্দিষ্ট রেঞ্জের মধ্যে মুভমেন্ট করছে। ইউক্রেন রাশিয়ার হামলার

AUDUSD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট (০৭ – ১১ মার্চ, ২০২২)

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন কারেন্সি নেতিবাচক অবস্থানে থাকলেও অস্টেলিয়ান ডলার পঞ্চম সপ্তাহের মতো আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। AUDUSD জানুয়ারির মাঝামাঝির পরবর্তীতে সর্বোচ্চ প্রাইসে অবস্থান করছে। ইউক্রেন-রাশিয়া ইস্যু সপ্তাহজুরে মার্কেটে প্রভাব ফেলছে। এ সপ্তাহে যা হতে পারে এ সপ্তাহে রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়ার ইন্টারেস্ট রেট, প্রান্তিক জিডিপি ও ক্যাশ রেট পেয়ারকে প্রভাবিত করতে পারে। অপরদিকে ফেড চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েলের বিবৃতি মেনুফেকচারিং ও সার্ভিস ইভেন্ট পেয়ারকে প্রভাবিত

২০২২ সালের নিন্ম প্রাইসে GBPUSD

GBPUSD পেয়ার ধারাবাহিকভাবে তিনদিন ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে ১.৩২০০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।  রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের তীব্র আতঙ্কের মধ্যে GBPUSD পেয়ার ২০২২ সালের নিন্ম প্রাইস ১.৩১৮৫ তে নেমে এসেছিল। রাশিয়া-ইউক্রেন শান্তি আলোচনার দ্বিতীয় দফার ব্যর্থতা পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড বাড়িয়ে দিয়েছে। এর পাশাপাশি ইউক্রেনের বেসামরিক নাগরিকদের নিরাপদ স্থানান্তরের অনুমতি দেওয়ার চুক্তিও ব্যর্থ হচ্ছে। এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তেল আমদানি নিষিদ্ধ করেছে এবং বিভিন্ন দেশকে রাশিয়া থেকে তেল আমদানিতে নিরু

ডলার, সুইস ফ্রাঙ্ক ও পাউন্ডের তুলনায় ইউরোর প্রাইস কমে বেশ কয়েক বছরের নিচে

ইউক্রেনের যুদ্ধ ইউরোপীয় অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির প্রত্যাশা কমিয়ে দিয়েছে। এর ফলে ইউরো সুইস ফ্রাঙ্কের তুলনায় সাত বছরের সর্বনিন্মে অবস্থান করছে এবং ডলারের বিপরীতে আজ শুক্রবার প্রায় দুই বছরের মধ্যে সর্বনিন্মে পৌঁছেছে। ইউরো একক মুদ্রাস হিসেবে এই সপ্তাহে ২.১% কমেছে এবং ২০২০ সালের এপ্রিলের পর থেকে সবচেয়ে খারাপ সপ্তাহ হিসেবে গণনা করা হচ্ছে। ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষ আজ শুক্রবার জানিয়েছে রাশিয়ান বাহিনী ইউরোপের বৃহত্তম পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র দখল করেছে। আর এমন নিউজের পরবর্তীতে ইউরোর দুর্বলতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

NFP রিপোর্টের পূর্বে ২০২২ সালের নিন্ম প্রাইসে যাচ্ছে EURUSD

আজ শুক্রবার ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ২২ মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১০৩০ অতিক্রমে করে ১.১০১০ এর কাছাকাছি ‍মুভমেন্ট করছে। এর ফলে প্রধান কারেন্সি পেয়ারটি টানা চতুর্থ দিন হ্রাস পাচ্ছে। এছাড়াও চার সপ্তাহের ডাউনট্রেন্ড বন্ধনী তৈরি করছে কারণ মার্কেটের ঝুঁকি মার্কিন ডলারের বুলিশের পক্ষে। জাপোরিঝিয়াতে ইউক্রেনীয় পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে রাশিয়া গোলাবর্ষণ করেছে, যা ইউরোপের অন্যতম বৃহত্তম মার্কেটের অনুভূতিতে সর্বশেষে ধাক্কা দেয়। ফেডারেল রিজার্ভের চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েল ই

বিলিয়নেয়ার বিল মিলারের ক্রিপ্টো আউটলুক

বিখ্যাত ভ্যালু ইনভেস্টর বিল মিলার বুধবার CNBC এর সাথে একটি সাক্ষাৎকারে রাশিয়া এবং ইউক্রেনের যুদ্ধের সাথে ক্রিপ্টো সম্পর্কে কথা বলেন।  মিলার ভ্যালু পার্টনারের প্রতিষ্ঠাতা এবং বর্তমানে এর চেয়ারম্যান ও প্রধান বিনিয়োগ কর্মকর্তা হিসেবে কাজ করছেন। মিলার ভ্যালু পার্টনারের আগে লেগ মেসন ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্টের সহ-প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। রাশিয়া ইউক্রেনের উপর আগ্রাসনের পর, ক্রমবর্ধমান সংখ্যক দেশ রাশিয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। এর ফলে রাশিয়ান মুদ্রা রুবেল এবং বিদেশে তালিকাভুক্ত রাশিয়ান কোম্পানির স্টক কম

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের মধ্যে কেন ক্রিপ্টোকারেন্সির প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে

প্রবীণ বিনিয়োগকারী মার্ক মোবিয়াস, মোবিয়াস ক্যাপিটালের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন সংকট গভীর হওয়ার সাথে সাথে বিটকয়েনের দাম বাড়ছে। তিনি বলছেন, রাীশিয়ান অর্থ বের করার উপায় হিসেবে বিটকয়েনকে দেখা হচ্ছে। তিনি ২০১৮ সালের মার্চ মাসে মোবিয়াস ক্যাপিটাল পার্টনার্স প্রতিষ্ঠা করেন। ১৯৮৭ সালে তিনি ৫০ বিলিয়ন ডলারের মার্কেট পোর্টফোলি পরিচালনা করেন। মোবিয়াস তার কথার এক পর্যায়ে আলোচনা করে বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের বর্তমান পরিস্থিতিতে বিটকয়েনের প্রাইস বেড়ে চলেছে। এই অবস্থায় আমি ক্রেতা হলে

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...