Jump to content

ফরেক্স নিউজ

  • entries
    837
  • comments
    14
  • views
    5,278

Contributors to this blog

  • মার্কেট আপডেট 837

About this blog

ফরেক্স ট্রেডিং সংক্রান্ত সব নিউজ, অ্যানালাইসিস এবং মার্কেট আপডেট পাবেন এখানেই।

Entries in this blog

১.২৮৬৫ অতিক্রমে USDCAD পেয়ারের বুলিশ শক্তিশালী হতে পারে

USDCAD পেয়ার বছরের সর্বোচ্চ থেকে পুলব্যাক করে আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনে ১.২৮৪০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। পেয়ারটি ১০ DMA অতিক্রমে সক্ষম হলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার মিডলাইনের উপরে অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে ১.২৮৬৫ এবং পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা যাচ্ছে ১.২৯০০। পেয়ারের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১.২৯৬৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ৩০ নভেম্বরের সর্বোচ

সাপ্তাহিক চার্টে NZDUSD

বেশ কয়েক সপ্তাহ NZDUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও চলতি সপ্তাহে বৃদ্ধি পাচ্ছে। চলতি সপ্তাহে পেয়ারের প্রাইস বেড়ে ০.৬৮১৩ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। সাপ্তাহিক চার্টে NZDUSD পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা যাচ্ছে। গত সপ্তাহের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৬৮২১।  পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১৬ ডিসেম্বরের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৬৮৩০।   অপরদিকে পেয়ারের প্রাইস পুনরায় কমতে শুরু হলে সেক্ষেত্রে ০.৬৭৫০ সাপোর্টে যেতে পারে। পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৬৭০০। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্

মাসের সর্বোচ্চ প্রাইসে যাচ্ছে AUDJPY

AUDJPY পেয়ার তৃতীয় দিনের মতো আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখে ৮২.৪০ প্রাইসে অবস্থান করছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে খুব তাড়াতাড়ি মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ৮২.৪৬ অতিক্রম করতে পারে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% অনুযায়ী পেয়ারের ক্ষেত্রে ৮২.৪৭ রেজিস্ট্যান্স দেখা যাচ্ছে। অপরদিকে পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ৮১.৮৫। পেয়ারটি উক্ত সাপোর্ট অতিক্রমে সক্ষম হলে ৮১.০০ যেতে পারে। পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ৮০.৬৫। অপরদিকে পেয়ার মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ৮২.৪৭ অতিক্রমে সক্ষম হলে ৮৩.০০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে

GBPUSD পেয়ারের আপট্রেন্ড শক্তিশালী হয়ে ১.৩৪ প্রাইসে যাচ্ছে

GBPUSD পেয়ার টানা তৃতীয় দিনের মতো আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখে আজ এশিয়ান সেশনে ১.৩৩৫১ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। গতকাল পেয়ার সর্বনিন্ম ১.৩২৩৯ প্রাইসে নেমেছিল এবং অপরদিকে সর্বোচ্চ ১.৩৩৬৩ প্রাইসে উঠেছিল। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হতে পারে গতকালের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.৩৩৬৩। পেয়ারটি ১.৩৪০০ প্রাইস অতিক্রমে সক্ষম হলে সেক্ষেত্রে W ফরমেশন তৈরি করবে। যা পেয়ারের বুলিশ অবস্থানকে আরও শক্তিশালী করবে। অপরদিকে পেয়ারটি ১.৩২৩৪ প্রাইসের নিচে আসলে পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। GBPUSD ডেইল

ওমিক্রন বৃদ্ধি মার্কিন ইকোনমিতে প্রভাব ফেলছে যা ডলারের প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে

আজ বৃহস্পতিবার এশিয়ান সেশনে মার্কিন ডলারের প্রাইস কমছে। যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ ভেরিয়েন্ট ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে, যা বিনিয়োগকারীদের মধ্যে মার্কিন ইকোনমি সম্পর্কে উদ্বিগ্নতা তৈরি করছে। এর ফলে ডলারের প্রাইস কমছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস কমে বর্তমানে ৯৬.০২ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ওমিক্রন বিস্তার এবং বিভিন্ন দেশেরর সরকারের বিধিনিষেধ কারেন্সি মার্কেটে প্রভাব ফেলছে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওমিক্রন ভেরিয়েন্ট ঝুঁকি কমতে শুরু করেছে এবং ডেল্টা ভেরিয়েন্টের সাথে কিছুটা তুলনা করা হচ্ছে। গতকাল প্রকাশিত

যে ইভেন্টগুলো আজ ফরেক্স মার্কেটে প্রভাব ফেলছে বা ফেলবে

বেশ কিছুদিন মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে কমছে। আজ মার্কেটে যে  বিষয়গুলো প্রভাব ফেলছে এ গুলোর মধ্যে অন্যতম তৃতীয় প্রান্তিকের ব্রিটিশ জিডিপি। তৃতীয় প্রান্তিকে ব্রিটিশ জিডিপি ১.৩% থেকে কমে ১.১.% এসেছে। বিনিয়োগকারীদের বর্তমান ফোকাস তৃতীয় প্রান্তিকের মার্কিন জিডিপি রিপোর্ট। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, মার্কিন জিডিপি ২.১% এ অপরিবর্তনীয় থাকতে পারে।

যেসকল লেভেলে ধাবা-পেতে পারে গোল্ড

তৃতীয় দিনের মতো গোল্ডের প্রাইস কমছে। তবে আজকের সেশনে গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ১৭৯০.৯০ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। বর্তমানে গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও পরবর্তীতে কমতে পারে। গোল্ডের বর্তমান সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে গতকালের নিন্ম প্রাইস ১৭৮৫।  পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১৭৮২।  ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১৭৭৬। অপরদিকে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৩৮.২% অনুযায়ী পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করছে ১৭৯২।  ২০০ SMA অনুযায়ী পেয়ার ১৭৯৬ অতিক্রমের পরবর্তীতে ফিবোনাসি

সুইস ফ্রাঙ্কের বিপরীতে শক্তিশালী হচ্ছে মার্কিন ডলার

দ্বিতীয় দিনের মতো সুইস ফ্রাঙ্কের বিপরীতে মার্কিন ডলার শক্তিশালী হচ্ছে। আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে USDCHF পেয়ারের প্রাইস বেড়ে ০.৯২৪৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। চার ঘন্টার চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। পেয়ারের আপসাইড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ০.৯২৭৫ রেজিস্ট্যান্স হতে পারে। পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১৭ নভেম্বরের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯৩২৫। পেয়ার ০.৯৩২৫ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমে সক্ষম হলে নভেম্বরের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯৩৭৩ ফোকাসে থাকবে।  অপরদিক

পুনরায় ০.৭০৮০ সাপোর্টে যেতে পারে AUDUSD

গতকাল AUDUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে কমে ০.৭১৩৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী পেয়ারের ক্ষেত্রে ০.৭০৮০ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে। পেয়ারের ক্ষেত্রে ০.৭০৮০ সাপোর্ট অতিক্রমের পরবর্তীতে ০.৭০৫০ ও ০.৭০৩০ সাপোর্ট হতে পারে। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে পেয়ার ০.৭০০০ অতিক্রমের পরবর্তীতে বছরের নিন্ম প্রাইস ০.৬৯৯৩-তে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে ০.৭১৪৫। পরবর্তীতে পেয়ার ০.৭১৪৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ০.৭১৮০-৯০ হরিজোনটাল রেজিস

বৃদ্ধি পাচ্ছে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস

সপ্তাহের শুরুর দিকে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও গতকাল থেকে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ওমিক্রন এবং ব্রেক্সিট নিয়ে উদ্বিগ্নতা পেয়ারকে প্রভাবিত করছে। আজকের সেশনে তৃতীয় প্রান্তিকের ব্রিটিশ জিডিপি গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, তৃতীয় প্রান্তিকে জিডিপি ১.৩% এ অপরিবর্তনীয় থাকতে পারে। ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুতে পেয়ার ১.৩২৫০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ডেইলি চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। সেক্ষেত্রে পেয়ারের বিয়ারিশ অবস্থান শক্তিশালী হতে পারে। ২১ দিনের ম

১৫১.০০ প্রাইসের নিচে আসলে কমতে পারে GBPJPY পেয়ারের প্রাইস

সপ্তাহের প্রথমদিন GBPJPY পেয়ারের প্রাইস কমলেও গতকাল বৃদ্ধি পেয়েছিল।  আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারের প্রাইস কিছুটা কমে ১৫১.০০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। ১০০ DMA এবং ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস বেড়ে  ১৫২.০০ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। ৫০% ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট অনুযায়ী পেয়ার ১৫২.৫০ রেজিস্ট্যান্স হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে পেয়ারের ক্ষেত্রে ১৫০.৯৫ সাপোর্ট হতে পারে। পরবর্তী সাপোর্ট হ

জার্মান কনজিউমার কনফিডেন্স প্রত্যাশার নিচে আসায় EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমছে

জার্মান কনজিউমার কনফিডেন্স হতাশাজনক আসায় গতকাল থেকে ইউরোর বিপরীতে ডলার শক্তিশালী হচ্ছে। আজকের সেশনে পেয়ারটি দ্বিতীয় দিনের মতো বিয়ারিশে রয়েছে।  বর্তমানে পেয়ারটি ০.১২৭৩ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। জানুয়ারিতে জার্মান কনজিউমার কনফিডেন্স -১.৮ থেকে কমে -৬.৮ পয়েন্ট এসেছে। যা প্রত্যাশিত -২.৭ পয়েন্টের অনেক নিচে এসেছে। জুনের পরবর্তীতে সেক্টরটি সবথেকে খারাপ এসেছে। এছাড়াও জার্মান করোনাভাইরাসের পঞ্চম ঢেউয়ের প্রস্তুতি নিচ্ছে। জার্মানে ধীরে ধীরে ওমিক্রন বিস্তার হচ্ছে, যা ক্রিসমাস বাণিজ্যে

দ্বিতীয়দিন মার্কিন ডলারের প্রাইস কমছে

গতকাল মার্কিন ডলার ৯৬.৬২ প্রাইসে ওপেন হয়ে সর্বনিন্ম ৯৬.৫৪ –তে ক্লোজ হয়েছিল। আজকের সেশনেও ডলারের প্রাইস কমে ৯৬.৪৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। করোনাভাইরাসের নতুন ধরণ ওমিক্রন উদ্বিগ্নতা কারেন্সি মার্কেটে প্রভাব ফেলছে। ভাইরাসের প্রভাবে বিভিন্ন দেশে নতুন নতুন বিধি-নিষেধ আরোপ হচ্ছে। গতকাল যুক্তরাষ্ট্রে ওমিক্রনে প্রথমবারের মতো একজনের মৃত্যুর নিউজ ডলারে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। গত সপ্তাহে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১৬ মাসের সর্বোচ্চ ৯৬.৯৪-তে উঠলেও বর্তমানে কমতে শুরু করেছে।  বর্তমানে ডলার ৯

গোল্ড সাপোর্ট – রেজিস্ট্যান্স

দ্বিতীয় দিনের মতো গোল্ড বিয়ারিশ অবস্থানে থাকলেও আজকের সেশনে গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে।  বর্তমানে গোল্ড ১৭৯৬ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। গোল্ডের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী ১৮০০ রেজিস্ট্যান্স হতে পারে।  গোল্ড গতকালের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৮০৪ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১৮১০ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে।  পরবর্তী রেজিস্ট্যান্সহ হতে পারে ১৮১৪। অপরদিকে গোল্ড পুনরায় বিয়ারিশে আসতে শুরু হলে সেক্ষেত্রে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬% অনুযায়ী ১৭৯২ সাপোর

৫০ DMA অতিক্রমে EURGBP পেয়ারের বিয়ারিশ শক্তিশালী হতে পারে

ইউরোর বিপরীতে ব্রিটিশ পাউন্ডের প্রাইস দ্বিতীয় সপ্তাহের মতো বৃদ্ধি পেলেও গতকাল ইউরোর বিপরীতে পাউন্ডের প্রাইস কমেছিল। গতকাল EURGBP পেয়ার ০.৮৪৮৩ প্রাইসে ওপেন হলেও পরবর্তীতে বৃদ্ধি পেয়ে ০.৮৫৫০-তে উঠেছিল। আজ মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ০.৮৫৩৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ০.৮৫২০। ৫০ DMA এবং ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৩৮.২% অনুযায়ী ০.৮৪৮৫ গরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে। EURGBP গতকালের নিন্ম প্রাইস ০.৮৪৮১ অতিক্রমে সক্ষম হলে ডাউনট্

০.৭১০০ অতিক্রমের পথে AUDUSD

AUDUSD পেয়ারের সাপ্তাহিক ক্যান্ডেলে দেখা যাচ্ছে, পেয়ারটি দ্বিতীয় দিন ডাউনট্রেন্ডে থাকলেও আজকের সেশনে প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি ০.৭১১০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ডেইলি চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। সেক্ষেত্রে পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। ১০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী পেয়ারটি ০.৭১৫০ অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। এক্ষেত্রে পেয়ারের রেজিস্ট্যান্

১৫০.০০ প্রাইস কেন্দ্র করে মুভমেন্ট করছে GBPJPY

GBPJPY পেয়ার দ্বিতীয় দিনের মতো ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রাখলেও আজকের সেশনে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে।  বর্তমানে পেয়ারটি ১৫০.০৯ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। পেয়ারের প্রাইস পুনরায় কমতে শুরু হলে সেক্ষেত্রে পেয়ার ১৪৮.৯৬ প্রাইসের কাছাকাছি যেতে পারে।  পেয়ার ২০ জুলাইয়ের নিন্ম প্রাইস ১৪৮.৪৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ২৬ ফেব্রুয়ারির নিন্ম প্রাইস ১৪৭.৪০ যেতে পালে। অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে ২০ ডিসেম্বরের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫০.৫৫।  পরবর্তীতে পেয়ার ২০ ডিসেম্বরের সর্বোচ্চ

১.১৩০০ কেন্দ্র করে মুভমেন্ট করছে EURUSD

আজ মঙ্গলবার এশিয়ান সেশনে EURUSD পেয়ার ১.১২৮০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। গতকাল পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজ প্রাইস কমতে শুরু করেছে। পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে পেয়ারটি ধীরে ধীরে ১.১২১৫ সাপোর্টে যেতে পারে।  ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী পেয়ার ১.১১৮৫ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১১২০ প্রাইসে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে পেয়ার বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ১.১২৯০ অতিক্রমে সক্ষম হলে ২০০ SMA ১.১৩৪০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১৩৫৫ যেতে পারে।  পেয়ারের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১.১

ওমিক্রন সংক্রমণ বৃদ্ধিতে ডলারের প্রাইস কমছে

আজ মঙ্গলবার এশিয়ান সেশনে ডলারের প্রাইস কমছে। ডলারের প্রাইস কমার পেছনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের উদ্বিগ্নতা মার্কেটে প্রভাব ফেলছে। জো বাইডেন ইনভেস্টমেন্ট বিলের সময় কোভিড-১৯ ভেরিয়েন্টের ওমিক্রন নিয়ে উদ্বিগ্নতা প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও গতকাল যুক্তরাষ্ট্রে প্রথমবারের মতো ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়ে একজন মারা গিয়েছে। যা ডলারে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। ডলারের প্রাইস কমে বর্তমানে ৯৬.৪৬ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। সাম্প্রতি পলিসি মিটিংয়ে মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভের হকিশ মনোভাবে গত সপ্তাহে ডলারের

গোল্ড গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট – রেজিস্ট্যান্স

গত সপ্তাহে গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ৩ সপ্তাহের সর্বোচ্চে উঠেছিল। ওমিক্রন অনিশ্চয়তা গোল্ডের প্রাইসে প্রভাব ফেলছে।গত সপ্তাহের শেষের দিকে গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও সপ্তাহ শেষে কমেছিল। চলতি সপ্তাহের প্রথমদিন পুনরায় গোল্ডকে বিয়ারিশে দেখা যাচ্ছে। বর্তমানে গোল্ড ১৮০০.০০ প্রাইস কেন্দ্র করে মুভমেন্ট করছে। সাপ্তাহিক চার্টে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬%  এবং ৫০ SMA অনুযায়ী ১৭৯৭ প্রাইসে সাপোর্ট দেখা যাচ্ছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৩৮.২% ও ১০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১৭৯১ সাপোর্ট হতে পারে। মাসিক চার্টে

ফেডের হকিশ আলোচনা ও ইউরোপে ওমিক্রন তীব্রতা ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে

আজ সোমবার ইউরোপিয়ান সেশনে মার্কিন ডলারের প্রাইস বেড়ে দিনের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনা এবং ইউরোপজুড়ে ওমিক্রন তীব্রতা ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে। বর্তমানে ডলার ৯৬.৫৯ প্রাইসে অবস্থান করছে। গত মাসে ডলারের প্রাইস বেড়ে সর্বোচ্চ ৯৬.৯৩-তে উঠেছিল। যা জুলাইয়ের পরবর্তীতে সর্বোচ্চ। গত সপ্তাহে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের দুদিন ব্যাপী মিটিংয়ে ফেড নীতিনির্ধাকেরা বন্ড ক্রয়ের বিষয়ে সম্মতি দেন এবং ২০২২ সালে মহামারীর মধ্যে প্রথমব

USDCAD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১.৩০০০-তে যেতে পারে

আজ সোমবার ইউরোপিয়ান সেশনে USDCAD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১.২৯১৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। চার ঘন্টার চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের উপরে অবস্থান করছে। যা পেয়ারের ওভারবট নির্দেশ করছে। এর ফলে পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে। USDCAD পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে আগস্টের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.২৯৩৬। পরবর্তীতে পেয়ার ১.২৯৬৫ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.২৯৭৫ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে। আপট্রেন্ড দীর্ঘস্থায়ী হলে সেক্ষেত্রে ১.৩০০০ রেজিস্ট্যান্সে যাও

AUDUSD পেয়ারের পরবর্তী ফোকাস ০.৭০৫০

সপ্তাহের শেষের দিন AUDUSD পেয়ারের প্রাইস কমেছিল। চলতি সপ্তাহের প্রথমদিনও পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। বর্তমানে পেয়ারটি ০.৭০৮০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ডেইলি চার্টে ১৪ দিনের RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে। AUDUSD পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ০.৭০৫০। ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হলে এক্ষেত্রে ৬ ডিসেম্বরের নিন্ম প্রাইস ০.৭০৩৬ সাপোর্ট হতে পারে। অপরদিকে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে শুরু হলে ০.৭১৩৫ অতিক

AUDUSD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট ( ২০ – ২৪ ডিসেম্বর, ২০২১)

গত সপ্তাহে AUDUSD পেয়ারের প্রাইস কমেছিল। চলতি সপ্তাহের শুরুতেও পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। চলতি মাসে পেয়ারের প্রাইস কমে ০.৬৯৯২-তে এসেছিল। যা ১লা নভেম্বরের পরবর্তীতে সর্বনিন্ম। বর্তমানে পেয়ারটি ০.৭১০০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ফেডারেল রিজার্ভের পজিটিভ ডিসিশনে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। এছাড়াও অস্টেলিয়ান জব ডাটা পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে। দুই দেশের কারেন্সি পজিটিভ থাকার কারণে পেয়ারের বিয়ারিশ কিছুটা সংকুচিত হয়েছিল। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ জানুয়ারি থেকে

EURUSD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট ( ২০ -২৪ ডিসেম্বর, ২০২১)

গত সপ্তাহে EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমেছিল। চতুর্থ সপ্তাহের মতো বিয়ারিশ অবস্থান অব্যাহত রেখেছে। মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ এবং ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংক গত সপ্তাহে মনেটারী পলিসি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। ব্যাংকগুলো মুদ্রাস্ফীতি ও প্রবৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা করেছিলেন। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ব্যাংকগুলো খুব তাড়াতাড়ি ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধি করতে পারে। ফেডারেল রিজার্ভ ২০২২ সালের জানুয়ারি থেকে বন্ড ১৫ বিলিয়ন থেকে বাড়িয়ে ৩০ বিলিয়ন পারসেস করতে পারে। ২০২২ সালের মাঝামাঝিতে ইন্টারেস্ট রেট বাড়াবে এবং ২০২৩ সালের আগে

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...