Jump to content

ফরেক্স নিউজ

  • entries
    111
  • comments
    3
  • views
    562

Contributors to this blog

  • মার্কেট আপডেট 111

About this blog

ফরেক্স ট্রেডিং সংক্রান্ত সব নিউজ, অ্যানালাইসিস এবং মার্কেট আপডেট পাবেন এখানেই।

Entries in this blog

১.৩১০০ প্রাইসের নিচে অবস্থান করছে EURJPY

চলতি সপ্তাহের প্রথমদিন অর্থাৎ গতকাল EURJPY পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে কমতে শুরু করেছে। আজ পেয়ারটি ১৩০.৮৮ প্রাইসে ওপেন হলেও বৃদ্ধি পেয়ে ১৩১.০০ প্রাইসে গিয়েছিল।  বর্তমানে প্রাইস কমে ১৩০.৫০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হতে পারে ১৩০.০০ এবং পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে চলতি মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১২৯.৬১। অপরদিকে পেয়ারটি জুলাই মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩২.৪০ অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  ৫০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী পরবর্তী রেজ

গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ১৮০০ ডলারের উপরে অবস্থান করছে

সপ্তাহের প্রথমদিন সোমবার গোল্ডের প্রাইস কমলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পাচ্ছে।  এর ফলে গোল্ড মার্কিন ইভেন্টের পূর্বে দুসপ্তাহের সর্বোচ্চ প্রাইসে উঠেছিল।  যদিও বর্তমানে পেয়ারটি ১৮০৯ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। আটলান্টিতের উভয় পাশের ডেল্টা কোভিডের স্ট্রেনের দ্রুত বিস্তার বিনিয়োগকারীদের উদ্বিগ্নতা বাড়িয়ে দিচ্ছে।  বর্তমানে ট্রেডাররা মার্কিন সিপিআই ডাটার অপেক্ষায় রয়েছেন।  কারণ আর্থিক নীতি স্বাভাবিকরণের জন্য ফেড কর্মকর্তাদের মনোভাব সিপিআই ডাটায় প্রভাবিত হতে পারে। ডেইলি চার্টে ফিবোনাসি

সেশনের সর্বনিন্ম প্রাইসে GBPUSD

দ্বিতীয় দিনের মতো GBPUSD পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে।  আজ সেশনের শুরুর দিকে GBPUSD পেয়ারেরর প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও বর্তমানে কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.৩৮৫০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।  ব্রিটিশ ফান্ডামেন্টাল ডাটাগুলোর পাশাপাশি কোভিড-১৯ সংক্রামণ বৃদ্ধি এবং ব্রেক্সিট বিলের আকার নিয়ে নতুন বিতর্ক উত্তেজনা ব্রিটিশ পাউন্ডের প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে। যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গতকাল নিশ্চিত করেছেন যে ইংল্যান্ডে কোভিড-১৯ বিধিনিষেধ ১৯ জুলাই শেষ হবে। তবে জনগণের সত

মার্চ মাসের সর্বন্মি প্রাইসে যেতে পারে EURJPY- কমার্জব্যাংক

আজকের সেশনে EURJPY পেয়ারের প্রাইস কমে এপ্রিলের সর্বনিন্ম প্রাইস ১২৯.৬০-তে গিয়েছিল। কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট অ্যাক্সেল রুডলফের মতে, পেয়ারের প্রাইস কমে মার্চ মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১২৮.২০ যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারটি ২৩ জুনের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩২.৫৯ অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  ২০০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী ১২৮.২৮ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে। অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ২৯ জুনের সর্বনিন্ম প্রাইস ১৩১.২৮।  পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ২৩ জুনের

১.১৯০০ প্রাইসের দিকে যাচ্ছে EURUSD

আজ মঙ্গলবার EURUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং আজকের সেশনে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে সর্বোচ্চ ১.১৮৮৫-তে গিয়েছিল। বর্তমানে পেয়ারটি ১.১৮৬৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে।  এদিকে মার্কিন ডলার প্রধান ৬টি কারেন্সির বিপরীতে ৯২.২ প্রাইসে অপরিবর্তনীয় রয়েছে।  বিনিয়োগকারীরা বর্তমানে মার্কিন সিপিআই ডাটার অপেক্ষা করছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, জুনে সিপিআই বৃদ্ধি পেয়ে ৪.৮% আসতে পারে। প্রত্যাশার উপরে আসলে মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়াও ২২ জুলাই ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্য

GBPUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

মার্কিন ডলারের বিপরীতে গতকাল ব্রিটিশ পাউন্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে কমতে শুরু করেছে।  মার্কিন কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স (CPI) ডাটার পূর্বে পেয়ারের মুভমেন্ট সীমিত মনে হচ্ছে। এছাড়াও মার্কিন ও ব্রিটিশ বাণিজ্য আলোচনা সমাপ্ত হওয়ার পরে পেয়ারের মুভমেন্ট সীমিত হয়েছে।  রিপোর্ট অনুযায়ী কমপক্ষে দুই বছরের জন্য কোনও চুক্তি হওয়ার সম্ভাবনা নেই। GBPUSD ডেইলি চার্ট ডেইলি চার্ট অনুযায়ী গতকাল পেয়ারটি ১.৩৯০০ প্রাইসের কাছাকাছি ডজি ক্যান্ডেলিস্টিক তৈরির চেষ্টা করেছিল। যা বিনিয়োগকারীদের

EURGBP সেলারদের টার্গেট ০.৮৫০০

আজ মঙ্গলবার এশিয়ান সেশনের শুরুর দিকে EURGBP ০.৮৫৪৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে।  MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে পেয়ারটি গত কয়েকদিনের সাপোর্ট লেভেল ০.৮৫৪৫ অতিক্রমে সক্ষম হলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ০.৮৫৫০ যা অতিক্রমে সক্ষম হলে বায়াররা ০.৮৬০০ প্রাইসের অপেক্ষা করবেন।  পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৮৬২০। অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট জুন মাসের নিন্ম প্রাইস ০.৮৫৩০।  পেয়ারটি ০.৮৫০০ প্র

মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের পূর্বে কেমন হচ্ছে ডলারের মুভমেন্ট

আজ সোমবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে।  বিনিয়োগকারীদের নজর আগমীকালের মুদ্রাস্ফীতি এবং বৃহস্পতিবার ফেডারেল রিজার্ভ চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েলের আলোচনার দিকে। গত সপ্তাহের বেশিরভাগ সময় মার্কিন ডলার শক্তিশালী অবস্থানে ছিল।  কোভিড-১৯ ভাইরাসের দ্রুত বিস্তারকারী ডেল্টা বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারে বাধাগ্রস্ত করতে পারে।  এর ফলে বিনিয়োগকারীদের মাঝে উদ্বিগ্নতা বৃদ্ধি পেয়েছিল।  যা ডলারকে নিরাপদ কারেন্সি হিসেবে প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করেছিল। বৃহস্পতি ও শুক্রবার

USDCAD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট ( ১২-১৬ জুলাই,২০২১)

শুক্রবার কানাডিয়ান জব রিপোর্ট প্রত্যাশার উপরে আসলেও সাপ্তাহিক ক্যান্ডেল বিয়ারশ তৈরিতে সক্ষম হয়নি। যদিও USDCAD ডেইল চার্টে সপ্তাহের শেষের দিন বিয়ারিশ ক্যান্ডেল তৈরি করেছিল। জুন মাসে কানাডিয়ান ইকোনমিতে ২ লক্ষ ৩০ হাজার জব যুক্ত হয়েছে। যা প্রত্যাশিত ১ লক্ষ ৭২ হাজারের তুলানায় বেড়েছে।  মার্চ মাসের পরবর্তীতে কানাডিয়ান জব প্রথমবারের মতো নেতিবাচক অঞ্চল থেকে বেরিয়ে এসেছে।  দেশটির বেকারত্বের হার ৮.২% থেকে কমে ৭.৮% এসেছে।  যা প্রত্যাশিত ৭.৭% এর সামান্য উপরে এসেছিল। যদিও গত সপ্তাহে রিপোর্টকে

GBPUSD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট ( ১২-১৬ জুলাই, ২০২১)

গত সপ্তাহের শুরর দিকে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও সপ্তাহের শেষের দিন বৃদ্ধি পেয়েছিল।  যুক্তরাজ্যের ফান্ডামেন্টাল ইভেন্টগুলোর পাশাপাশি করোনাভাইরাসের প্রকোপ পেয়ারকে প্রভাবিত করছে।  দেশটিকে ক্রমাগত করোনা সংক্রামণ বৃদ্ধি পাচ্ছে, এর ফলে ইউরোজোনের মধ্যে সংক্রামণের দিক থেকে প্রথম স্থানে যু্ক্তরাজ্য।  যা GBPUSD বিনিয়োগকারীদের ভাবনাকে আরও বাড়িয়ে দিচ্ছে। ব্রিটিশ ফান্ডামেন্টাল ইভেন্টগুলো পেয়ারকে তেমন উৎসাহ দিতে পারছে না।  মে মাসে দেশটির জিডিপি মাত্র ০.৮% বৃদ্ধি পেয়েছে। যা গত দুবারের তুলনায় কম।  এছাড়াও

EURUSD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট ( ১২-১৬ জুলাই, ২০২১)

EURUSD পেয়ার অনিশ্চিতভাবে পুনরুদ্ধার করছে, বৈশ্বিক ইকোনমি পুনরুদ্ধারের বিষয়ে বিনিয়োগকারীরা ঝুঁকির প্রতি মনোভাব সতর্ক রেখেছে।  এছাড়াও ভাইরাসের ভয় ইউরোকে প্রভাবিত করছে। ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি মার্কেটের প্রত্যাশার দ্বারা প্রভাবিত হচ্ছে। আগস্ট বা সেপ্টেম্বরে ফেড সম্পদ ক্রয়ের ক্ষেত্রে পরিকল্পিত হ্রাস ঘোষণা করবে।  একই সময়ে বছরের শেষের দিকে বা পরবর্তী বছরের শুরুর দিকে প্রথম বারের মতো বন্ড ক্রয় হ্রাস করতে পারে।  ফেড নীতি-নির্ধারকরা আর্থিক নীতি পরিবর্তন করার আগে মুদ্রাস্ফীতি এবং কর্মসংস্থ

১.১৮৮৭ প্রাইসের উপরে আপট্রেন্ড বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে EURUSD

EURUSD পেয়ার সর্বনিন্ম ১.১৭৮০ প্রাইসে গেলেও বর্তমানে পেয়ারের প্রাইস কিছুটা বৃদ্ধি পাচ্ছে।  ২০২০ সালের নভেম্বরেও ১.১৭৮০ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করেছিল।  সেক্ষেত্রে ২০২০-২০২১ সালের সাপোর্ট হিসেবে বিবেচনা করা যেতে পারে ১.১৭৮০। কিছু বিশেষজ্ঞদের মতে, পেয়ারটি ১.১৮৮৭ প্রাইসের উপরে আসলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  যদিও বর্তমানে পেয়ারটি ১.১৮৬০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। EURUSD ১.১৮৮৭ প্রাইস অতিক্রমে সক্ষম হলে ১.১৯৭০ প্রাইসে যেতে পারে।  ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১.২০০০ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ কর

GBPUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

আজকের সেশনে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমে সর্বনিন্ম ১.৩৭৫৫ আসলেও বর্তমানে পেয়ার রিকভার করে ১.৩৮২০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.৩৮৫০।  পেয়ারটি ১.৩৮৫০ অতিক্রমে সক্ষম হলে ১.৩৯০০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারটি দিনের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.৩৭৫৫ এর নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড পুনরায় শক্তিশালী হতে পারে।  সেক্ষেত্রে পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ২ জুলাই এর সর্বনিন্ম প্রাইস ১.৩৭৩১। পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট ১.৩৭০০ এবং ২০০ দিনের মুভিং অ্যাভারে

ক্রেডিট সুইসের আলোচনায় USDCHF

ক্রেডিট সুইস অ্যানালাইসিস্ট টিমের রিপোর্ট অনুযায়ী USDCHF পেয়ার ০.৯১৪২ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী এবং ০.৯৩৫৫ প্রাইসের উপরে উঠলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। গতকাল USDCHF পেয়ারের প্রাইস বেশ ভালভাবে কমেছিল।  তবে আজ শুরুর দিকে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও পরবর্তীতে কমতে শুরু করেছে।  পেয়ারটি ০.৯১৪৫ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।  ক্রেডিট সুইস অ্যানালাইসিস্টদের মতে, পেয়ারটি ০.৯১৪২ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  সেক্ষেত্রে পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৯০৮

১৩০.৪০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে EURJPY

EURJPY পেয়ারের প্রাইস গত কয়েকদিন কমলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পেয়ে ১৩০.৪০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ১০০ দিনের SMA অনুযায়ী পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ১৩১.০০।  ২০ দিনের SMA অনুযায়ী পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১৩১.৭০।  EURJPY পেয়ারটি পরবর্তীতে ১ জুলাই এর সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩২.৪০ যেতে পারে। ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী পেয়ারটি ১২৮.১৫ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। EURJPY ডেইলি চার্ট XM ব্রোকারে জুলাই মাসে ডিপোজিটে ৫০% বোনাস

EURUSD সাপোর্ট ও রেজিস্ট্যান্স

EURUSD বর্তমানে ১.১৮৫০ প্রাইসের নিচে ১.১৮৩৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে।  পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.১৭৮৫।  পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে বছরের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১৭০৪। অপরদিকে পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স আজকের সেশনের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.১৮৫০।  পেয়ারটি ১.১৯০০ প্রাইসে যাওয়ার পূর্বে ২৫ জুনের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.১৮৬৫ বাধা প্রাপ্ত হতে পারে তবে পেয়ারটি ১.১৯০০ প্রাইস অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  সেক্ষেত্রে জুন মাসের শেষের দিকের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.১৯৭৫ এবং ২০০ দিনের মুভ

ECB মিটিংয়ের পরে ১.১৮৫০ প্রাইসের নিচে অবস্থান করছে EURUSD

আজ শুক্রবার এশিয়ান সেশনে EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমছে।  যদিও পেয়ারটি গত কয়েক মাসের নিন্ম প্রাইস ১.১৭৯৫-তে গিয়েছিল।  আর্টিকেল লেখার সময়, EURUSD ১.১৮৩৮ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। এদিকে মার্কিন ডলার ৬টি মেজর কারেন্সির বিপরীতে আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে।  মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১৩ সপ্তাহের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে। অত্যন্ত সংক্রামক ডেল্টা করোনাভাইরাসের সংক্রামণ নিরাপদ কারেন্সি হিসেবে মার্কিন ডলারের প্রাইস বাড়িয়ে দিচ্ছে। অপরদিকে ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুদ্রানীত

ব্রিটিশ ডাটায় প্রভাবিত হতে পারে ব্রিটিশ পাউন্ড

আজ শুক্রবার দুপুর ১২:০০ টার দিকে কয়েকটি ব্রিটিশ ইভেন্ট রয়েছে।  ইভেন্টগুলোর মধ্যে রয়েছে মে মাসের জিডিপি, মেনুফেকচারিং এবং ইন্ডাস্ট্রীয়াল প্রডাকশন। এপ্রিলে মাসিক জিডিপি ২.৩% বেড়েছিল।  বিনিয়োগকারীদের নিকট মে মাসের রিপোর্ট বেশ গুরুত্ব পাবে। কারণ কোভিড পুনরুত্থানের আশঙ্কায় ইকোনমিক রূপান্তর কিভাবে হয় তা দেখার বিষয়। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, মে মাসে ব্রিটিশ জিডিপি ২.৩% থেকে কমে ১.৭% আসতে পারে।  ইন্ডাস্ট্রীয়াল এবং মেনুফেকচারিং প্রডাকশন এপ্রিলের তুলনায় ভাল আসতে পারে।  মে মাসে ইন্ডাস্ট্রীয়াল প

১.২৬৩৫ অতিক্রমে সক্ষম হলে ১.৩০২৪ প্রাইসে যেতে পারে USDCAD- ক্রেডিট সুইস

গত কয়েকদিনের তুলনায় আজকের সেশনে USDCAD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১.২৫৫৬ প্রাইসে অবস্থান করছে। ক্রেডিট সুইস অ্যানালাইসিস্ট টিমের মতে, ২০০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ এবং ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬% অনুযায়ী পেয়ারটি ১.২৬৩৫ প্রাইস অতিক্রম করতে পারে।  পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.২৭৫০। USDCAD ১.২৮৮১ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.৩০২৪ প্রাইসে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারটি ১.২৪২২ প্রাইসের নিচে আসলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে।  সেক্ষেত্রে পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১

যে বিষয়গুলো AUDUSD পেয়ারের প্রাইস কমতে সহায়তা করছে

AUDUSD পেয়ারের প্রাইস ক্রমাগত কমছে এবং পেয়ারটি পূর্বের আপট্রেন্ডের নিচে অবস্থান করছে।  বর্তমানে পেয়ারটি ০.৭৪৬০ প্রাইসের নিচে অবস্থান করছে। RBAগর্ভনরের বক্তব্যে প্রভাবিত হয়েছে AUDUSD AUDUSD পেয়ারের প্রাইস তৃতীয় দিনের মতো কমতে শুরু করেছে। পেয়ারের প্রাইস কমার পেছনে অস্টেলিয়ার করোনা প্রাদুর্ভাবের সাথে রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়ার গর্ভনর ফিলিপ লোর বক্তব্য কাজ করেছে।  এর ফলে পেয়ারটি সপ্তাহের সর্বনিন্ম প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। দেশটিতে করোনা সংক্রামণ বৃদ্ধি পেতে থাকলে AUDUSD

মার্চ মাসের সর্বনিন্ম প্রাইসে যেতে পারে EURUSD- কমার্জব্যাংক

কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট কারেন জনসের মতে, EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমে মার্চ মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১৭০৪-তে যেতে পারে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.১৮২২ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে।  পরবর্তীতে ডাউনট্রেন্ডে আসার সম্ভাবনা রয়েছে।  পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স ১.১৮৩৬। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.১৯০০ এবং ১.১৯৬০। অপরদিকে EURUSD পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.১৭১৩ এবং পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে মার্চ মাসের নিন্ম প্রাইস ১.১৭০৪। XM ব্রোকারে জুলাই মাসে ডিপোজিটে ৫০% বোনাস

ফান্ডামেন্টাল  ও টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিসে কমতে পারে EURUSD পেয়ারের প্রাইস

বুধবার শুরুর দিকে EURUSD শান্তভাবে মুভমেন্ট করলেও গতকাল ডলারের প্রাইস বৃদ্ধির কারণে EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ১.১৮০০ প্রাইসের কাছাকাছি এসেছিল।  মূলত ফেড মিটিং মিনিটসকে কেন্দ্র করে পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হয়েছে। ফেডের মিটিং থেকে বুঝা যাচ্ছে, ফেড মুদ্রাস্ফীতি নিয়ে তেমন উদ্বিগ্ন নয় এবং প্রত্যাশা করছেন খুব তাড়াতাড়ি মার্কিন লেবার মার্কেটের উন্নতি হবে। কোভিড যেভাবে EURUSD-কে প্রভাবিত করছে ইউরোজোন এবং যুক্তরাজ্যে নতুন ভাইরাস স্ট্রেনের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধি পাচ্ছে।  যা উক্ত দেশ

ডজি ক্যান্ডেলের পরবর্তীতে GBPUSD

আজ বৃহস্পতিবার এশিয়ান সেশনে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমে ১.৩৭৮০ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে।  যদিও গতকাল পেয়ারের জন্য অস্থির একটি দিন ছিল। শেষ পর্যন্ত পেয়ারটি ডজি ক্যান্ডেল তৈরিতে সক্ষম হয়েছিল।  ডজি ক্যান্ডেলের পরবর্তীতে প্রত্যাশা করা হয়েছিল পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে।  তবে মার্কিন এফওএমসি মিটিংকে কেন্দ্র করে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধির কারণে পুনরায় পেয়ারের প্রাইস কমতে থাকে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.৩৭৩০ এবং পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১.৩৭০০।  পেয়ারের বিয়ারিশ অবস্থান শক্তিশালী হলে

FOMC মিটিংয়ের পরবর্তীতে মার্কিন ডলারের প্রাইস বেড়ে ৩ মাসের সর্বোচ্চে উঠেছে

বিশ্বের সবথেকে বড় কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ জুন মাসের পলিসি মিটিংয়ে এ বিষটি নিশ্চিত করেছেন যে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তারা এ বছরে সম্পদ ক্রয়ের দিকে যাচ্ছেন। এ দিকে মার্কিন ডলার অন্যান্য প্রধান কারেন্সিগুলোর বিপরীতে  বেড়ে ৩ মাসের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে। এখন পর্যন্ত মার্কিন ডলার সর্বোচ্চ ৯২.৮৪ প্রাইসে উঠেছে।  ৫ এপ্রিলের পরবর্তীতে ডলার প্রথমবারের মতো ৯২.৮৪ প্রাইসে এসেছে। এছাড়াও FOMC মিটিংয়ে ফেড কর্ককর্তারা বলেছেন, অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারের বিষয়ে উল্লেখযোগ্যভাবে আরও অগ্রগতি প্রয়োজন। 

FOMC মিটিংয়ের পূর্বে মার্কিন ডলারের মুভমেন্ট সীমিত

ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকে ডলারের প্রাইস কিছুটা কমেছে।  আজকের সেশনে ডলার ৯২.৫৩ প্রাইসে ওপেন হলেও বর্তমানে কিছুটা কমে ৯২.৫১ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। আর্টিকেল লেখা পর্যন্ত ডলার সর্বোচ্চ ৯২.৪৫ থেকে ৯২.৫৯ প্রাইসের মধ্যে মুভমেন্ট করেছে।  বিনিয়োগকারীরা FOMC মিটিংয়ের মাধ্যমে ইকোনমিক দিকনির্দেশনা এবং ইন্টারেস্ট রেট সম্পর্কে বার্তার অপেক্ষা করছে। গতকাল তেলের প্রাইস বৃদ্ধি, চীনা প্রযুক্তি সেক্টরের দমন কেন্দ্র করে ডলার আপট্রেন্ডে ছিল এবং তবে ISM মেনুফেকচারিং খারাপ আসার ফলে ডলার ক

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...