Jump to content

ফরেক্স নিউজ

  • entries
    1,092
  • comments
    16
  • views
    9,150

Contributors to this blog

  • মার্কেট আপডেট 1092

About this blog

ফরেক্স ট্রেডিং সংক্রান্ত সব নিউজ, অ্যানালাইসিস এবং মার্কেট আপডেট পাবেন এখানেই।

Entries in this blog

৬ দিন ডাউনট্রেন্ডে থেকে মাসের নিন্ম প্রাইসে যাচ্ছে GBPJPY

GBPJPY পেয়ার টানা ষষ্ঠ দিন ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে আজ মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশেনে ১৫৩.৩০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ১০০ এবং ৫০ DMA অনুযায়ী ক্রোস কারেন্সি পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে। ২০০ DMA অনুযায়ী GBPJPY পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১৫৩.০০। পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ২০২১ সালের নভেম্বরের নিন্ম প্রাইস ১৫২.৪০ অতিক্রমের পরবর্ততে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬% অনুযায়ী ১৫১.১৫ প্রাইসে যেতে পারে।

সুইস ফ্রাঙ্কের বিপরীতে মার্কিন ডলার শক্তিশালী হচ্ছে

আজ মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশনে USDCHF পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ০.৯১৫৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। সুইস ফ্রাঙ্কের বিপরীতে দ্বিতীয় দিন মার্কিন ডলার শক্তিশালী হচ্ছে। এক ঘন্টার চার্টে ২০০-HMA এর উপরে পেয়ার অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে পেয়ারের অবস্থান বায়ারের অনুকূলে থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। USDCHF পেয়ারের ক্ষেত্রে ১২ জানুয়ারির সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯১৬০ রেজিস্ট্যান্স হতে পারে। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে বৃহস্পতিবারের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯১৮০। অপরদিকে পেয়ার ০.৯১৫০ সাপোর্ট অতিক্রমের

সপ্তাহের প্রথম দুদিন EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমছে

গত সপ্তাহের শেষেরদিন EURUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও চলতি সপ্তাহের প্রথম দুদিন কমতে শুরু করেছে। আজ মঙ্গলবার এশিয়ান সেশনে পেয়ারটি ১.১৩৩০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। পেয়ারটি ২০০-SMA এর কাছাকাছি ওঠানামা করছে। পেয়ারটি ২০০-SMA অতিক্রমে সক্ষম হলে আপট্রেন্ড শক্তিশালী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। চার ঘন্টার চার্টে RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। নভেম্বরের মাঝামাঝিতে ১.১৩৩৫ গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করেছিল। পেয়ারের প্রাইস যেহেতু গত দুদিন কমছে। সেক

মার্কিন ডলারের বিপরীতে নিরাপদ কারেন্সি ইয়েনের প্রাইস ‍বৃদ্ধি পাচ্ছে

মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি এবং আক্রমনাত্মক ফেডারেল রিজার্ভ নীতি পুনরুজ্জীবিত হওয়ায় শুক্রবার ঝুঁকিপূর্ণ মার্কিন ডলারের বিপরীতে নিরাপদ কারেন্সি ইয়েনের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। AUDJPY পেয়ারের প্রাইস কমে ৮২.০২ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। যা গত এক মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস। USDJPY পেয়ার চারদিন ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখে ১১৩.৯৪ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। মার্কিন ইল্ডের অগ্রগতি বাজারের প্রত্যাশার দ্বারা মনে হচ্ছে, মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ প্রত্যাশিত গতির চেয়ে দ্রুত গতিতে আর্থিক নীতিকে শ

ব্রিটিশ রিটেইল সেলস রিপোর্টের পূর্বে GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমছে

চলতি সপ্তাহে মাত্র একদিন GBPUSD পেয়ারের প্রাইস বেড়েছে। সপ্তাহের শেষেরদিন আজ শুক্রবার ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে পেয়ারের প্রাইস কমছে। ব্রেক্সিট নিয়ে যুক্তরাজ্যের প্রতিনিধি লিজ ট্রাসের সাথে প্রথম বৈঠকের পরে, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন নীতিনির্ধারকরা হতাশা পুর্নব্যক্ত করেছে। যা পাউন্ডকে প্রভাবিত করছে। যুক্তরাজ্যের শক্তিশালী মুদ্রাস্ফীতি ফেব্রুয়ারিতে ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধিতে সহায়তা করতে পারে। ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেট বাড়ালে GBPUSD পেয়ারের আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। ডিস

চার সপ্তাহে গোল্ডের প্রাইস একদিনে সর্বোচ্চ বেড়েছে

গত চার সপ্তাহের মধ্যে গতকাল গোল্ডের প্রাইস একদিনে সর্বোচ্চ বেড়েছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস কমার ফলে গোল্ডের আপট্রেন্ড শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। বর্তমানে গোল্ডের প্রাইস বেড়ে ১৮৪০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬% অনুযায়ী গোল্ডের সাপোর্ট হতে পারে ১৮৩৫। ডেইলি চার্টে ফিবোনাসি ৩৮.২% অনুযায়ী সাপোর্ট হতে পারে ১৮৩১। গোল্ডের পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ১৮২১। অপরদিকে গোল্ডের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৮৪৪ এবং পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে

বৃদ্ধি পাচ্ছে GBPJPY পেয়ারের প্রাইস

আজ বৃহস্পতিবার লন্ডন সেশনে পেয়ারটি দিনের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫৬.০৫ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। গত তিনদিনের মধ্যে প্রথমবারের মতো GBPJPY পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্ট অতিক্রম করছে। এক্ষেত্রে প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে।  পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫৭.৭৫ এবং পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ২০২১ সালের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫৮.২২। অপরদিকে পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে কাজ করছে ১৫৫.৩৫। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% অনুযা

ডলারের দুর্বলতায় GBPUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে

বেশ কয়েকদিন GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও গত দুদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.৩৬২৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ডিসেম্বরে ব্রিটিশ মুদ্রাস্ফীতি ৫.৪% বৃদ্ধি পেয়েছে। যা গত ৩০ বছরের সর্বোচ্চে এসেছে। ফেব্রুয়ারি মাসে আসন্ন মিটিংয়ে ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের (BOE) হার বৃদ্ধির প্রত্যাশাকে শক্তিশালী করছে। যা পাউন্ডের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে। মার্কিন ট্রেজারি ইল্ডে চলমান উত্থান ডলারের পতনকে সীমিত করতে সাহায্য করতে পারে। ফলস্বরূপ, ক্যাবল রিবাউন্ড করছে। এদিকে, ক্রমবর্ধমান ব্রেক্সিট

ব্লুমবার্গ অ্যানালাইসিস্টদের মতে ২০২২ সালে বিটকয়েনের প্রাইস বেড়ে $১০০K-তে যেতে পারে

ব্লুমবার্গের সিনিয়র কমোডিটি স্ট্র্যাটেজিস্ট মাইক ম্যাকগ্লোন বলেন, ২০২২ সালে বিটকয়েন নতুন করে সর্বকালের উচ্চতায় যেতে পারে। ম্যাকগ্লোনের মতে, ২০২২ সালে বিটকয়েনের ঝুঁকি কমার সম্ভাবনা রয়েছে। এর ফলে কয়েনের প্রাইস বেড়ে $১০০K-যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। যা বিটকয়েনের নতুন রেকর্ড হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ মুদ্রাস্ফীতির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য ইন্টারেস্ট রেট বাড়ানোর পরিকল্পনা করছে। তখন ক্রিপ্টোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ সম্পদ ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। ব্যাংক ইন্টারেস্ট রে

আন্তর্জাতিক মার্কেটে ২০১৪ সালের সর্বোচ্চ থেকে তেলের প্রাইস কমতে শুরু করেছে

গতকাল তেলের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ২০১৪ সালের সর্বোচ্চে উঠলেও পরবর্তীতে কমেছিল। আজকের সেশনে পুনরায় ব্রেন্ট ক্রুড তেলের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে প্রতি ব্যারেল ৮৯.১৭ ডলারে উঠেছিল। ২০১৪ সালের অক্টোবরে পেয়ারের প্রাইস বেড়ে সর্বোচ্চ ৮৯.১৩ ডলারে প্রতি ব্যারেল উঠেছিল। মার্কিন ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (WTI) তেলের প্রাইস বেড়ে ৯৬ ডলারে অবস্থান করছে। আন্তর্জাতিক অ্যানার্জি এজেন্সির মতে, তলের চাহিদা বেড়ে মহামারীর পূর্বে যেতে পারে। ইরাকের পাইপলাইন সমস্যার কারণে তেলে উৎপাদনে ঘাটতি তেলের চাহিদা বাড়ি

EURUSD পেয়ারের প্রাইস বেড়ে ২০০ SMA এর উপরে অবস্থান করছে

সপ্তাহের শুরুর দিকে EURUSD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজ বৃহস্পতিবার এশিয়ান সেশনে পেয়ারটি ১.১৩৪০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ওভারসোল্ডে অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। ২০০ SMA অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ১.১৩২৫।  পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে সাপোর্ট হতে পারে ১.১৩০০। পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ১.১২৩০।  অপরদিকে ১০০- SMA অনুযায়ী EURUSD পেয়ার ১.১৩৫৫ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমে স

গত সপ্তাহে EURJPY পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও চলতি সপ্তাহে কমতে শুরু করেছে

আজ বুধবার লন্ডন সেশনে পেয়ারটি ১২৯.৮০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এক্ষেত্রে পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে ১৩০.০০। ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করছে ১৩০.৫৩। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে ৫ জানুয়ারির সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩১.৫০। অপরদিকে পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে ডিসেম্বরের নিন্ম প্রাইস ১২৮.৮২। EURJPY ডেইলি চার্ট ফরেক্স এবং কিপ্টোকারেন্সি ট্রেডিং শিখতে বিডিপিপসের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্কাইব করুন

কানাডিয়ান CPI রিপোর্টের পূর্বে কানাডিয়ান ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে

পঞ্চম সপ্তাহের মতো USDCAD পেয়ারের প্রাইস কমছে। বিনিয়োগকারীদের বর্তমান নজর ব্যাংক অব কানাডার ইন্টারেস্ট রেট ডিসিশনের দিকে।  আগামী সপ্তাহে ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেট বাড়ালে সেক্ষেত্রে USDCAD পেয়ারের বিয়ারিশ অবস্থান আরও শক্তিশালী হতে পারে। তবে মার্কিন ইভেন্ট কেন্দ্র করে ডলারের দুর্বলতা বৃদ্ধি পেলে সেক্ষেত্রে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে। সেক্ষেত্রে USDCAD বিনিয়োগকারীদের নজর থাকবে ২৬ জানুয়ারির মিটিংয়ের দিকে। পেয়ারটি বর্তমানে ১.২৪৭৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। পেয়ারের পরবর্তী সাপ

GBPJPY পেয়ারের সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্স

ষষ্ঠদিন GBPJPY পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে ব্রিটিশ  কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স  রিপোর্টের পরবর্তীতে পেয়ারটি ১৫৫.৭৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ২১ ডিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হতে পারে ১৫৫.৬৫ এবং পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে নভেম্বরের মাঝামাঝির সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫৪.৭৫। ফিবোনাসি  রিট্রেসমেন্ট ৫০%  অনুযায়ী পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হতে পারে জুলাই থেকে অক্টোবরের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৫৩.৩০। অপরদিকে ১০ DMA অনুযায়ী পেয়ার ১৫৬.৫০ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমের প

ব্রিটিশ মুদ্রাস্ফীতি বেড়ে ৩০ বছরের সর্বোচ্চে এসেছে

ডিসেম্বরে ব্রিটিশ কনজিউমার প্রাইস মুদ্রাস্ফীতি প্রত্যাশার চেয়ে বেড়ে ৫.৪% এসেছে। যা প্রায় গত ৩০ বছরের সর্বোচ্চে এসেছে।আজকের সেশনে বিনিয়োগকারীদের নজর থাকবে ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের গর্ভনর বেইলির আলোচনার দিকে। ব্যাংক পরবর্তী মাসে ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধি করবে কিনা তা আজকের গর্ভনর আলোচনা থেকে ইঙ্গিত আসতে পারে। রয়টার্স জরিপ অনুযায়ী নভেম্বরে মুদ্রাস্ফীতি ৫.১% আসলেও ডিসেম্বরে বেড়ে ৫.২% এসেছে। ব্রিটিশ কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স ১৯৯২ সালের মার্চের পরবর্তীতে সর্বোচ্চে এসেছে।   কোভিড-১৯ শুরুর পরবর্তীতে ব

গোল্ডের গরুত্বপূর্ণ কিছু সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্স

মার্কিন Treasury Yields বৃদ্ধির কারণে মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা গোল্ডের প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে। তবে আজ ইউরোপিয়ান সেশনে গোল্ডের প্রাইস কিছুটা বেড়ে ১৮১৩ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৩৮.২% এবং মাসিক চার্টে ফিবোনাসি ২৩.৬% অনুযায়ী ১৮১৪ প্রাইসে সংক্ষিপ্ত রেজিস্ট্যান্স হতে পারে। গোল্ডের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১৮১৩। অপরদিকে সাপ্তাহিক চার্টে ফিবোনাসি ৬১.৮% অনুযায়ী গতকালের নিন্ম প্রাইস ১৮০৭ সাপোর্ট হতে পারে। মাসিক চার্টে ফিবোনাসি ৩৮.৩% অন

নিউজিল্যান্ড ডলারের বিপরীতে মার্কিন ডলার দুর্বল হচ্ছে

আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ০.৬৭৯০ প্রাইসের কাছাকাছি অবস্থান করছে। গত তিনদিন নিউজিল্যান্ড ডলারের বিপরীতে মার্কিন ডলার শক্তিশালী হলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৬৮১০। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ০.৬৮৯০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ার ২০ ডিসেম্বরের নিন্ম প্রাইস ০.৬৭৫০ অতিক্রমে সক্ষম হলে ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে। পেয়ার ০.৬৭০০ সাপোর্ট অতিক্রমে সক্ষম হলে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী ২৪ ডিসেম্বরের নিন্ম প্রাইস ০.৬৬৫

বিয়ারিশ ডজি তৈরির পরবর্তীতে কমতে শুরু করেছে USDJPY

আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে USDJPY পেয়ারের প্রাইস কমে ১১৪.৩৫ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ডেইলি চার্টে দেখা যাচ্ছে, গতকাল পেয়ারটি বিয়ারিশ ডজি তৈরি করেছে। যা পেয়ারের প্রাইস কমার সম্ভাবনা তৈরি করেছিল। আজকের সেশনে পেয়ারের প্রাইস কমছে। পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে, ২০ DMA অনুযায়ী ১১৫.০০। অপরদিকে ৫০ DMA অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট দেখা হচ্ছে ১১৪.৩০।  ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে পেয়ারটি ১১৪.০০ সাপোর্টে যেতে পারে। ১০০ DMAঅনুযায়ী পেয়ার ১১৩.১৫ সাপোর্ট অতিক্রমের পরবর্তীতে ড

বৃদ্ধি পাচ্চে মার্কিন ডলারের প্রাইস

মার্কিন ডলারের প্রাইস গত তিনদিন বৃদ্ধি পেলেও আজ ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে কমছে। ফেডারেল রিজার্ভের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনাকে কেন্দ্র করে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ৯৫.৬৫ এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। ইউরোর বিপরীতে মার্কিন ডলার ৫০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী ১.১৩২৭ প্রাইসে অবস্থান করছে। যুক্তরাজ্যে মুদ্রাস্ফীতি ৫.২% ‍বৃদ্ধি পেয়েছে। ব্যাংক অব ইংল্যান্ড ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির প্রত্যাশা করেছেন। যা গত সপ্তাহে ডলারের বিপরীতে পাউন্ডকে শক

২০০ HMA এর নিচে অবস্থান করছে USDCHF

গত কয়েকদিন USDCHF পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি ০.৯১৬৭ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হতে পারে ০.৯১৫৫। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে পরবর্তী সাপোর্ট হতে পারে ০.৯০৭০। ১০০-HMA এবং ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ২৩.৬% অনুযায়ী ০.৯১৩৫ প্রাইসে সাপোর্ট দেখা যাচ্ছে। ২০০-HMA অনুযায়ী পেয়ারের রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৯১৮০ এবং পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৯১৮৫।  পেয়ারের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ০.৯২০৫ অ

৩ দিন EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও এশিয়ান সেশনে বৃদ্ধি পাচ্ছে

গত ৩ দিন EURUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজ বুধবার এশিয়ান সেশনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.১৩৩০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। এক্ষেত্রে রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১.১৩৮০। অপরদিকে পেয়ার ৫০ DMA অনুযায়ী ১.১৩২৫ সাপোর্ট অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১৩০০ সাপোর্টে যেতে পারে। পেয়ার ১.১২৩০ সাপোর্ট অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.১২০০সাপোর্টে যেতে পারে। অপরদিকে পেয়ারের আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১৬ নভেম্বরের রেজিস্ট্যান্স ১.১৩৪

তেলের প্রাইস বেড়ে ৭ বছরের সর্বোচ্চে অবস্থান করছে

রাশিয়া এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের উদ্বেগজনক ভূ-রাজনৈতিক সমস্যার মধ্যে ইরাক থেকে তুরস্ক পর্যন্ত একটি পাইপলাইনের বিভ্রাটের কারণে তেলের দাম চতুর্থ দিনে বেড়ে সাত বছরের উচ্চতায় পৌঁছেছে। ব্রেন্ট ক্রুড তেল প্রতি ব্যারেল বৃদ্ধি পেয়ে ৮৮.৯৫ ডলারের কাছাকাছি অবস্থান করছে। ২০১৪ সালের ১৩ অক্টোবর তেলের প্রাইস বেড়ে সর্বোচ্চ ৮৯.০৫ ডলারে উঠেছিল। ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট (WTI) তেলের প্রাইস বেড়ে প্রতি ব্যারেল ৮৬.৯৪ ডলারে অবস্থান করছে। ২০১৪ সালের ০৯ অক্টোবর পেয়ারের প্রাইস বেড়ে প্রতি ব্যারেল সর্বোচ্চ ৮৭.

গোল্ড যেসকল সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্সে বাধা পেতে পারে

গত সপ্তাহের শেষের দিকে গোল্ডের প্রাইস কমলেও সপ্তাহের প্রথমদিন বৃদ্ধি পেয়েছিল। আজ মঙ্গলবার গোল্ডের প্রাইস পুনরায় কমছে। বর্তমানে গোল্ড ১৮১২ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। গোল্ড চার্টে ৫০-DMA অনুযায়ী সাপোর্ট হতে পারে ১৮০৮। গোল্ডের পরবর্তী সাপোর্ট হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ১৮০৪। মাসিক চার্টে ফিবোনাসি ৩৮.২% অনুযায়ী ১৮০০ সাপোর্ট হতে পারে। অপরদিকে রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা যাচ্ছে, গতকালের নিন্ম প্রাইস ১৮১৩। ফিবোনাসি ২৩.৬% অনুযায়ী ১৮২০ রেজিস্ট্যান্স হতে পারে। ফরেক্স এবং কিপ্টোকারেন্

তৃতীয় দিন EURUSD পেয়ার ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে

EURUSD পেয়ারের প্রাইস তৃতীয় দিনের মতো কমে আজ মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশনে পেয়ারটি ১.১৩৮৫ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। অপরদিকে মার্কিন ডলারের প্রাইস তৃতীয় দিন বৃদ্ধি পেয়ে ৯৫.৩২ ডলারের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। মার্কিন ১০ এবং ৫ বছরের Treasury Yields দুবছরের সর্বোচ্চে এসেছে। যা EURUSD পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী করতে সহায়তা করছে। ফেডারেল রিজার্ভের নিউ ইয়র্ক প্রেসিডেন্ট জন উইলিয়ামের মন্তব্যে মার্কিন Treasury Yields এর উপর প্রভাব ফেলছে। যা গত তিনদিন পেয়ারের প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে। তবে ম

ডজি ক্যান্ডেল তৈরির পরবর্তীতে কমতে শুরু করেছে GBPJPY পেয়ারের প্রাইস

গত সপ্তাহের শেষের দিকে GBPJPY পেয়ারের প্রাইস কমলেও চলতি সপ্তাহের প্রথম দুদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজ মঙ্গলবার লন্ডন সেশনে পেয়ারটি ১৫৬.৫০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এক ঘন্টার চার্টে দেখা হচ্ছে, পেয়ারটি গত এক ঘন্টায় ডজি ক্যান্ডেল তৈরি করেছে এবং চলতি ঘন্টায় পেয়ারের প্রাইস কমতে শুরু করেছে। পেয়ারটি ডজি ক্যান্ডেল ২০০-HMA এর নিচে তৈরি করেছে। এর ফলে পেয়ারের বর্তমান রিকভারের ক্ষেত্রে ২০০-HMA রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে।  অপরদিকে পেয়ারের ডাউনট্রেন্ড শক্তিশালী হলে সেক্ষেত্রে ৫০-HMA অনুযায়ী

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

বিডিপিপস চ্যাট রুম

বিডিপিপস চ্যাট রুম

    চ্যাট করতে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।
    ×
    ×
    • Create New...