Jump to content

BDPIPS - Forex Bangladesh

SocGen অ্যানালাইসিস্ট: পরবর্তী মাসে ১.২০ প্রাইসের নিচে যেতে পারে পাউন্ড

সোসাইট জেনারেল এসএ কৌশলবিদ অলিভিয়ার কোরবারের মতে, ফেডারেল রিজার্ভের হার-বৃদ্ধির পথ ব্যাংক অফ ইংল্যান্ডের চেয়ে এগিয়ে যাওয়ার কারণে পাউন্ড মহামারীর পরবর্তীতে সর্বনিন্ম স্তরে নেমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কোরবার একটি নোটে লিখেছেন, ব্যাংক অফ ইংল্যান্ডের সাম্প্রতিক মন্দা সতর্কতা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আরও ৭৫ বেসিস-পয়েন্ট ইন্টারেস্ট হার বৃদ্ধির ক্রমবর্ধমান প্রত্যাশার সাথে মিলিত পাউন্ড খুব কাছাকাছি মেয়াদে ১.২০ এর নিচে নেমে যাওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছে। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেড ইন্টারেস্ট রেট

মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের পূর্বে ডলারের প্রাইস কমতে শুরু করেছে

তৃতীয় দিন মার্কিন ডলারের প্রাইস ধারাবাহিক কমছে। আজ বুধবার মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের পূর্বে ডলারের ডাউনট্রেন্ড আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজকের সেশনে প্রকাশিত মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্টের মাধ্যমে ফেডারেল রিজার্ভ কতটা আক্রমণাত্মক হবে তার ইঙ্গিত পাওয়া যেতে পারে। আর্টিকেল লেখার সময় মার্কিন ডলার ০.০৯২% কমে ১০৬.১৬-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। জুন ও জুলাই মাসে ফেড ব্যাক টু ব্যাক ৭৫ বেসিস পয়েন্ট বৃদ্ধির পর জুলাই মাসে মুদ্রাস্ফীতি কয়েক দশক থেকে হ্রাস পেতে চলেছে। এর ফলে ফেডারেল রিজার্ভের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ

সপ্তাহের সর্বোচ্চ থেকে কমতে শুরু করেছে USDJPY

আজ সোমবার ইউরোপিয়ান সেশনের প্রথমদিকে USDJPY ১৩৫.০০ প্রাইসে উঠলেও বর্তমানে প্রাইস কমে ১৩৪.৬৮-এর কাছাকাছি অবস্থান করছে। USDJPY পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে ১৩৪.০০। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১৩৩.৯০ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করার সম্ভাবনা রয়েছে। অপরদিকে রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে আজকের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩৫.০০। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে ১৩৫.৫০-১৩৫.৬০। চার ঘন্টার চার্টে ফিবোনাসি ৬১.৮% অনুযায়ী রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে ১৩৬.৬৫। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাক

এ সপ্তাহে বিটকয়েন সম্পর্কে যা জানতে হবে

বিটকয়েন ২০০-সাপ্তাহিক মুভিং অ্যাভারেজে (MA)-এর উপরে অবস্থান করছে। গত সপ্তাহে বিটকয়েন ২০০-সাপ্তাহিক মুভিং অ্যাভারেজের (MA) ২২৯০০ প্রাইসের উপরে ক্লোজ হয়ে ছিলো। তবে চলতি সপ্তাহে ক্লোজ হলে দ্বিতীয় সপ্তাহের মতো ২০০-MA এর উপরে ক্লোজ হবে। যা বিটকয়েনের বুলিশের সম্ভাবনা বাড়িয়ে দিতে পারে। বিটকয়েনের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে, ২৫-২৮ হাজার ডলার। Cointelegraph-এর একজন ক্রিপ্টোকারেন্সি বিশেষজ্ঞ মনে করেন বিটকয়েন পুনরায় ৩০ হাজার ডলারে যেতে পারে। বিটকয়েন ৩০ হাজার ডলার ব্রেকআউটে সক্ষম হরে সেক্ষ

বৃদ্ধি পাচ্ছে গোল্ডের প্রাইস

গত সপ্তাহের শেষের দিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধির কারণে গোল্ডের প্রতি আউন্স কমে ১৭৬৪ ডলারে নেমে ছিলো। তবে সপ্তাহের প্রথমদিন পুনরায় ডলারের দুর্বলতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। যা গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধিতে প্রভাব ফেলছে। শুক্রবার গোল্ডের প্রাইস কমার পিছনে মার্কিন ননফার্ম পে-রোলস অন্যতম। গত সপ্তাহের শেষের দিন প্রকাশিত জুলাই মাসের ননফার্ম রিপোর্ট প্রত্যাশার দ্বিগুন হওয়া ডলারের প্রাইস বেড়ে যায়। যা গোল্ডের প্রাইসে নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে। যেহেতু গোল্ড মার্কিন ডলারের প্রাইসের সাথে অনেকাংশে জড়িত। চলতি সপ্তাহে মার্কিন কনজ

মার্কিন জব রিপোর্ট কেন্দ্র করে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধির পর পুনরায় কমছে

শুক্রবার মার্কিন জব রিপোর্ট কেন্দ্র করে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও সপ্তাহের প্রথমদিন সোমবার পুনরায় ডলারের প্রাইস কমছে।মূলত গত সপ্তাহে প্রকাশিত জুলাই মাসের মার্কিন ননফার্ম পেরোলস রিপোর্ট প্রত্যাশার তুলনায় দ্বিগুন হওয়ায় ডলার শক্তিশালী হলেও পুনরায় ডলারের প্রাইস কমতে শুরু করেছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ মুদ্রাস্ফীতি মোকাবেলায় আরও ইন্টারেস্ট রেট বাড়াতে পারে। এক্ষেত্রে ডলারের প্রাইস বর্তমানে কমলেও ফেডারেল রিজার্ভের পদক্ষেপে তা বৃদ্ধি পেতে পারে। শুক্রবার ডলার বেড়ে ১০- দিনের সর্বো

ইলন মাস্ক: মুদ্রাস্ফীতি শীর্ষে থাকলেও মন্দা ১৮ মাস থাকবে

টেসলা এবং স্পেসএক্সের সিইও ইলন মাস্ক ২০২২ সালে টেসলার স্টকহোল্ডারদের বার্ষিক বৈঠকে মার্কিন অর্থনীতি, মুদ্রাস্ফীতি ও মন্দা সম্পর্কে মতামত শেয়ার করেছেন। মুদ্রাস্ফীতি সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তরে বলেন, সময়ের সাথে সাথে বিভিন্ন জিনিসের প্রাইস কোথায় যাচ্ছে সে সম্পর্কে আমরা মোটামুটি অন্তর্দৃষ্টি পাই। তিনি বলেন, আমরা লক্ষ লক্ষ গাড়ি তৈরি করছি। গাড়ি তৈরিতে পণ্যগুলোও উচ্চ মূল্যে বাই করতে হয়েছে। এর ফলে সময়ের সাথে সাথে গাড়ির প্রাইস পাচ্ছে। মাস্ক আরও উল্লেখ করেন, আমরা সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতি অতিক্রমে ও মন

বিশ্বব্যাপী ক্রিপ্টোকারেন্সি ATM বুথের সংখ্যা ৩৯ হাজার ছাড়িয়েছে

আগস্ট ২০২২-এর প্রথম সপ্তাহে বিশ্বব্যাপী পরিচালিত ডিজিটাল কারেন্সি ডিসপারসিং অটোমেটেড টেলার মেশিনের (ATM) সংখ্যা ৩৯ হাজার ছাড়িয়েছে। Coinatmradar.com –এর রেকর্ড অনুযাযী, প্রকৃতপক্ষে ৭৭টি দেশে ৬১৪টি ক্রিপ্টো এটিএম অপারেটরে ১৯,০১১টি ক্রিপ্টোকারেন্সি এটিএম ইনস্টল করা হয়েছে। ১ জানুয়ারি ২০১৭ সালে সারা বিশ্বে প্রায় ৯৬৯টি ক্রিপ্টো এটিএম ছিল এবং ঐ সময় থেকে ইনস্টলেশনগুলো বেশ দ্রুত বৃদ্ধি পেয়েছে। এটিএম বুথগুলোর মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৮৭.৯% বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্বের বাকি দেশগুলোতে ৪.৯% ও ই

USDCAD সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট (০৮-১২ আগস্ট, ২০২২)

ফেডারেল রিজার্ভের প্রত্যাশিত আক্রমনাত্মক ইন্টারেস্ট রেট USDCAD পেয়ারের বুলিশ অবস্থানকে আরও শক্তিশালী হতে পারে। মার্কিন ডলারের শক্তিশালী অবস্থান ও অস্টেলিয়ান ডলারের দুর্বল অবস্থান USDCAD পেয়ারকে গত সপ্তাহে প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করেছিলো। বিশেষজ্ঞদের মতে, পরবর্তী মাসগুলোতে মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি পেতে পারে। বৃদ্ধি পেলে সেক্ষেত্রে ফেড পুনরায় ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির করতে পারে। গত সপ্তাহে প্রকাশিত জুলাই মাসের মার্কিন জব রিপোর্টে কিছুটা উন্নতি দেখা গিয়েছে। প্রত্যাশা করা হয়েছিলো, জুলাই মাসে মা

USDCHF সাপ্তাহিক ফরেকাস্ট (০৮-১২ আগস্ট, ২০২২)

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রাস্ফীতি বাড়লেও ডলারের ঊর্ধ্বমূখী অবস্থান অব্যাহত থাকতে পারে কারণ মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধির ফলে দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেট আরও বাড়াতে পারে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এ সপ্তাহে USDCHF পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে। মার্কিন শ্রম বিভাগের কর্মসংস্থান প্রতিবেদন অনুসারে মার্কিন ইকোনমিতে ৫ লক্ষ ২৮ হাজার জব যোগ হয়েছে। যা প্রত্যাশিত ২ লক্ষ ৫০ হাজারের দ্বিগুন ছিলো। মার্কিন রিপোর্টকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ডলারের প্রাইস বেড়ে ১০৬.৮১-তে উঠেছিলো। মার্কিন ননফার্ম পেরোলস

ব্যাংক অফ ইংল্যান্ডের ইন্টারেস্ট রেটে প্রভাবিত হতে পারে GBPUSD

আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ০৫:০০ টায় ব্যাংক অফ ইংল্যান্ড তাদের মুদ্রানীতি ডিসিশন ঘোষণা করবে। ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতির লাগাম টেনে ধরতে ডিসেম্বরের পর থেকে ষষ্ঠবারের মতো ব্যাংক রেট বাড়াতে প্রস্তুত এমনটাই মনে হচ্ছে। ব্রিটিশ মুদ্রাস্ফীতি ইতিমধ্যে ৪০ বছরের সর্বোচ্চে পৌঁছেছে। ব্যাংক অফ ইংল্যান্ড জুন মাসে বলেছিল মুদ্রাস্ফীতির চাপ আরও স্থায়ী হলে তাদের মুদ্রানীতি কঠিন করবে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ব্রিটিশ কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেট ৫০ বিপিএস বৃদ্ধি করবে। ১৯৯৫ সালের পরবর্তীতে যা সর্বোচ্চ। সুতরাং আজ

গোল্ডের মুভমেন্টে গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্স

তৃতীয় সপ্তাহ গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে আজ ইউরোপিয়ান সেশনে ১৭৮০ ডলারের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এ সপ্তাহে গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধির পেছনে চীন, তাইওয়ান ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা কাজ করছে। কিছু বিশেষজ্ঞদের মতে, গোল্ডের প্রাইস আরও বৃদ্ধি পেতে পারে, যদি চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের উত্তেজনা অব্যাহত থাকে। চার ঘন্টার চার্টে বলিঞ্জার ব্যান্ড অনুযায়ী ১৭৮০ প্রাইসে রেজিস্ট্যান্স দেখা যাচ্ছে। সাপ্তাহিক চার্টে ১৭৮৬ প্রাইসে রেজিস্ট্যান্স এবং ডেইলি চার্টে ৫০ SMA অনুযায়ী পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১

০.৮৪৪০ অতিক্রমে EURGBP-এর আপট্রেন্ড শক্তিশালী হতে পারে

আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুতে ০.৮৩৬০ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে EURGBP। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে মঙ্গলবারের নিন্ম প্রাইস ০.৮৩৪০। RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে, যা প্রাইস কমার নির্দেশ দিচ্ছে। পেয়ারের পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে ০.৮৩৮৫। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী ০.৮৩৮৫ প্রাইসে রেজিস্ট্যান্স দেখা যাচ্ছে। অপরদিকে পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে দেখা যাচ্ছে ২৩ মার্চের নিন্ম প্রাইস ০.৮২৯৫। ০.৮২৯৫ ব্রেকে সক্ষম হলে এক্ষ

AUDUSD-এর শক্ত রেজিস্ট্যান্স দেখা হচ্ছে ০.৭০৪০

চলতি সপ্তাহের মঙ্গলবার AUDUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও গত দুদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আজ বৃহস্পতিবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকে পেয়ারটি ০.৬৯৬৩-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। RSI ইনডিকেটরে সবুজ সিগন্যাল দেখাচ্ছে, যা প্রাইস বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিচ্ছে। অপরদিকে MACD ইনডিকেটর ৫০ পয়েন্টের উপরে অবস্থান করছে। এর ফলে প্রাইস বৃদ্ধির সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে।   পেয়ারটির তাৎক্ষণিক রেজিস্ট্যান্স দেখা হচ্ছে ০.৭০০০। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ০.৭০৪০। AUDUSD এর ক্ষেত্রে ০.৭০৪০ গুরুত্

APE টোকেন ২ মাসের সর্বোচ্চে, UNI এপ্রিলের পর সর্বোচ্চ প্রাইসে

২ দিন প্রাইস কমার পর Apecoin ২ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ প্রাইসে উঠেছে। ক্রিপ্টো মার্কেটের বড় মুভারের মধ্যে বুধবারে ক্রিপ্টোগুলোর মধ্যে Uniswap অন্যতম, টোকেনটির প্রাইস ১৪%-এর বেশি বেড়েছে। Apecoin (APE) বুধবারের উল্লেখযোগ্য টোকেনগুলো মধ্যে Apecoin ছিলো অন্যতম। ঐদিন টোকেনটির প্রাইস বেড়ে ৭.৪১ এর কাছাকাছি উঠেছিলো। আজ বৃহস্পতিবার আর্টিকেল লেখার সময় টোকেনের প্রাইস বেড়ে ৭.৫৩ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। টোকেনটি ইতিমধ্যে ২৫ মে-এর রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমে সক্ষম হয়েছে। RSI ইনডিকেটরে অনুযায়ী

যে কারণে ডলারের প্রাইস বাড়তে পারে

ফেডারেল রিজার্ভের আক্রমনাত্মক রেট বৃদ্ধির ইঙ্গিত ও তাইওয়ানের উপর মার্কিন-চীনের উত্তেজনায় আজ বুধবার ডলারের প্রাইস কমছে। গতকাল চীন-যুক্তরাষ্ট্র উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে পুনরায় কমতে শুরু করেছে। ফেডারেল রিজার্ভের কর্মকর্তারা মঙ্গলবার ইঙ্গিত দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ১৯৮০ দশকের পর থেকে সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির সম্মুখীন হচ্ছে। এর ফলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক রেট বাড়াতেও ঐক্যবদ্ধ। এমন সম্ভাবনা ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে প্রভাব ফেলছে। আজ বুধবার মার্কিন ডলারের

USDCHF সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্স

১৫ দিনের মতো USDCHF পেয়ারের প্রাইস কমলেও গতকাল থেকে বৃদ্ধি পেতে শুরু করেছে। আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকেও পেয়ারটি ০.৯৫৭১ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এক ঘন্টার চার্টে ২০০-HMA অনুযায়ী ১৪ জুলাইয়ের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯৫৯০ রেজিস্ট্যান্স হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ২২ জুলাইয়ের নিন্ম প্রাইস ০.৯৬০০। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ০.৯৭০০ অতিক্রমের পরবর্তীতে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী ০.৯৭৩০ রেজিস্ট্যান্সে যেতে পারে। অপরদিকে সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছ

EURGBP রিকভারের জন্য ০.৮৩৮০ অতিক্রম করা প্রয়োজন

গত সাতদিন EURGBP পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজকের সেশনে রিকভারের চেষ্টা করছে। আর্টিকেলটি লেখার সময় পেয়ার ০.৮৩৪৮ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। RSI-ইনডিকেটর অনুযায়ী ক্রোস কারেন্সি পেয়ারটি নিরপেক্ষ অবস্থানে রয়েছে। এক্ষেত্রে প্রাইস বৃদ্ধি বা কমার সম্ভাবনা রয়েছে। ডেইলি চার্টে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী ০.৮৩৮০ রেজিস্ট্যান্স হতে পারে। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৮৪০০। ২০০-DMA অনুযায়ী সাপোর্ট হতে পারে ০.৮৪৪৫। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৭৮.৬% অনু

NZDUSD প্রাইস অ্যানালাইসিস

আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুতে NZDUSD ০.৬২৪০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। NZDUSD-এর সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১০০-SMA। পেয়ারটি দুসপ্তাহ ধরে আপট্রেন্ডে থাকলেও গতকাল এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে লাভ অর্জন করেছে। MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী লাল রঙে দেখা যাচ্ছে যা প্রাইস কমার নির্দেশ দিচ্ছে এবং RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ারটি ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। এর ফলে প্রাইস কমার সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে। NZDUSD পেয়ারের বর্তমান রেজিস্ট্যান্স হিসেবে দেখা হচ্ছে ০.৬২৭০। আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ০.৬৩৪৫ অতিক্রমের পরবর্

১৩৩.০০ ব্রেকের পরবর্তীতে ৫০-EMA রেজিস্ট্যান্স হতে পারে USDJPY

আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনে USDJPY ১৩৩.০০-প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। মঙ্গলবার পেয়ারটি চলতি সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে বড় দৈনিক লাভ অর্জন করেছে। চার ঘন্টার চার্টে দেখা যাচ্ছে, পেয়ারটি ১০০-EMA থেকে বাউন্স করে পরবর্তীতে প্রাইস ধরে রাখতে না পেরে পুনরায় ৫০-EMA এর কাছাকাছি থেকে পুনরায় প্রাইস কমতে শুরু করেছে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮%-অনুযায়ী USDJPY পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১৩১.৩০। ১০০-EMA অনুযায়ী পরবর্তী সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে ১৩০.৪০। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, পেয়া

DOT ৮.৪৫ রেজিস্ট্যান্সের নিচে ও CRO কয়েক সপ্তাহের সর্বোচ্চে

Polkadot (DOT) মঙ্গলবার টানা দ্বিতীয় সেশনে ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে, কারণ টোকেনটি মূল রেজিস্ট্যান্স লেভেল ৮.৪৫ অতিক্রমে ব্যর্থ হয়েছে। যদিও DOT ১০ জুনের পরবর্তীতে সর্বোচ্চ প্রাইস ৯.২৩-তে উঠলেও দুই দিনেরও কম সময়ের মধ্যে রেজিস্ট্যান্স লেভেলটি অতিক্রম করে নিচে নামতে শুরু করে। বিটকয়েনসহ গ্লোবাল মার্কেট ক্যাপ গতকাল ১০% কমেছে। Cronos (CRO) প্রাইস বৃদ্ধিতে সক্ষম হয়েছিলো, এর ফলে টোকেনটি ৭ সপ্তাহের সর্বোচ্চে হিট করেছে। চলতি সপ্তাহের শুরুতে CRO ০.১৩৬ ডলারে ট্রেডিং শুরু করলেও, গতকাল বৃদ্ধ

তাইওয়ান উত্তেজনায় গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে

বেশ কয়েক সপ্তাহ গোল্ডের প্রাইস কমলেও গত ৩ সপ্তাহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। গোল্ডের প্রাইস বৃদ্ধির পেছনে নতুন করে তাইওয়ান, চীন ও মার্কিন উত্তেজনা কাজ করছে। মার্কিন হাউস অফ রিপ্রেজেন্টেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি সন্ধ্যার দিকে তাইওয়ানে পৌঁছানোর কথা রয়েছে। চীন এবং তাইওয়ান উভয়ই তাদের সামরিক সেক্টর শক্তিশালী করছে। তীব্র ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনা ঐতিহ্যবাহী নিরাপদ সম্পদ হিসেবে পরিচিত গোল্ডের প্রাইস বাড়িয়ে দিচ্ছে। এছাড়াও সাম্প্রতি মার্কিন ট্রেজারি সেক্টরের উপর ডলারের নেতিবাচক প্রভাব গোল্ডের প্রাইস বাড়িয়ে

Dogecoin-কি তার মূল্য হারাবে?

ক্রিপ্টোকারেন্সিতে যারা ট্রেডিং করছে। তাদের অধিকাংশ মেম ক্রিপ্টোকারেন্সি ডোজকয়েনের সাথে কোনো না কোনোভাবে পরিচিত। অনেকে হয়তো ডোজকয়েনের নাম শুনে ট্রেডিং শুরু করেছেন। মেম ক্রিপ্টোকারেন্সির জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে Dogecoin। কয়েন মার্কেটে ক্যাপের ভিত্তিকে কয়েনটি ১০ নাম্বারে অবস্থান করছে। ডোজকয়েনের প্রাইস ২০১৫ সালের মে মাসের ৭ তারিখে কমে ০.০০০০৮৫৪৭-তে গিয়েছিলো। পরবর্তীতে মাত্র ছয় বছরের ব্যবধানে প্রাইস বেড়ে ২০২১ সালের ৮ মে উঠেছিলো ০.৭৩৭৬ প্রাইসে। যদিও বর্তমানে কয়েনটি ০.০৬৬১২ প্রাইসের কাছাকাছি মুভম


বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×
×
  • Create New...