Jump to content

BDPIPS - Forex Bangladesh

১৬৮৮ সাপোর্টের অপেক্ষায় গোল্ড

টানা ৩ সপ্তাহ গোল্ডের প্রাইস কমলেও গত সপ্তাহে বৃদ্ধি পেয়েছিলো। এ সপ্তাহে পুনরায় গোল্ডের প্রাইস কমতে শুরু করেছে। মার্কিন কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স রিপোর্ট প্রত্যাশার উপরে আসায় ফেড পুনরায় ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধি করবে। এমন উত্তেজনা বৃদ্ধির ফলে গোল্ডের প্রাইস কমতে শুরু করেছে। মঙ্গলবার প্রকাশিত মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি বা কনজিউমার প্রাইস ইনডেক্স রিপোর্ট প্রত্যাশার উপরে আসায় গত এক সপ্তাহের মধ্যে মঙ্গলবার গোল্ডের প্রাইস সবথেকে বেশি কমেছে। মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে ফেড আরও বড় আকারে এবং দ্রুত ইন্টারেস্ট রেট

ফেডের রেট বৃদ্ধি মুদ্রাস্ফীতির জন্য ঝুঁকিপূর্ণ এলন মাস্ক

টেসলা ও স্পেস এক্সের সিইও এলন মাস্ক একটি টুইট করে বলেন, ফেডের রেট বৃদ্ধি মুদ্রাস্ফীতির ক্ষেত্রে ঝুঁকিপূর্ণ। মাস্কের টুইটটি সবার নজর কেড়েছে। পোস্টটিতে ৮০ হাজার লাইক ও প্রায় ৭ হাজার বার রিটুইট করা হয়েছে। টুইটের প্রেক্ষিতে বলা হয়, কেউ কেউ টেসলার সিইওর সাথে একমত হয়ে মন্তব্যে প্লাবিত হয়েছে। অন্যরা জোর দিয়ে বলেন, মার্কিন অর্থনীতি সম্পর্কে তিনি ভুল ধারণা করেছে। রিয়েল ভিশনের সিইও ও ক্রিপ্টো বিনিয়োগকারী রাউল পাল মাস্কের সাথে একমত হয়েছে। Northmantrader-এর প্রতিষ্ঠাতা ও প্রধান মার্কেট কৌশ

মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে

মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশনের শুরুর দিকে ডলারের প্রাইস কমলেও রিপোর্টের পরবর্তীতে বৃদ্ধি পেয়েছে। গতকাল প্রকাশিত মার্কিন সিপিআই রিপোর্টে দেখা যাচ্ছে, আগস্টে মুদ্রাস্ফীতি -০.১% থেকে বেড়ে ০.১% এসেছে। বাৎসরিক ব্যবধানে ৮.১% থেকে বেড়ে ৮.৩% এসেছে। এছাড়াও ফুড ও অ্যানার্জি সেক্টরে আগস্টে ০.৩% থেকে বেড়ে ০.৬% ও বাৎসরিক ব্যবধানে ৬.১% থেকে বেড়ে ৬.৩% এসেছে। মার্কিন মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্ট শক্তিশালী হওয়ার কারণে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। এর ফলে আগামী

বিশ্ব ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ইকোনমিক বিপর্যয়ের পূর্বে ক্রিপ্টোতে বিনিয়োগ করা উচিত

রিচ ড্যাড পুওর ড্যাডের লেখক রবার্ট কিয়োসাকি তার রিচ ড্যাড কমিউনিটি মেলিং লিস্টের গ্রাহকদের বলেন, বিশ্ব ইতিহাসের সবচেয়ে বড় ইকোনমিক দুর্ঘটনার পূর্বে ক্রিপ্টোতে বিনিয়োগ করা উচিত।রিচ ড্যাড পুওর ড্যাড বইটি ১৯৯৭ সালে কিয়োসাকি ও শ্যারন লেচেটারের মাধ্যমে লেখা হয়। বইটি ছয় বছরেরও বেশি সময় ধরে নিউইয়র্ক টাইমসের সেরা বিক্রেতার তালিকায় রয়েছে। ১০৯টিরও বেশি দেশে ৫১টিরও বেশি ভাষায় ৩২ মিলিয়নেরও বেশি কপি সেল হয়েছে। কিয়োসাকি মেইলিং লিস্ট গ্রাহকদের উদ্দেশ্যে লিখেছেন: আমি ভবিষ্যদ্বাণী করছি বিশ্বের ইতিহাসে সবচেয়

সপ্তাহের নিন্ম প্রাইসে USDCAD

গতকাল USDCAD পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও আজকের সেশনে কমতে শুরু করেছে। বর্তমানে পেয়ারটি সপ্তাহের নিন্ম প্রাইস ১.২৯০০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে।গতকাল অর্থাৎ ট্রেডিং সপ্তাহের তৃতীয়দিন মার্কিন ডলারের প্রাইস বেড়ে দুই দশকের সর্বোচ্চে উঠলেও আজকের সেশনে সিম্পোজিয়াম হোল ইভেন্ট কেন্দ্র করে কমতে শুরু করেছে। এর ফলে USDCAD সপ্তাহের নিন্ম প্রাইসে মুভমেন্ট করছে। ৪-ঘন্টার মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১.২৭২৮। অপরদিকে চার ঘন্টার চার্টে ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% অনুযায়ী রেজিস্ট্যা

জ্যাকসোন হোল সিম্পোজিয়ামের পূর্বে ডলারের প্রাইস কমছে

চলতি সপ্তাহে মার্কিন ডলারের প্রাইস বেড়ে দুই দশকের সর্বোচ্চ প্রাইসে উঠলেও জ্যাকসন হোল সিম্পোজিয়াম রিপোর্টের পূর্বে পুনরায় প্রাইস কমছে।আজকের সেশনে মার্কিন ডলার ০.৫% কমে বর্তমানে ১০৮.০৬২ প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। যদিও গতকাল ২০০২ সালের পরবর্তীতে ডলারের প্রাইস বেড়ে সর্বোচ্চ ১০৯.২৯-তে পৌঁছেছে। গত এক সপ্তাহ বা তার বেশি কিছু সময় ফেড কর্মকর্তাদের মন্তব্যে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়েছিলো। ফেড কর্মকর্তারা ইঙ্গিত দিচ্ছে, কেন্দ্রীয় ব্যাংক ৪০ বছরের সর্বোচ্চ মুদ্রাস্ফীতির সাথে আক্রমনাত্মক ইন্টারেস্ট

প্রত্যাশার উপরে জার্মান জিডিপি ইউরো ডলারকে সমতায় এনেছে

EURUSD বেশ কয়েকদিন ডলারের সমতার নিচে থাকলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পেয়ে সমতায় ফিরে এসেছে। বর্তমানে EURUSD পেয়ার ১ ডলারের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। আজ বৃহস্পতিবার EURUSD পেয়ার ০.২২% বৃদ্ধি পেয়ে ১.০০১৮ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। জ্যাকসন হোল সিম্পোজিয়ামের সময় প্রধান কারেন্সি পেয়ারের মুভমেন্ট প্রভাবিত হতে পারে। আজকের সেশনে দ্বিতীয় প্রান্তিকের জার্মান জিডিপি ডাটা EURUSD পেয়ারকে প্রভাবিত করছে। প্রথম প্রান্তিকে জার্মান জিডিপি অপরিবর্তনীয় থাকলেও দ্বিতীয় প্রান্তিকে ০.১% বৃদ্ধি পেয়েছে। বাৎসরিক ব্যবধানে ১.

 ১.১৮০০ সাপোর্ট কেন্দ্র করে মুভমেন্ট করছে GBPUSD

গতকাল GBPUSD পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধি পেয়ে ১.১৮৩০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। বর্তমানে GBPUSD-এর সাপোর্ট হিসেবে কাজ করছে ১.১৮০০। MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার বুলিশ সিগন্যাল দিচ্ছে। ১৪ দিনের RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী, পেয়ার ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। এক্ষেত্রে প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে পেয়ার ১.১৮৫০ রেজিস্ট্যান্স অতিক্রমে সক্ষম হলে সেক্ষেত্রে ১.১৮৮০ শক্ত রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% অনুযায়ী, পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে ১

পাওয়েলের আলোচনায় পুনরায় বৃদ্ধি পেতে পারে ডলারের প্রাইস

মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েলের আলোচনাকে কেন্দ্র করে শুক্রবার ডলারের মুভমেন্ট বৃদ্ধি পেতে পারে। এছাড়াও বিনিয়োগকারীরা মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধির ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের আক্রমনাত্মক অবস্থান লক্ষ্য করছে। যদিও মুদ্রাস্ফীতি ও ফেডারেল রিজার্ভের আক্রমনাত্মক অবস্থানকে কেন্দ্র করে ডলার ২০ বছরের সর্বোচ্চে মুভমেন্ট করছে। শুক্রবার ফেড প্রেসিডেন্ট জেরেমি পাওয়েল মুদ্রাস্ফীতি বৃদ্ধি করবে নাকি কমাবে এমন ইঙ্গিত দিতে পারে। যা ডলারের প্রাইসে প্রভাব ফেলতে পারে। বিনিয়োগকারীর

২ দশকের নিন্ম প্রাইসে ইউরো

সম্প্রতি মার্কিন ডলার উচ্চ প্রাইস থেকে নিচে নামতে শুরু করেছে। ক্রমবর্ধমান মন্দার আশঙ্কায় ইউরো চাপের মধ্যে রয়েছে।হতাশাজনক মার্কিন সার্ভিস ও মেনুফেকচারিং পিএমআই গতকাল ডলারের প্রাইস কমার ক্ষেত্রে সহায়তা করেছিলো। তবে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনা মার্কিন ডলারকে দুই দশকের মধ্যে ইউরোর বিপরীতে শক্তিশালী স্তরে ঠেলে দিয়েছে। রাশিয়া নর্ড স্ট্রীম ১ পাইপলাইন থেকে গ্যাস সরবরাহ মাসের শেষের ৩দিন বন্ধ রাখবে এমন ঘোষণা বিনিয়োগকারীদের উদ্বেগ বাড়িয়ে দিচ্ছে। যা ইউরোর প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে

মার্কিন ডাটা প্রত্যাশার নিচে আসায় ডলারের প্রাইস কমছে

ফরেক্স ট্রেডিং সপ্তাহের প্রথমদিন সোমবার ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে দুই দশকের সর্বোচ্চে উঠলেও মঙ্গলবার কিছুটা কমেছে। আজ বুধবার পুনরায় প্রাইস বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। ডলারের প্রাইস কমার পিছনে আগস্টে প্রত্যাশার নিচে দুর্বল ইকোনমিক ডাটা কাজ করছে। এছাড়াও মঙ্গলবার কিছু মার্কেটে এমন একটি নিউজ কাজ করেছিলো যে ফেড ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধির চক্র থেকে সরে আসতে পারে। তা সাময়িক সময়ের জন্য এর ফলে ডলারের প্রাইস কমেছে। যদিও গতকাল ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পেয়ে ১০৯.২৭ সেন্টে উঠেছিলো যা ২ দশকের সর্বোচ্চ। উক্ত প্রাইসে ডলা

জার্মান অ্যানার্জি ক্রাইসিসে ০.৮৪২০ প্রাইসে EURGBP

চলতি সপ্তাহের প্রথম দুদিন EURGBP পেয়ারের প্রাইস কমলেও আজকের সেশনে বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। আজ বুধবার টোকিও সেশনে পেয়ারটি ০.৮৪১২-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ইউরোজোনের প্রধান ইকোনমিক শক্তিশালী দেশ জার্মান অ্যানার্জি সংকটে থাকলেও ব্রিটিশ পাউন্ডের বিপরীতে ইউরো প্রাইস বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। বিনিয়োগকারীদের ইউরো ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে সচেতন হওয়ার প্রয়োজন। রাশিয়া আগস্টের শেষ তিন দিনের জন্য ইউরোপে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেবে যা বাল্টিক সাগরের নীচে নর্ড স্ট্রীম ১ পাইপলাইন মেরামতের জন্য। ক

 ১৩৬.০০ প্রাইসে যাচ্ছে USDJPY

USDJPY মাসের সর্বোচ্চ প্রাইসে ওঠার পরবর্তীতে দ্বিতীয় দিনের মতো বিয়ারিশে রয়েছে। আজ বুধবার ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে পেয়ারটি ১৩৬.৩৫-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। চার ঘন্টার চার্টে ১৪ দিনের RSI ইনডিকেটর অনুযায়ী পেয়ার ৫০ পয়েন্টের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। যা প্রাইস কমার নির্দেশ দিচ্ছে। এছাড়াও চার ঘন্টার চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী মার্কেট বিয়ারিশের সিগন্যাল দিচ্ছে। পেয়ারের বর্তমান সাপোর্ট দেখা হচ্ছে ১১ আগস্টের নিন্ম প্রাইস ১৩৬.১৫।  ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৬১.৮% অনুযায়ী, সাপোর্ট হতে পারে ১৩৬.০০।

মার্কিন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ ক্রিপ্টোকে অন্যান্য ক্যাপিটাল মার্কেটের মতো বিবেচনা করছে

মার্কিন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (SEC) চেয়ারম্যান গ্যারি গেনসলার শুক্রবার ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে ক্রিপ্টো সম্পদ সম্পর্কে কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ক্রিপ্টো মার্কেটকে অন্যান্য ক্যাপিটাল মার্কেট থেকে ভিন্নভাবে বিবেচনা করার কোনো কারণ নেই। এটি একটি ভিন্ন প্রযুক্তির ব্যবহার । গেনসেলার আরও বলেন, সম্প্রতি মার্কেটের ঘটনাগুলো থেকে বোঝা যাচ্ছে ক্রিপ্টো সংস্থাগুলো সিকিউরিটিজ আইন মেনে চলে। কিছু ক্রিপ্টো ঋণদান প্ল্যাটফর্ম তাদের বিনিয়োগকারীদের অ্যাকাউন্ট হিমায়িত করেছে বা প্ল্যাটফর্মগুলো দেউলিয়া

EURJPY পরবর্তী সাপোর্ট-রেজিস্ট্যান্স

EURJPY-এর প্রাইস টানা দ্বিতীয় দিনের মতো কমে ১৩৬.৩০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। যদিও আজকের সেশনে পেয়ারটি সর্বনিন্ম ১৩৫.৭০ লেভেলে স্পর্শ করেছিলো। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ক্রোস কারেন্সি পেয়ারটি ১০ আগস্টের সর্বোচ্চ প্রাইস ১৩৮.৪০ পুনরায় যেতে পারে। ৫৫ দিনের SMA অনুযায়ী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ১৩৯.২৬। অপরদিকে ২০০ দিনের SMA অনুযায়ী ১৩৪.১২ সাপোর্ট হিসেবে কাজ করতে পারে।   EURJPY ডেইলি চার্ট

ইরানে ক্রিপ্টোর উত্থানে ডলারের আধিপত্য কমতে পারে

ইরানের ইমপোর্ট গ্রুপ ও বিদেশী কোম্পানির প্রতিনিধিদের সমিতি (ইমপোর্ট অ্যাসাসিয়েশন) আলিরেজা মানাঘেবি শনিবার দেশটির ক্রিপ্টো আইন নিয়ে আলোচনা করে স্থানীয় গনমাধ্যমকে জানিয়েছে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলোর জন্য একটি স্টেবল ক্রিপ্টো রেগুলেশন করা উচিত যাতে আমদানির জন্য পেমেন্টের উপায় হিসেবে সফলভাবে ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলো ব্যবহার করা যায়। মনোঘেবি আরও বলেন: আমাদের প্রধান ও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উদ্বেগ হল নতুন পদ্ধতিটি কিছু লোকের দ্বারা কাজে লাগানো যাবে না। মনোঘেবি উল্লেখ করেন, ইরান সরক

UK/US রিপোর্টের পূর্বে বছরের নিন্ম প্রাইসে GBPUSD

UK/US রিপোর্টের পূর্বে GBPUSD-এর প্রাইস কমে ২৯ মাসের সর্বনিন্মে মুভমেন্ট করছে।  আজকের সেশনে বিনিয়োগকারীদের নজর থাকবে UK/US রিপোর্টের দিকে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, আগস্টে সার্ভিস পিএমআই ৫২.৬ থেকে কমে ৫২ পয়েন্টে আসতে পারে। এছাড়াও আগস্টে মেনুফেকচারিং পিএমআই ৫১.২ থেকে কমে ৫০.৫ পয়েন্ট আসতে পারে। উল্লেখিত রিপোর্টগুলো ব্রিটিশ পাউন্ডের প্রাইস কমার ক্ষেত্রে আরও সহায়ক হতে পারে। অপরদিকে আজকের মার্কিন ইভেন্টগুলোর মধ্যে মার্কিন হোম সেলস রিপোর্টকে গুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, যুক্তরাজ্যে

মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯৬৬০ ব্রেকআউটের দিকে USDCHF

বেশ কিছু দিন USDCHF পেয়ারের প্রাইস কমেলেও গত ছয়দিন ধারাবাহিকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারটি গত মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ০.৯৬৬০ ব্রেকআউটের অপেক্ষায় রয়েছে। ইতিমধ্যে পেয়ারটি ৫০-DMA অতিক্রমে করে ১০০- DMA এর দিকে যাচ্ছে। ডেইলি চার্টে MACD ইনডিকেটর অনুযায়ী বুলিশ সিগন্যাল দিচ্ছে। তবে ৫০-DMA অনুযায়ী ০.৯৬২৭ গুরুত্বপূর্ন সাপোর্ট হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। পেয়ারের পরবর্তী সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১০০- DMA অনুযায়ী ০.৯৬৬৫। ফিবোনাসি রিট্রেসমেন্ট ৫০% ও ৬১.৮% অনুযায়ী রেজিস্ট্যান্স হতে পারে ০.৯৭১০

ডজি ক্যান্ডেলের পরবর্তীতে পুনরায় কমছে GBPJPY

আজ মঙ্গলবার ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে GBPJPY পেয়ারের প্রাইস কমে ১৬০.৯০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। গতকাল সোমবার ডজি ক্যান্ডেল তৈরির পরবর্তীতে প্রত্যাশা করা হয়েছিলো প্রাইস বৃদ্ধি পেতে পারে। আজ ইউরোপিয়ান সেশনের পূর্বে প্রথমদিকে পেয়ারের প্রাইস বৃদ্ধি পেলেও পুনরায় কমতে শুরু করেছে। ডেইলি চার্টে দেখা যাচ্ছে, পেয়ারটি ৫০, ২০ ও ১০০ দিনের EMA-এর নিচে মুভমেন্ট করছে। যা প্রাইস কমার নির্দেশনা দিচ্ছে। বর্তমানে পেয়ারের সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে ১৬০.৪৩। ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে সেক্ষেত্রে ১৫ আগস্টের নিন্ম প

ইউরোর প্রাইস কমে দু’দশকের সর্বনিন্মে

আজ মঙ্গলবার ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং ইউরোপের বৃহত্তর ইকোনমিক প্রবৃদ্ধি উদ্বেগের মুখোমুখি হওয়ার কারণে ইউরো প্রায় দুই দশকের সর্বনিন্ম প্রাইসে নেমে এসেছে। বর্তমানে ইউরোর প্রাইস কমে ০.৯৯২০-এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। যদিও আজকের সেশনে সর্বোচ্চ বেড়ে ০.৯৯৪৯ প্রাইসে উঠেছিলো। ২০০২ সালে ইউরোর প্রাইস কমে ০.৯৯২৬-তে নেমেছিলো। রাশিয়া মাসের শেষের দিকে ৩ দিন নর্ড স্ট্রিম ১ পাইপলাইনের মাধ্যমে ইউরোপে প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করবে। এমন সম্ভাবনা ইউরোর প্রাইসে পূর্ব থেকে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।

২০ বছরের মধ্যে দ্বিতীয় বার মার্কিন ডলারের নিচে ইউরো

সোমবার গোল্ড ও সিলভারের প্রাইসে নিন্মমূখী চাপ অনুভূত হয়েছে। ঐদিন গ্লোবাল ক্রিপ্টোকারেন্সি মার্কেট ১.৪% কমে ১ ট্রিলিয়ন ডলারের সামান্য উপরে ছিলো। সপ্তাহের শুরুতে ইউরো ২০ বছরের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো মার্কিন ডলারের নিচে নেমেছে। আর্টিকেল লেখার সময় ডলারের বিপরীতে ইউরোর প্রাইস কমে ০.৯৯৪১ এর কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। ১২ জুলাই ইউরোর বিপরীতে ডলার সমান প্রাইসে নেমে এসেছিলো। অপরদিকে সোমবার ২২ আগস্ট ডলার আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখে ১০৯.০২৫ প্রাইসে উঠেছিলো। রয়টার্স প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২২ আগস্ট ইউরোর পতন জ্বালান

জ্যাকসন হোল সিম্পোজিয়ামের আগে বিটকয়েনের প্রাইস সাপ্তাহে ১০% কমেছে

গত সপ্তাহে বিটকয়েনের প্রাইস ১০%-এর বেশি কমেছে, যা গত দুমাসের মধ্যে সবচেয়ে বড় পতন। অ্যানালাইসিস্টদের ধারণা মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের ইভেন্ট ও শুক্রবারের জ্যাকসন হোল সিম্পোজিয়াম রিপোর্টের পূর্বে বিটকয়েন বিয়ারিশ অব্যাহত রাখতে পারে। কয়েনবেসের প্রতিষ্ঠানিক গবেষণার প্রধান ডেভিড ডুয়ং-এর মতে, ডেইলি চার্টে বিটকয়েন বিয়ারিশে রয়েছে এবং স্বল্প মেয়াদে বিটকয়েন বিয়ারিশে থাকতে পারে।   ডুওং সাপ্তাহিক মার্কেট নিউজে উল্লেখ করেন, আগামী কয়েক সপ্তাহ বিটকয়েন ২০,৮৩০ ও ১৯,২৩০ প্রাইসে পুনরায় রিট

মাসের সর্বোচ্চ প্রাইসে USDCAD

আজ ইউরোপিয়ান সেশনের শেষের দিকে USDCAD পেয়ারের প্রাইস বেড়ে মাসের সর্বোচ্চে মুভমেন্ট করছে।  অপরিশোধিত তেলের প্রাইস কমার ফলে USDCAD -এর প্রাইস বৃদ্ধি পাচ্ছে। রাশিয়ান তেল আমদানিতে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের নিষেধাজ্ঞা ইউরোর প্রাইস কমাতে সহায়তা করছে। যা কানাডিয়ান ডলারের উপরও নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে। মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ ইন্টারেস্ট রেট বৃদ্ধি অব্যাহত রাখবে এমন সম্ভাবনা মার্কিন ডলারের প্রাইস বাড়িয়ে দিচ্ছে। এর ফলে USDCAD মাসের নিন্ম প্রাইসের কাছাকাছি মুভমেন্ট করছে। এছাড়াও চল


বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×
×
  • Create New...