Jump to content
তানভীর™

Ichimoku (ইচিমকু) ট্রেডিং স্ট্রাটেজি

Recommended Posts

ধন্যবাদ তানভির ভাই। এই ইনডিকেটরটি কোন টাইম ফ্রেমএ ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে?

Share this post


Link to post
Share on other sites

ভাই ভালো একটি জিনিস দিয়েছেন আমার কাছে খুব ভালো লেগেছে। তবে টেস্ট করার বুঝা যাবে এটার ফলাফল তবে ডিমো দেখে মনে হচ্ছে ভালো হবে।

ধন্যবাদ।

Share this post


Link to post
Share on other sites

তানভীর ভাই যা লিখেছেন তা এক কথায় দূর্দান্ত, এরপরে আমার আর নতুন করে Ichimoku নিয়ে কিছু পোস্ট করার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না ।

  • Love 2

Share this post


Link to post
Share on other sites

Trend, support-resistance, ইত্যাদি নির্ণয়ের জন্য Ichimoku অনেক কার্যকরী একটি ইন্ডিকেটর। যদিও এক নজরে ইন্ডিকেটরটিকে অনেক জটিল মনে হয়। কিন্তু আপনি যখন Ichimoku ইন্ডিকেটরটি ব্যবহার করার নিয়ম জানবেন, তখন তা অনেক সহজ মনে হবে।

 

vL0FS.png

 

ওপরের চার্টে ক্যানডেলস্টিকস ছাড়া সব কিছুই Ichimoku ইন্ডিকেটরের অংশ। Ichimoku ইন্ডিকেটর ৩টি লাইন এবং মেঘ নিয়ে গঠিত। লাইন ৩টি হলঃ

  • Tenkan-Sen (লাল)
  • Kijun-Sen (নীল)
  • Chikou-Span (হলুদ/সবুজ)

মেঘ আকৃতির অংশটির নাম কুমো/kumo/মেঘ/cloud. অনেকেই Ichimoku ইন্ডিকেটরে বিরক্তি বোধ করেন এই কঠিন নামগুলোর কারণে। এই জাপানি নামগুলো মনে রাখাটা অনেক কঠিন। যেহুতু ৩টি লাইনেরই আলাদা আলাদা রঙ রয়েছে, তাই জাপানি নামের পরিবর্তে লাইনের রঙগুলো মনে রাখলে সহজে বোঝা যাবে।

 

 

এবার চার্টের মেঘ আকৃতির দিকে দেখুন। ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের ওপরে থাকবে, ততক্ষন পেয়ারটি ঊর্ধ্বমুখী/bullish/uptrend হিসেবে মনে করা যায়। আবার ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের নিচে থাকবে, ততক্ষন পেয়ারটি নিম্নমুখী/bearish/downtrend হিসেবে মনে করা যায়। ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের ভেতরে থাকবে, তখন ঐ পেয়ার সম্পরকে নিশ্চিতভাবে কিছু বলা যাবে না অর্থাৎ সাইডওয়ে/sideway ট্রেন্ড। কারন এরপর পেয়ারটির প্রাইস বাড়তে কিংবা কমতে পারে।

 

অর্থাৎঃ

  • ক্যানডেল মেঘের ওপরে = পেয়ারটি ঊর্ধ্বমুখী/bullish/uptrend
  • ক্যানডেল মেঘের নিচে = পেয়ারটি নিম্নমুখী/bearish/downtrend
  • ক্যানডেল মেঘের ভেতরে = সাইডওয়ে/sideway

এই Kumo বা মেঘের রেখাগুলো অনেক সময় ভাল সাপোর্ট-রেসিসটেন্স হিসেবে কাজ করে। অনেক সময় দেখা যায় প্রাইস বাড়তে বাড়তে মেঘের রেখার সাথে (Resistance) ধাক্কা খেয়ে আবার কমতে শুরু করে। আবার অনেক সময় প্রাইস কমতে কমতে মেঘের রেখার সাথে (Support) ধাক্কা খেয়ে আবার ওপরের দিকে উঠতে শুরু করে। নিচের চার্টে দেখুন সাদা লাইনের নিচে চিহ্নিত মেঘের লাল লাইনটি Resistance হিসেবে কাজ করেছেঃ

 

BmOoV.png

 

ওপরের চার্টে দেখুন, প্রাইস বাড়তে যেয়ে মেঘের লাইনের সাথে ধাক্কা খেয়ে আবার কমতে শুরু করেছে।

 

এবার নিচের চার্টটি লক্ষ্য করুনঃ

 

G64sq.png

 

প্রাইস হঠাৎ কমতে শুরু করে এবং মেঘের মধ্যে চলে আসে। মেঘ থেকে প্রাইস কমে নিচে নামার সময় মেঘের লাল লাইন সাপোর্ট হিসেবে কাজ করে। ফলে প্রাইস বাধাপ্রাপ্ত হয়ে আবার ওপরে ফিরে যায় এবং বাড়তে শুরু করে।

 

এই Kumo বা মেঘের একটি বৈশিষ্ট্য হল - আপনার চার্টের শেষ ক্যানডেলের অপর ভিত্তি করে চারতের শেষ মেঘকণা তৈরি হয়। ওপরের চার্টে দেখুন, শেষ ক্যানডেলের পরেও ডানদিকে আরোও কিছু মেঘ দেখা যাচ্ছে এবং চার্টের সর্বশেষ Bullish ক্যানডেলের ওপর ভিত্তি করেই সবুজ মেঘ তৈরি হচ্ছে। সুতরাং, মেঘের সবুজ রঙ দেখেই আমরা বুঝতে পারি এই পেয়ারটিতে ভবিষ্যতে আপট্রেন্ড শুরু হতে পারে। আর মেঘের আকার দেখে আমরা বুঝতে পারি আপট্রেন্ড কত শক্তিশালী এবং কত দীর্ঘ হতে পারে। এভাবে কোন আপট্রেন্ডে থাকা পেয়ার এর মেঘের আকার দেখে আমরা বুঝতে পারি এটি আবার ডাউনট্রেন্ডে ফিরে যেতে কত সময় লাগতে পারে। এভাবে কোন আপট্রেন্ডে থাকা পেয়ার এর মেঘের পরিমান আস্তে আস্তে কমে যেতে থাকলে আমরা বুঝতে পারি যে হয়তো এই পেয়ারের আপট্রেন্ড মোটামুটি শেষ এবং শিঘ্রই ডাউনট্রেন্ড শুরু হতে পারে। কিন্তু এখনি কোন নতুন ট্রেডের সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হবে না। কারন মেঘের লাইনের গায়ে ধাক্কা খেয়ে প্রাইস আবার ফিরে যেতে পারে।

 

Chikou-Span (হলুদ/সবুজ লাইন)

 

Ichimoku ইন্ডিকেটরের হলুদ লাইনটির নাম Chikou-Span. এটা অনেক সময় অনেক চার্টে সবুজও হতে পারে। আপনি লাইনের রঙ পাপ্নার সুবিধামত পরিবর্তন করে নিতে পারেন। ক্যানডেলস্টিক্স যদি Kumo বা মেঘের নিচে আসে, তাহলেই কিন্তু সাথে সাথে ডাউনট্রেন্ড শুরু হয়ে যায় না। অনেক সময় দেখা যায় কিছু সময় মেঘের ভেতর কিংবা মেঘের নিচে থাকার পর তা আবার ওপরে চলে আসে, অর্থাৎ আবার আপট্রেন্ড শুরু হয়ে যায়। একইভাবে, কোন সময় দেখা যায় কিছু সময় মেঘ ভেদ করে মেঘের ওপরে কিছুক্ষন থেকে ক্যানডেল আবার মেঘের নিচে বা ভেতরে চলে আসে। এইক্ষেত্রে আপনাকে ট্রেডের সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে হলুদ/সবুজ লাইন বা Chikou-Span.

 

1UK9H.png

 

১ নম্বর ছবিতে দেখুন, ক্যানডেলস্টিক্স মেঘের ওপরে উঠেছে, এবং একটু পর হলুদ লাইনও মেঘ অতিক্রম করে ওপরে উঠে গেছে। এবং পরবর্তীতে শক্তিশালী আপট্রেন্ড দেখা গেছে মার্কেটে। ২ নম্বরে ক্যানডেল যখন মেঘ ভেদ করে মেঘের নিচে নেমে এলো, একটু পর হলুদ লাইনও নিচের দিকে নেমে আস্তে শুরু করেছে। ২ নং এ হলুদ লাইন পুরোপুরিভাবে মেঘের নিচে চলে আসেনি। ক্যানডেলগুলো মেঘের নিচে চলে আসায় প্রাথমিকভাবে ডাউনট্রেন্ড শুরু হয়েছে বলা যায়, কিন্তু যখন হলুদ লাইন পুরোপুরি মেঘের নিচে চলে আসবে, তখন আমরা একটি শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ডের প্রত্যাশা করতে পারি।

 

প্রথমদিকে অনেকেরই এই হলুদ লাইনের অবস্থান বুঝতে সমস্যা হয়। চার্টের শেষে যে ক্যানডেল দেখতে পাচ্ছেন, তার হলুন লাইন হল বাম পাশে ২৫ ক্যানডেল আগে।

 

SGajt.png

 

এটাই Chikou-span অর্থাৎ হলুদ লাইনটির নিয়ম। এই লাইনটি সবসময় আপনার চার্টের শেষ ক্যানডেলের ২৫ স্টিক আগে থাকবে। নতুন ক্যানডেল তৈরি হলে, হলুদ লাইনও একটু ডান দিকে সরে আসবে।

 

এই পর্যন্ত আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের Chikou-span (হলুদ/সবুজ লাইন) এবং Kumo (মেঘ) সম্পর্কে যা জানতে পারলামঃ

  • ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন যতক্ষণ মেঘের ওপরে থাকবে, ততক্ষন কারেন্সি পেয়ারটি আপট্রেন্ডে (Bullish) থাকবে। অর্থাৎ কারেন্সি পেয়ারটির প্রাইস বাড়তে থাকবে। এবং ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন যতক্ষণ মেঘের নিচে থাকবে, ততক্ষন কারেন্সি পেয়ারটি ডাউনট্রেন্ডে (Bearish) থাকবে। অর্থাৎ কারেন্সি পেয়ারটির প্রাইস কমতে থাকবে।
  • ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন উভয়ই মেঘের ভেতরে থাকলে, তখন কারেন্সি পেয়ারটি সাইডওয়ে ট্রেন্ড (Sideway) হিসেবে ধরা হয়। তখন বাই বা সেল দেয়া উচিত হবে না, কারণ এটি যেকোন সময় ওপরের দিকে বা নিচের দিকে যেতে পারে।
  • কোন সময় যদি ক্যানডেলস্টিক্স নিচ থেকে মেঘ ভেদ করে ওপরে উঠলেও যদি হলুদ লাইন মেঘের ওপরে না ওঠে, তাহলে সেই ক্যানডেলস্টিক্স আবার যেকোন সময় নিচে নেমে যেতে পারে। আবার যদি ক্যানডেলস্টিক্স ওপর থেকে মেঘ ভেদ করে নিচে নামে কিন্তু যদি হলুদ লাইন মেঘের নিচে না নামে, তাহলে সেই ক্যানডেলস্টিক্স আবার যেকোন সময় উপরে উঠে যেতে পারে।
  • কোন ক্যানডেলস্টিক্স মেঘ ভেদ করে ওপর থেকে নিচে নামার সময় মেঘের নিচের লাইনটি অনেক সময় শক্তিশালী সাপোর্ট (support) লাইন হিসেবে কাজ করে এবং মেঘের নিচ থেকে কোন ক্যানডেলস্টিক্স মেঘ ভেদ করে ওপরে উঠার সময় মেঘের ওপরের লাইনটি অনেক সময় শক্তিশালী রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে।

Kijun-sen (নীল লাইন)

 

এখন আমরা আলোচনা করব Ichimoku ইন্ডিকেটরের নীল লাইন অর্থাৎ Kijun-sen নিয়ে।

 

Ichimoku ইন্ডিকেটরের নীল লাইনটি একটি শক্তিশালী সাপোর্ট এবং রেসিসট্যান্স লাইন হিসেবে কাজ করে। ক্যানডেল যখন এই নীল লাইনের ওপরে থাকে, তখন এটি সাপোর্ট (support) লাইন এবং যখন ক্যানডেল এই নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে। কিন্তু এটি শক্তিশালী সাপোর্ট লাইন হিসেবে কাজ করে যখন নীল লাইনটি মেঘের ওপরে থাকে এবং ক্যানডেল নীল লাইনের ওপরে থাকে। একইভাবে, নীল লাইনটি যখন মেঘের নিচে থাকে এবং ক্যানডেলগুলো এই নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি শক্তিশালী রেসিসট্যান্স লাইনে পরিণত হয়।

 

dF5IP.png

 

ওপরের চার্টে দেখুন, নীল লাইন মেঘের ওপরে উঠে আসে, তখন প্রাইস বাড়ছিল। একটু পর ক্যানডেল নীল লাইন ক্রস করে ওপরে উঠে যায় এবং মোটামুটি শক্তিশালী আপট্রেন্ড তৈরি হয়, এবং এরপর প্রাইস প্রায় ১৯২ পিপস বেড়েছিল।

 

এই লাইনের একটি বৈশিষ্ট্য হল এটি ম্যাগনেটিক বা চুম্বকীয় লাইনের মত কাজ করে। অর্থাৎ কোন ক্যানডেল যখন এই নীল লাইন থেকে দূরে সরে যায়, তখন আস্তে আস্তে এই নীল লাইনটি সমান্তরাল হতে থাকে এবং দ্রুত ক্যানডেলস্টিক্স এর কাছে চলে আসে।

 

 

এই পর্যন্ত আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের Kijun-sen(নীল লাইন) সম্পর্কে যা জানতে পারলামঃ

  • ক্যানডেলস্টিক্স যখন নীল লাইনের ওপরে থাকে, তখন এটি সাপোর্ট (support) লাইন এবং যখন ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে।
  • নীল লাইনটি মেঘের ওপর থাকলে এবং ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের ওপর থাকলে নীল লাইনটি শক্তিশালী সাপোর্ট লাইন হিসেবে কাজ করে।
  • নীল লাইনটি মেঘের নিচে থাকলে এবং ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের নিচে থাকলে নীল লাইনটি শক্তিশালী রেসিসট্যান্স লাইন হিসেবে কাজ করে।

Tenkan-sen (লাল লাইন)

 

এখন আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের ৩য় লাইন Tenkan-sen বা লাল লাইন নিয়ে আলোচনা করব। এই লাইনটি অন্যান্য লাইনগুলোর তুলনায় খুব দ্রুত দিক পরিবর্তন করে। এটা অনেকটা Moving Average এর মত কাজ করে।

 

লাল লাইনটি যখন নীল লাইনের ওপর থাকে, তখন প্রাইস বাড়বে। এবং লাল লাইনটি যখন নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন প্রাইস কমবে। আবার, যদি নীল লাইন মেঘের ওপরে থাকা অবস্থায়, নিচ থেকে লাল লাইন নীল লাইনকে ক্রস করে ওপরে উঠে যায়, তাহলে পেয়ারটি শক্তিশালী আপট্রেন্ডে (strong uptrend) রয়েছে বলে ধরা যায়। একইভাবে, নীল লাইন মেঘের নিচে থাকা অবস্থায়, ওপর থেকে লাল লাইন নীল লাইনকে ক্রস করে যদি নিচে নেমে আসে, তাহলে পেয়ারটি শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ডে (strong downtrend) রয়েছে বলে ধরা যায়। কিন্তু এরকম ক্রসিং চার্টে খুব কমই দেখা যায়, কারণ অধিকাংশ সময় লাল লাইন মেঘ থেকে বের হবার আগেই নীল লাইনকে ক্রস করে ফেলে।

 

তারপরেও, যদি মেঘের ওপরে বা নিচে থাকা অবস্থায় দ্বিতীয়বার ক্রস করে, তাহলে ট্রেন্ড আরও শক্তিশালী হিসেবে ধরা যায়।

 

পরবর্তীতে কিছু ট্রেড কিভাবে Ichimoku ইন্ডিকেটরের সাহায্যে করা যায় তা দেখানো হবে।

 

মেটাট্রেডারে যে Ichimoku ইন্ডিকেটরটি দেয়া থাকে তা বুঝতে অনেকেরই অনেক সমস্যা হয়। তাই আমি চার্টে Ichimoku ইন্ডিকেটরের যে Template ব্যবহার করেছি, তা নিচে সংযুক্ত করে দিলাম।

 

Source:

  • Babypips
  • Technical Analysis Book (Stock)
  • Google

 

what a nice post !!!!!!!! darun bosss.........thanks a lottttttttttttttttttttttttttttttttttttttttt

Share this post


Link to post
Share on other sites

তানভীর ভাই যা লিখেছেন তা এক কথায় দূর্দান্ত, এরপরে আমার আর নতুন করে Ichimoku নিয়ে কিছু পোস্ট করার প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না ।

heeee .... tabvir vai ki fula galan....lol ra lol... ......

Share this post


Link to post
Share on other sites

Trend, support-resistance, ইত্যাদি নির্ণয়ের জন্য Ichimoku অনেক কার্যকরী একটি ইন্ডিকেটর। যদিও এক নজরে ইন্ডিকেটরটিকে অনেক জটিল মনে হয়। কিন্তু আপনি যখন Ichimoku ইন্ডিকেটরটি ব্যবহার করার নিয়ম জানবেন, তখন তা অনেক সহজ মনে হবে।

 

vL0FS.png

 

ওপরের চার্টে ক্যানডেলস্টিকস ছাড়া সব কিছুই Ichimoku ইন্ডিকেটরের অংশ। Ichimoku ইন্ডিকেটর ৩টি লাইন এবং মেঘ নিয়ে গঠিত। লাইন ৩টি হলঃ

  • Tenkan-Sen (লাল)
  • Kijun-Sen (নীল)
  • Chikou-Span (হলুদ/সবুজ)

মেঘ আকৃতির অংশটির নাম কুমো/kumo/মেঘ/cloud. অনেকেই Ichimoku ইন্ডিকেটরে বিরক্তি বোধ করেন এই কঠিন নামগুলোর কারণে। এই জাপানি নামগুলো মনে রাখাটা অনেক কঠিন। যেহুতু ৩টি লাইনেরই আলাদা আলাদা রঙ রয়েছে, তাই জাপানি নামের পরিবর্তে লাইনের রঙগুলো মনে রাখলে সহজে বোঝা যাবে।

 

 

 

এবার চার্টের মেঘ আকৃতির দিকে দেখুন। ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের ওপরে থাকবে, ততক্ষন পেয়ারটি ঊর্ধ্বমুখী/bullish/uptrend হিসেবে মনে করা যায়। আবার ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের নিচে থাকবে, ততক্ষন পেয়ারটি নিম্নমুখী/bearish/downtrend হিসেবে মনে করা যায়। ক্যানডেলস্টিক্স যতক্ষন এই মেঘের ভেতরে থাকবে, তখন ঐ পেয়ার সম্পরকে নিশ্চিতভাবে কিছু বলা যাবে না অর্থাৎ সাইডওয়ে/sideway ট্রেন্ড। কারন এরপর পেয়ারটির প্রাইস বাড়তে কিংবা কমতে পারে।

 

অর্থাৎঃ

  • ক্যানডেল মেঘের ওপরে = পেয়ারটি ঊর্ধ্বমুখী/bullish/uptrend
  • ক্যানডেল মেঘের নিচে = পেয়ারটি নিম্নমুখী/bearish/downtrend
  • ক্যানডেল মেঘের ভেতরে = সাইডওয়ে/sideway

এই Kumo বা মেঘের রেখাগুলো অনেক সময় ভাল সাপোর্ট-রেসিসটেন্স হিসেবে কাজ করে। অনেক সময় দেখা যায় প্রাইস বাড়তে বাড়তে মেঘের রেখার সাথে (Resistance) ধাক্কা খেয়ে আবার কমতে শুরু করে। আবার অনেক সময় প্রাইস কমতে কমতে মেঘের রেখার সাথে (Support) ধাক্কা খেয়ে আবার ওপরের দিকে উঠতে শুরু করে। নিচের চার্টে দেখুন সাদা লাইনের নিচে চিহ্নিত মেঘের লাল লাইনটি Resistance হিসেবে কাজ করেছেঃ

 

 

BmOoV.png

 

ওপরের চার্টে দেখুন, প্রাইস বাড়তে যেয়ে মেঘের লাইনের সাথে ধাক্কা খেয়ে আবার কমতে শুরু করেছে।

 

এবার নিচের চার্টটি লক্ষ্য করুনঃ

 

G64sq.png

 

প্রাইস হঠাৎ কমতে শুরু করে এবং মেঘের মধ্যে চলে আসে। মেঘ থেকে প্রাইস কমে নিচে নামার সময় মেঘের লাল লাইন সাপোর্ট হিসেবে কাজ করে। ফলে প্রাইস বাধাপ্রাপ্ত হয়ে আবার ওপরে ফিরে যায় এবং বাড়তে শুরু করে।

 

এই Kumo বা মেঘের একটি বৈশিষ্ট্য হল - আপনার চার্টের শেষ ক্যানডেলের অপর ভিত্তি করে চারতের শেষ মেঘকণা তৈরি হয়। ওপরের চার্টে দেখুন, শেষ ক্যানডেলের পরেও ডানদিকে আরোও কিছু মেঘ দেখা যাচ্ছে এবং চার্টের সর্বশেষ Bullish ক্যানডেলের ওপর ভিত্তি করেই সবুজ মেঘ তৈরি হচ্ছে। সুতরাং, মেঘের সবুজ রঙ দেখেই আমরা বুঝতে পারি এই পেয়ারটিতে ভবিষ্যতে আপট্রেন্ড শুরু হতে পারে। আর মেঘের আকার দেখে আমরা বুঝতে পারি আপট্রেন্ড কত শক্তিশালী এবং কত দীর্ঘ হতে পারে। এভাবে কোন আপট্রেন্ডে থাকা পেয়ার এর মেঘের আকার দেখে আমরা বুঝতে পারি এটি আবার ডাউনট্রেন্ডে ফিরে যেতে কত সময় লাগতে পারে। এভাবে কোন আপট্রেন্ডে থাকা পেয়ার এর মেঘের পরিমান আস্তে আস্তে কমে যেতে থাকলে আমরা বুঝতে পারি যে হয়তো এই পেয়ারের আপট্রেন্ড মোটামুটি শেষ এবং শিঘ্রই ডাউনট্রেন্ড শুরু হতে পারে। কিন্তু এখনি কোন নতুন ট্রেডের সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত হবে না। কারন মেঘের লাইনের গায়ে ধাক্কা খেয়ে প্রাইস আবার ফিরে যেতে পারে।

 

Chikou-Span (হলুদ/সবুজ লাইন)

 

Ichimoku ইন্ডিকেটরের হলুদ লাইনটির নাম Chikou-Span. এটা অনেক সময় অনেক চার্টে সবুজও হতে পারে। আপনি লাইনের রঙ পাপ্নার সুবিধামত পরিবর্তন করে নিতে পারেন। ক্যানডেলস্টিক্স যদি Kumo বা মেঘের নিচে আসে, তাহলেই কিন্তু সাথে সাথে ডাউনট্রেন্ড শুরু হয়ে যায় না। অনেক সময় দেখা যায় কিছু সময় মেঘের ভেতর কিংবা মেঘের নিচে থাকার পর তা আবার ওপরে চলে আসে, অর্থাৎ আবার আপট্রেন্ড শুরু হয়ে যায়। একইভাবে, কোন সময় দেখা যায় কিছু সময় মেঘ ভেদ করে মেঘের ওপরে কিছুক্ষন থেকে ক্যানডেল আবার মেঘের নিচে বা ভেতরে চলে আসে। এইক্ষেত্রে আপনাকে ট্রেডের সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে হলুদ/সবুজ লাইন বা Chikou-Span.

 

1UK9H.png

 

১ নম্বর ছবিতে দেখুন, ক্যানডেলস্টিক্স মেঘের ওপরে উঠেছে, এবং একটু পর হলুদ লাইনও মেঘ অতিক্রম করে ওপরে উঠে গেছে। এবং পরবর্তীতে শক্তিশালী আপট্রেন্ড দেখা গেছে মার্কেটে। ২ নম্বরে ক্যানডেল যখন মেঘ ভেদ করে মেঘের নিচে নেমে এলো, একটু পর হলুদ লাইনও নিচের দিকে নেমে আস্তে শুরু করেছে। ২ নং এ হলুদ লাইন পুরোপুরিভাবে মেঘের নিচে চলে আসেনি। ক্যানডেলগুলো মেঘের নিচে চলে আসায় প্রাথমিকভাবে ডাউনট্রেন্ড শুরু হয়েছে বলা যায়, কিন্তু যখন হলুদ লাইন পুরোপুরি মেঘের নিচে চলে আসবে, তখন আমরা একটি শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ডের প্রত্যাশা করতে পারি।

 

প্রথমদিকে অনেকেরই এই হলুদ লাইনের অবস্থান বুঝতে সমস্যা হয়। চার্টের শেষে যে ক্যানডেল দেখতে পাচ্ছেন, তার হলুন লাইন হল বাম পাশে ২৫ ক্যানডেল আগে।

 

SGajt.png

 

এটাই Chikou-span অর্থাৎ হলুদ লাইনটির নিয়ম। এই লাইনটি সবসময় আপনার চার্টের শেষ ক্যানডেলের ২৫ স্টিক আগে থাকবে। নতুন ক্যানডেল তৈরি হলে, হলুদ লাইনও একটু ডান দিকে সরে আসবে।

 

এই পর্যন্ত আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের Chikou-span (হলুদ/সবুজ লাইন) এবং Kumo (মেঘ) সম্পর্কে যা জানতে পারলামঃ

  • ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন যতক্ষণ মেঘের ওপরে থাকবে, ততক্ষন কারেন্সি পেয়ারটি আপট্রেন্ডে (Bullish) থাকবে। অর্থাৎ কারেন্সি পেয়ারটির প্রাইস বাড়তে থাকবে। এবং ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন যতক্ষণ মেঘের নিচে থাকবে, ততক্ষন কারেন্সি পেয়ারটি ডাউনট্রেন্ডে (Bearish) থাকবে। অর্থাৎ কারেন্সি পেয়ারটির প্রাইস কমতে থাকবে।
  • ক্যানডেলস্টিক্স এবং হলুদ লাইন উভয়ই মেঘের ভেতরে থাকলে, তখন কারেন্সি পেয়ারটি সাইডওয়ে ট্রেন্ড (Sideway) হিসেবে ধরা হয়। তখন বাই বা সেল দেয়া উচিত হবে না, কারণ এটি যেকোন সময় ওপরের দিকে বা নিচের দিকে যেতে পারে।
  • কোন সময় যদি ক্যানডেলস্টিক্স নিচ থেকে মেঘ ভেদ করে ওপরে উঠলেও যদি হলুদ লাইন মেঘের ওপরে না ওঠে, তাহলে সেই ক্যানডেলস্টিক্স আবার যেকোন সময় নিচে নেমে যেতে পারে। আবার যদি ক্যানডেলস্টিক্স ওপর থেকে মেঘ ভেদ করে নিচে নামে কিন্তু যদি হলুদ লাইন মেঘের নিচে না নামে, তাহলে সেই ক্যানডেলস্টিক্স আবার যেকোন সময় উপরে উঠে যেতে পারে।
  • কোন ক্যানডেলস্টিক্স মেঘ ভেদ করে ওপর থেকে নিচে নামার সময় মেঘের নিচের লাইনটি অনেক সময় শক্তিশালী সাপোর্ট (support) লাইন হিসেবে কাজ করে এবং মেঘের নিচ থেকে কোন ক্যানডেলস্টিক্স মেঘ ভেদ করে ওপরে উঠার সময় মেঘের ওপরের লাইনটি অনেক সময় শক্তিশালী রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে।

Kijun-sen (নীল লাইন)

 

 

এখন আমরা আলোচনা করব Ichimoku ইন্ডিকেটরের নীল লাইন অর্থাৎ Kijun-sen নিয়ে।

 

Ichimoku ইন্ডিকেটরের নীল লাইনটি একটি শক্তিশালী সাপোর্ট এবং রেসিসট্যান্স লাইন হিসেবে কাজ করে। ক্যানডেল যখন এই নীল লাইনের ওপরে থাকে, তখন এটি সাপোর্ট (support) লাইন এবং যখন ক্যানডেল এই নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে। কিন্তু এটি শক্তিশালী সাপোর্ট লাইন হিসেবে কাজ করে যখন নীল লাইনটি মেঘের ওপরে থাকে এবং ক্যানডেল নীল লাইনের ওপরে থাকে। একইভাবে, নীল লাইনটি যখন মেঘের নিচে থাকে এবং ক্যানডেলগুলো এই নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি শক্তিশালী রেসিসট্যান্স লাইনে পরিণত হয়।

 

dF5IP.png

 

ওপরের চার্টে দেখুন, নীল লাইন মেঘের ওপরে উঠে আসে, তখন প্রাইস বাড়ছিল। একটু পর ক্যানডেল নীল লাইন ক্রস করে ওপরে উঠে যায় এবং মোটামুটি শক্তিশালী আপট্রেন্ড তৈরি হয়, এবং এরপর প্রাইস প্রায় ১৯২ পিপস বেড়েছিল।

 

এই লাইনের একটি বৈশিষ্ট্য হল এটি ম্যাগনেটিক বা চুম্বকীয় লাইনের মত কাজ করে। অর্থাৎ কোন ক্যানডেল যখন এই নীল লাইন থেকে দূরে সরে যায়, তখন আস্তে আস্তে এই নীল লাইনটি সমান্তরাল হতে থাকে এবং দ্রুত ক্যানডেলস্টিক্স এর কাছে চলে আসে।

 

 

এই পর্যন্ত আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের Kijun-sen(নীল লাইন) সম্পর্কে যা জানতে পারলামঃ

  • ক্যানডেলস্টিক্স যখন নীল লাইনের ওপরে থাকে, তখন এটি সাপোর্ট (support) লাইন এবং যখন ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন এটি রেসিসট্যান্স (resistance) লাইন হিসেবে কাজ করে।
  • নীল লাইনটি মেঘের ওপর থাকলে এবং ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের ওপর থাকলে নীল লাইনটি শক্তিশালী সাপোর্ট লাইন হিসেবে কাজ করে।
  • নীল লাইনটি মেঘের নিচে থাকলে এবং ক্যানডেলস্টিক্স নীল লাইনের নিচে থাকলে নীল লাইনটি শক্তিশালী রেসিসট্যান্স লাইন হিসেবে কাজ করে।

Tenkan-sen (লাল লাইন)

 

 

এখন আমরা Ichimoku ইন্ডিকেটরের ৩য় লাইন Tenkan-sen বা লাল লাইন নিয়ে আলোচনা করব। এই লাইনটি অন্যান্য লাইনগুলোর তুলনায় খুব দ্রুত দিক পরিবর্তন করে। এটা অনেকটা Moving Average এর মত কাজ করে।

 

লাল লাইনটি যখন নীল লাইনের ওপর থাকে, তখন প্রাইস বাড়বে। এবং লাল লাইনটি যখন নীল লাইনের নিচে থাকে, তখন প্রাইস কমবে। আবার, যদি নীল লাইন মেঘের ওপরে থাকা অবস্থায়, নিচ থেকে লাল লাইন নীল লাইনকে ক্রস করে ওপরে উঠে যায়, তাহলে পেয়ারটি শক্তিশালী আপট্রেন্ডে (strong uptrend) রয়েছে বলে ধরা যায়। একইভাবে, নীল লাইন মেঘের নিচে থাকা অবস্থায়, ওপর থেকে লাল লাইন নীল লাইনকে ক্রস করে যদি নিচে নেমে আসে, তাহলে পেয়ারটি শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ডে (strong downtrend) রয়েছে বলে ধরা যায়। কিন্তু এরকম ক্রসিং চার্টে খুব কমই দেখা যায়, কারণ অধিকাংশ সময় লাল লাইন মেঘ থেকে বের হবার আগেই নীল লাইনকে ক্রস করে ফেলে।

 

তারপরেও, যদি মেঘের ওপরে বা নিচে থাকা অবস্থায় দ্বিতীয়বার ক্রস করে, তাহলে ট্রেন্ড আরও শক্তিশালী হিসেবে ধরা যায়।

 

পরবর্তীতে কিছু ট্রেড কিভাবে Ichimoku ইন্ডিকেটরের সাহায্যে করা যায় তা দেখানো হবে।

 

মেটাট্রেডারে যে Ichimoku ইন্ডিকেটরটি দেয়া থাকে তা বুঝতে অনেকেরই অনেক সমস্যা হয়। তাই আমি চার্টে Ichimoku ইন্ডিকেটরের যে Template ব্যবহার করেছি, তা নিচে সংযুক্ত করে দিলাম।

 

Source:

  • Babypips
  • Technical Analysis Book (Stock)
  • Google

 

bai ai ta diya ki konu EA asa apnae kasa / karo kasa pls takla upload korban.... tnx

Share this post


Link to post
Share on other sites

topic ta sundor hoyeche তানভীর™. asa kori onekei upokrito hobe. ichi sob time frame ei kaj kore. even M5 eo. but higher time frame a obossoi aro besi valo kaje kore onnano indicator motoi. ami obosso M5 a try kori nai. M15 theke higher a use korechi.

 

 

cloud er niche or upore TS/KS cross strong signal. but onek strong move weak or neutral TS/KS cross diye suru hoy. practice korte korte aro kichu tips tricks nijerai ber korte parben.

 

example:

 

eudaily.gif

  • Love 3

Share this post


Link to post
Share on other sites

তানভীর ভাই টপিকটি অসাধারণ হয়েছে। সাবলিল বর্ননার কারনে কোথাও বুঝতে এতটুকু সমস্যা হয় নি।

  • Love 2

Share this post


Link to post
Share on other sites
Guest
You are commenting as a guest. If you have an account, please sign in.
Reply to this topic...

×   Pasted as rich text.   Paste as plain text instead

  Only 75 emoticons maximum are allowed.

×   Your link has been automatically embedded.   Display as a link instead

×   Your previous content has been restored.   Clear editor

×   You cannot paste images directly. Upload or insert images from URL.

Loading...

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×