Jump to content
Sign in to follow this  
মার্কেট আপডেট

চলতি সপ্তাহের USDCAD ফরেক্স মার্কেট আপডেট (১০ থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি)

Recommended Posts

USDCAD পেয়ারটি গত সপ্তাহে ১.৩৩ প্রাইসের উপরে উঠেছিল। ১১ সপ্তাহের মধ্যে পেয়ারটি সর্বোচ্চ লেভেলে উঠেছে। পেয়ারটিকে প্রভাবিত করার মতো এ সপ্তাহে দু’টি ইভেন্ট রয়েছে। এখানে মার্কেট আউটলুক এবং USDCAD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো।

জানুয়ারির রিপোর্টে কানাডার জব বেশ ভালই এসেছে। কানাডার ইকোনমিতে ৩৪ হাজার ৫০০ জব যোগ হয়েছে। রিপোর্টটি প্রত্যাশিত ১৬ হাজার ৩০০- এর অনেক উপরে এসেছে। ডিসেম্বরে বেকারত্বের হার ৫.৭% থেকে কমে ৫.৫% এসেছে। বেকারত্বের হার প্রত্যাশিত ৫.৭% এর নিচে এসেছিল।

জানুয়ারি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং পিএমআই ৪৭.২ থেকে বেড়ে ৫০.২ পয়েন্ট এসেছে। রিপোর্টটি প্রত্যাশিত ৪৮.৫ পয়েন্টের উপরে এসেছিল। জুলাই মাসের পর সেক্টরটি প্রথমবারের মতো ভাল করেছে। বেতন (ওয়েজ ) প্রত্যাশিত ০.৩% থেকে কমে ০.২% এসেছে। ইকোনমিতে ২ লক্ষ ২৫ হাজার জব যোগ হয়েছে। সেক্টরটি প্রত্যাশিত ১ লক্ষ ৬৩ হাজারের বেশ উপরে ছিল।

USDCAD প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো

USD_CAD-Forecast-Feb.13-17._2019-1.thumb.png.edd2b76fd960431e8c12021e5ad2bd81.png

১.Housing Starts

সোমবার,সন্ধ্যা ০৭:১৫। জানুয়ারিতে ১ লক্ষ ৯৭ হাজার হাউজ নির্মাণ শুরু হয়েছে।  সেক্টরটি প্রত্যাশিত ২ লক্ষের সামান্য নিচে এসেছে। ২০১৯ সালের মার্চ মাসে এ ধরণের রিপোর্ট দেখা গিয়েছিল।প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ফেব্রুয়ারিতে ২ লক্ষ আসতে পারে।

২.Building Permits

সোমবার,সন্ধ্যা ০৭:৩০। সেক্টরটি গত তিনমাস ধারাবাহিকভাবে খারাপ করছে। নভেম্বরে সেক্টরটিতে শতকরা ২.৪% কমেছে। যেখানে প্রত্যাশা করা হয়েছিল ১.০% বাড়বে। অ্যানালাইসিস্টগণ প্রত্যাশা করছে, ডিসেম্বরে সেক্টরটি রিবাউন্ড করে ৩.৫% আসতে পারে।

USDCAD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস

টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো

আমরা ১.৩৬৬০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে এটা গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল।পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.৩৫৫০।

২০১৯ সালের জুন মাসে ১.৩৪৪৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তীতে ১.৩৩৮৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেলকে অনুসরণ করা হয়।

ডিসেম্বরের শুরুর দিকে ১.৩৩০০ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল।গত সপ্তাহে ১.৩২৬৫ সাপোর্ট লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ১.৩১৫০।

পেয়ারটির পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল হলো ১.৩১০০, ১.৩০৪৮ এবং ১.৩০০০।

সর্বশেষ সাপোর্ট লেভেল ১.২৯৫০।

শেষ কথা

এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

জানুয়ারির শুরুর দিকে পেয়ারটি ডাউনট্রেন্ডে থাকলেও শেষের দিকে পেয়ারটির প্রাইস বাড়তে থাকে। এখন পর্যন্ত পেয়ারটি আপট্রেন্ড অব্যাহত রেখেছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এ সপ্তাহেও পেয়ারটির প্রাইস বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

Share this post


Link to post
Share on other sites
Sign in to follow this  

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×