Jump to content
forexnews

আজ এন এফ পি রিপোর্ট। জেনে নিন এন এফ পি রিপোর্ট কি ও কিভাবে তৈরি হয়

Recommended Posts

আজ এনএফপিঃ

আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭:৩০ টায় প্রকাশিত হবে এনএফপি নিউজ। প্রতি মাসে ১ম শুক্রবারে সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটে আমেরিকার এই গুরুত্বপূর্ণ নিউজটি প্রকাশিত হয়। গতবার ফলাফল ছিল ১৪৮০০০ (148K) যা প্রত্যাশিত ১৯০০০০ (190K) থেকে কম ছিল। এবার আশা করা হচ্ছে ১৮১০০০ (181K). নিউজের ফলাফল যদি ১৮১০০০ (181K) থেকে বেশী আসে, তবে তা ডলারের জন্য পজিটিভ হতে পারে। আর ১৮১০০০ (181K) এর কম হলে তা ডলারের জন্য নেগেটিভ হতে পারে। এনএফপি নিউজের ফলাফল এক্সপেক্টেড থেকে প্রতি ৭০০০০ (70K) পরিবর্তনের জন্য ৭০ পিপসের মত মুভমেন্ট হতে পারে।

nfp.png

ডলারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নিউজ হওয়ায় এ নিউজটির প্রভাব মেজর কারেন্সিগুলোতে বেশি পড়ে। EURUSD, GBPUSD, USDJPY ইত্যাদি ডলারের পেয়ারগুলো বেশ প্রভাবিত হয়। প্রত্যাশিত ফলাফলের বেশি আসলে EURUSD, GBPUSD ইত্যাদি পেয়ারগুলোর প্রাইস কমতে পারে এবং USDJPY, USDCHF ইত্যাদি পেয়ারগুলোর প্রাইস বাড়তে পারে। প্রত্যাশিত ফলাফলের কম আসলে এর বিপরীত প্রভাব মার্কেটে দেখা যেতে পারে।

Non-Farm Employment Change রিপোর্টের বিস্তারিত এবং ফলাফল পাওয়া যাবে সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটেঃ https://www.forexfactory.com/#detail=86521

পরবর্তী NFP নিউজ পাবলিশ হবে মার্চ মাসের ২য় শুক্রবার ৯ মার্চ, ২০১৮ তারিখে।

Non-Farm Employment Change রিপোর্টের পাশাপাশি Average Hourly Earnings m/m এবং Unemployment Rate রিপোর্ট দুটিও মার্কেটে প্রভাব রাখে।

এনএফপি রিপোর্ট আসলে কি?

হুমায়ূন আহমেদের নিউইয়র্কের নীলাকাশে ঝকঝকে রোদ এর সেই ব্ল্যাক ফ্রাইডে বাস্তবে বছরে মাত্র একবার আসলেও প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবার কোনো না কোনো ফরেক্স ট্রেডারের জন্য ব্ল্যাক ফ্রাইডে। কত শত ট্রেডার যে তাদের ট্রেডিং অ্যাকাউন্টটি শূন্য করে এই দিনে, যে বা না জেনে, তার কোনো ইয়ত্তা নেই। কারন? মজার ব্যাপার হচ্ছে, অধিকাংশ ট্রেডারই অ্যাকাউন্টটা শুন্য করে এই কারনের উত্তর খুঁজে। কারন মূলত একটাই, ইউএস ননফার্ম পেয়-রোল।

নামে ননফার্ম হলেও শুধু কৃষি নয়, সাথে সরকারি কর্মচারী, পরিবারের ব্যক্তিগত কর্মচারী আর অলাভজনক প্রতিস্থানগুলোর কর্মচারীদের বাদ দিয়ে মার্কিন শ্রম পরিসংখ্যান ব্যুরো প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবার প্রকাশ করে পূর্ববর্তী মাসে যুক্তরাষ্ট্রে চাকরির সংখ্যা কি আগের থেকে বাড়ল না কমল। শুধু তাই না, বাড়লে কয়টা বাড়ল আর কমলেও কয়টা কমলেও সে সংখ্যাটাও। যেহেতু, কৃষি খাতকে বাদ দিয়েই এই হিসাবটা করা হয়, তাই এর নাম হয়েছে ননফার্ম পেরোল।

কি আছে এই রিপোর্টে যে তা প্রবলভাবে ফরেক্স মার্কেটকে নাড়া দেয়ার ক্ষমতা রাখে? শুধু ফরেক্স বললে ভুল হবে, স্টক মার্কেট, বন্ড মার্কেটেও বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটে ইউএস ননফার্ম পেরোল বা এনএফপি এর কারনে। প্রথমত, দেশটির নাম আমেরিকা। ঋণ করতে অথবা যুদ্ধ বাঁধাতে ওস্তাদ হলেও এখনো বিশ্বের এক নম্বর অর্থনৈতিক শক্তি দেশটি। দ্রুত বর্ধনশীল বিশ্বের দ্বিতীয় অর্থনীতি চীনেরও যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যেতে লাগবে অনেক বছর যদি তারা বর্তমান প্রবিদ্ধি ধরে রাখতে পারে (ইতিমধ্যেই কমতে শুরু করেছে চীনের প্রবিদ্ধি). সবচেয়ে আশাবাদী ব্যক্তিও আগামী দশকের আগে চীন যুক্তরাষ্ট্রকে টপকাতে পারবে এমন আশা করেন না।

আর সামরিক শক্তির দিক থেকে তো আমেরিকার ধারে কাছেও কেউ নেই। বলা হয়, আমেরিকা বাদে বিশ্বের শীর্ষ ২০ পরাশক্তির সম্মিলিত সমরশক্তিও এক আমেরিকার সমান নয়। মহাকাশ শাসনেও প্রায় একক আধিপত্য আমেরিকার। গায়ের জোরে ডলারকে বিশ্বের রিজার্ভ কারেন্সিও বানিয়েছে দেশটি।

খরচের দিক থেকেও আমেরিকানদের তারিফ করতে হয়, এখানেও এরা এক নম্বর। আর তাই সারা বিশ্বের বড় বড় সকল কোম্পানির শাখা আছে আমেরিকায়। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি বাজার হচ্ছে আমেরিকায়, এমনকি আমেরিকার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী চীনেরও সবচেয়ে বড় রপ্তানির বাজার আমেরিকায়।

এখন সেই আমেরিকার অর্থনীতি ঠিকঠাক মত চলছে কিনা সেদিকে নজর রাখা দরকার না? আমাকে আপনাকে কষ্ট না করলেও হবে, এই কাজটি করার জন্য অসংখ্য প্রতিষ্ঠান আছে। বড় বড় কোম্পানিগুলো পাশাপাশি ফরেক্স, ষ্টক ট্রেডাররাও চোখ রাখে আমেরিকার সামগ্রিক অর্থনীতির উপরে। আমেরিকার অর্থনীতি ভালো থাকলে শেয়ার বাজারে সুবাতাস বয় (ডিএসি এর সাথে আবার তুলনা করতে যাবেন না), আর খারাপ হলে ঘটে এর উল্টোটা। প্রভাব পড়ে ফরেক্স মার্কেটেও।

এনএফপি গুরুত্বপূর্ণ এই কারনে যে, আমেরিকার চাকরির বাজারের চালচিত্র মোটামুটি বোঝা যায় এই রিপোর্টের কারনে। চাকরীর সংখ্যা বাড়ল না কমল সেটার পাশাপাশি আরও বেশ কিছু বিষয়ের উল্লেখ থাকে এনএফপি রিপোর্টে, যেমনঃ

  • মোট কর্মক্ষম জনশক্তির কত শতাংশ বেকার
  • কোন কোন সেক্টরে চাকরি বেড়েছে বা কমেছে
  • ঘণ্টাপ্রতি গড় বেতন
  • পূর্ববর্তী মাসের এনএফপি রিপোর্টের সংশোধন

যেভাবে তৈরি করা হয় এনএফপি রিপোর্টঃ

খুব স্বচ্ছ এবং যতটা সম্ভব নিখুঁতভাবে তৈরি করা হয় এনএফপি রিপোর্ট। প্রথমে, সরকারী বেসরকারি উভয় প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের তথ্যই যোগাড় করে মার্কিন শ্রম পরিসংখ্যান ব্যুরো। যেহেতু, প্রায় ২৫ কোটি জনসংখ্যা আছে আমারিকায় এবং এই জনসংখ্যার একটি বড় অংশই কর্মক্ষম, তাই আলাদাভাবে প্রত্যেকের উপর জরিপ চালান সম্ভব না প্রতি মাসে। আর তাই, মার্কিন পরিসংখ্যান ব্যুরো বেছে নিয়েছে স্যাম্পল পদ্ধতি (দৈবচয়ন). প্রতি মাসে ১ লক্ষ ৪১ হাজার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের উপর জরিপ চালায় সংস্থাটি আর সরকারি বিভিন্ন এজেন্সি মিলিয়ে প্রতিনিধিত্ব করে প্রায় আরও ৪ লক্ষ ৮৬ হাজার কর্মক্ষেত্র। চিঠি, ইমেইল, ইন্টারনেট অথবা অত্যাধুনিক ইডিআই প্রযুক্তিতে জরিপে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কর্মচারীদের তথ্য পাঠায় পরিসংখ্যান ব্যুরোর কাছে।

এনএফপি রিপোর্টের প্রকাশের বেলায় প্রথম ঝামেলাটা বাঁধে এখানে। ছোটো বড় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের সাধ্য অনুযায়ী তথ্য পাঠাতে গিয়ে প্রতি মাসে অনেকেই দেরি করে বা সেই তথ্য পেতে দেরি হয় পরিসংখ্যান ব্যুরোর। যেহেতু, এনএফপি রিপোর্ট প্রকাশের তারিখ নির্ধারিত, প্রতি মাসের প্রথম সোমবার, তাই হাতে তা তথ্য আসে তা দিয়েই রিপোর্ট প্রকাশ করে দেয় পরিসংখ্যান ব্যুরো। এই রিপোর্টটি পরে দুইবার সংশোধন করা হয়। প্রথমবার, পরিবর্তী মাসের এনএফপি রিপোর্ট প্রকাশের সময়, দ্বিতীয়বার আরও এক মাস পরে। এছাড়াও পরবর্তীতে ছোটখাটো কিছু পরিবর্তন আনা হলেও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চলতি এনএফপি রিপোর্ট ও আগের এনএফপি রিপোর্টের সংশোধন।

খুবই ঝামেলার কাজ, তাই না? অথচ দেখুন, এই ঝামেলার কাজটিই কিনা প্রতি মাসে সুন্দরভাবে করে যাচ্ছে মার্কিন পরিসংখ্যান ব্যুরো।

এনএফপি এর প্রভাবঃ

যেহেতু, প্রতি মাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নিউজগুলোর একটি হচ্ছে এনএফপি, তাই অনেক ট্রেডারই অপেক্ষা করে বসে থাকে এনএফপি ট্রেড করার জন্য। প্রায় প্রতিটি এনএফপি এর আগেই একই ঘটনা ঘটে। এনএফপির আগে আগে ট্রেডাররা ট্রেড করতে চান না বলে মার্কেটে মুভমেন্ট বা ভোলাটিলিটি কমে যায়, এনএফপি এর ঠিক আগেই শুরু হয় বড় বড় স্পাইক। সেকেন্ডে মার্কেট পরিবর্তিত হয় ৫-১০ পিপস করে।

হঠাৎ করে পাগল হয়ে যাবে মার্কেট। হয় টানা পড়া/বাড়া শুরু করবে অথবা একলাফে ১৫-২০ পিপস করে কমবে/বাড়বে। হারিকেন শুরুর পূর্ব মুহূর্তে সাগর যেমন স্থির থাকে, হটাত করে শুরু হয় বড় বড় ঢেউ এর নাচন, ফরেক্স মার্কেটের অবস্থাও হয় তেমনি। আর এই ঢেউ এ ভেসে গিয়ে সলিল সমাধি ঘটে পিপস সংগ্রহের অভিযানে বের হওয়া মানি মানেজমেন্ট না জানা অসংখ্য ট্রেডারের ট্রেডিং অ্যাকাউন্টটির।

সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ অত্যাধিক ঝুঁকি নিয়ে নিউজ ট্রেড করা অসংখ্য ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের অকাল মৃত্যুর অন্যতম কারণ।

  • Love 1
  • Thanks 1

Share this post


Link to post
Share on other sites

Create an account or sign in to comment

You need to be a member in order to leave a comment

Create an account

Sign up for a new account in our community. It's easy!

Register a new account

লগিন

Already have an account? Sign in here.

Sign In Now

  • Similar Content

    • By forexnews
      আবারও মার্কেট কাঁপাল NFP। গতকাল থেকেই ফরেক্স ট্রেডাররা অপেক্ষা করছিলেন NFP এর জন্য, আর তাই মার্কেট মুভমেন্টও ছিল অনেক কম।
       

       
      আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭:৩০ এ প্রকাশিত হয় NFP রিপোর্টটি এবং এবারের ফলাফল হল 271K, যা প্রত্যাশিত 181K থেকে অনেক অনেক বেশি। তাই, মার্কেটে  NFP এর প্রভাবও পরে অনেক বেশি। গতকালের নিউজে আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম:     কিন্তু,  EUR/USD প্রত্যাশা থেকেও অনেক বেশি দুর্বল হয়েছে এবং মাত্র ১০ মিনিটেই ১.০৮৬৪ থেকে ১৫০ পিপসসের ও বেশি দুর্বল হয়ে ১.০৭০৮ এ নেমে আসে।
       

       
      এই মুহুর্তে, আবার কিছুটা মূল্য সংশোধনের পর  EUR/USD ১.০৭৪৪ এ ট্রেড হচ্ছে। শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকায়  EURUSD আরো দুর্বল হতে পারে।    এই সপ্তাহের অধিকাংশ নিউজের পরেই প্রত্যাশিত মার্কেট মুভমেন্ট ঘটায় বেশ চমত্কার একটি সপ্তাহ গেল ফরেক্স ট্রেডারদের জন্য। আপনার সাফল্য বা ব্যর্থতা, দুটোই শেয়ার করুন। কারণ, উভয়টি থেকেই আমাদের সবার অনেক কিছু শেখার আছে।
    • By Nirmal1992
      এবারের NFP যে যেন তেন NFP ছিল না সেটা মার্কেটের জানা ছিল ভালমতনই। ফেড তাদের রেট হাইক করবে কিনা সেটার অন্যতম প্রধান লিডিং ইনডিকেটর ছিল এবারে NFP। আমি পারসনালি আশায় ছিলাম ভাল খবরের। কিন্তু এতটা ভাল আসবে চিন্তাই করি নি।  মার্কেট তার রিএকশনও দিয়েছে সেইভাবেই। :fire:  ফেড এর রেট হাইক করার সম্ভাবনা একলাফে বেড়ে গেল অনেকখানি। চোখের সামনে নিজের অ্যাকাউন্ট এর স্বাস্থ্য একটু একটু করে ভাল হতে দেখার মজাই আলাদা।
       
      ফান্ডামেন্টাল ট্রেডার, কিন্তু মার্কেটে এখন ডলার সেল করতে চান এমন লোক হয়ত হারিকেন দিয়ে খুজতে হবে। আমি নিজে একজন সলিড ফান্ডামেন্টাল ট্রেডার, শুধুমাত্র Stop Loss বা Take Profit দেবার সময় কোন মেজর সাইকোলজিক্যাল লেভেলের খোঁজ করি। মার্কেটের টেকনিক্যাল ভিউ অন্যকিছুর পরামর্শ দিতে পারে কিন্তু আমি মনে করি ডলারের মূল্য হ্রাসের খুব কম কারণই আছে যা মার্কেটে অদুর ভবিষ্যতে আধিপত্য বিস্তার করবে। ফেড যদি একবারে সরাসরি রেট হাইক করার বিষয়ে বিপরিত মতামত দেয়, বা প্রক্রিয়া বিলম্বের স্পষ্ট ইঙ্গিত দেয় তখনি ডলার হয়ত একটা ধাক্কা খাবে, যেটার সম্ভাবনা কম কারণ ফেডের রেট হাইকের শর্তগুলো ইউএস ইকোনমি ভালভাবেই পূরণ করে চলেছে । যতদিন রেট হাইক করার বাজনা বাজতে থাকবে ডলারের মূল্য ততদিন একটু একটু করে বাড়ার কথা।   একটি বাড়তি সাইকোলজিক্যাল পরামর্শ, যদি দেখেন মার্কেটের এমন পরিবেশে ডলার কিছুটা দুর্বল হচ্ছে তাহলে ধরে নিবেন “A bunch of winners are just taking their profit off the market, and going to enjoy a vacation.” আর যদি ফেড যেভাবে হকিস মুডে আছে সেভাবে সময়মতন রেট হাইক করেই ফেলে তাহলে আমি বলব ডলার আর ইউরো সমান হওয়া শুধু সময়ের ব্যাপার। কারণ আমরা প্রায় সবাই জানি ইউরো এখন কারেন্সি ওয়ারের দুর্বলতম যোদ্ধা। অচিরেই আসছে ECB-র তথা সুপার মারিওর বৃহৎ QE প্রোগ্রাম। বলা যায় ইউরোর দুঃসময় চলবে আরও কয়েক মাস।  
       
       
      ইউরোর বিপরীতে ডলার কেনার পরামর্শই দেব আমি, তথাপি অসি(AUD) বা লুনির(CAD) বিপরীতেও ডলার কিনতে পারেন। সোজা কথায় EUR/USD AUD/USD sell অথবা USD/CAD buy করতে পারেন। যেকোনো সময় পজিশন ওপেন না করে ছোটখাটো পুল ব্যাক দেখে পজিশন নিতে পারেন।
       
       
      উল্টোদিকে যাদের ইউরো বা গোল্ড এর এত লোভনীয় মূল্য দেখে কেনার তর সইছে না তাদের বলছি, সবুরে মেওয়া ফলে। সবুর করুন আশা করি সামনে আরও অনেক বেশি সুস্বাদু মূল্য পাবেন, মার্কেটে সর্বোচ্চ “মাইনর পারশিয়াল” পজিশন নিতে পারেন। তবে অপেক্ষা করাটাই সবদিক দিয়ে কল্যাণকর।
       
      ফরেক্স মার্কেট নিয়ে এত সরাসরি কথা বলা কিন্তু বোকামির সামিল। কারণ দিন শেষে মার্কেটে সবাই ছাত্র, শিক্ষক কেউ না। একমাত্র শিক্ষক স্বয়ং মার্কেট নিজে। মনে রাখবেন, লস খেলে ভুলটা আপনারই, মার্কেট কিন্তু সবসময় সঠিক!! কাজেই সব কথার শেষ কথা আপনাদের যতই পরামর্শ দেই না কেন, ট্রেড করবেন  নিজের রিস্কে। টাকা আপনার, রিস্ক আপনার। লস খেলে আমি ক্ষতিপূরণ দিব না। উপরের লেখা গুলো শুধুমাত্র মার্কেট সম্পর্কে আমার একান্ত নিজস্ব মনোভাব আর মতামত। :devil:
    • By fxmentorbd

                           ফেসবুক পেজ:- FXMentorbd
       
      আজ মাসের প্রথম গুরুত্বপূর্ণ নিউজ NFP প্রকাশিত হতে যাচ্ছে । আশাকরি এই নিউজ সম্পকে সবার ভাল ধারণা রয়েছে। USD নিউজের মধ্যে এই নিউজটি অন্যতম একটি নিউজ। এই নিউজের সময় মাকেট অনেক ভায়োলেট থাকে। এই নিউজটি USD কারেন্সির গতি পরিবর্তন করে দিতে সক্ষম। এই নিউজটি প্রত্যেক মাসের প্রথম গুক্রবার সন্ধ্যা ৬.৩০ মিনিটে প্রকাশিত হয়ে থাকে। গত মাসের NFP নিউজ এসেছিল 192K যা ছিল এর পূর্ববতী মাস এবং ফোরকাস্টের তুলনায় কম । তবে এই মাসের NFP ফোরকাস্ট করা হয়েছে 210K এবং Unemployment Rate ফোরকাস্ট করা হয়েছে 6.6% । যদি NFP ফোরকাস্ট থেকে বেশি আসে তবে USD স্ট্রং হবে আর যদি ফোরকাস্ট থেকে কম আসে তবে দুর্বল হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এতটুকু আশা করা যায় যে, গত মাসের তুলনায় এবারের NFP-এর Actual বেশি আসবে । এর ফলেও কিন্তু USD স্ট্রং হতে পারে। নিউজের ক্ষেত্রে কিন্তু এই ধরণের ঘটনা প্রায়ই দেখা যায়।

      আসুন একটু জেনে নেই এই নিউজ সম্পকে এক্সপাটদের ধারণা কি -
      ----------------------------------------------------------------

      ** 170-200K মধ্যে আসতে পারে। - (majority expert said)

      ** 181K আসতে পারে। - (website, website)

      ** 206K আসতে পারে। - (website)

      ** 180K আসতে পারে। - (website)

      ** NFP নিউজ যদি 286K বা তার চেয়ে বেশি এবং Unemployment Rate 6.6% বা কম আসে। তবে USD কারেন্সি বাই করতে হবে, সেক্ষেত্র eur/usd সেল এবং usd/jpy বাই করতে হবে ।- অথবা- যদি 146K বা তার চেয়ে কম এবং Unemployment Rate 6.6% বা বেশি আসে। তবে USD কারেন্সি সেল করতে হবে, সেক্ষেত্র eur/usd এবং gbp/usd বাই করতে হবে । - (Henry Liu)

      ** 200K আসতে পারে। - (Jay Feldman)

      ** 240K আসতে পারে। - (Joseph LaVorgna)

      ** 256-275K আসতে পারে। - (Dale J Pinkert)

      ** 236-255K আসতে পারে - (Yohay Elam, Bill Hubard)

      ** 216-235K আসতে পারে - (Pablo Piovano, David Pegler, Mark De La Paz, Adam Narczewski, Mauricio Carrillo)

      ** 196-215K আসতে পারে - (Ilian Yotov, Alistair Cotton, Nik Kalsi, Alberto Munoz)

      ** 121-140K আসতে পারে - (Bill Hubard, David Pegler, Valeria Bednarik, Talal Abdullah)

      ** 175-195K আসতে পারে - (Steve Ruffley, Valeria Bednarik, Gus Farrow, Craig Drake, Phil Carr)

      একান্ত মতামত:-
      ----------------
      আমার মতে, আজকের নিউজ নেগেটিভ আশার সম্ভাবনা রয়েছে ।

      যদি নিউজের ডাটা ২০০কে -এর উপরে আসে তাহলে ইউএসডি স্ট্রং হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

      NFP নিউজ যদি ফোরকাস্ট থেকে বেশি আসে তাহলে USD বাই করতে হবে । সেক্ষেত্রে - eur/usd, gbp/usd, aud/usd, nzd/usd ইত্যাদি কারেন্সি সেল যাবে এবং usd/jpy, usd/cad ইত্যাদি কারেন্সি বাই যাবে ।

      পরামর্শ:
      -----------
      যাদের নিউজ সর্ম্পকে ধারণা নেই এবং নতুন ট্রেডার তারা এই সময় নিউজ করা থেকে বিরত থাকবেন। কারণ, তখন লাভের চেয়ে ক্ষতির পরিমাণ বেড়ে যাবে, এমনকি আপনার একাউন্টও খালি হয়ে যেতে পারে। যারা ট্রেড করবেন তারা অবশ্যই স্টপ লস ব্যবহার করবেন। এবং যেসব ব্রোকারে স্লিপপেজ বেশি হয়, সেসব ব্রোকারে নিউজের আগে পেন্ডিং অর্ডার না দিয়ে নিউজ পাবলিশের পর পেন্ডিং অর্ডার দিয়েন। নিউজের সময় এই স্লিপপেজের খারাপ দিকটা ভাল করে বুঝা যায়।
       
      **ভাল লাগলে নিচের লিংকগুলোতে ঘুরে আসতে পারেন:
       
      ফেসবুক পেজ:- FXMentorbd

      ফরেক্স গ্রুপ:- Forex Mentor Bangladesh (FXMBD)
       
       

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×