Jump to content
Sign in to follow this  
forexnews

ফেড প্রধান হিসেবে নবনির্বাচিত পাওয়েল, সুদের হার বাড়তে পারে ডিসেম্বরে

Recommended Posts

যুক্তরাষ্ট্রে গেল সপ্তাহজুড়ে শিরোনাম দখলে রেখেছে FOMC এর দুটি গুরুত্বপুর্ণ ঘটনা। কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্তৃক ডিসেম্বর নাগাদ সুদের হার বৃদ্ধির একটি প্রচ্ছন্ন ইঙ্গিত আর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ফেডের নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে পাওয়েলের নাম ঘোষণা করেন যিনি ফেডারেল রিজার্ভের গভর্নরস বোর্ডের একজন সদস্য।

 

সুদের হার বাড়তে পারে ডিসেম্বরে

 

গত সপ্তাহে সর্বশেষ মিটিং এ কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্তৃক সুদের হার ১% থেকে ১.২৫% সীমারেখার মধ্যে অপরিবর্তিত রাখার বিষয়টি ফেডারেল ব্যাংকের নজরে আনে। অর্থনীতিবীদ এবং মার্কেট গবেষকগণ এমনটাই ধারণা করেছিলেন। এদিকে ডিসেম্বর থেকে হার বৃদ্ধির সুযোগ থাকছে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। সেপ্টেম্বরে হ্যারিকেন আঘাত হানার ফলে সুদের হারের সাময়িক পরিবর্তন পরিলক্ষিত হয় যার ফলে যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতি কিছুটা বিপর্যস্ত হয়।
 
 
bdpips_1510034713__new-fed-chair.png
 
 
“FOMC এর সেপ্টেম্বরের তথ্য অনুযায়ী হ্যারিকেন আঘাত হানা সত্বেও যুক্তরাষ্ট্রের শ্রমের বাজার শক্তিশালী হতে থাকে এবং অর্থনৈতিক কর্মকান্ড কাঙ্ক্ষিত হারে বৃদ্ধি পেতে থাকে।“ এমনটাই বিবৃতি দিয়েছে FOMC যা সুদের হার বৃদ্ধির স্পষ্ট ইঙ্গিত।
সম্প্রতি স্থায়ী বিনিয়োগে ঊর্ধ্বগতি আশা করে বলে ফেড তাদের বিবৃতিতে উল্লেখ করে। ফেডের ঘোষনার ফলে মার্কেটে কিছুটা পরিবর্তন আসে। FOMC কর্তৃক এই ঘোষণা আসার সাথে সাথে মার্কেটের সুদৃঢ় অবস্থান লক্ষ করা যায় যা ৮৭.৫% এ দাড়ায়। এর ফলে ডিসেম্বরে রেট বৃদ্ধির সম্ভাবনা প্রায় নিশ্চিতই বলা চলে।
 
২০১৮ সালেও তিন দফায় সুদের হার বৃদ্ধির ব্যাপারেও ফেডের পরিকল্পনা রয়েছে। বর্তমানে মার্কেট ২ দফা সুদের হার বৃদ্ধির সম্ভাবনা নির্দেশ করছে। তবে এক মাসের ব্যবধানে তা পরিবর্তন হতে পারে, বিশেষত সেপ্টেম্বরের শেষ নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে ৩% প্রবৃদ্ধির কারণে।
 
কেন্দ্রীয় ব্যাংক কর্তৃক মাসিক বন্ড হ্রাসের কার্যক্রমও ঘোষনা করেছে। ব্যালেন্স সিটের নরমালাইজেশন হিসেবে পরিচিত এ পরিকল্পনার মাধ্যমে অক্টোবর থেকে ফেড তাদের কার্যক্রম শুরু করেছে যার মাধ্যমে প্রতি মাসেই ১০ বিলিয়ন ডলার মুল্যের বন্ড কমানো হচ্ছে। পরবর্তী বছরের প্রথম দিকে এই হ্রাসের পরিমাণ ১০ বিলিয়ন ডলার থেকে ২০ বিলিয়ন ডলারে উন্নিত হবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। ২০১৮ সালের শেষের দিকে প্রতি মাসে ৫০ বিলিয়ন ডলার করে কমবে বলে ধারণা করছে ফেড।
 
জেরোমি পাওয়েল, ফেডের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান
 
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এশিয়া সফরকে সামনে রেখে ফেড প্রধান নির্বাচনের ব্যাপারে তার সিদ্ধান্ত জানান। বৃহস্পতিবার ট্রাম্প ফেডের পরবরর্তী চেয়ারম্যান হিসেবে জেরোমি পাওয়েলের নাম ঘোষণা করেছেন। বর্তমান আলোচিত ফেড চেয়ারম্যান জেনেট ইয়েলেনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে।
 
২০১৪ সালে জ্যানেট ইয়েলেন ওবামা প্রশাসন কর্তৃক ফেডের প্রধান নির্বাচিত হন। এর আগে তিনি বেন বার্নাঙ্কের অধীনে দায়িত্বরত ছিলেন। পাওয়েল নির্বাচিত হওয়ার ঘটনা খুবএকটি আশ্চর্যজনক ছিল না কারো কাছেই। FOMC এর একজন সদস্য হিসেবে তিনিও যে তার পূর্বানুসারীদের মত নির্বাচিত হতে পারেন সে ধারনা অনেকেই করেছিল। পাওয়েল ২০১২ সাল থেকে FOMC এর বোর্ডে দায়িত্বরত আছেন এবং তিনি ধারাবাহিকভাবে সুদের হার বৃদ্ধির পেছনে তার ভূমিকাই ছিল মূখ্য। যার ফলে তার নমিনেশন এবং নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারটি মার্কেটের চোখে ইতিবাচক হিসেবে বিবেচিত হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে পাওয়েল তার বর্তমান ধারা বজায় রেখেই কাজ করবেন, তাই মার্কেটে হুট করে বড় ধরনের চমক আসার সম্ভাবনা কম বলেই ভাবছেন বিশেষজ্ঞরা।

Share this post


Link to post
Share on other sites

Create an account or sign in to comment

You need to be a member in order to leave a comment

Create an account

Sign up for a new account in our community. It's easy!

Register a new account

লগিন

Already have an account? Sign in here.

Sign In Now
Sign in to follow this  

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×