Jump to content
Sign in to follow this  
Pinkud2k

ফরেক্স অভিধান

Recommended Posts

Long - ক্রয় করা- Buy

Short- বিক্রয় করা-Sell

Bullish- আপট্রেনড, আপট্রেনডে থাকা ট্রেড, ঊর্ধ্বমুখী

Bearish-ডাউন ট্রেনড, ডাউন ট্রেনডে থাকা ট্রেড, নিম্মমুখি

Indicator- যা মার্কেট সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে, যা ভবিষ্যৎ বানী করে, যা অর্থনীতির অবস্থা সম্পর্কে ইঙ্গিত দেয়, মুদ্রাস্ফীতি, সুদ, এবং অন্যান্য সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে।

 

Chart- চার্ট হোল আগের প্রাইস একশন যা গ্রাফের মাধ্যমে চোখের সামনে উপস্থিত করে।

Commodity- পণ্য, যেমন, খাদ্য, মেটাল প্রভৃতি।

Expert Adviser- রোবট প্রোগ্রাম যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ট্রেড করতে পারে।

Pips- দশমিকের পরে ৪থ সংখ্যার প্রতি এক একক পরিবর্তন বা মুভমেন্টকে PIP বা পিপ বলে।

Pipettes- কিছু কিছু ব্রোকারে প্রাইস দশমিকের পরে ৫ ডিজিট থাকে। যেমনঃ ১.৪২৫৬১. এই পঞ্চম ডিজিট তাই হল পিপেটিস।

Lot- একসাথে কতগুলো শেয়ারের সমষ্টি। সাধারণত ১০০ ইউনিটের সমষ্টি কে বুজায়।

তবে ১০০০০ ও ১০০০০০ ইউনিটের লট ও রয়েছে। ব্রোকার অনুযায়ী ইউনিটের পার্থক্য হয়।

 

Loss- মনে হয় না অর্থ বলতে হবে ! খেলে টের পাবেন !

Profit- এইটাও পেলে টের পাবেন !

Long-term- অধিক সময়। সাধারনত, বন্ডের ক্ষেত্রে বোজায়, ১০ বছরের অধিক সময়।

Leverage- মূল ব্যালেন্সের অতিরিক্ত নিয়ে ট্রেড ওপেন করলে, অতিরিক্ত যে সুবিধা পাওয়া যায় তাকে লিভারেজ বলে।

Margin- লিভারজের মতো। কতটুকু লিভারেজ ব্যাবহার করা হয়েছে তা মারজিন এর রেশিও দ্বারা বোজা যায়।

Spread- ব্রোকারের কমিশন। ট্রেড ওপেন করলেই দেখা যায় ট্রেডটি কিছুটা লসে ওপেন হয়েছে। এটাকেই স্প্রেড বলে।

ফরেক্স ব্রোকারে একটি ট্রেড ওপেন করার জন্য এই ফি, কমিশন বা চার্জ হিসেবে ব্রোকার কেটে নেয়।

 

Ask Rat- যে রেটে বিক্রির জন্য অফার করা হয়।

Bid Rate- যে রেটে একজন ট্রেডার কোন কারেন্সি ক্রয়ের জন্য ইচ্ছা করে।

Base Currency- যে কারেন্সি দিয়ে একজন ট্রেডার তার ফরেক্স আকাউনট সংরক্ষণ করে। সাধারণত অ্যামেরিকান ডলার

বিশ্ব জুড়ে বেইস কারেন্সি হিসেবে বেবহারিত হয়।

 

Broker- কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যে বা যারা ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মধ্যস্থকারবারি হিসেবে কাজ করে এবং সার্ভিস চার্জ নেয়।

Chartist- কোন ব্যাক্তি, যে চার্ট ও গ্রাফ ব্যাবহার করে, ট্রেনড খুজে পেতে পূর্বের ডাটা ব্যাখ্যা করে, এবং ভবিষ্যৎ সম্ভাব্য মুভমেন্ট সম্পর্কে ভবিষ্যতবাণী করতে পারে। এদেরকে টেকনিক্যাল ট্রেডার ও বলা হয়।

Choice Market- যে মার্কেটে স্প্রেড নেই। এক প্রাইজেই সকল বায় এবং সেল সংঘটিত হয়।

Commission Fee- ট্রান্সজেক্সন খরচ, যা ব্রোকার কেটে নেয়।

Currency Rate- কোন কারেন্সি একচেঞ্জ করার সময় মূল্য পরিবর্তনের সম্ভাব্যতা।

US Prime Rate- যে রেটে অ্যামেরিকান ব্যাংকগুলো তাদের প্রাইম কর্পোরেট কাস্টমারদের লোন দেয়।

  • Love 2

Share this post


Link to post
Share on other sites

Long - ক্রয় করা- Buy

Short- বিক্রয় করা-Sell

Bullish- আপট্রেনড, আপট্রেনডে থাকা ট্রেড, ঊর্ধ্বমুখী

Bearish-ডাউন ট্রেনড, ডাউন ট্রেনডে থাকা ট্রেড, নিম্মমুখি

Indicator- যা মার্কেট সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে, যা ভবিষ্যৎ বানী করে, যা অর্থনীতির অবস্থা সম্পর্কে ইঙ্গিত দেয়, মুদ্রাস্ফীতি, সুদ, এবং অন্যান্য সম্পর্কে তথ্য প্রদান করে।

 

Chart- চার্ট হোল আগের প্রাইস একশন যা গ্রাফের মাধ্যমে চোখের সামনে উপস্থিত করে।

Commodity- পণ্য, যেমন, খাদ্য, মেটাল প্রভৃতি।

Expert Adviser- রোবট প্রোগ্রাম যা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ট্রেড করতে পারে।

Pips- দশমিকের পরে ৪থ সংখ্যার প্রতি এক একক পরিবর্তন বা মুভমেন্টকে PIP বা পিপ বলে।

Pipettes- কিছু কিছু ব্রোকারে প্রাইস দশমিকের পরে ৫ ডিজিট থাকে। যেমনঃ ১.৪২৫৬১. এই পঞ্চম ডিজিট তাই হল পিপেটিস।

Lot- একসাথে কতগুলো শেয়ারের সমষ্টি। সাধারণত ১০০ ইউনিটের সমষ্টি কে বুজায়।

তবে ১০০০০ ও ১০০০০০ ইউনিটের লট ও রয়েছে। ব্রোকার অনুযায়ী ইউনিটের পার্থক্য হয়।

 

Loss- মনে হয় না অর্থ বলতে হবে ! খেলে টের পাবেন !

Profit- এইটাও পেলে টের পাবেন !

Long-term- অধিক সময়। সাধারনত, বন্ডের ক্ষেত্রে বোজায়, ১০ বছরের অধিক সময়।

Leverage- মূল ব্যালেন্সের অতিরিক্ত নিয়ে ট্রেড ওপেন করলে, অতিরিক্ত যে সুবিধা পাওয়া যায় তাকে লিভারেজ বলে।

Margin- লিভারজের মতো। কতটুকু লিভারেজ ব্যাবহার করা হয়েছে তা মারজিন এর রেশিও দ্বারা বোজা যায়।

Spread- ব্রোকারের কমিশন। ট্রেড ওপেন করলেই দেখা যায় ট্রেডটি কিছুটা লসে ওপেন হয়েছে। এটাকেই স্প্রেড বলে।

ফরেক্স ব্রোকারে একটি ট্রেড ওপেন করার জন্য এই ফি, কমিশন বা চার্জ হিসেবে ব্রোকার কেটে নেয়।

 

Ask Rat- যে রেটে বিক্রির জন্য অফার করা হয়।

Bid Rate- যে রেটে একজন ট্রেডার কোন কারেন্সি ক্রয়ের জন্য ইচ্ছা করে।

Base Currency- যে কারেন্সি দিয়ে একজন ট্রেডার তার ফরেক্স আকাউনট সংরক্ষণ করে। সাধারণত অ্যামেরিকান ডলার

বিশ্ব জুড়ে বেইস কারেন্সি হিসেবে বেবহারিত হয়।

 

Broker- কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান যে বা যারা ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মধ্যস্থকারবারি হিসেবে কাজ করে এবং সার্ভিস চার্জ নেয়।

Chartist- কোন ব্যাক্তি, যে চার্ট ও গ্রাফ ব্যাবহার করে, ট্রেনড খুজে পেতে পূর্বের ডাটা ব্যাখ্যা করে, এবং ভবিষ্যৎ সম্ভাব্য মুভমেন্ট সম্পর্কে ভবিষ্যতবাণী করতে পারে। এদেরকে টেকনিক্যাল ট্রেডার ও বলা হয়।

Choice Market- যে মার্কেটে স্প্রেড নেই। এক প্রাইজেই সকল বায় এবং সেল সংঘটিত হয়।

Commission Fee- ট্রান্সজেক্সন খরচ, যা ব্রোকার কেটে নেয়।

Currency Rate- কোন কারেন্সি একচেঞ্জ করার সময় মূল্য পরিবর্তনের সম্ভাব্যতা।

US Prime Rate- যে রেটে অ্যামেরিকান ব্যাংকগুলো তাদের প্রাইম কর্পোরেট কাস্টমারদের লোন দেয়।

(y)  :wish:  :eid:

Share this post


Link to post
Share on other sites

Create an account or sign in to comment

You need to be a member in order to leave a comment

Create an account

Sign up for a new account in our community. It's easy!

Register a new account

লগিন

Already have an account? Sign in here.

Sign In Now
Sign in to follow this  

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×