Jump to content

Search the Community

Showing results for tags 'forex'.



More search options

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


Categories

  • ইন্ডিকেটর
  • এক্সপার্ট এডভাইসর
    • বিডিপিপস EA ল্যাব
  • স্ক্রিপ্ট
  • ট্রেডিং স্ট্রাটেজী
  • ট্রেডিং প্লাটফর্ম
  • ফরেক্স ই-বুক
    • বাংলা ই-বুক
  • চার্ট টেমপ্লেট

Forex Bangladesh - বিডিপিপস

  • ট্রেডিং এডুকেশন
    • সাধারণ ট্রেডিং আলোচনা
    • ফরেক্স স্টাডি
    • প্রশ্ন এবং উত্তর
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • ফরেক্স নিউজ
    • ট্রেডিং আইডিয়া
    • ট্রেডিং স্ট্রাটেজি
  • ট্রেডিং সফটওয়্যার
    • ফরেক্স ইন্ডিকেটর
    • এক্সপার্ট এডভাইসর
    • মেটাট্রেডার এবং MQL
  • ফরেক্স ব্রোকার
    • ফরেক্স ব্রোকার
  • বিডিপিপস ফোরাম সাপোর্ট
    • ফোরাম সাপোর্ট
  • অফ-টপিক
    • অপ্রাসঙ্গিক
    • ফরেক্স হিউমার
  • লাইভ ট্রেডিং রুম

Find results in...

Find results that contain...


Date Created

  • Start

    End


Last Updated

  • Start

    End


Filter by number of...

Joined

  • Start

    End


Group


AIM


MSN


Website URL


ICQ


Yahoo


Jabber


Skype


লোকেশন


Interests


ব্রোকার


মোবাইল নং

Found 55 results

  1. Crude Oil বা ক্রুড তেল বলতে যে অপরিশোধিত তেলকে বোঝায়, তা আমরা জানি। “তেল নিয়ে তেলসামাতি” পড়ে থাকলে আপনি এটাও জানেন যে বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের অপরিশোধিত তেল রয়েছে এবং এগুলোর মধ্যে Brent Crude, WTI Crude এবং Opec Basket Crude সবচেয়ে বেশী জনপ্রিয়। এখন আপনি প্রশ্ন করতে পারেন যে, এই তেলগুলো কি জিনিস সেটা জেনে আমার কি লাভ? সত্যি বলতে তেমন কোন লাভ নেই, তাই এ নিয়ে বিস্তারিত কোন আলোচনায় যাবো না। কিন্তু, তেলের যে বিভিন্ন ধরন আছে, আর কোনটা কি, তা জানার দরকার আছে। না জানলে কি ঝামেলায় পড়বেন, তা নিচের উদাহরন দেখলেই বুঝতে পারবেনঃ বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় অপরিশোধিত তেল হচ্ছে Brent Crude (মোট ব্যবহৃত অপরিশোধিত তেলের দুই তৃতীয়াংশই হচ্ছে Brent Crude বা ব্রেন্ট ক্রূড)। আর XM এ Brent Crude Oil এর নাম হচ্ছে Brent, মানে mt4/mt5 এ Brent খুজে বের করলেই হবে। কিন্তু, আপনি যদি না জানেন যে Brent বলতে আসলে এক ধরনের অপরিশোধিত জ্বালানি তেলকে বোঝায়, তাহলে আপনি যেটা খুজে পাবেন, সেটা হচ্ছে Oil. XM এ শুধু OIL ট্রেডিং কোডটি দিয়ে West Texas Intermediate বা WTI ক্রুড তেলকে বোঝায়। OILMn নামে আরেকটি ট্রেডিং কোড আছে যেটি WTI ক্রুড এরই মিনি লটকে নির্দেশ করে, যেটিতে প্রতি পিপসের ভ্যালু মাত্র ১০ সেন্ট। তারমানে, Brent কি তা না জানলে আপনি সবচেয়ে জনপ্রিয় তেলটি ট্রেডের সুযোগ থেকেই বঞ্চিত হবেন। মোটামুটি সব ব্রোকারেই Brent Crude তেল শুধু Brent নামেই পরিচিত। তাই, নাম না জানলে বিপদ। আবার, Brent, OIL এবং OILMn, এই তিনটি দিয়ে যে যথাক্রমে Brent Crude, WTI Crude এবং WTI Crude এর মিনি লটকে বোঝাচ্ছে, সেটাও বুঝতে পারবেন না। আমি নতুনদের সবসময় পরামর্শ দিব OILMn ট্রেড করতে, কেননা এটাতে প্রতি পিপসের ভ্যালু সর্বনিম্ন ১০ সেন্ট, অন্যগুলোতে ১ ডলার করে। তেলের ক্ষেত্রে XM এ ১ লট বলতে ১০০ ব্যারেল তেল বোঝায় (১ ব্যারেল মানে ১৫০ লিটার)। আগেই বলেছি যে কোন তেল কি, সেটা জেনে আপনার তেমন কোন লাভ নেই, আপনার শুধু জানা দরকার কোন তেলগুলো বিশ্ববাজারে সবচেয়ে বেশী ট্রেড করা হয় এবং ব্রোকারগুলোতে সেগুলোর নাম কি। সেটা আপনি ইতিমধ্যেই জেনে আছেন। তারপরেও প্রধান তেলগুলো সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত আলোচনা করছিঃ প্রধান অপরিশোধিত তেলগুলো আমার সবার প্রথমে মাথায় এটা প্রশ্ন জেগেছিল যে, অপরিশোধিত তেলের আবার আলাদা আলাদা ধরন কেন? নারিকেল তেল, সয়াবিন তেলের মতই কি এগুলো আলাদা আলাদা ধরনের জ্বালানী তেল নির্দেশ করে? এগুলো সবগুলোই কি একই কাজে ব্যবহৃত হয়, নাকি নারিকেল তেল, সয়াবিন তেলের মত আলাদা আলাদাভাবে ব্যবহৃত হয়? বিশ্বে ১৬০ ধরনের তেল ট্রেড করা হয়, আমরা এগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশী যে তেলগুলো ট্রেড করা হয়, মানে Brent, WTI এবং Opec Basket, সেগুলোর মধ্যে তুলনা করব। জ্বালানী তেলের গুনগতমান কিভাবে নির্ধারন করা হয়? জালানী তেলের ক্ষেত্রে গুনগতমান নির্ধারন করা হয়, এতে কতটুকু সালফার আছে এবং এটি কতটুকু ভারি তা দিয়ে। কোন তেলে সালফারের পরিমান শতকরা যত কম থাকবে, সেটিকে তত বেশী sweet বলা হবে। এখানে, sweet দিয়ে শুধুমাত্র সালফারের পরিমান কত কম, সেটাই নির্দেশ করছে, মিষ্টিজাতীয় কিছু না। আরেকটি বিবেচ্য বিষয় হচ্ছে API Gravity, যেটা ওজন নির্দেশ করে। কোন তেলের API Gravity যত বেশী, সেটা ওজনে তত হালকা, একইভাবে API Gravity যত কম, ওজনে তত ভারী। যদি কোন তেলের API Gravity ১০ এর বেশী হয়, তাহলে সেটা পানিতে ডুবে যাবে, নাহলে পানির উপর ভেসে থাকবে। যেই তেলের API Gravity যত বেশী হবে, মানে যত হালকা হবে আর সালফারের শতকরা পরিমান যত কম হবে, মানে তেলটি যত sweet হবে, তার গুনগতমান তত বেশী হবে, বেশী পরিমানে উন্নতমানের গ্যাসোলিন উৎপন্ন করা যাবে। তাহলে, এবার দেখা যাক, ব্রেন্ট, WTI আর ওপেক বাস্কেট, কোনটার গুনগত মান সবচেয়ে ভালো। WTI বা West Texas Intermediate তিন ধরনের তেলের মধ্যে সবচেয়ে ভালো তেল হচ্ছে এবং খুবই উন্নতমানের তেল হচ্ছে WTI বা West Texas Intermediate. এতে সালফার আছে শতকরা মাত্র ০.২৪ ভাগ আর API Gravity হচ্ছে ৩৯.৬ ডিগ্রি। নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে যে, এটি যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদিত হয়। খুবই হালকা এবং সালফারের পরিমান খুব কম বলে, এটি গ্যাসোলিন উৎপাদনের জন্য সর্বোত্তম। WTI তেলের ব্যবহার সবচেয়ে বেশী হয় আমেরিকা বা যুক্তরাষ্ট্রে। Brent Crude Oil এর পরেই আসবে Brent Crude Oil. এতে সালফারের পরিমান শতকরা ০.৩৭ ভাগ আর API Gravity হচ্ছে ৩৮.৩ ডিগ্রি। WTI এর মত এত ভালো না হলেও, এই তেলও হালকা এবং এতে সালফারের পরিমান খুব বেশী না। মূলত ডিজেল, গ্যাসোলিন পরিশোধনের জন্যেই Brent Crude Oil বেশী ব্যবহৃত হয়। মূলত উত্তর সাগরের চারটি ভিন্ন ভিন্ন জায়গা থেকে এই তেল আহরন করা হয়। Brent তেলের ব্যবহার সবচেয়ে বেশী হয় ইউরোপে এবং আফ্রিকাতে। Opec Basket সবশেষে আসবে ওপেক বাস্কেট। ওপেক নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে এই তেল কোথা থেকে আহরন করা হয়। ঠিক, মূলত ওপেকভুক্ত দেশগুলো থেকে, যেমনঃ সৌদি আরব, আলজেরিয়া, ভেনিজুয়েলা ইত্যাদি। এগুলোতে সালফারের পরিমান খুবই বেশী, আবার তুলনামুলকভাবে ভারী। তাই, WTI বা ব্রেন্টের সাথে তুলনা করলে ওপেক বাস্কেট তেল বেশ নিম্নমানের। কিন্তু, সুবিধা হল ওপেক দেশগুলোতে প্রচুর তেল মজুদ আছে এবং তারা চাইলেই যেভাবে উৎপাদন বাড়াতে পারে, সেইভাবে অন্য তেলগুলোর উৎপাদন বাড়ানো সম্ভব না। তাই, বিশ্ববাজারে ওপেক বাস্কেট এর গুরুতবপূর্ন ভুমিকা আছে। কোন তেলের দাম সবচেয়ে বেশী? আরেকটা ব্যাপার হচ্ছে দাম। ওপেক বাস্কেট তেলের দাম প্রধান তেলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে সস্তা। Brent তেলের দাম সাধারনত ওপেক বাস্কেট থেকে ব্যারেলপ্রতি ৪ ডলার বেশী হয়। WTI এর দাম তো আরও বেশী। ওপেক বাস্কেট থেকে WTI ব্যারেলপ্রতি ৫-৭ ডলার বেশী দামে বিক্রি হয়, মানে Brent তেল থেকে WTI তেলের দাম ব্যারেলপ্রতি ১-৩ ডলার বেশী।
  2. একথা নতুন করে বলার কিছু নাই যে, ফরেক্স মার্কেট বিশ্বের সবচেয়ে বড় লিকুইডিটি মার্কেট। যেখানে ট্রিলিয়ন ট্রিলিয়ন ডলার লেনদেন হয় প্রতিদিন। এই মার্কেটে আমার আপনার মত যারা ট্রেড করি তারা শুরুতেই একটা কথা শুনে আসি যে, এই মার্কেটে ৯৫% লুজার!! কিন্ত কেন এতো বড় অংশ লুজার তা কি কেউ জানি?? => আজ এই লেখায় আপনি অনেক নতুন বিষয় জানতে চলেছেন, তা হয়তো আপনি আগে ভাবেননি কখনো। অথবা ভেবেছেন, কিন্ত সিরিয়াস হিসেবে নেন নি কখনো অথবা জেনেও থাকতে পারেন, কিন্ত ততোটা গুরুত্ব দেননি। আজ থেকে সেসব গুরুত্ব দিতে শিখবেন আশা করছি। হাতে সময় আছে তো? একটু সময় নিয়ে লেখাটা পড়ুন। বোঝার চেষ্ঠা করুন। দরকার হলে আরেকবার পড়ুন। নয়তো বুকমার্কে সেইভ করে রাখুন, আপনার ফেসবুক ওয়ালেও শেয়ার করে রাখুন যাতে সবাই জানতে পারে ফরেক্স মার্কেটের এই নিগুঢ় রহস্যের ব্যাপারে। সবার প্রথমে আপনাকে জানতে হবে এই ফরেক্স মার্কেটে ব্যবসা করে দুই শ্রেনীর ব্যবসায়ী। এক রাঘব বোয়ালেরা, আর দুই চুনোপুঁটিরা। এখানে রাঘব বোয়াল কারা? এখানে রাঘব বোয়াল হিসেবে কাজ করে বিশ্বের বড় বড় ব্যাংক, বড় বড় ফিন্যান্সিয়াল করপোরেশানগুলো। তবে তারা কিন্ত বাংলাদেশের শেয়ার মার্কেটের মত এই মার্কেটকে ম্যানিপুলেট করার কোন ক্ষমতাই রাখে না। মার্কেট মার্কেটের মতোই চলে। এবার আসি চুনোপুঁটিদের কথায়। এই চুনোপুঁটিই হচ্ছে আমার আপনার মত ট্রেডারেরা। বলা হয় এই মার্কেটে ৯৫% লুজার। এই লুজার কারা? ঐ সব রাঘব বোয়ালেরা? কখনোই না! তারা কিন্ত এই ৯৫% লুজারের মাঝে পড়েনা। কেন? কারন তারা এখানেই তাদের অর্থ যথাযথ ব্যবহার করে। বিভিন্ন ব্রোকারেরা তাদের কাছ থেকে কমিশনের ভিত্তিতে স্বত্ব কিনে নিয়ে আমাদের মত ট্রেডারদের ট্রেড করার সুযোগ করে দেয়। আর লুজারদের তালিকায় আমাদের মত ট্রেডারেরা থাকে। এই যে আপনি ৯৫% লুজারের কথা শুনছেন, তারা কিন্ত আমার আপনার মতোই ট্রেডারেরা। নয়তো সেই সব রাঘব বোয়ালেরা লস করলে ফরেক্স মার্কেটে লিকুইডিটি সংকট দেখা দিত। এই ট্রিলিয়ন ডলারের লেনদেনও কমে আসত যদি এখানে সেই রাঘব বোয়ালদেরও ৯৫% লুজার হতো। কিন্ত বাস্তবে সেই মার্কেট আরও বড় হচ্ছে। এতেই বোঝা যাচ্ছে বাস্তবতা। এই বিশাল মার্কেটে বড় বড় বিজনেসম্যানদের সঙে আপনিও যখন নিজেকে শামিল করছেন, তখন আপনার চিন্তাধারাও তাদের চিন্তাধারার সাথে মেলাতে হবে। যদি তা না করতে পারেন, তবেই আপনি লুজার হবেন নিশ্চিত। আর লুজারদের পার্সেন্টেজ দেখে বোঝাই যায় যে শতকরা ৯৫ জন ট্রেডারেরাই নিজেদের সেই সব বিজনেসম্যানদের চিন্তাধারার সাথে নিজেদের মেলাতে পারেনি। ফলাফল এমন বিশাল লুজারের সংখ্যাবৃদ্ধি। এবার আসি বড় বড় ব্যাবসায়ীদের সাথে আমাদের মত ট্রেডারদের স্ট্র্যাটেজিক্যাল পার্থক্যের বিষয়েঃ আপনি সাড়ে পাঁচ’ফুট বা ছ’ফুট উচ্চতার মানুষ। আপনি হাটার সময় এক ধাপেই প্রায় দুই ফুট পার হয়ে যেতে পারেন। এই দু ফুট রাস্তায় হালকা কাদা পানি, খানা খন্দ যাই থাকুক না কেন। আপনার কিন্ত সেসব না দেখলেও চলে। কিন্ত এই পথ যদি একটা পিপড়া অতিক্রম করতে চায়? তাহলে কি হবে? তাকে প্রতি ইঞ্চি ইঞ্চি হিসেব করে এগতে হবে, নয়তো কাদায় আটকে যেতে পারে, খানাখন্দের ভিতর পানি থাকলে সেখানেও প্রান সংশয় দেখা যেতে পারে। তাই তাকে হিসেব করে করে এগোতে হয়। চারদিকে দেখেশুনে নিয়ে এগোতে হয়। ঠিকঠাক ভাবে এগোতে পারলে সেই পথ পারি দিয়ে পারে। অথবা কোন ভুল করলে প্রানটাও হারাতে পারে। এই উদাহরনের সাথে ফরেক্স এর কি সম্পর্ক?? জ্বি, সম্পর্ক আছে। এটাই আসল সম্পর্ক। যারা যারা রাঘব বোয়াল, তারা মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের ব্যালান্স নিয়ে একবারে মাসের পর মাস ট্রেড ওপেন করে বসে থাকে, টাইমফ্রেমের দিক দিয়ে তারা এক লাফে দুই-আড়াই ফুট যাবার মত এগিয়ে থাকে, এই সময়ের মাঝে আমাদের মত ছোট ছোট ট্রেডারদের কেউ এক মিনিট, কেউ ৫ মিনিট, কেউ ৩০ মিনিট, কেউ ১ ঘন্টা, কেউ ৪ ঘন্টা আবার কেউ এক দিনের টাইমফ্রেম নিয়ে সেই পিপড়ার মত হিসেব করে করে সামনে এগোতে চায়। ফলাফল আমাদের মত ট্রেডারদের রিস্ক কয়েক হাজার গুন বৃদ্ধি পায়। এই ঝুঁকিপুর্ণ পথ পার হতে হতেই বেশিরভাগ ট্রেডার ঝড়ে পড়ে অনায়াসে। কারন তারা হয় ঝুঁকি সম্পর্কে তেমন সচেতন থাকেন না। নয়তো তারা ঝুঁকিটাকে ঠিকমত ম্যানেজ করতে শেখেন না। ফলাফল একের পর এক একাউন্ট ডাম্প হয়ে যাওয়া।আর লুজারদের পার্সেন্টেজ বাড়তে থাকা। এতোক্ষন তো আলোচনা করা হল কেন এতো লুজার হয়। এবার আসেন আমরা একটু জেনে নেই কিভাবে এই ঝুকিপুর্ন পথ নিরাপদে পর হতে পারবেন। আমি পয়েন্ট আকারে বিষয়গুলো ব্যাখ্যা করি। তাতে হয়তো বুঝতে সুবিধা হবে। ১) সেহেতু ফরেক্স এর পথ সমতল নয়, উঁচুনিচু আর খানা-খন্দে ভরা, সেহেতু আপনাকে সর্বপ্রথম এই পথ পাড়ি দেবার মত একটা স্ট্র্যাটেজী ঠিক করতে হবে। ২) স্ট্র্যাটেজীটা যেমনই হোক না কেন, আপনাকে লক্ষ্য রাখতে হবে নুন্যতম প্রফিট রেশিও যেন রিস্ক রেশিওর থেকে তিনগুন হয়। অর্থ্যাত আপনার স্টপ লস ১০ পিপ্স হলে যেন টেক প্রফিট ৩০ পিপ্স হয় কমপক্ষে। ৩) এমন স্ট্র্যাটেজীর সুফল আপনি এভাবে পাবেন যে, আপনার একটা ট্রেড প্রফিটে গেলে সেই প্রফিট আপনার পরবর্তী তিনটা ট্রেড লসে গেলেও আপনার মুল ব্যালান্স অক্ষুন্ন থাকবে। ৪) যে স্ট্র্যাটেজীই ব্যবহার করেন না কেন, সবসময় ট্রেন্ডের পক্ষে ট্রেড নেবেন। সাগরে ঢেউ বেশি হলে মাঝি নৌকার পাল কিন্ত যেদিকে বাতাস বইতে থাকে ঠিক সেদিকে তুলে ধরে, কারন বাতাসের উল্টোদিকে যেতে চাইলে প্রানটা হারাতে হতে পারে। ফরেক্স মার্কেটে ট্রেন্ডটাও ঠিক তেমনি। আপনি ট্রেন্ডের পক্ষে থাকলে নিজেকে বেশ নিরাপদে রাখতে পারবেন। কিন্ত ট্রিলিয়ন ডলারের সমুদ্রে নিজের কয়েকশত বা কয়েকহাজার ডলারের মুলধন নিয়ে ট্রেন্ডের বিপক্ষে যাবার সাহস করলে ফলাফল কি হতে পারে তা নিশ্চয় আপনি নিজেই আঁচ করতে পারছেন। ৫) কখনোই বিশ্বাস করবেন না যদি কেউ বলে যে, সে এই মার্কেটে কেউ ৮০% বা ৯০% টানা প্রফিট করে চলছে। তার মানে আপনিও তেমনটি করতে পারবেন। সুতরাং আপনি তার কথা শুনেই ছুটে চললেন তার কাছে, তার তালীম নেবার আশায়, কিন্ত ফলাফল দেখলেন নেগেটিভ। অর্থ্যাত আপনি আবারও লস করেছেন। বিখ্যাত এক ট্রেডারের এক বানী জেনে রাখুনঃ “In this business if you’re good, you’re right six times out of ten. You’re never going to be right nine times out of ten.” -Peter Lynch ৬) মনে রাখবেন ১০ টা ট্রেডের ৮-৯ টা ট্রেডে আপনি ১০ পিপ্স করে প্রফিট নিলেন এভারেজে, কিন্ত বাকি ১-২ টা ট্রেডেই আপনি লস করেছেন ৫০-১০০ পিপ্স করে টোটাল ১০০-২০০ পিপ্স। এখানে আপনার ট্রেডগুলোর প্রফিট রেশিও ৮০%-৯০% হলেও আল্টিমেটলি কিন্ত আপনি বেশ ভালোই লসের স্বীকার হয়ে চলেছেন। এখন কি বুঝতে পারছেন সমস্যাটা কোথায় ?? ৭) আমি ১:৩ রেশিওতে ট্রেড করতে বলেছি, তার কারন আপনি যদি ৫০% উইনও করেন , তবুও আপনি ভাল রকমের প্রফিটে থাকবেন। ১০টা ট্রেডের ৫টা ১০ পিপ্স করে লস করলেন, তার মানে ৫০ পিপ্স লস হলো, আর বাকি ৫টা তিনগুন করে প্রফিট করলেন।তার মানে ১৫০ পিপ্স প্রফিট হলো। লাভ লস মিলে কিন্ত আরও ১০০ পিপ্স প্রফিট করলেন আপনি। এখানেই প্রকৃতপক্ষে লাভ লসের হিসেব লুকিয়ে থাকে। ৮) নিজের ব্যালান্স নিয়ে সবসময় যত্নবান হবেন। কখনোও নেগেটিভ হলে হাল ছেড়ে দেবেন না। ঠান্ডা মাথায় ভেবে এর কারন বের করুন। ইমোশনালি কোন ট্রেড চালু করবেন না। ফরেক্স মার্কেট কারও ইমোশনকে পাত্তা দেয় না। জেনে রাখুন এই সফল ট্রেডার কি বলেছেনঃ “Don’t focus on making money; focus on protecting what you have.” – Paul Tudor Jones ৯) এরপর কারেন্সী পেয়ার বাছাই করতে সচেতন হোন। মনে রাখবেন আলাদা দেশ, আলাদা কারেন্সি মুভমেন্ট। সুতরাং একই ব্যবসা পদ্ধতি দিয়ে আলাদা দেশের কারেন্সি মুভমেন্টকে নিজের কন্ট্রোলে নিয়ে আসা অনেক কষ্টের। কারন মাছের ব্যবসা পদ্ধতি দিয়ে আপনি আলুর ব্যবসা করতে গেলে লস খাবেনই। সুতরাং পারতপক্ষে একটি কারেন্সী পেয়ার বাছাই করুন যা আপনার স্ট্র্যাটেজীর সাথে মানানসই হয়। নয়তো কোন একটা কারেন্সী বাছাই করুন, এরপর সেই কারেন্সীর যতগুলো পেয়ার আছে, সেগুলোতে ট্রেড করুন। ১০) যতগুলো পেয়ারই বাছাই করেন না কেন। এখানে মানি ম্যানেজমেন্ট আপনাকে ফলো করতেই হবে। এই বিষয়টা অনেকেই জানে না। আজ পরিস্কার হয়ে জেনে নিন। মানি ম্যানেজমেন্ট হচ্ছে, আপনার মুলধনকে নিরাপদ রাখা। ধরুন আপনার ব্যালান্স ১০০ ডলার। আপনি ৫% রিস্ক নিবেন। তাহলে কি করবেন? এখানে, আপনি যতগুলো ট্রেডই নেন না কেন, আপনার সকল স্টপ লসের হিসেব মিলিয়ে যেন ৫ ডলারের বেশি না লস হয়। কারন একবার সবগুলো লস হয়ে গেলেও আপনি আরও ১৯ বার একই ভাবে ট্রেড করার সুযোগ পাবেন। আগের লস রিকভারি করে আবারও প্রফিটে নিয়ে আসার সুযোগ পাবেন। এ বিষয়ে আরেকজন সফল ট্রেডারের বানী শুনুনঃ “Frankly, I don’t see markets; I see risks, rewards, and money.” – Larry Hite ১১) বাংলা একটা প্রবাদ আছে, “ভাবিয়া করিও কাজ, করিয়া ভাবিও না” এটা এখানে প্রযোজ্য হবে। সুতরাং ট্রেড ওপেন করার আগে ট্রেন্ড, আপনার স্ট্র্যাটেজী, সব দিক বিবেচনা করে পারফেক্ত হলে তবেই ট্রেড ওপেন করুন। টেক প্রফিট লেভেল, স্টপ লস লেভেল সেট করুন। এরপর বার বার চার্ট দেখতে যাবেন না। তাতে অস্থিরতা বাড়ে শুধু। আর অস্থির মনই আপনাকে ভুল ডিরেকশান দিয়ে ভুল কিছু সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করে। সুতরাং ট্রেড ওপেন করুন এবং তার কথা ভুলে যান। পরের এন্ট্রি খোঁজ করুন। সমসময় মনে রাখবেন এই সফল ট্রেডারের কথাঃ The goal of a successful trader is to make the best trades. Money is secondary.” – Alexander Elder সবশেষে বলতে পারি যে, ট্রেড বাই ট্রেড হিসেব না করে মাসে কয়টা ট্রেড নিলেন, তার টোটাল হিসেব করুন। কত পিপ্স প্রফিট পেলেন, কত পিপ্স লস করলেন তার হিসেব বের করুন। একই ভাবে ব্যাকটেস্ট করুন। মাসে কেমন প্রফিট এর সুযোগ ছিল সেসব মাসে তা বের করুন। একটা পরিস্কার ধারনা পাবেন। এভাবে টানা ২-৩ মাস করে যান, এতে অভ্যস্ত হয়ে যাবেন একসময়। আর একবার অভ্যস্ত হয়ে গেলে আপনি নিজেকে সেই ৫% প্রফিটেবল ট্রেডারদের মাঝে দেখতে পাবেন আমি নিশ্চিত। পরিশেষে, সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তায়ালা আমাকে সুস্থ রাখেন। আর ফরেক্স মার্কেটের কল্যানে আরও বেশি বেশি মানুষের মেহনত করতে পারি। অনেকেই ভালভাবে ফরেক্স জানতে ও শিখতে আগ্রহ দেখিয়েছেন, অনেকে আবার ট্রেডিং সিগনাল ফলো করার আগ্রহের কথাও জানিয়েছেন, তারা আমাকে মেসেজ দিতে পারেন অথবা আমার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে ইনবক্সে একটা মেসেজ দিয়ে রাখবেন। আপনাদের সকল প্রশ্নের উত্তর দেবার চেষ্ঠা করা হবে ইনশাল্লাহ। অত্যন্ত স্বল্প ফী’র মাধ্যমে যে কেউ এখানে সিগনাল পেতে পারেন নিজেদের ফরেক্স শেখার পাশাপাশি বাড়তি কিছু প্রফিট পাবার আশায়। আমার ফেসবুক পেইজ লিংকঃ https://www.facebook.com/bmfxanalystbd/ আমার স্কাইপ আইডীঃ live:bmfxanalyst পরিশেষেঃ ব্যবসা নিজে ভালভাবে শিখে নিয়ে নিজের বুদ্ধি ব্যবহার করে করাই সবচেয়ে ভাল। এতে ব্যবসায় আন্তরিকতা বজায় থাকে। আর আন্তরিকতার উপর নির্ভর করে সৃষ্টিকর্তা ব্যবসায় বরকত দিয়ে থাকেন। কারন আল্লাহ তায়ালা ব্যবসাকে হালাল করেছেন। আর মহানবী (স) বলেছেন, “তোমরা ব্যবসা করো, ব্যবসায়ে ১০ ভাগের ৯ ভাগ রিজিকের ব্যবস্থা আছে।” সৃষ্টিকর্তা আমাদের কবুল করুন। আমীন।
  3. #USDJPY D1 চার্টে আমরা দেখতে পাচ্ছি Head & Shoulder প্যাটার্ন তৈরী করেছে, এমনকি উপর থেকে আসা একটা ডাউনট্রেন্ড লেভেল ব্রেক করেও ফেলেছে। আবার নিচের দিক থেকে আপট্রেন্ড কন্টিনিউ করেই চলেছে। এখন এন্ত্রি কনফার্মেশনের অপেক্ষা শুধু। আপনার নিজের ট্রেডিং স্ট্রাটেজীতে যদি এমন পজিশনে কোন এন্ট্রি কনফার্মেশন পেয়ে যান, তবে সুন্দর একটা এন্ট্রি পেয়ে যাবেন, এমন আশা করছি। পরিশেষে, ইরান ও রাশান নেতাদের বৈঠক ইস্যুতে আমেরিকাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে রাশিয়া কাস্পিয়ান সাগরে ইরানের সাথে বানিজ্য কন্টিনিউ রাখার সিদ্ধান্তের ব্যাপারে কি সিদ্ধান্ত নেবেন ট্রাম্প সরকার, এমন সকল ইউএস এর বানিজ্যিক সংক্রান্ত ইস্যুর দিকে নজর রাখা উচিত ফান্ডামেন্টালি। কারন ট্রাম্প প্রশাসনের একটি সিদ্ধান্ত ইউএসডি কারেন্সির মুভমেন্ট যে কোন দিকে ঘটাতে পারে। তাই, সেদিকেও একটি চোখ দিয়ে রাখা উচিত। সবার জন্য শুভকামনা রইল। Trade with real ECN Broker:
  4. Hi, My name is Anu I am officially representative of Xtreamforex XtreamForex is a forex broker, Member of Grandinvesting Group Incorporated in MIS Registration number 84516 IBC 2016 Company number: 84516 If you have any question regarding this broker about the services and promotion feel free to ask me here. i will be happy to assist you. Regards Anu
  5. ট্রেডিং স্ট্রাটেজি এমন হওয়া উচিত যেন তা কোন কোন চার্টকে বর্ণনা করতে সক্ষম হয়। স্ট্রাটেজিতে থাকতে পারে অনেক ধরনের টুলস। আর কোন চার্টকে যদি কোন ট্রেডিং স্ট্রাটেজি বর্ণনা করতে না পারে তাহলে কিছু আপডেট আনা উচিত অথবা Exceptional হিসেবে ধরে নেয়া উচিত। যদি স্ট্রাটেজি Explain করতে পারে কোন প্রাইসের Movement তাহলে সেটাই হবে প্রকিত ট্রেডিং স্ট্রাটেজি। উদাহরন হিসেবে বলতে পারি ১৯৩০ সালের USA Great Depression ( লং-টাইম বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক মন্দা). তখনকার একটাও Economist বর্ণনা করতে পারেনি Great Depression কে তাদের Economic Theory দিয়ে। ঠিক তখনি #John_Maynard_Keynes দীর্ঘ সময় স্টাডি করে একটা থিওরি (IS LM Model)আবিস্কার করেন নতুন কিছু টুলস ব্যবহার করে আর তার থিওরি সক্ষম হয়েছিল Great Depression বর্ণনা করতে এবং তার জন্য তিনি অর্থনীতিতে নোবেল পেয়েছিলেন। শুধু তাই না, IS LM Model এর জন্য তাকে বলা হয় Father of Macro Economics আমাদেরও উচিত একটা নিজস্ব ট্রেডিং স্ট্রাটেজি থাকা যেটাকে আমারা স্টাডির মাধ্যমে তৈরি/ ডেভেলপ করতে পারব। সাথে কিছু Exceptional ও থাকবে। আর তার মাধ্যমেই হতে পারব আমরা সফল। এমনও হতে পারে আমরা নিজের তৈরি করা ট্রেডিং স্ট্রাটেজি বিখ্যাত হয়ে গিয়েছে এবং বিশ্ব বাংলাদেশকে চিনবে আপনার বা আমার ট্রেডিং স্ট্রাটেজি দিয়ে ঠিক যেমনটা হয়েছে #ওয়াররেন_বাফেট এর বেলায়, তার stock valuation method তাকে সাফল্যের দিকে নিয়ে গিয়েছে এবং মানুষ ফলো করে এখনও। স্বপ্ন দেখুন এবং স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য নিয়মিত কাজ করুন। ভেঙে পরে হাল ছেড়ে দিলে চলবে না। মনে রাখতে হবে ব্যর্থ না হলে সফলতা মুখ দেখা যায়না। ব্যর্থতার কারন খুজে বের করে আস্তে আস্তে সামনে এগিয়ে গেলেই সফলতা আসবেই আসবে ২ দিন আগে আর পরে Note: This is my personal opinion about what i have learned from my life lesson and any one may disagree with my opinion
  6. আজ আমরা AUDNZD কারেন্সী পেয়ার নিয়ে কথা বলব। ডেইলী চার্টে দেখতে পাচ্ছি যে, পরিস্কার আপট্রেন্ডের পথে রয়েছে মার্কেট। একই সাথে চার ঘন্টার চার্টে দেখতে পাছি, ডাউন ট্রেন্ড ক্রস করে উপরে যাবার ট্রাই করছে। সুতরাং উপরে যাবার সম্ভাবনা অনেক বেশি। এবার আপনার নিজের এনালাইসিস কি বলছে? একই বলছে তো? একই বলে থাকলে দেরী কেন? সেট আপ নিয়ে নিন। আপনার শুভকামনা। চার্ট টি দেখুনঃ
  7. সবচেয়ে ভালো ফরেক্স রোবট কোন টি দাম কতো?
  8. অামরা সবসময় যে জিনিসগুলা খেয়াল করিনা সেটা হল আমরা কোন শুরু করার আগে সেটার বর্তমান /অতিত এবং ভবিষ্যৎ কি হতে পারে সেগুলা না জেনেই কাজটা শুরু করে দেয় অথচ এটা কি ঠিক । ধরে নেন আপনি একজন সাক্সেসফুল বিজনেজম্যান েএই ক্ষেত্রে আপনার কি করা উচিত ছিল আপনার প্রথমে যে জিনিসগুলার একটা ডিপলি এনালাইসেস করতে হতে পারে নিচের সবগুলাই মূলত একটি কাজ শুরু করার আগে কি চিন্তা বা ব্যবস্থা করা উচিত:- আপনি যেটা শুরু করতে যাচ্ছেন সেটার পূর্ব রেসাল্ট কি সেটা কে নিয়ে আগানোর জন্যে আপনার কি করতে হতে পারে অাপনি কি কি প্রবলেম ফেস করবেন সেটা আগে থেকেই একটা সম্ভাব্য ধারনা রাখা আপনি কি এটা সম্পর্কে ভালোভাবে জানেন অথবা না জানলে কি ভাবে জানতে পারেন বা এটাতে সাক্সেস হতে হলে আপনি কিভাবে এই প্রবলেম টা অভারকাম করবেন? যাহোক আমি আজকে আপনাদের অন্যে কোন বিজনেস এর ব্যাপারে বলতে চাচ্ছিনা। আমার আজকের টপিক এ্ই নয় যে আপনি ফরেক্স করতে হলে আপনার আগে থেকে যেসব জিনিস গুলা জানা উচিত বা ব্যবস্থা করা উচিত (সেটা উপরের চেকলিস্ট টার সাথে কিছুটা মিল পাবেন) আমি আজকে একটা নিউ চেকলিস্ট করছি সেটা তাদের জন্যে যারা ফার্স্ট টাইম ডিপোসিট করেছিলেন তারপর একাউন্ট জিরো করেছেন.তারপর আপনি চাচ্ছেন আবার শুরু করবেন তাহলে আপনি আবার কিভাবে শুরু করবেন। আপনার আগের ভুলগুলাকে শুধরিয়ে একটা নতুন সাক্সেস পাওয়ার জন্য আপনি কি কি করতে পারেন। আমি নিচে কিছু সম্ভাব্য একটা তালিকা দিলাম এগুলার মধ্যে যেগুলা আপনার সমস্য বা লসের কারন ছিল সেগুলাকে আপনি আপনার ডায়রি তে লিখে ফেলুন আমি আবার ও বলছি ডায়রিতে লিখুন এখনি শুধু পড়ার উদ্দেশ্য পড়বেন না বা এই চিন্তা করবেন না যে আপনি তো এইগুলা জানেন আগে থেকেই। লিখার কারন টা আপনি নিজে বের করবেন একদিন কেন লিখবেন ডায়রিতে।এরপর এটাকে আপনার সিগন্যাল বা স্ট্রেইজি অনুযায়ী ট্রেড সেটাপ পেলে ডায়রিটা আপনার সামনে রাখুন আর এইভেবে ডায়রিটা ফলো করুন যেন মনে হয় আপনি একজন ওয়ার্কার আর আপনার বস আপনাকে বলছে ডায়রিতে যা যা আছে সেভাবেই যেন ট্রেড সেটাপ দিতে। আমার পূর্বে যেসব প্রবলেম ছিল সেগুলা হল:- ⇷ ⇸ ⇹ ⇺ ⇻ ⇼ ⇷ ⇸ ⇹ ⇺ ⇻ ⇼ ⇷ ⇸ ⇹ ⇺ ⇻ ⇼ ⇷ ⇸ ⇹ ১.Stop loss দেয়নি ২.Stop loss চেন্জ করেছিলাম ৩.বারবার স্ট্রে্ইজি চেন্জ করেছিলাম ৪.অভার কনফিডেন্স হও্রয়ার কারনে স্ট্রে্ইজির বাহিরেও ট্রেড দিয়েছিলাম ৫.লট সাইজ চেন্জ করতাম ৬.অল্প প্রফিটে কেটে দিতাম ট্রেড ৭.ট্রেড দেওয়ার পর আবার এই অলরেডি এন্ট্রি নেওয়া ট্রেডটা নিয়ে এনালাইসিস করতাম ৮.বারবার টার্মিটাল দেখতাম আর ট্রেডের সিটুএশন দেখতাম ৯.যে কারেন্সি মন চায় সেই কারেন্সিতেই ট্রেড করতাম ১০.টাইমফ্রেমের তোয়াক্কা করতাম না ১১.ট্রেড সেটাপ দেখতাম এক টাইমফ্রেমের আর চেয়ে থাকতাম আরেক টাইমফ্রেমে ১২. উপরের সবগুলা বিষয় আবার চেক করব উপরের গুলা সম্পন্ন করেছি কিনা ট্রেডিং কারেকশন ⇷ ⇸ ⇹ ⇺ ⇻ ⇼ ⇷ ⇸ ⇹ Stop loss দেয়নি ─ ━─ ━─ ━─ ━ ডায়রি অনুযায়ী দেখুন আপনার স্ট্রেইজি আপনার কত Stop Loss দেওয়ার কথা ছিল Stop loss চেন্জ করেছিলাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━ আর ভুলেও করবেন না।যখন প্রফেশনাল হবেন তখন অন্যে বিষয় কারন তখন আপনি ভালো করেই জানেন কেন চেন্জ করবেন কিন্ত শুরুতে আপনি চেন্জ করার মাএ একটাই কারন থাকে সেটা হল আপনার লস খাওয়ার ভয়। বারবার স্ট্রাটেজি চেন্জ করেছিলাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━ এটা আর নয় যা করেছেন তা এতদিন লস করতে করতেই করে ফেলেছেন। আর আশা করি দুনিয়ার যত স্ট্রেইজি আছে এতদিনে গ্যাসের চুলায় বেজে ফেলেছেন । এখন দয়া করে যে কোন একটা পরিক্ষিত মেথড নিয়ে এগুন আর এটাতে কোন প্রবলেম থাকলে এটাকে চেন্জ করবেন না প্লিজ পারলে আপগ্রেড করুন কেন লস হল আর এই মেথড টাতে কি আরো সংযোজন করলে লস থেকে বাচতে পারতেন এইভাবে প্রতিটা ট্রেড লস করার পর চিন্তা করুন।সো মনে রাখতে হবে “মেথড চেন্জ নয় আপগ্রেড করবেন”। অভার কনফিডেন্স হও্রয়ার কারনে স্ট্রে্ইজির বাহিরেও ট্রেড দিয়েছিলাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━ মাঝে মাঝে আপনি আপনার অজান্তেই নেইল ফুলার বা আরো বড় এক্সপার্ট হয়ে যান যা আপনি নিজেও জানেন না ।ট্রেডটা লস খাওয়ার পর বুঝতে পারেন আপনি এই ট্রেডটা হঠাৎ নেইল ফুলার হওয়ার কারনে আপনি আপনার স্ট্রেইজির বাহিরেই ট্রেড দেওয়া শুরু করে দিয়েছেন।আর ফলাফল সিলেটি ভাষায় যাকে বলে “আন্ডা”পেয়েছেন। লট সাইজ চেন্জ করতাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━ আপনি যখন একটা টাইমে বেশি প্রফিট করা শুরু করে দেন আর আপনার মাঝে অভার কনফিডেন্স চলে আসে তখন ছোটবেলার গুনের নামতা এর মত লট সাইজ গুন করা শুরু করে দেন তারপর হিসাব কষে যে রেজাল্ট বের হয় সেই অনুযায়ী একটা ফুটবলের আকারের একটা লট সাইজ নিয়ে ট্রেড নিয়ে থাকেন অথচ সাময়িকভাবে বিষয়টা আপনাকে সেটিসফাই করলেও একসময় জিরো হবার মূল কারন হয়ে ধারাই (যা আমার কপালে জুটেছিল। XM ব্রোকারে আমার ফার্স্ট ডিপোসিট লস খাওয়ার একমাত্র কারন)। অল্প প্রফিটে কেটে দিতাম ট্রেড ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━━ লস থেয়ে ফেলেছেন ৫০ ডলার আর একটা ট্রেড কি করে যেন ভাগ্যের গুনে আপনার পক্ষে যাওয়া শুরু হল আর কোন ক্রমে যদি ৫ ডলার ছুই ছুই অবস্থা হয় তাহলে আর কি ৫ ডলার ছোয়ার আগেই আপনার মাউস ট্রেড ক্লোজ করার যে অপশন টা থাকে সেটা ছুয়ে ফেলে কি করে যেন..লঅঅঅল..। ট্রেড দেওয়ার পর আবার এই অলরেডি এন্ট্রি নেওয়া ট্রেডটা নিয়ে এনালাইসিস করতাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━ ট্রেড দিয়েছেন কিন্তু আপনার মত এনালাইসিস কি আর তার ট্রেড এনালাইসিস থামাতে পারে.ট্রেড দেওয়ার পরও আবার এই অলরেডি এন্ট্রি নেওয়া ট্রেডটা নিয়ে এনালাইসিস শুরু করে দেন আর ফলাফল অল্প প্রফিটে কেটে দেন ট্রেড। বারবার টার্মিটাল দেখতাম আর ট্রেডের সিটুএশন দেখতাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ একটা ট্রেড দেওয়ার পর কথনো উচিত না এই ট্রেডটাকে বার বার দেখা ফলাফল আপনার মনে ভিতি তৈরি হতে পারে এইজন্যে বারবার ট্রেডটা দেখার দরকার নেই ।অন্যে কোন কাজ করুন বা নিজেকে বিজি রাখুন বা অন্যে কোন কাজ না থাকলে মুভি দেথুন।বিবাহিত হলে বউয়ের সাথে আড্ডা মারুন। যে কারেন্সি মন চায় সেই কারেন্সিতেই ট্রেড করতাম ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ কারেন্সি সেটাপ টা সবসময় আপনার মাসের শুরুতেই করে রাখুন আর না হয় সপ্তাপ শুরু হওয়ার আগেই এনালাইসিস করে ফেলুন কোন কোন পিয়ার গুলা সামনের সপ্তাহের জন্যা ভালো হতে পারে।আমি সাজেস্ট করব কম ভলাটাইল কারেন্সি গুলা সিলেক্ট করে সেগুলাকে নিয়ে এনালাইসিস করুন। টাইমফ্রেমের তোয়াক্কা করতাম না ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ আর টাইমফ্রেম এটা আবার কি আর এমন । না ভাই এটাও আপনার মাইন্ড চেন্জ এবং আপনার এনালা্ইসিস কে উল্টোদিকে নিয়ে যেতে পারে । তাই সবসময় একই টাইমফ্রেম ইউজ করা শিখুন আর সেটাতেই আপনার এনালাসিস করার ট্রাই করেন। ট্রেড সেটাপ দেখতাম এক টাইমফ্রেমের আর চেয়ে থাকতাম আরেক টাইমফ্রেমে ─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ ━── ━─ ━─ ━─ ━─ ━─ সবসময় যে টাইমফ্রেমে এনালাইসিস করেছেন পরে সেটাতেই চোখ বুলান এতে করে আপনার এনালা্ইসিস ভিশন ক্লিয়ার এবং দক্ষতা ভালো হয়। আমাকে ফেসবুকে | আমাকে লিন্কদিনে | আমাকে টুইটারে | আমাকে গুগল প্লাসে | আমার পাসোনাল ব্লগে
  9. Technical parameters | (22nd – 26th ) January Possible entry point with critical support and resistance level.But when you trade this level make sure that you are using price action confirmation signal.We have prepared these key support and resistance level based on the Fibonacci retracement levels,100&200 SMA, key swings point and chart patterns formed in the higher time frame. Focus on USDCAD technical analysis EURUSD Preparing for the bearish retracement. First critical Resistance: click here Second critical Resistance: 1.24864 First critical Support: click here Second Critical Support: 1.18427 Overall Sentiment: Slightly bearish For other pairs technical analysis visit www.forextradingforyou.com All the technical parameters are applicable from 22nd January to 26th January 2018..The overall sentiment indicates the prevailing trend of the market.We highly recommend you to trade in favor of the market sentiment (overall sentiment ) to reduce the risk exposure in trading.Trade the critical support and resistance level with price action confirmation signal.If you want to get the technical chart analysis along with logical explanations, feel free to contact us. We provide high-quality Forex trading signals, trading consultancy, and price action trading course.Please feel free to contact us for any query. A simple 5-minute conversation with our expert will change your trading career. We publish regular technical analysis on all the major pairs in every Monday. Please visit our site www.forextradingforyou.com to get details about our technical analysis. To get details about our video technical analysis along with live trade setup visit YouTube Channel. Please subscribe our channel to stay updated with every single technical analysis. Source: www.forextradingforyou.com
  10. মাউস টিপতে পারলেই ফরেক্স করতে পারবেন@@@@ কে কে মাউস টিপতে পারেন? http://www.avobd.com/
  11. ফরেক্সের সাথে আছি ২০১০ থেকে। সবাই বলে বা মনে করে ফরেক্স হল একটি ব্যাবসা, কিন্ত আমি বিগত ৬ বছরে অন্তত এইটা খুব ভাল করে বুজতে পারছি যে, ফরেক্স একটি ব্যাবসা হলেও এটার আচরন অন্য আর ১০ টা ব্যাবসার মত না। কারন সাধারন ব্যাবসার প্রধান উপকরন হল পণ্য, আর লাভ লসের গতি থাকে খুবই ধীর। আপনি ইচ্ছা করলেই হঠাত করে খুব বেশি লাভ বা খুব বেশি লস করতে পারবেন না এবং আপনি ইচ্ছা করলে যেকোনো সময় আপনার ব্যাবসকে প্রয়োজনমত নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। কিন্ত যখন আপনার ব্যাবসা হিসাবে ফরেক্সকে বেছে নিবেন তখন আপনি একদিনেই অনেক লাভ বা লস করে ফেলবেন। এর কারন কি? কারন হল ফরেক্স এর প্রধান উপকরন কেন পণ্য নয়। এখানে ব্যাবসা করতে হলে আপনাকে সরাসরি টাকার বিনিময়ে অন্য দেশের টাকার সাথে লেনদেন করতে হচ্ছে। অর্থাৎ আপনার প্রতিটি কার্জক্রম সরাসরি লাভ লসের সাথে জড়িত। আর শুধু এই কারনেই অতি দ্রুত লাভ করার প্রবল ইচ্ছা আপনার মাথায় ঘুরপাক করতে থাকে। আর তক্ষণই আপনি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে বেশি লাভ করার আশায় সকল নিয়ম কানুন ভুলে ট্রেড ওপেন করে একাউন্টের সর্বনাশ করে ফেলেন। তবে আপনি ইচ্ছা করলেই ফরেক্স থেকেও ভাল এমাউন্টের প্রফিট করতে পারেন। কিন্ত এর জন্য প্রয়োজন যথাযথ নিয়ন্ত্রন। সামনের টপিকে নিয়ন্ত্রনের উপায় ও কৌশল নিয়ে আলোচনা করব।
  12. Jara instaforex use koren tara amar trade copy korte paren. Er jonno instaforex website a giye forex copy option a registration korte hobe. Er pore search box a amar id likhe search diben. Instaforex id: 7248473. Account name: kfrshoikot Ami 3 year instaforex a trade kori. Low risk a trade kori. Ami 0.02, 0.03, 0.05 lot a trade kori.
  13. আপনার আশপাশে এখন যাদের ট্রেড করতে দেখছেন বা ভালো প্রফিটও করতে দেখছেন, কিছুদিন পরেই তাদের অধিকাংশকে আর ট্রেড করতে দেখবেন না। খুব ভালো সম্ভাবনা রয়েছে যে, এই তালিকায় আপনি নিজেও থাকবেন। কারণ, মার্কেট এত দিন রেঞ্জে ছিল, মুভমেন্ট হয়েছে কম. ট্রেড করার সুযোগও ছিল কম, লাভও হয়েছে কম। আর এ ধরনের রেঞ্জ বাউন্ড মার্কেটে ট্রেডাররা ফতুরও হোন কম। কিন্তু, এখন আবার মার্কেটে ভোলাটিলিটি ফিরে এসেছে বা মার্কেট মুভ করা শুরু করেছে। এ সময়েই ট্রেডাররা সবচেয়ে বেশি ফতুর হন। এর প্রধানতম কারণ হচ্ছে, মার্কেট এখন ট্রেন্ডে। অনেক ট্রেডারই এতদিন দেখে এসেছেন যে, EUR/USD ১.১১-১.১৩ এর মধ্যেই আপডাউন করছে। কমলে আবার বাড়ছে, বাড়লে আবার কমছে। কিন্তু, ফরেক্স মার্কেটে কোন কারেন্সি পেয়ারের প্রাইস যে একবার কমতে শুরু করলে তা কমতেই থাকে আর বাড়তে শুরু করলে যে তা বাড়তেই থাকে, তার সাথে অনেক নতুন ট্রেডার এখনো পরিচিত হননি। EUR/USD হটাত এত দুর্বল হয়ে যাওয়ায় তাই অনেকেই ভাবছেন, এখন কিনে রাখলে EUR/USD আবার আগের প্রাইসে ফেরত যাবে। EUR/USD অবশ্যই আবার ১.১৩ তে ফেরত যাবে, কিন্তু, তার আগে আরও ১০০০ পিপস নামবে কিনা বা আরো দুই বছর সময় লাগবে কিনা, তা কেউ বলতে পারেন না। সেক্ষেত্রে, আপনি যদি বাই ট্রেড দেন, কিন্তু স্টপ লস ব্যবহার না করেন, তাহলে নিজেকেই মস্ত বড় ঝুকির মধ্যে ফেলছেন আপনি। কেননা, EUR/USD যখন ১.৩৬০০ থেকে ১.২৯০০ তে নেমে আসে, তখন অনেকেই ভেবেছিল EUR/USD আবার ১.৩৬ এ ফেরত যাবে। তখন যারা স্টপ লস সেট না করে বাই দিয়েছিল, এখন তাদের অবস্থা ভাবুন? EUR/USD ১.২৯ থেকেও এখন ২১০০ পিপস কমে গেছে। ফরেক্স মার্কেটে প্রাইস কত নিচে নামার পর, আর তা কমবে না, সেটা বলা অসম্ভব। যে প্রাইসে EUR/USD কোনদিন নামবে না বলে আপনি মনে করছেন, তার থেকেও অনেক নিচে নেমে যেতে পারে EUR/USD এবং অনেকবার গিয়েছেও। তাই সাবধান হন এখনি। মার্কেট বর্তমান প্রাইস থেকে হয় আরো ৭০০-৮০০ পিপস বাড়বে বা কমবে। নিজেই ভাবুন, অনেক ট্রেডারই এখন EUR/USD বাড়বে বলে বাই দিয়ে বসে আছেন আর অনেকে হয়ত আরও কমবে এই আশায় সেল দিয়ে বসে আছেন। ধরুন এই দুই গ্রুপের কোন গ্রুপই স্টপ লস সেট করেনি। হয়ত সাময়িক বাড়া কমার কারণে এদের কেউ না কেউ প্রফিট পাবেন। কিন্তু, শেষমেষ মার্কেট কিন্তু ঠিকই ৭০০ পিপস উপরে বা নিচে যাবে, একসময় না একসময়। তার মানে এই দুই গ্রুপের কেউ না কেউ, ঠিকই ফতুর হয়ে যাবে। কিন্তু ,অপর গ্রপের ট্রেডাররাও কিন্তু বেশি একটা লাভ করতে পারবেন না কেন? কারন, কোন ট্রেডার কি ২০০ পিপস প্রফিট পাওয়ার পর তার ট্রেড আর খোলা রাখার সাহস পাবেন? নিশ্চয়ই না, কারণ মার্কেট কখন রিট্রেস করবে, এই ভয় তার মধ্যে কাজ করবে। কিন্তু, যিনি ২০০ পিপস লসে আছেন? ৫০ পিপস লসেই তার ট্রেড ক্লোজ করতে ভালো লাগেনি স্টপ লসে, এখন কি আর ভালো লাগবে? এখন তিনি ২০০ পিপস লসে, হয়তবা ব্যালেন্সের ২৫% ই মাইনাস হয়ে গিয়েছে। এই লস কাভার করতেও তার অন্তত ৪ টি ট্রেড জিততে হবে। তাই, এমতাবস্থায় আর সব ট্রেডারের মোট তিনিও চাইবেন, ট্রেড খোলা রেখে প্রার্থনা করতে যেন প্রাইস তার পক্ষে যায়। কিন্তু, মার্কেট তো ট্রেন্ডে, আরো কমারই কথা. প্রফেশনাল ট্রেডাররা খুশি হচ্ছে প্রত্যাশা মত দাম আরো কমায়। কিন্তু, তার তো বুক কাপছে, কারণ তিনি বিশাল লসে। শেষ পর্যন্ত দেখা যাবে, প্রত্যাশা মতই মার্কেট আরও ৭০০ পিপস নিচে নেমে যাবে। প্রফেশনাল ট্রেডারগণ, যারা হয়ত একটি লস করেছিলেন, তারা ৫-৬ টি ট্রেডে জিতে তার থেকেও অনেক বেশি প্রফিট করবেন। আর তিনি শুধু একটি ট্রেডের লস ঠেকাতে গিয়েই ফতুর হয়ে গেলেন। মোটামুটি এভাবেই সবাই ফতুর হয়ে যায়। একবার বড় ধরনের লস করে ফেললে তার থেকে ফিরে আসা প্রায় অসম্ভব হয়ে দাড়ায়। আর মার্কেট এখন ট্রেন্ডে বলে, খুব অল্প সময়েই বড় ধরনের মুভ করতে পারে এবং একটানা কমতে বা বাড়তে পারে। তাই, এমতাবস্থায় আপনার করনীয় হল: ১) প্রতি ট্রেডে অবশ্যই ৫% এর বেশি রিস্ক নিবেন না এবং অবশ্যই স্টপ লস ব্যবহার করবেন। ২) ট্রেন্ডের বিপরীতে ট্রেড দিবেন না বা দিলেও খুব সাবধানতা অবলম্বন করবেন। ৩) সবসময় ট্রেন্ডের দিকে ট্রেড ওপেন করবেন, প্রাইস যখনই কোন সাপোর্ট বা রেজিস্টান্স ভেঙ্গে ফেলবে, তখনই সাথে সাথে সেল বা বাই দিবেন না, একটু অপেক্ষা করুন। দেখবেন, প্রাইস কমে সাপোর্ট ভেঙ্গে ফেলার পর আবার কিছুটা বেড়েছে, আপনি সেই প্রাইসে সেল দিন (ছোট স্টপ লস ও বড় টেক প্রফিট ব্যবহার করে, এ নিয়ে পরে শীঘ্রই আলোচনা করব )। যেহেতু, মার্কেট ডাউনট্রেন্ডে, তাই আপনার জেতার সম্ভাবনাই বেশি। আর বড় টেক প্রফিট আর ছোট স্টপ লস ব্যবহার করে, ট্রেড জিতলে আপনার লাভ হবে, হারলে যা লস হত, তারও কয়েক গুন অথবা আরও বেশি। ৪) মনে রাখবেন, আপনি যদি প্রতি ট্রেডে ২-৫% এর বেশি রিস্ক না নেন, মার্কেটে যত ঝড়ই বয়ে যাক, আপনার কিচ্ছু হবে না. আর যেসব ট্রেডার স্টপ লস ব্যবহার করবেন না, তারাই ফতুর হবেন। এরকম ট্রেডার করা এবং কিভাবে তারা ফতুর হন, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করব পরের পোস্টে। আবারও বলছি, এটা নেহায়েত কোন সতর্কবাণী না, বহু দিনের অভিজ্ঞতার আলোকে বলা। তাই, সতর্ক হোন এখনি। বেশী লাভ করতে গিয়ে এমন লসের সম্মুখীন হবেন না, যাতে শেষমেষ ফতুরই হয়ে যেতে হয়। আগামী পোস্টঃ ফরেক্স মার্কেটে যেসব ট্রেডার ফতুর হবেনই হবেন
  14. আমি একজন নতুন ফরেক্স ট্রেডার, বছরখানেকের ট্রেডিং অভিজ্ঞতা থেকে প্রথম কোন স্ট্রাটেজি আপনাদের সাথে শেয়ার করছি । ট্রেডিং স্ট্রাটেজিটি মূলত Price Action, Money management এবং Risk Reward (1:2) সমন্বয়ে তৈরি করা হয়েছে । এখন পর্যন্ত ফলাফল যথেষ্ট আশাব্যাঞ্জক । তবে নতুন ট্রেডারদের অবশ্যই প্রথমে Demo Practice করতে হবে । নিচে "PIPS SWORD" বিস্তারিত PDF ফাইলে দেয়া হল : ( ভাল-খারাপ Comment করতে ভুলবেন না ) Live Trading Commentry পেতে LIKE করুন ঃ https://www.facebook.com/pipssword PIPS SWORD.pdf
  15. The Power of money management Money management একটা বিরক্তকর Subject হলেও ... এইটা বাস্তবে কাজ করে । এর জন্য আপনাকে গাদা গাদা বই পরার দরকার নাই । আপনি যদি ঠিক মত money management follow করতে পারতেন তাহলে আপনার বর্তমান অবস্তাটা এমন হত না ... (আসলে বলা যত সহজ ,করা তার থেকে অনেক অনেক বেশি কঠিন। যা আমি নিজেও করি নাই।) আপনি মাসে Invest এর কত % আশা করেন ? উত্তরঃ ভাই আমি 6% আশা করি , কেউ বলবেন ভাই আমি ১০% আশা করি ... কিন্তু আপনি আসলে মনে মনে মাসে more than 100% আশা করেন । আর এইটাই main problem . Investor world এ 6% return অনেক কিছু, আর যদি ১০% consistently ধরে রাখতে পারেন তাহলে আপনি পুরাই Super man এখনে আবার main জিনিশ টা হল consistently month after month profit বের করা । চিন্তা করেন যদি daily 5 pips ও profit করতে পারতেন আপনার অবস্তা কেমন হত । একটু চিন্তা করেন । (এই চিন্তা আমিও করি নাই । ) আমি আপনাকে দেখাব কিভাবে আপনি 1000$ Invest করে 2% রিস্ক per trade এ, 30 pips Stop Loss(আমি একজন Day Trader), Monthly 6% target নিয়ে কিভাবে আপনি ১ বছর এ ... আপনার Invest কে double করতে পারবেন । তার জন্য আপনাকে daily মাত্র ৫ pips and weekly মাত্র 23 pips এবং Monthly হিসাবে মাত্র 90 pips profit করতে হবে । এবং কিভাবে 10% terget নিয়ে কিভাবে আপনি ১ বছর এ আপনার Invest কে Triple করবেন । আর আমি আপনার Invest কে double or Triple করার কথা বলছি না । আমি এই Math গুলার বুঝাতে চাইছি যে একটা Proper plan Follow করলে অনেক কিছু করা Possible . নিচে image গুলা ভাল করে দেখুন 6% Model 10% Model তবে এই গুলা শুধু Math ... তবে Impossible বলে কিছু নাই । এই Target গুলা পুরন করতে আপনাকে ... daily trade করতে হবে না ... এই ক্ষেত্রে Risk-Reward সব থেকে বড় ভূমিকা পালন করবে ... যেমন ধরেন আপনি ... একটি Trade নিলেন 2% risk এ , Risk-Reward নিলেন 1:2 অর্থাৎ Risk নিলেন 30 pips gain করলেন 60 pips ...তার মানে আপনার Weekly target পূরণ, just এক Trade এ এবং সেই trade এ যদি আপনি 1:3 নিতে পারতেন তাহলে আপনার Monthly target পূরণ হত শুধু এক Trade এ . অর্থাৎ মাত্র 1 tarde দিয়া Monthly target পূরণ করা Possible . এইটা 6% Model আর জন্য প্রযোজ্য। এখন আপনি যদি per trade এ 1% risk নিতে চান তবে আপনার বেশি pips profit করতে হবে। সুতরাং money management নির্ভর করে শুধু মাত্র আপনার উপর ... যা আপনি আপনার মত করে সাজাবেন ।আজ এই পর্যন্তই ... খুব সংক্ষেপ এ লিখতে চেষ্টা করেছি । কারণ money management নিয়ে লিখলে একটা বই লেখা সম্ভব । ধন্যবাদ আমার পূর্বের পোষ্টঃ আমার ব্লগ
  16. ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস উদযাপনের পরপরই রাতে প্রস্তুত থাকুন ১৭ই ডিসেম্বর এর জন্য। কেননা, ঘড়ির কাটা রাত ১২ টা পার করার এক ঘন্টা পরই, অর্থাৎ, বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় মধ্যরাত ১ টাতেই যে সুদের হার বাড়াতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেড। আর তাই, ৩ ই ডিসেম্বরের মত আরেকটি বড় মার্কেট মুভমেন্টের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন ট্রেডাররা। তবে, প্রশ্ন হচ্ছে আবার ৩ই ডিসেম্বরের মোট অপ্রত্যাশিত কিছু হবে কি? সবচেয়ে ঘোর ইউরো সমর্থকও হয়ত আশা করেননি যে, ইসিবি সুদের হার কমানোর পরেও EUR/USD শক্তিশালী হবে এবং এতটা শক্তিশালী হবে। যদিও EUR/USD এতটা শক্তিশালী হওয়ার পড়ে অনেক বিশ্লেষকই ব্যাখ্যা দিচ্ছেন যে ট্রেডাররা সুদের হার আরও বেশি কমানো হবে বলে প্রত্যাশা করেছিল এবং তা না হওয়ায় EUR/USD দুর্বল হয়েছে। কিন্তু, এরকম যুক্তি নিউজের আগে না এসে পরে দেওয়ায় তা ধোপে টিকছে না। তবে মারিও দ্রাঘি নিজেই স্বীকার করে নিয়েছেন যে, মার্কেট তার বক্তব্য বুঝতে ভুল করেছে। ইসিবি সুদের হার কমানোর পরেও EUR/USD ৫০০ পিপসেরও বেশি শক্তিশালী হওয়ায় এবং সম্প্রতি ১.১০ ব্যারিয়ারও ভেঙ্গে ফেলায়, প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছেন ট্রেডাররা। ১৬ ডিসেম্বরও কি এরকম অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটতে পারে? আপাত দৃষ্টিতে সুদের হার বাড়ানোর ফলে EUR/USD র নিশ্চিত ১০০-৩০০ পিপস দুর্বল হওয়ার কথা থাকলেও ৩ ডিসেম্বরের মোট অপ্রত্যাশিত কিছু ঘটার সম্ভাবনাও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কেননা সুদের হার বৃদ্ধি প্রত্যাশিত, অপ্রত্যাশিত নয়। ১৭ই ডিসেম্বর কি ঘটতে যাচ্ছে? ১৬ই ডিসেম্বরই বৈঠকে বসতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারের রিজার্ভ ওপেন কমিটি বা FOMC । মূল এজেন্ডা হল যুক্তরাষ্ট্রের সাম্প্রতিক অর্থনীতি পর্যালোচনা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুদের হার ঘোষণা করা। দীর্ঘদিন ধরেই সুদের হার মাত্র ০.২৫ শতাংশে নামিয়ে রাখা হয়েছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবার সুদের হার বাড়িয়ে ০.৫০ শতাংশ করা হবে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, ঠিক আট বছর আগেই ফেড সুদের হার কমিয়ে ০.২৫ শতাংশে নিয়ে আসে। সেবারও কিন্তু প্রত্যাশা করা হচ্ছিল যে সুদের হার কমানো হবে। তবে, প্রত্যাশা ছিল সুদের হার শতকরা ১ শতাংশ থেকে কমিয়ে ০.৫০ শতাংশে নামিয়ে আনা হবে। কিন্তু, সবাইকে চমকে দিয়ে একেবারেই ০.২৫ শতাংশে নামিয়ে আনে ফেড। যার ফলশ্রুতিতে ব্যাপকভাবে দুর্বল হয় ডলার ও শক্তিশালী হয় EUR/USD. যেহেতু, সুদের নতুন হার ০.৫০ শতাংশ প্রত্যাশিতই, তাই যদি ফেড সুদের হার বাড়িয়ে ০.৭৫ শতাংশে বা ১ শতাংশে নিয়ে আসে, তাহলে তা EUR/USD কে কমপক্ষে ২০০-৩০০ পিপস দুর্বল করবে। আর যদি ফেড সুদের হার প্রত্যাশামতই বাড়িয়ে ০.৫% করে, তাহলে তা অর্থনীতির সাধারণ নীতি অনুসারে EUR/USD কে দুর্বল করার কথা থাকলেও EUR/USD দুর্বল বা শক্তিশালী, দুটোই হতে পারে। সেক্ষেত্রে, মার্কেটে বড় ধরনের স্পাইক হওয়ার ভালো সম্ভাবনা রয়েছে। আর যদি ফেড সুদের হার নাই বাড়ায় এবং FOMC স্টেটমেন্টেও অতি দ্রুতই সুদের হার না বাড়ানোর কোন জোরালো ইঙ্গিত না দেয়, তাহলে ডলার দুর্বল হয়ে EUR/USD আরও ২০০-৩০০ পিপস শক্তিশালী হতে পারে। তবে যাই ঘটুকনা কেন, মার্কেটে যে বড় মুভমেন্ট ঘটতে যাচ্ছে, তা একপ্রকার নিশ্চিত। ১৭ই ডিসেম্বরের আরও আপডেটের জন্য বিডিপিপসের সাথেই থাকুন।
  17. ফরেক্সে আপনি যদি অনেক দিন ধরে থেকে থাকেন তাহলে আমি নিশ্চিত সকলেই একটা কথা জানেন যে মার্কেটে ট্রেড করার মধ্যে ৭০% থাকে সেন্টিম্যানটাল এবং ২০% টেকনিক্যাল আর ১০% ফান্ডাম্যানটাল। এটা মোটামুটি এভারেজ একটা হিসাব। এবং আমি এও বলতে পারি বেশিরভাগের বাস্তব ক্ষেত্রেই এর উল্টা হিসাব থাকে। দেখা যাবে ৭০% টেকনিক্যাল, ২০% ফান্ডাম্যানটাল এবং ১০% সেন্টিম্যানটাল। একটা সহজ উদাহরণ দিলেই আপনি ব্যাপারটা বুঝবেন। আপনি টেকনিক্যাল এনালাইসিস করে করে একটি Trend এ ট্রেড করার সিদ্ধান্ত নিলেন। এখানে আপনি সিদ্ধান্ত দুই ধরনের সিগন্যাল থেকে নিবেন। এক, Confirmation সিগন্যাল এবং দুই, Hope/আশা থেকে। অর্থাৎ আপনি পরবর্তী ক্যান্ডল এর জন্য অপেক্ষা করবেন, না হয় আপনি আশা করবেন যে- না যেহেতু মার্কেট Resistance Level Touch করছে এখন আশা করা যায় এখনি Reversal Trend শুরু হবে এবং আপনি সেই আশায় Sell Entry দিলেন তাহলে এই ট্রেড এর ভবিষ্যৎ কি আপনি জানেন! আদৌ কি এটাকে ট্রেড বলে? আমি আপনাকে সরাসরি বলে দিলাম এটাকে TRADE বলে না। আর এই ট্রেড এর ভবিষ্যৎ হয় Up Trend Continuous হবে অথবা Reversal Downtrend শুরু হবে। Downtrend হলে আপনি ভাগ্যবান, লস থেকে বেঁচে গেলেন। কিন্তু এইটাকে ট্রেড বলে না। আপনাকে আপনার এসব আশা টাইপের সেন্টিম্যানটাল কে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। এখন আপনি আমার কথাগুলা শুনলেন। এক কান দিয়ে ঢুকালেন আর ট্রেড এর সময় আবার আরেক কান দিয়ে বের করে দিলেন। তবে হ্যাঁ কেউ কেউ ঠিকি ট্রেড এর সময় এক কান দিয়ে শোনা এই কথা গুলো মাথায় টুকে রাখবে এবং ট্রেড এর সময় মাথায় টুকে রাখা কথা গুলো কাজে লাগাবে। এখন চিন্তা করুণ আপনার এবং ঐ জনের সাথে পার্থক্য কি? কি!! চিন্তা করে কিছু পাইছেন? আশা করি পাবেন। আর মার্কেট এ যখন থাকবেন তখন আবার সেই আশা থেকে ট্রেড করে ৮০% লস আর ২০% লাভ নিয়ে মার্কেট থেকে বের হয়ে যাবেন। তবুও আশা থেকে বের হবেন না। যদি মনে করেন অনেক অনেক বই পড়ে, আর্টিকেল পড়ে ফরেক্স কি জানলেন, বেসিক এবং এডভান্স বিষয় জানলেন। Fundamental এনলাইসিস করে কিছু Profit ইকুইটিতে যোগ করলেন। এরপর বিভিন্ন টেকনিক্যাল এনালাইসিস করে আরও কিছু Profit ইকুইটিতে যোগ করলেন আর নিজেকে খুভ এগ্রেসিভ এবং বাস্তববাদী ভেবে নিজের আশাটাকেই মার্কেট Forecast এর একমাত্র হাতিয়ার ধরে Strategy বানিয়ে ফেললেন। আমি, বলব খুব শীঘ্রই আপনার Balance শুন্যের পথে। আর যারা Already শুন্যে আছেন তারা যদি চিন্তা করেন যে আপনি সবার চাইতে আলাদা কেন, আপনি কেন লস করেন আর অন্যরা শুধু লাভ করেই যাচ্ছে। তাহলে একটু এই সেন্টিম্যানটাল জিনিসটার কথা চিন্তা করে দেখুন আপনি কেন সবার চাইতে আলাদা। ফরেক্স শিখার উৎসগুলা কিন্তু আপনি সবার কাছে একই পাবেন। কয়েকজন ভালো ট্রেডার কে প্রশ্ন করে দেখতে পারেন যে আপনি কোথা থেকে শিখবেন? আমি নিশ্চিত ভাবে বলতে পারবো আপনি যেখান থেকে শিখছেন বা যে উপায়ে শিখছেন সকলেই আপনার জানা উপায় গুলাই বলবে। তাহলে আপনি কেন সবার চাইতে আলাদা! আমি আরেকটা উদাহরণ দেই। আমরা সকলেই ফরেক্স এর সবচাইতে মূল্যবান বিষয় Support এবং Resistance সম্পর্কে জানি। এখন আমি কিছু টিপস দিব যা আপনিও জানেন। S/R (Support and Resistance) আঁকার ক্ষেত্রে আমরা অনেকের মধ্যে কিছু ভুল ধারণা আছে। ভুল ধারণাগুলো হলঃ S/R বুঝি এবং আঁকতে পারি, তাই বলে যা পাব তাই S/R হিসেবে এঁকে ফেলি। S/R কোন নির্দিষ্ট নাম্বার না, S/R Level আর S/R Zones এর মধ্যে পার্থক্য বুঝার চেষ্টা করি না অনেকে, যদিও আমরা দুইটার সংজ্ঞাই ভালো মত জানি। S/R আঁকার জন্য অনেক অনেক দূরের S/R Level নিয়ে থাকি যার কোন দরকারি নাই। অনেকে দেখা যায় ৬ মাস, ৯ মাস এর কোন পয়েন্ট থেকে S/R আঁকার চেষ্টা করে। S/R কিছু সাধারণ টিপসঃ আমরা দুই ধরণের S/R লেভেল এঁকে থাকি। ১. Key S/R Level ২. Short Term S/R Level Key S/R Level হল – যা আঁকা হয় লং টার্ম এর High-Low থেকে আর Short Term S/R Level হল- শর্ট টার্মের High-Low থেকে এখন আমরা এই Key S/R এবং Short Term S/R সম্পর্কে কিছু পরামর্শ দেখব। (NB: ভাই আমার জানা হয়ত ভুল হতে পারে, কারণ আমি এখনও ফরেক্সের একজন ছাত্র। আমার এই Tips রিএল ট্রেড এ টেস্ট করার আগে এক মাস ডেমো তে চেষ্টা করবেন) Key S/R Level এবং Short Term S/R Level দ্বারা যদি কোন S/R Zone তৈরি হয় এবং সেখানে যদি কোন Indecision Candle Pattern তৈরি হয় তবে এই S/R Zone খুবি Strong Zone হবে। প্রথমে Key S/R Level এবং পরে Short Term S/R Level আঁকুন। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই Key S/R Level এ মার্কেট এ Significant মুভমেন্ট দেখা যায় এবং Short Term S/R Level ছোট ছোট মুভমেন্ট প্রতিফলিত হয়। Key S/R Level ছাড়া Short Term S/R Level এ যে Significant মুভমেন্ট হবে না এমন কোন নিয়ম নাই। তবে Short Term S/R Level এ বড় ধরণের মুভমেন্ট হতে যথেষ্ট কারণ এবং তাৎপর্যপূর্ণ ব্যাখ্যার দরকার হয়। Key S/R Level এবং Short Term S/R Level আঁকার সময় High/Low বারের Point এই আঁকতে হবে এমন কোন রুলস নাই। তবে অনেক গুলা বারের সমন্বয়ে Key S/R Level এবং Short Term S/R Level আঁকলে তার ফলাফল ভালোই হয়। বিশেষ করে যদি একসাথে থাকা অনেকগুলা Point এর গড় নিয়ে আঁকতে পারলেও ভালো ফলাফল পেতে পারেন। Price এর সুদৃঢ়তা কে Value Area বলে। অর্থাৎ অনেক দিন ধরে ছোট ছোট মুভমেন্ট এ বা ১৫ থেকে ২০ পিপ্স বা তারও বেশি পিপ্সের মধ্যে অনেক দিন ধরে Price মুভমেন্ট করতে থাকলে তাঁকে Value Area বলে। Value Area চার্টে S/R Zone হিসেবে কাজ করে। আর এই Value Area মধ্যে যদি পূর্বের কোন Key S/R Level এবং Short Term S/R Level থাকে তাহলে তো ঐ Value Line খুভ ভালো S/R Level হিসেবে কাজ করে। এই Value Area য় যদি Key S/R Level ব্রেক করে এবং পুনরায় ঐ লেভেলকে Test করে Retrace Back করলে ঐ Key S/R Level একটি Strong S/R হিসেবে প্রাধান্য পায়। (না বুঝলে কমেন্টে প্রশ্ন করুণ) কোন Uptrend/Downtrend এর ক্ষেত্রে যদি Large Counter Trend Retrace থাকে এবং সে ক্ষেত্রে দেখা যায় Counter Retrace গুলো S/R Level এ ঘটে। এখন এ ধরণের Strong Uptrend/Downtrend এর খত্রে Resistance, Support এ পরিণত হয় এবং Support পরিণত হয় Resistanceএ। আবারো বলছি সাধারণত Key S/R Level এ মার্কেট এর Significant মুভমেন্ট হয় এবং Short Term S/R Level এ ছোট ছোট মুভমেন্ট হয় । তাই প্রচুর পরিমানে Short Term S/R Level আঁকবেন না। শুধু কমন সেন্স কে ব্যবহার করে যতটা সম্ভব প্রয়োজনীয় S/R আঁকুন। আর চার্টে অনেক বেশি লাইন আঁকলে আপনার চার্ট বুঝতেও অসুবিধা হবে। মার্কেট এ প্রসঙ্গ বুঝে কমন সেন্স কে ব্যবহার করে বিচক্ষনতার সাথে S/R আঁকুন। S/R Trade Setup করতে ধৈর্যের প্রয়োজন। কারণ S/R Level এ মার্কেট Retrace করতে পারে। তাই ভালো লাভজনক ট্রেড করার জন্য ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করুণ ভালো সিগন্যাল এর জন্য। Moral: মাঝে মাঝে S/R Level Strategy অনুযায়ী ট্রেড করলেও দেখা যাবে সাথে সাথে এর ফলাফল পাওয়া যায় না। হয়ত Reversal / Breakout শুরু হয় আপনার SL কে টাচ করার পর। এক্ষেত্রে একটা কথাই বলব এমন সকলের ক্ষেত্রেই হওয়াটা স্বাভাবিক এবং তা দুঃখজনক বটে। কিন্তু কিছুই করার থাকে না। আশা করি সকলে এই টিপস গুলা বুঝতে পেরেছেন। কিন্তু আপনি খেয়াল করে দেখেন এর সব কিছুই হয়ত আপনি জানেন। তারপরেও আপনি ফরেক্সে সফলতা পাচ্ছেন না। আপনি এখন আমার লেখার শুরুটা পড়েন। এবং আপনি আবার নিজেকে প্রশ্ন করুণ একই উৎস থেকে সবাই শিখে এবং একই MT4 দিয়ে সবাই একই মার্কেটে ট্রেড করে। কিন্তু কেন আপনি সবার চাইতে আলাদা। আমরা সকলেই মানুষ। সবারি কিছু সাধারণ গুণাবলী আছে। শুধু পার্থক্য হল নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা। একেকজনের একেক ধরণের নিয়ন্ত্রণ ক্ষমতা থাকে। আর এটাও একটি বড় পার্থক্য একেক জনের ক্ষেত্রে। এখন আপনি চিন্তা করতে থাকুন কিভাবে আপনি নিজেকে ডিসিপ্লিন করবেন ট্রেডের ক্ষেত্রে। কিভাবে নিয়ন্ত্রণ করবেন নিজের আশাকে। ট্রেডিং সময় আপনি আপনার ভুলগুলো খুজে বের করুণ আগে, তারপর দেখবেন নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করা খুবি সহজ হবে। তখন আপনি নেজকে নিয়ে গর্ব করে সবাইকে বলতে পারবেন কেন আপনি সকলের চাইতে আলাদা। যারা আমার এই আজে বাজে বক্তব্যে এতক্ষণ বিরক্ত হয়ে গেছেন তাদের কাছে ক্ষমা চাচ্ছি। আমার জানায় হয়ত ভুল থাকতে পারেন, আমার ভুলগুলো কমেন্টের মাধ্যমে ধরিয়ে দিলে অনেক বেশি উপকৃত হব। আর নতুন যারা ফরেক্সে ছন্নছাড়া হয়ে ঘুরা ঘুরি করছেন তারা ঘুরে আসতে পারেন আমার দশটি প্রশ্নের উত্তর দিতে। যা আপনাকে একটা ছোট গাইড লাইন দিতে পারে।
  18. ইনবক্সে ধন্যবাদ জানিয়ে বেশ কয়েকজন মেসেজ দিয়েছেন, প্রেডিকশন অনুযায়ী মার্কেট মুভ করায়। আপনাদের সবাইকে শুভেচ্ছা। প্রেডিকশন হচ্ছে আগে থেকেই অনুমান করা করা, মার্কেটে কি হবে সামনে। তবে, আমরা কিন্তু কোন প্রেডিকশন দেই না। বরং জানিয়ে দেই, কি নিউজ এলে মার্কেটে তার ইমপ্যাক্ট কি হবে, কিভাবে ট্রেড করতে হবে এবং ফরেক্স মার্কেট বেশ কিছুদিন ধরেই একদম প্রত্যাশিতভাবে মুভ করছে। আর তাই আপনার মনে হচ্ছে প্রেডিকশন অনুসারেই ফরেক্স মার্কেট মুভ করছে। গতকালই বলা হয়েছিল, আর এজন্য নিউজদুটির ফলাফল প্রত্যাশামত আশাই যথেষ্ট ছিল। US ADP employment প্রত্যাশামতই এসেছে এবং ISM non-manufacturing (প্রত্যাশিত ৫৬.৬ এর বিপরীতে ৫৯.১) নিউজের ফলাফল এসেছে প্রত্যাশা থেকেও ভালো। এমনিতেই ডাউনট্রেন্ডে রয়েছে EUR/USD এবং এই নিউজগুলো ভালো আসায়, আর সাথে দ্রাঘির Dovish বক্তব্যের কারনে প্রত্যাশা অনুযায়ীই ত্বরানিত হয় EUR/USD এর পতন। মার্কেট ইতিমধ্যেই ১.০৮৯৬ ভেঙ্গে ফেলেছে কিন্তু ১.০৮৪৭ কিন্তু ঠিকই সাপোর্ট হিসেবে কাজ করছে। তাই, EUR/USD কমে ১.০৮৪ এ নেমে আসলেও, ১.০৮৪৭ সাপোর্ট ভাঙ্গতে পারেনি এখনও। বিগত তিন ঘন্টা ধরেই প্রাইস বার বার ১.০৮৪ এ গিয়ে সেখান থেকে আবার ফেরত আসছে। কিন্তু, এই সাপোর্ট বেশিক্ষণ টিকবে কিনা সেটাই এখন দেখার বিষয়। আজ US Unemployment Claims রিপোর্ট প্রত্যাশার চেয়ে ভালো আসলে আরো দুর্বল হবে EUR/USD. সেক্ষেত্রে, পরবর্তী গন্তব্য হতে পারে ১.০৮০৮ (জুলাই মাসের সাপোর্ট)। আজ বৃহস্পতিবারের আরও গুরুত্বপূর্ণ নিউজঃ বিকেল ৫:৪৫ এ ECB (ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংক) প্রধান মারিও দ্রাঘি মিলানে বক্তব্য রাখবেন। বুধবারে ফ্র্যাঙ্কফুটে তার বক্তব্যের পর এই বক্তব্যেও ইউরোর ভবিষ্যৎ সম্পর্কে ধারনা পাওয়া যেতে পারে তার কাছ থেকে। সাধারণত তার বক্তব্য মার্কেটে ভালো আলোড়ন সৃষ্টি করে। সন্ধ্যা ৬টায় প্রকাশিত হবে UK Rate Decision সংক্রান্ত রিপোর্টগুলো। ব্যাংক অফ ইংল্যান্ড অক্টোবর মাসের মিটিংয়ে সুদের হার রেকর্ড নিম্ন ০.৫% এ নামিয়ে এনেছিল। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বরাত দিয়ে বলা হয়েছে যে ইউকের শ্রমবাজার টার্গেট ২% মুদ্রাস্ফীতিতে পৌঁছানোর মত অবস্থায় নেই, তাই ২০১৬ এর বসন্ত পর্যন্ত মুদ্রাস্ফীতি ১% এর নিচেই থাকবে। সুদের হার নির্ধারণ ছাড়াও ব্যাংক অফ ইংল্যান্ড ত্রি-মাসিক মুদ্রাস্ফীতি বা ইনফ্লাশন রিপোর্টও প্রকাশ করবে। এছাড়া সুদের হার সংক্রান্ত ভোটের ফলও একই সময়ে প্রকাশিত হবে যা পূর্বের ন্যায় ১-০-৮ থাকবে বলেই প্রত্যাশা করা হচ্ছে। সন্ধ্যা ৬:৪৫ এ ব্যাংক অফ ইংল্যান্ডের গভর্নর মার্ক কার্নে বক্তব্য রাখবেন। তার বক্তব্যে নতুন রুপরেখা সম্পর্কে ধারনা পাওয়া যেতে পারে। ফেডের হকিশ মনভাবের প্রেক্ষিতে মার্ক কার্নেও কি হকিশ মনভাব দেখাবেন এবং রেট বৃদ্ধি করবেন? পূর্বেও কার্নেকে লক্ষ্য করা গেছে ফেডের অ্যাকশনের জন্য অপেক্ষা করতে এবং তাদের পথ অনুসরন করতে। সন্ধ্যা ৭:৩০ এ প্রকাশিত হবে US Unemployment Claims রিপোর্ট। গত সপ্তাহে কি পরিমাণ জনগণ বেকার ভাতার সুবিধা নিয়েছে তা প্রকাশিত হয় এই ডাটার মাধ্যমে। গত সপ্তাহে তা ১০০০ বাড়লেও টানা ৩৪ সপ্তাহ ধরে এই সংখ্যা ৩০০,০০০ এর নিচে রয়েছে যা বর্তমানে আমেরিকার শ্রমবাজার যে যথেষ্ট শক্তিশালী সে কথাই নির্দেশ করে। এ সপ্তাহে ২৬৪,০০০ ফলাফল আশা করা হচ্ছে।
  19. আবারও মার্কেট কাঁপাল NFP। গতকাল থেকেই ফরেক্স ট্রেডাররা অপেক্ষা করছিলেন NFP এর জন্য, আর তাই মার্কেট মুভমেন্টও ছিল অনেক কম। আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭:৩০ এ প্রকাশিত হয় NFP রিপোর্টটি এবং এবারের ফলাফল হল 271K, যা প্রত্যাশিত 181K থেকে অনেক অনেক বেশি। তাই, মার্কেটে NFP এর প্রভাবও পরে অনেক বেশি। গতকালের নিউজে আমরা প্রত্যাশা করেছিলাম: কিন্তু, EUR/USD প্রত্যাশা থেকেও অনেক বেশি দুর্বল হয়েছে এবং মাত্র ১০ মিনিটেই ১.০৮৬৪ থেকে ১৫০ পিপসসের ও বেশি দুর্বল হয়ে ১.০৭০৮ এ নেমে আসে। এই মুহুর্তে, আবার কিছুটা মূল্য সংশোধনের পর EUR/USD ১.০৭৪৪ এ ট্রেড হচ্ছে। শক্তিশালী ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকায় EURUSD আরো দুর্বল হতে পারে। এই সপ্তাহের অধিকাংশ নিউজের পরেই প্রত্যাশিত মার্কেট মুভমেন্ট ঘটায় বেশ চমত্কার একটি সপ্তাহ গেল ফরেক্স ট্রেডারদের জন্য। আপনার সাফল্য বা ব্যর্থতা, দুটোই শেয়ার করুন। কারণ, উভয়টি থেকেই আমাদের সবার অনেক কিছু শেখার আছে।
  20. আজ বাংলাদেশ সময় রাত বারটায় রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের Federal Open Market Committee Meeting বা FOMC মীটিং। ট্রেডাররা অপেক্ষায় রয়েছেন, এই মিটিং কে ঘিরে ফেড এর নীতি নির্ধারণী সিদ্ধান্ত জানার জন্য। যদিও তাতে খুব একটা পরিবর্তন আসার সম্ভাবনা নেই এবং খুব শীঘ্রই ফেড সুদের হার বাড়াচ্ছে না। তবে সাম্প্রতিক সময়ে পেন্ডিং সেলসসহ যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনৈতিক সূচকগুলো ভালো আসায় অনেকে আশা করছেন ফেডের নীতিতে পরিবর্তন আসলেও আসতে পারে। FOMC সম্পর্কে আরো জানতে এখানে ক্লিক করুন। মার্কেট এখন ফেডের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছে, তাই মার্কেট মুভমেন্ট কম হচ্ছে। রাত ১২ টার পরপরই মার্কেটে বড় ধরনের মুভমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে। ডলার শক্তিশালী হলে আজকে ১.১০ সাপোর্ট ব্রেক হতে পারে। এই মুহুর্তে EUR/USD ট্রেড হচ্ছে ১.১০৮৩ তে, GBP/USD ট্রেড হচ্ছে ১.৫২৯৩ তে এবং Inflation Data খারাপ আসার কারণে AUD/USD দুর্বল হয়ে এখন ট্রেড হচ্ছে ০.৭১৩১ এ।
  21. AUDNZD পেয়ারটি ইনভারস হেড এন্ড শোল্ডারস প্যাটার্ন তৈরি করেছে। সাথে ১.১৩০০ কি লেভেল টেস্ট করছে। যদি এই লেভেল ব্রেক করে তাহলে আমরা এই পেয়ারে বাই দিব। কিন্তু ব্রেকের সাথে সাথেই এন্ট্রি নিব না। ১.১৩০০ লেভেল আমরা লিমিট অর্ডার দিয়ে রাখতে পারি। সবচেয়ে বেস্ট হবে যদি ১.১৩০০ লেভেলে পিনবার বা বুলিশ প্রাইস একশন দেখে এন্ট্রি নেই। বিস্তারিত সবকিছুই ভিডিওতে দেওয়া আছে। https://www.youtube.com/watch?v=9tSvVmR6SVo Source: www.mahbub-fx.com
  22. Financial market (Forex, stocks, futures) forecast জন্য কোন concepts গুল আপনি সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে করেন ? আমি মনে করি support and resistance levels or area, তবে হয়ত কেউ কেউ আমার সাথে দ্বিমত পোষণ করতে পারেন, কিন্তু আমার যে পরিমানে information বের করতে পারব এই লেভেল গুলা থেকে তা actually আমাদের Trading ভাল result করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি। মার্কেট ৩ ধরনের আচরণ করতে পারে support or resistance level or area তে hit করার পর ... #১ Support or resistance level or area তে hit করার পর Price Retrace করতে পারে। #২ Support or resistance level or area তে hit করার পর Price direction Change অর্থাৎ বিপরীত দিকে মুভ করতে পারে। #৩ Support or resistance level or area তে hit করার পর Price Stall করতে পারে। মার্কেট এই লেভেল গুলাতে এসে কি করতে পারে সেগুলা আমরা জানার ফলে, Price যখন এই লেভেল গুলাতে hit করবে তখন এই information এর সাহায্যে আমরা খুব সহজে Trading decision নিতে পারি। এছাড়াও Trade entry, Exit এক কথায় Trade management করতে পারি খুব সহজে । যেটা Trading খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।সে জন্য আমাদের জানতে হবে কি ভাবে perfect Support and Resistance levels or area draw করতে হয়। কিন্তু তার পূর্বে আমাদের জানতে হবে support and resistance levels or area কি ? Support level or area: হচ্ছে একটি level or area যেখানে Price কমপক্ষে দুই বার বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে এবং এটি মার্কেট কে আরও নিচে চলে যাওয়া থেকে ধরে রাখে। অর্থাৎ Price low এই level or area Break করতে পারে না। Resistance level or area: হচ্ছে একটি level or area যেখানে Price কমপক্ষে দুই বার বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে এবং এটি মার্কেট কে আরও উপরে চলে যাওয়া থেকে ধরে রাখে। অর্থাৎ Price High এই level or area Break করতে পারে না। নিচের Image গুলার সাহায্যে খুব সহজে বুঝতে পারবেন ... বিঃদ্রঃ Support or Resistance level or area গুলা কোন আক সময় Breakout করে ... এবং একটি কথা মনে রাখতে হবে যে বেশির ভাগ সময় Broken Support, Resistance হিসাবে কাজ করে ও Broken Resistance, Support হিসাবে কাজ করে । নিচের Image গুলার সাহায্যে খুব সহজে বুঝতে পারবেন ... # 1st Image এ Broken Support, Resistance হিসাবে কাজ করেছে এবং # 2nd Image এ Broken Resistance, Support হিসাবে কাজ করেছে । এখন কেন মার্কেট এই level or area গুলাতে এসে বাধাপ্রাপ্ত আথবা rejected হল সেটি জানা কি খুব আবশ্যক ? মোটেই না ! এটি আমার কাছে মটেই গুরুত্বপূর্ণ না, কেন মার্কেট এই level or area গুলাতে এসে বাধাপ্রাপ্ত আথবা rejected হল , বরং এই level or area গুলাতে এসে মার্কেট বাধাপ্রাপ্ত আথবা rejected হবার ফলে Next hours or ঐ দিনে কি করবে সেটি আমার কাছে বেশি গুরুত্বপূর্ণ, যাতে করে আমরা এই অবস্থা থেকে প্রফিট বের করতে পারি । মার্কেট কেন Up or Down হল সেটি আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ না, আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে মার্কেট এর এই Up or Down থেকে আমি প্রফিট বের করতে পারলাম কি না ? (যেহেতু আমরা সবাই এখানে প্রফিট করতে আসছি , যেটা Unpossible ... এখানে ৯০% ট্রেডারই Loser ... ) চলমান ... Major Update: (5-7-2015) Contact Facebook: https://goo.gl/Ve3yuT
  23. আমরা মধ্যে যারা ফরেক্সে এ নতুন তাদের ফরেক্স সম্মন্ধে জ্ঞান অর্জনের চেয়ে একাউন্ট ডবল করার প্রতিযোগিতা বেশি করতে দেখা যায়। আর একাউন্ট ডবল করার প্রতিযোগিতায় নতুনরা জ্ঞান অর্জনে ও ট্রেড প্রেক্টিসের কথায় দেখছি ভুলে এখন রিয়েল ট্রেডিং এ ইনভেষ্ট করছে। কিন্তু এই without ডেমো প্রেক্টিসের কারণে তাদের লস বেড়ে যাচ্ছে এবং ট্রেডে পরাজিত হবার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এটা সত্য যে আমরা ডেমোতে বেশি দিন ট্রেড করতে পারিনা, আর করার পরেও এটা লক্ষ্য করা যায় আমরা আসলে ট্রেডের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠি না। এর কারণ হল আমরা ডেমো ট্রেডিংকে সিরিয়াসলি নেই না। আমরা যারা ডেমোতে প্রেক্টিস করি তারা এটিকে সিরিয়াস হিসাবে নেই না কারণ এতে আর্থিক ঝুঁকি সংযুক্ত থাকে না। লসের ভয় না থাকার কারণে আমরা মনসিকভাবে ট্রেডে চালিয়ে যাবার চেষ্টা করি না। এটা নতুনদের জন্য কোন ভাবেই কাম্য নয়। যার কারণে আমরা যখন রিয়েলে যাই তখন লস করি। এখন নতুনদের ডেমো প্রেকটিস বলতে যা দেখি তাহলো অনেকটা এমটি৪ টার্মিনালটিকে জানা। মানে শুধু সফটওয়্যারের এপ্লিকেশন বা ব্যবহারবিধি শেখা। এর বেশী যদি কিছু হয় তবে সেটা So RARE In FX। আমি যেইভাবে ডেমোকে সিরিয়াস হিসাবে নিয়েছি: ==================================== ১। কোন ভাবেই ওভারঅল ট্রেডে লস না খাওয়ার প্রস্তুতি রাখা। এর জন্য আমরা ৫ দিনের ট্রেডের লাভ ক্ষতির হিসাব মিলিয়ে দেখতে পারি। ক্ষতি হলে লসের কারণ এবং পরবর্তী সপ্তাহে যাতে ভাল করি সেই চেষ্টায় মনোনিবেশ করা। ২। বেশী করে বা বড় লট ওপেন না করে মানি ম্যানেজমেন্ট ফলো করা এবং এক অর্ডার থেকে ছোট ছোট পিপস(৩/৪) টারগের্ট করা। ৩। সব পেয়ারে ট্রেড না করে নির্দিষ্ট কয়েকটি পেয়ারে পুনঃ পুনঃ চর্চা করা। ১৫ থেকে ৩০ দিন পর পেয়ারের সংখ্যা বৃদ্ধি করা। ৪। একাউন্ট জিরো না করার জন্য সর্বোচ্চ শ্রম দেওয়া। একাউন্ট ডবল কয়ার প্রতিযোগিতা বা পুরো একাউন্টকে জুয়া হিসাবে ইনভেষ্ট না করা। ৫। কোন ট্রেডে লস খেলে আঙ্গুল কামড়ে বা নিজের গালে থাপ্পর দিয়ে হলেও ঐ দিনের জন্য ট্রেড বন্ধ রাখা। ৬। কেউ যদি সেটি না পারেন তবে ১০/২০ ডলার দিয়ে হলেও রিয়েল ট্রেডে সিরিয়াসলি ট্রেড করা। আমার ট্রেডিং Experience থেকে শুধু এইটুকুই বলতে পারি - যতো কম দিয়ে রিয়েল ট্রেডিং শুরু করবেন আপনার লসের পরিমাণও তত কম হবে। ৭। আমরা সবাই জানি ফরেক্সে Scalping ট্রেডিং পদ্ধতি আমাদের দ্রুত প্রফিট এনেদে, কিন্তু সবর্দা মনে রাখবেন ফরেক্স বলতে শুধু Scalping কে বুঝায়না। যদি আপনি ফরেক্সকে ক্যারিয়ার হিসেবে নিতে আগ্রহী হোন তাইলে আপনাকে Long Time ট্রেডিং পদ্ধতিতেও পারর্দশী হতে হবে। সবর্দা মনে রাখবেন আমাদের ভূলে যেতে হবে যে আমরা ডেমো করছি। ভাবতে হবে এটিই আমাদের জন্য রিয়েল। ধন্যবাদ।
×
×
  • Create New...