Jump to content

Search the Community

Showing results for tags 'ইউরোডলার'.



More search options

  • Search By Tags

    Type tags separated by commas.
  • Search By Author

Content Type


Categories

  • ইন্ডিকেটর
  • এক্সপার্ট এডভাইসর
    • বিডিপিপস EA ল্যাব
  • স্ক্রিপ্ট
  • ট্রেডিং স্ট্রাটেজী
  • ট্রেডিং প্লাটফর্ম
  • ফরেক্স ই-বুক
    • বাংলা ই-বুক
  • চার্ট টেমপ্লেট

বিডিপিপস

  • ট্রেডিং এডুকেশন
    • সাধারণ ট্রেডিং আলোচনা
    • ফরেক্স স্টাডি
    • প্রশ্ন এবং উত্তর
  • ফরেক্স ট্রেডিং আলোচনা
    • ফরেক্স নিউজ
    • ট্রেডিং আইডিয়া
    • ট্রেডিং স্ট্রাটেজি
  • ট্রেডিং সফটওয়্যার
    • ফরেক্স ইন্ডিকেটর
    • এক্সপার্ট এডভাইসর
    • মেটাট্রেডার এবং MQL
  • ফরেক্স ব্রোকার
    • ফরেক্স ব্রোকার
  • বিডিপিপস ফোরাম সাপোর্ট
    • ফোরাম সাপোর্ট
  • অফ-টপিক
    • অপ্রাসঙ্গিক
    • ফরেক্স হিউমার
  • লাইভ ট্রেডিং রুম

Categories

There are no results to display.


Found 2 results

  1. EUR/USD পেয়ারটি এখন ১.২২ এর ঘরে ট্রেডিং হচ্ছে। বেশিরভাগ ট্রেডারেরই আশা ছিল পেয়ারটি ১.২৫ প্রাইস লেভেল অতিক্রম করায় ১.২৭ এর পথে অগ্রসর হবে। কিন্তু অনেক ট্রেডারদেরকে হতাশ করেই পেয়ারটি ১.২২ তে নেমে এসেছে। ১.২২৫০ প্রাইসকে কেন্দ্র করেই আজ EUR/USD ওঠানামা করছে। আজ ১.২২৮৬ তে উঠলেও তা আবার পরে ১.২২২৬ প্রাইসে নেমে আসে। বর্তমানে পেয়ারটি ১.২২৩৮ প্রাইসে অবস্থান করছে। গতকাল থেকেই ইউরো সাইডওয়ে ট্রেন্ডে রয়েছে। এ পর্যায় থেকে ইউরোডলারের পরবর্তী গন্তব্য কোথায় হতে পারে তাই ভাবছেন ট্রেডাররা। টেকনিক্যাল লেভেলঃ নিচের দিকে, ১.২২২৫ প্রাইসটি EUR/USD পেয়ারের জন্য নিকটবর্তী সাপোর্ট হিসেবে কাজ করবে (ফেব্রুয়ারী ৯ – সর্বনিম্ন) এবং ১.২২১০ (জানুয়ারি ২২ ও ফেব্রুয়ারী ৮ – সর্বনিম্ন) ও ১.২১৬০-৬৫ (জানুয়ারি ১৭ – সর্বনিম্ন) প্রাইস লেভেলগুলোও পরবর্তী সাপোর্ট হিসেবে কাজ করবে। ওপরের দিকে, ১.২২৬০ (20H মুভিং এভারেজ), ১.২২৯৫ (বর্তমান রেঞ্জ লিমিট) এবং ১.২৩৩০ (জানুয়ারি ২৯ ও ৩০ – সর্বনিম্ন) প্রাইস লেভেলগুলো রেজিসট্যান্স হিসেবে কাজ করতে পারে। দ্রাঘিঃ ইউরোর এক্সচেঞ্জ রেটকে তীক্ষ্ণভাবে পর্যবেক্ষন করা হবে ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট মারিও দ্রাঘি ইউরোপিয়ান পার্লামেন্টে তার বক্তব্যে বলেন, “ব্যাংক অনেক বেশী আত্নবিশ্বাসী যে অর্থনৈতীক প্রবৃদ্ধির মাধ্যমেই মুদ্রাস্ফীতি বাড়বে। কিন্তু ইউরো নিয়ে সৃষ্ট সংশয় এই প্রবৃদ্ধির পথে সম্ভাব্য বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।“ স্ট্রাসবার্গে এক বক্তব্যে দ্রাঘি বলেন, “যদিও আমাদের আত্নবিশ্বাসের জায়গাটা হচ্ছে, আমাদের লক্ষ অনুযায়ী মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রিত হবে। তবে এমন পরিস্থিতিতে আমরা নিজেদেরকে সফল বলতে পারিনা।“ তিনি আরও বলেন, “সম্প্রতি এক্সচেঞ্জ রেটের ভোলাটিলিটির ফলে নতুন হেডউইন্ডস এর উদয় হয়েছে, যা কিনা মধ্য মেয়াদি মূল্যের স্থীতিশীলতার ইঙ্গিত দেয় যার কারণে এর তীক্ষ্ণ পর্যবেক্ষন দরকার।“
  2. গত সপ্তাহ ইউরোডলারের জন্য ছিল বেশ দোদুল্যমান। দ্রাঘি, মিউচিন এবং ট্রাম্প সবাই মার্কেট কাঁপিয়েছে। কিছুদিন আগে আমরা ২টি বিখ্যাত রিসার্চ ফার্মের অ্যানালাইসিস প্রকাশ করেছিলাম যে ইউরোডলারের পরবর্তী গন্তব্য কোনদিকে হতে পারে। সেখানে ING রিসার্চ অ্যানালিস্টরা বলেছিলেন যে ইউরো-ডলারের ১.২৫ প্রাইসে যাওয়া এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। আর তা সত্যি প্রমানিত হল ২৫ জানুয়ারি। ইউরোডলার ১.২৫ এর ঘর ছাড়িয়ে গিয়েছিল কিছু সময়ের জন্য। ২০১৪ সালের পর আবার পেয়ারটি ১.২৫ এর ঘরে পা রাখলো। দ্রাঘির বক্তব্যের উল্টো প্রভাবে ইউরোর প্রাইস বাড়লেও ডলারের কারণে তা আবার ১.২৫ এর নিচে চলে এসেছে। সোমবার পেয়ারটি কমে ১.২৩ এর ঘরে গেলেও আবার এখন ১.২৪ প্রাইসে ট্রেড হচ্ছে। ডলার শক্তিশালী হওয়ায় প্রাইস কিছুটা কমেছিল, তবে ইউরোর সামনে আরও শক্তিশালী হয়ে ১.২৭ ছাড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নিয়ে কথা বলছেন অনেক বিশেষজ্ঞরা। TD রিসার্চ অ্যানালিস্টদের মতে ইউরো খুব শীঘ্রই ১.২৭ প্রাইসে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আর বৃহস্পতিবারের ইউরোপিয়ান সেন্ট্রাল ব্যাংকের মিটিংয়ের পর ইউরো বছরের নতুন রেকর্ড প্রাইসে উঠেছে। তাদের মতে ইউরোর প্রাইস বৃদ্ধি আটকে রাখা আর সহজ হবে না। ইসিবিও বর্তমান অবস্থায় ইউরোর সম্পর্কে ডোভিশ (নেগেটিভ) মনোভাব দেখার সুযোগ আর পাবে না। TD রিসার্চ দলের মতে ইউরো ডলারের বিপরীতে খুব সহজেই ১.২৭ প্রাইসে চলে যাবে, এবং এ পথে তারা তেমন বাঁধা দেখতে পাচ্ছেন না। জনপ্রিয় BTMU রিসার্চ দলও ইউরোডলার সম্পর্কে একই মনোভাব ব্যক্ত করেছে। তাদের মতে মার্কেট বুল্লিশ মনোভাবে রয়েছে। আর এই বুল্লিশ মনোভাবই ইউরোকে ডলারের বিপরীতে ১.২৭ এ নিয়ে যাবে সহজেই। আর কোন কারণে নিচে নামলেও ১.২২ এর নিচে নামার কোন সম্ভাবনা আপাতত তারা দেখছেন না। ডলার কিছুটা শক্তিশালী হলেও তা সামনে খুব একটা প্রভাব রাখতে পারবেন না বলে তারা মনে করেন। BTMU রিসার্চ দল আরও বলেন, ইউরোডলার ১.২৫ এ রেসিস্ট্যান্স মোকাবেলা করতে পারে। তবে তা কাটিয়ে যেতে পারলেই ১.২৭ এর পথ সুগম। ১.২৭ ছাড়িয়ে গেলে ইউরোডলারের ১.২৯ প্রাইসে যাওয়ার পরবর্তী সম্ভাবনা রয়েছে। বর্তমানে প্রায় সকল মার্কেট বিশ্লেষণকারীরাই আপাতত ইউরো সম্পর্কে ইতিবাচক ভাবছেন। স্বল্পমেয়াদী প্রাইস কমলেও দীর্ঘমেয়াদীভাবে ইউরো ডলারের বিপরীতে আরও শক্তিশালী হবে তাই তাদের প্রত্যাশা। তবে কি EUR/USD পারবে ১.২৭ ছাড়াতে? সময় এবং মার্কেটই বলে দিবে সে কথা। EUR/USD এর পরবর্তী গন্তব্য সম্পর্কে আপনি কি ভাবছেন?

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×