Jump to content

prince2

Members
  • Content count

    141
  • Joined

  • Last visited

  • Days Won

    2

Everything posted by prince2

  1. বাংলাদেশ থেকে ট্রেডাররা সবচেয়ে বেশি ট্রেড করে আমার জানামতে XM, Exness, Hotforex, Instaforex ব্রোকারে। ইন্সটাফরেক্স আমার ভাল লাগেনা, তবে XM এ ট্রেড করি এবং ভাল লাগে। ট্রেড করার জন্য একটি ব্রোকার পছন্দ করতে গেলে আমি মনে করি নিচের বিষয়গুলো মাথায় রাখা উচিতঃ ব্রোকারটি আসলেই ভাল কিনা। সারা বিশ্বে কাজ করছে কিনা। কিছু ব্রোকার ২-৩ টি দেশে অনেক মার্কেটিং করে প্রচুর ব্যবসা করে শুধুমাত্র। আবার অনেক ব্রোকার দেখবেন সব বড় বড় দেশে রেপুটেশন নিয়ে ব্যবসা করছে। আপনি চাকরি করতে গেলে যেমন বড় কোম্পানি দেখেন, ট্রেড করতে গেলেও বড় বিশ্বস্ত ব্রোকারের সাথে ট্রেড করা উচিত, কারণ তারা বিশ্বজুড়ে সার্ভিস দিচ্ছে, এবং আপনাকে খারাপ সার্ভিস দিয়ে তাদের সুনাম নস্ট করবে না। ব্রোকারটি কোন কোন শীর্ষ রেগুলেটর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত তা চেক করা জরুরী। FCA, ASIC, IFSC, CySec ইত্যাদি লাইসেন্স এবং রেগুলেশন আপনার ব্রোকারের আছে কিনা তা যাচাই করবেন। সবচেয়ে কম স্প্রেড না, সহনীয় স্প্রেড। আমি যখন ফরেক্স শুরু করি, আমি শুধু কম স্প্রেডের ব্রোকার খুঁজতাম। কিন্তু এটা সবচেয়ে বড় ভুল। এটা ঠিক স্প্রেড কম হলে ট্রেড তারাতারি লাভে আসে। কিন্তু এখানে অভিজ্ঞ ট্রেডারদের একটি বাক্য উল্লেখ করতে চাই, ৫০ পিপ্স আর ৪৯ পিপ্স লাভ করা প্রায় একই কথা। তাই ১ পিপস কম স্প্রেডের জন্য খারাপ ব্রোকার বেছে নেবেন না। মাঝারি রকম স্প্রেড দেয় এমন ব্রোকার বেছে নিন। ট্রেড করতে গেলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল রিকোটস না দেয়া। রিকোটস দেয়না এমন ব্রোকার বেছে নিতে হবে। এক্সনেসে ট্রেডিং শুধুমাত্র এই কারণেই ছেড়ে দিয়েছি। আর ট্রেড খুব তারাতারি খুলবে এবং বন্ধ হবে। এটাকে ট্রেড এক্সিকিউশন বলে। যে ব্রোকারের ট্রেড এক্সিকিউশন স্পিড যত বেশি, সে ব্রোকারে ট্রেড করে তত আরাম। কারণ অনেক ব্রোকারে বাই/সেল/ক্লোজ দিলে ১০-২০ সেকেন্ড লাগয়ে দেয়। নিউজের সময়ে ঐ সময়ে দ্রুত প্রাইস পরিবর্তনের জন্য লাভের ট্রেডও লসে চলে যায় বা লাভ কমে যায় অনেক সময়। বাংলায় সাপোর্ট বিষয়টি সবচেয়ে জরুরী। ব্রোকার যত ভালই হোক, বিভিন্ন বিষয়ে ব্রোকারের সাহায্য আপনার লাগবেই। অনেক ব্রোকার বাংলাদেশে প্রতিনিধি রেখে তাদের সার্ভিস আর সাপোর্ট অনেক উন্নত করেছে। আমি যেই ব্রোকারে ট্রেড করি, তাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার আমাকে মাঝে মাঝেই ফোন করে কোন সমস্যা হচ্ছে কিনা জিজ্ঞেস করে। অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই থেকে শুরু করে দ্রুত উইথড্র ইত্যাদি বিষয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার যদি সাহায্য করে, আপনিও সেই ব্রোকারে ট্রেড করে মজা এবং সাহস পাবেন। তবে শেষ কথা হল বিচার যাই হোক, তালগাছটা আমার। সবশেষে কিন্তু আপনিই ট্রেড করবেন। তাই সব ব্রোকার যাচাইবাছাই করার পর দেখুন কোনটাতে ট্রেড করে আপনার ভাল লাগে। ভালোর যেমন শেষ নেই, তেমনি চাঁদেও কলঙ্ক থাকবেই। সবকিছু যে আপনার ভাল লাগবে তা নয়। তাই সবকিছু যাচাই করে অবশেষে আপনার পছন্দের ব্রোকারটি বেছে নিন।
  2. আপাতত কিছুটা মার্কেট নিচের দিকে গেলেও ইউরোর প্রাইস বাড়ার সম্ভাবনাই বেশি ধরা হচ্ছে। ১.২২ এবং ১.২৫ দুটিই শক্তিশালী সাপোর্ট এবং রেসিস্ট্যান্স এটা আমি আপনার সাথে একমত। তবে ১.২৫ একবার ভালভাবে ভাঙতে পারলে খবর আছে। এখন পর্যন্ত EURUSD কেনার পক্ষেই আছি।
  3. আপনার অভিজ্ঞতা পড়ে ভালো লাগলো। আমিও প্রথমদিকে অনেক কনটেস্টে অংশ নিয়েছিলাম। কোন প্রাইজ পাইনি, কিন্তু যা শিখেছি, তা এখন ট্রেডে কাজে লাগছে।
  4. আমার মতে ডেমো কনটেস্টগুলো অনেক কঠিন, এবং এর জন্য আলাদা মানসিকতা নিয়ে ট্রেড করতে হয়। অভাবে রিয়েলে কেউ ট্রেড করতে পারবে না। ইমোশন নিয়ন্ত্রন করা যাবে না। ভার্চুয়াল মানি বলে ওগুলো সম্ভব।
  5. খুব ভালো লাগলো। কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো নিয়ে অনেক কিছু জানতে পারছি। আগে এগুলোর নাম এবং কিছু কিছু বিষয় জানলেও এভাবে সম্পূর্ণ ধারনা ছিল না। বিডিপিপসের মাধ্যমে গত কয়েকদিনে ইসিবি, ফেড, বিওই সম্পর্কে জানলাম। বাকি কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো সম্পর্কেও যদি লিখতেন খুব উপকৃত হতাম। বিশেষ করে ব্যাংক অফ জাপান নিয়ে বিস্তারিত জানতে চাচ্ছি। অনেক ধন্যবাদ স্বপ্নিল ভাইকে এতো সুন্দর করে উপস্থাপন করার জন্য।
  6. বাস্তব সত্য তুলে ধরছেন। লোভের কাছেই পরাজিত হচ্ছি বারবার। বনের বাঘে খায় না আমায়, মনের বাঘে খায়...
  7. এইটা ত দুর্বল নিউজ। একবার ফলো করছিলাম, মার্কেট তেমন নড়ে নাই।
  8. ভাই এটা একটা বাংলাদেশিদের খোলা ব্রোকার। আগে পরে টাকা নিয়ে পালাবে kiwibankfx এর মত। ওটাও একটি বাংলাদেশিদের খোলা ব্রোকার ছিল। এই ব্রোকারে ইনভেস্ট করা থেকে বিরত থাকা ভালো।
  9. ধন্যবাদ নাসিম ভাই। ডাইভারজেন্স সম্পর্কে ধারনা আগের থেকে পরিষ্কার হল আপনার লেখা পড়ে।
  10. অসাধারন কাজ করেছেন স্বপ্নিল ভাই। পড়ে খুব অনুপ্রাণিত হলাম। বাকি ২ খন্ডের আশায় অধির আগ্রহে অপেক্ষায় আছি। তারাতারি দেন।
  11. পরের বার কন্টেস্টে জয়েন দিতেছি ইনশাআল্লাহ। পুরস্কার পাইলে তানভীর ভাইরে দাওয়াত দিব।
  12. জানা ছিল না। তথ্যটি আমাদের জন্য আসলেই মজার। তাদের কাজের ফল তারা পাচ্ছে। অনেক দেশের ওপরই ব্রিটিশরা মাতব্বরি ফলিয়েছে। কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমার মনে হয় ইংরেজদের এই উপমহাদেশে আসার কারণে আমরাও পরোক্ষভাবে অনেক লাভবান হয়েছি। অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের সমাজের উন্নতি হয়েছে, ভাষাগত দিক থেকেই ইংরেজিতে আমরা অনেক এগিয়ে বলা যায়। তা নাহলে হয়তো অনেক পশ্চাদপদ জাতির মত এখনও আমরা পিছিয়ে থাকতাম।
  13. আমার কাছে এক্সেম ভালো লাগে। উইথড্র সবসময় ২৪ ঘন্টার মধ্যে, তবে আমি দুপুরে দিলে রাতের মধ্যে পেয়ে যাই। এক্সিকিউশন স্পিডও ভালো।
  14. অত ভালো না। তারপর ব্রোকারের দেশ Belize. এই ধরনের offshore ব্রোকারগুলোর সার্ভিস খুব খারাপ থাকে, আর স্ক্যাম হয়ে যাওয়ারও সুযোগ থাকে। এ ধরনের ব্রোকারগুলোই ক্লায়েন্ট ধরার জন্য কম স্প্রেড দিয়ে থাকে। যেমন এক্সনেসের বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে মাঝে মাঝেই সার্ভার ডাউন, ওয়েবসাইট ডাউন।
  15. ২০১৩ সালে সেমিনারে বলে ২০১৫ তে চালু করলো অবশেষে। যাইহোক চালু যে হয়েছে তাতেই খুশি। এমনিতেই এক্সেম এ ট্রেড করে আরাম পাই তাই অন্য ব্রোকারে স্প্রেড কম হলেও ট্রেড করি না। এক্সেম স্প্রেড কমানোতে সুবিধা হল
  16. আমি xm এ ট্রেড করি। তাদের রেগুলেশন অনেক ভাল আর সকল সমস্যায় তানভীর ভাই আর আসলাম ভাইয়ের কাছ থেকে আন্তরিক সাহায্য পাওয়া যায়। আপনার ভাল লাগলে xm এ ট্রেড করতে পারেন। বাংলাদেশ থেকে বেশিরভাগ ট্রেডারই xm এ ট্রেড করে।
  17. হটফরেক্সে মাঝে মাঝেই এ সমস্যা হয়। কিছুদিন আগে ফেসবুকে xm এর চার্টের সাথে হটফরেক্সের ৬ পিপস পার্থক্যের একটি পোস্ট দেখেছি যেখানে অন্য সব ব্রোকার থেকেও হটফরেক্সের প্রাইস ভিন্ন ছিল। তাদের রেগুলেশন নেই তাই সহজেই এসব করে পার পেয়ে যেতে পারে।
  18. বিডিপিপস এত সুন্দর করে এই নিউজের লিস্টটি তৈরি করে, সপ্তাহের শুরুতে এই লেখার অপেক্ষায়ই থাকি। অনেক ধন্যবাদ। অসংখ্য ট্রেডার শুধু বিডিপিপসের কারণে ফরেক্স মার্কেটের নিউজগুলো সম্পর্কে জানছে এবং বুঝে ট্রেড করছে।
  19. অনেক সাইট থেকেই আপনি কি কি নিউজ আছে জানতে পারবেন। প্রতিদিন এত বেশি পরিমাণ নিউজ রিলিজ হয় যে আপনার পক্ষে সবগুলো নজরে রাখা সম্ভব না। আপনি যেটা করতে পারেন যে হাই এবং মিডিয়াম ইফেক্ট যে নিউজগুলোর হতে পারে সেগুলো নজরে রাখবেন। ফরেক্সফ্যাক্টরিতে high, medium নিউজগুলো দেখতে পাবেন। আর সবচেয়ে ভালো হল বিডিপিপসে প্রতি সপ্তাহে গুরুত্বপূর্ণ যেসব নিউজ বের হবে এবং ট্রেডারদের জানা দরকার ওগুলোর তালিকা এবং ব্যাখ্যা করা থাকে। শুধু ওগুলো ভালো করে দেখলেই মোটামুটি কাজ হয়ে যাবে।
  20. ১. ফরেক্স মার্কেট ম্যানুপুলেট করা সম্ভব না। কারণ এর নিয়ন্ত্রন কোন একক authority এর কাছে নেই। তবে কিছু কিছু সময় বিভিন্ন দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ঐ দেশের কারেন্সিকে শক্তিশালী/দুর্বল করার জন্য ব্যবস্থা নিতে পারে। যেমন একবার SNB - সুইস ন্যাশনাল ব্যাংক ইন্টারভেনশন করে ঘোষণা দিল এখন থেকে তারা ১.২০ রেটে EURCHF কিনবে। ১.১১ থেকে ধুপ করে EURCHF ১.২০ তে চলে গেল। এরকম অনেকসময় হয়। একে আপনি মার্কেট ম্যানুপুলেট বলতে পারবেন না। কিছু কিছু রেগুলেশন ছাড়া ব্রোকার আপনাকে চার্টে ভুল ডাটা দেখায়, ভুল ক্যান্ডেল এবং স্পাইক দেখায়, তারা প্রাইস ম্যানুপুলেশন করে। তাই ভালো রেগুলেশন ছাড়া ব্রোকারে ট্রেড করা উচিত না। অন্তত ২ বা ততোধিক গুরুত্বপূর্ণ রেগুলেটর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত ব্রোকারে ট্রেড করা উচিত যেমন - ASIC, FCA, CySec, FSP ইত্যাদি। রাশিয়া, মরিশাশ, ভিনসেন্ট দ্বীপপুঞ্জ এসব দেশের ব্রোকারগুলো সাধারণত এ ধরনের বাটপারীর সাথে যুক্ত থাকে কারণ এদের কোন রেগুলেশন থাকে না। ২. SL বা TP দিলেই যে সেই প্রাইসে ট্রেড বন্ধ হবে এমন কোন নিশ্চয়তা দেয়া কোন ব্রোকারের পক্ষে সম্ভব না। তেমনি Pending অর্ডার দিলেও সেই প্রাইসে গ্যারান্টেড ট্রেড এক্সিকিউশনও কোন ব্রোকার নিশ্চিত করতে পারবে না। কারণ ফরেক্স মার্কেটে স্লিপেজ হয়। প্রাইসও খুব দ্রুত পরিবর্তন হয়। অনেক সময় দেখা যায় হাই ভোলাটাইল মুভমেন্ট বা নিউজের সময় প্রাইস গ্যাপ করে। ১ পিপ ১ পিপ করে তো মার্কেট সবসময় পরিবর্তন হয় না। অনেক সময় একবারে ১৫ পিপ্স বা ৪৫ পিপ্স গ্যাপও হতে পারে। আপনি ধরুন ১.১০৪৫ এ স্টপ লস দিয়েছেন সেল ট্রেডে। ১.১০৬০ থেকে মার্কেটে ২৫ পিপ্স স্লিপেজ হল, তাহলে আপনার ঐ ট্রেডটি ১.১০৩৫ এ ক্লোজ হবে অতিরিক্ত লস সহ। ব্রোকারের হাতে available price point না থাকলে আপনার ট্রেড কিভাবে ক্লোজ করবে? লাভের ট্রেডের ক্ষেত্রে স্লিপেজ হলেও অতিরিক্ত লাভ হয় TP অতিক্রম করে। ব্রোকারভেদে বিভিন্ন সময় স্লিপেজ কম-বেশি হতে পারে, কারণ বিভিন্ন ব্রোকারের অনেকগুলো ভিন্ন ভিন্ন লিকুইডিটি প্রভাইডার থাকে, এবং সবাই সেইম প্রাইস পয়েন্ট প্রভাইড করতে পারে না, তাই স্লিপেজ ২-৩ পিপ্স কমবেশি হওয়া অস্বাভাবিক নয়। ৩. রেগুলেটেড ব্রোকার সাধারণত দেউলিয়া হয় না। আমার দেখা মতে কোন ব্রোকার হয়নি। রেগুলেটর নিয়মিত তাদের ব্যয় চেক করে এবং তারা ট্রেডারদের টাকার অপব্যবহার করতে পারে না। শুধু ironfx অনেক ট্রেডারদের টাকা মেরে দিয়েছিল। তাদের নামে অনেক কেস চলছিল। ওটা এমনিতেই একটা বাটপার ব্রোকার ছিল। তারপরও যারা জেনে-বুঝে ঐ ব্রোকারে ৫০/১০০% বোনাসের লোভে ডিপোজিট করেছে তাদের অনেকের টাকা আটকে গেছে। ironfx এর আইবিরাও ডিপোজিট এনে দেয়ার নাম করে মোটা অংকের কমিশন খেত ব্রোকার কাছ থেকে। ওটা অনেকটা MLM টাইপের ব্রোকার ছিল। ব্রোকারের আইবি, ফ্রি ট্রেনিং, সিগন্যাল, ১০০% বোনাস এসবের লোভ দেখানো ফরেক্স গুরুদের ব্রোকার থেকে বিরত থাকুন। সম্প্রতি হটফরেক্সও বাংলাদেশে এসব শুরু করেছে। তাদের নুন্যতম রেগুলেশনও নেই।
  21. XM er account STP account. And ECN bole erokom beshirvag broker e ECN na. FBS, OCTAFX, EXNESS egulo konotai real ECN noy. ECN er mula jhulay sudhu.
  22. আমিও প্রথমে কত লস করেছি কেউই ঠিকভাবে ডেমো করে না। কিন্তু ডেমো না করাটা আসলেই বোকামি। আমি অনেক ফরেক্স ট্রেডার দেখেছি ট্রেডিংয়ের অনেক বেসিক জিনিসই বুঝে না, কিন্তু অনেক দিন ধরে রিয়েল করছে।

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×