Jump to content
  • Announcements

    • তানভীর™

      বিডিপিপসের নতুন ভার্সনে সবাইকে স্বাগতম   বৃহস্পতিবার 18 জানু 2018

      বিডিপিপসের নতুন ভার্সনে সবাইকে স্বাগতম। বিডিপিপসে বেশ কিছু নতুন পরিবর্তন আনা হয়েছে এবং নতুন করে আপডেট করা হয়েছে। ফোরাম ব্যবহার করতে গিয়ে কোন নতুন সমস্যায় পরলে মডারেটরদের অবহিত করুন। এবং এখন থেকে ফোরামে ডিসপ্লে নেম পদ্ধতি উঠে যাচ্ছে। যে ইউজারনেম দিয়ে লগিন করছেন, সেই ইউজারনেমই ফোরামে দেখানো হবে। তাই ইউজারনেম/ডিসপ্লে নেম আপনার অ্যাকাউন্ট সেটিংস থেকে আপডেট করে নিতে পারেন।
    বিডিপিপস চ্যাট

    Load More
    চ্যাট করলে লগিন বা রেজিস্ট্রেশন করুন।

Nasim

Members
  • Content count

    634
  • Joined

  • Last visited

  • Days Won

    140

Nasim last won the day on October 9 2017

Nasim had the most liked content!

Community Reputation

1,059 Excellent

About Nasim

  • Rank
    Forex in the blood

Profile Information

  • Gender
    Not Telling
  1. কি বিষয়ে আগে আলোচনা করতে চান ?
  2. Chart Pattern বিষয়ে আরও কয়েকটা বই আছে কিন্তু লিঙ্ক খুঁজে পাচ্ছি না ...
  3. 1 - আমি আগেই বলেছি যে, আমি সুদ খাই না কিন্তু ব্যাংকে টাকা রাখি অথচ, তারপরেও আপনি লিখেছেন যে, আমি হারাম - হালালের ধার ধারি না ... যে কোন পোস্ট লিখার সময়ে বেশী আক্রমণাত্মক হলে ঐ পোস্টের মূল্য নষ্ট হয়ে যায় ... আমি এই বিষয়ে এর বেশী আর কিছু আলোচনা করতে চাই না ... বাকীটা আপনার ইচ্ছের উপরে নির্ভর করছে ... আপনি কি লিখবেন আর কি লিখবেন না সেইটা একান্তই আপনার নিজস্ব ব্যক্তিগত ব্যাপার ... 2 - লিভারেজ নিয়ে আপনি হয়তঃ আবারও তর্কে জড়াবেন ... আমি এই লিখার পরে আরও কোন রিপলাই দিতে চাই না ... তাই লিভারেজ নিয়ে আর কোন কথা বলতে চাই না ... Swap আসলে কি জিনিস, কিভাবে গণনা (হিসাব) করা হয় তা নিয়ে ইন্টারনেটে অনেক আলোচনা আছে ... আমি শুধু একটা লিঙ্ক দিলাম ... পড়ে দেখুন ... এই পোস্টে সব কিছু লিখা নাই, তবে দরকারী কিছু কথা লিখা আছে ... http://forex.com.bd/topic/44808-লিভারেজ-বিষয়ক-ভুল-ধারনা-৤/
  4. এই পোস্টের মূল বিষয়-বস্তু হচ্ছে ইসলামে ফরেক্স হালাল (বৈধ) কিনা ... আর আপনি সবাইকে বোঝাতে চাচ্ছেন যে, আসল ECN ব্রোকারে ফরেক্স ট্রেডিং হালাল (বৈধ) হয় না, যেহেতু ECN ব্রোকারের মাধ্যমে ট্রেডারেরা সরাসরি ফরেক্স মার্কেট তথা ব্যাংকের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে যায় ... তাহলে আপনার কথার অন্য অর্থ দাঁড়াচ্ছে - যে সকল ব্রোকার নকল ECN ব্রোকার বা, Market Maker - কেবল তারাই Swap-Free একাউন্টের মাধ্যমে হালাল ট্রেডিং এর ব্যবস্থা করে দেন ... আমি এই ওয়েবের এডমিন তানভীর ভাইয়ের কথার উদ্ধৃতি দিয়ে বলতে চাই যে, বাংলাদেশে আসল (Real) ECN ব্রোকার নেই ... এইবার আসি ব্যাংকিং চ্যানেলের কথায় ... এখন পৃথিবীর প্রায় সকল হালাল ব্যবসা ব্যাংকিং চ্যানেলেই হয়ে থাকে ... পবিত্র হজ্বে কিংবা, টঙ্গীর বিশ্ব-এজতেমায় বিদেশিদের আগমনে ভিসা-মানি ট্রান্সফার সব কিছুই (লেনদেন) ব্যাংকিং চ্যানেলেই হয়ে থাকে ... তাহলে কথা হচ্ছে মানুষ হারাম-মুক্ত (হালাল) লেনদেন কিভাবে করবে ? এই বিষয়টা সম্পূর্ণ ভাবে মানুষের ব্যক্তিগত নেক-নিয়তের উপরে নির্ভর করে, এই পৃথিবীতে সবাই পাপী না ... যারা হালাল ছাড়া আর কিছুই চিন্তা করতে পারেন না তারাও ব্যংকিং চ্যানেলে লেনদেন করেন ... ইসলাম পালনের একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে পৃথিবীর সাথে তাল মিলিয়ে চলা ... অনেকেই ইসলাম সম্পর্কে সব কিছু না জেনে ফতোয়া জারি করে সহজ স্বাভাবিক জীবনকে জন-বিচ্ছিন্ন আর দূর্বিষহ করে তোলেন ... যার ফলাফল আমরা ইদানিং কালে দেখতে পাচ্ছি ... ইসলামের দোহাই দিয়ে সবার কাছে থেকে জন-বিচ্ছিন্ন হয়ে ইসলাম প্রতিষ্ঠার নামে জঙ্গীবাদ সৃষ্টি করা হচ্ছে ... এখন কেউ যদি হারাম থেকে বাঁচার জন্য ফরেক্স ছেড়ে দেয়, তাহলে সে তাই-ই করুক ... তবে আমি নিশ্চিত ভাবে বলতে পারি যে, অন্য ব্যবসা করতে চাইলে সেখানেও তাকে ব্যাংকিং চ্যানেলে সুদের ভিতর দিয়ে আসতে হবে ... আপনি যে ইন্টারনেট লাইন ব্যবহার করেন তা সাবমেরিন ক্যাবেলের মাধ্যমে বিদেশ থাকে কিনে আনা ...আর এর মূল্য ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে সুদে-আসলে শোধ করতে হয় ... এখন সুদ থেকে বাঁচতে চাইলে ইন্টারনেট ব্যবহার করাও বাদ দিতে হবে ... কাজেই আপনি কি করবেন ? ... সব বাদ দিয়ে জন-বিচ্ছিন্ন হয়ে জনশুন্য দ্বীপে বসবাস করবেন নাকি সবার সাথে একত্রে জীবন-যাপন করে হারাম বাছাই করে চলবেন ? আমি নিজেও সুদ খাই না, কিন্তু তাই বলে কি ব্যাংকে টাকা রাখব না ... ইসলামী ব্যাংকের নামে যতগুলো ব্যাংক আছে তারা কি শতভাগ ইসলামী ? আমি মনে করি ফরেক্সের সাথে যুক্ত থাকতে হলে সুদ পরিহার করে ট্রেড করতে হবে, তাহলেই ফরেক্স ট্রেড হালাল হবে ... তাহলে প্রশ্ন হতে পারে যে, লিভারেজের সমাধান কি হবে ? লিভারেজ মানেই কি ব্যাংক ঋণ ? যদি লিভারেজ মানেই ব্যাংক ঋণ হত তাহলে তো ফরেক্স ট্রেডিং বাদ দিয়ে অফিস / কারখানা খুলে ব্যবসাই করা যেত, ধরেন আমার কাছে ৫০,০০০ টাকা আছে, আমি এই টাকা দিয়ে ৫ কোটি টাকার ফরেক্স ট্রেড করতে পারব (1:1000 অনুপাতে লিভারেজ নিয়ে) কিন্তু ৫০,০০০ টাকা জামানতের বিনিময়ে ব্যাংক কি আমাকে ৫ কোটি ঋণ দিবে কারখানা খোলার জন্য ? আপনি হয়তঃ বলবেন যে, ব্যাংকের কাছে ফরেক্স ডিপোজিট থাকে বলেই ব্যাংক ফরেক্স ট্রেডিং এ 1:1000 লিভারেজে ঋণ দেয়, কিন্তু কারখানা খোলার ক্ষেত্রে তা দেয় না ... তাহলে এখন এই কথাটা বলে রাখা দরকার যে, ফরেক্সে সফলতার হার মাত্র ১০% ... কাজেই বাকী যে ৯০% ট্রেডার তাদের ব্যালেন্স হারিয়ে ফেলে তাদের টাকা ব্যাংকিং চ্যানেলে চলে যায় আর এই কারণে ব্যাংকগুলো ফরেক্সে ঋণ দেয়ার ক্ষেত্রে এত উদার হয়ে থাকে ... এইটা অনেকটা ইন্সুরেন্সের মত ... ১০০ জন লোক প্রিমিয়াম দিলে মাত্র ১৫ জন লোককে ক্ষতিপূরণ দিতে হয় ...
  5. আমার জানা মতে, Swap দুই প্রকারের হয়ে থাকে ... Positive Swap এবং Negative Swap ... এই দুই ধরনের Swap এর কারণে ট্রেডারের একাউন্টে সুদ (Interest) জমা হয় এবং কাটা হয় ... কাজেই Swap মানেই এক তরফা ব্যাংকের সুদ না যা সাধারণ ভাবে ঋণ (Loan) নেওয়ার কারণে বাড়তি হিসেবে ব্যাংককে দিতে হয় ... Swap দুই রকমের হওয়াতে ট্রেডার এর লাভ-লস দুইটাই হতে পারে ... Positive Swap এর কারণে ব্যালেন্স বাড়তে পারে, আবার Negative Swap কারণে ব্যালেন্স কমতেও পারে ... কোন ট্রেডার যদি Swap-Free একাউন্ট খুলে ট্রেড করেন তাহলে উভয় প্রকার Swap ব্রোকারের একাউন্টে জমা হয় এবং ট্রেডারের সংখ্যা অনেক হওয়ার কারণে ব্রোকারের লাভ-লস মিলিয়ে ব্রোকারের প্রফিট Affordable হয়ে যায় ...
  6. আপনার (ফতোয়া) বিষয়ক লিখাটা বাংলায় অনুবাদ করে পোস্ট করুন, তাহলে সবার পক্ষে সহজে বুঝতে সুবিধা হবে ... শরীয়তে হারাম / হালাল এর বিষয়টা একেবারেই সহজ-সরল না ... শরীয়তে লেন-দেন বিষয়ে অনেক শর্ত এবং নিয়ম-কানুন আছে ... কয়েকটা ইংরেজী লাইন পোস্ট করে ফরেক্স যে হারাম - আপনি সেইটা প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন ... আপনার চেষ্টা আল্লাহ-পাক কবুল করুন ... এখন আপনি আপনার চেষ্টাকে পরিপূর্ণ দেওয়ার জন্য আপনার পুরো লিখাটা বাংলায় অনুবাদ করে পুনরায় পোস্ট করুন ... তাহলে আমার পক্ষে এবং অন্যদের পক্ষে আপনার লিখাটার পক্ষে-বিপক্ষে যুক্তি স্থাপন করাটা সহজ হবে .... ধন্যবাদ ... বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আপনার পোস্ট করা রেফারেন্সে উল্লেখ করা আছে যে, মুদ্রা ক্রয়-বিক্রয় করাটা (Without hand to hand exchange) ইসলামিক শরীয়তে বৈধ (permissible according to Sharee'ah) বা, অনুমতিপ্রাপ্ত অর্থাৎ, অনুমোদন যোগ্য ... তাহলে আপনার রেফারেন্স অনুসারেই তো ফরেক্স বৈধ (শরীয়ত মতে) ... অথচ আপনি বলছেন যে, ফরেক্স শরীয়ত মোতাবেক নয় ... ব্যাপারটা আমি ঠিক বুঝতে পারছি না ...
  7. অর্থাৎ দেখা যাচ্ছে যে, Bloomberg কর্তৃপক্ষ এশিয়ার আর ইউরোপের (আমেরিকা সহ) ফরেক্স ট্রেডারদের জন্য ভিন্ন ভিন্ন নিউজ তৈরী করে প্রচার করছে যা সত্যিই একটি বিরাট বড় অপরাধ (crime) ...
  8. আজ ভোর রাতে হঠাৎ করেই GBP এর প্রাইসের পতন ঘটে আর GBP-USD এর সর্বনিম্ন প্রাইস 1.2026 এ গিয়ে দাঁড়ায় ... আমি একটু অতিরিক্ত কৌতুহলী হয়ে ফরেক্স অনলাইন নিউজ দেখার জন্য বিভিন্ন ওয়েব-সাইটে ঢুঁ মারা শুরু করি ... এবং দুই-তিনটা নিউজ সাইটে নিউজের মধ্যে বিরাট পার্থক্য লক্ষ্য করি ... কিন্তু একই নিউজ ভিন্ন ভিন্ন ওয়েবসাইটে ভিন্ন ভিন্ন রকমের পাওয়াতে আমি এই বিষয়ে একটু আলোচনা করতে চাই ... আশা করি আমার লিখায় কোন ভুল থাকলে পাঠকগণ সেইটা চিহ্নিত করে দিবেন ... আমি নিউজ ট্রেডিং করি না ... তাই আমার পক্ষে এই সকল বিষয়ে খুব ভাল ভাবে সব কিছু জানা নাই ... যাই হোক আসল কথায় আসি ... October 6-7 (2016) তারিখে GBP-USD এর সর্বনিম্ন প্রাইস ছিল 1.2026 (MT4 এ প্রাপ্ত তথ্য মতে) এবং Bloomberg (Asia Edition) এ-তে একই প্রাইস দেখা গেছে ... অথচ Bloomberg (UK Edition) দেখা যাচ্ছে যে, GBP-USD এর সর্বনিম্ন প্রাইস হচ্ছে 1.1841 ... আমি জানতে চাচ্ছি যে, আমার লিখায় কি বড় কোন অসামঞ্জস্য আছে কিনা ... নাকি ফরেক্স প্রাইস আর ব্যাংক প্রাইস আলাদা আলাদা হয় ... কারও জানা থাকলে জানাবেন ...
  9. আপনাকেও ধন্যবাদ, আগের PDF এ কয়েকটা বানান ভুল ছিল যেমন, হিডেন এর স্থলে রেগুলার ছিল, ইত্যাদি, আমি নতুন করে কারেকশন করে দিলাম ...
  10. Imgur দিয়ে নরমাল টেক্সট পোস্ট করতে চেয়েছিলাম, কিন্তু ইন্টারনেট লাইন বারংবার কেটে যাওয়ার কারণে প্রথমে PDF পোস্ট করে দিলেও ... PDF ইমেজ খুবই ঝাপসা দেখানোর কারণে পরে আমি নরমাল টেক্সট পোস্ট-ই করলাম ... সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখিত ...
  11. ডাইভারজেন্স থিওরী ফরেক্স ট্রেডিং করার জন্য অনেক ধরনের পদ্ধতি আছে, এই সকল পদ্ধতি সমূহকে প্রধানতঃ দুইভাগে ভাগ করা যায় – (১) প্রাইস অ্যাকশন বেসড ট্রেডিং স্ট্রাটেজী সমূহ এবং (২) ইন্ডিকেটর এন্ড অস্কিলেটর বেসড ট্রেডিং স্ট্রাটেজী সমূহ প্রাইস অ্যাকশন বেসড ট্রেডিং স্ট্রাটেজী সমূহের মধ্যে ফিবোনাক্কি, হারমোনিক প্যাটার্ন, ট্রেন্ড-লাইন ব্রেকআউট, ইত্যাদি রয়েছে । আবার অন্যদিকে ইন্ডিকেটর এন্ড অস্কিলেটর বেসড স্ট্রাটেজী সমূহের মধ্যে মুভিং এভারেজ ক্রসওভার, ওভারবট এন্ড ওভারসোল্ড থিওরী, ডাইভারজেন্স থিওরী, ইত্যাদি রয়েছে । আমরা এই অধ্যায়ে বিভিন্ন ধরনের স্ট্রাটেজী সমূহের মধ্যে শুধুমাত্র ডাইভারজেন্স থিওরী নিয়ে আলোচনা করব – ডাইভারজেন্স থিওরী এর মূল প্রতিপাদ্য বিষয়ঃ ফরেক্স মার্কেটে বিভিন্ন কারেন্সী পেয়ার সমূহের মধ্যে আমরা প্রতিনিয়ত আপট্রেন্ড এবং ডাউনট্রেন্ড দেখতে পাই । এই সকল আপট্রেন্ড এবং ডাউনট্রেন্ডের কারণে অস্কিলেটর সমূহ বিশেষ ধরনের সিগন্যাল প্রদান করে থাকে যা ডাইভারজেন্স থিওরীর এর মূল উপাদান । অস্কিলেটর সমূহের এই বিশেষ ধরনের সিগন্যাল সমূহকে আবার দুইটি ভাগে ভাগ করা যায়, যেমন – (ক) রেগুলার ডাইভারজেন্স (Regular Divergence) (খ) হিডেন ডাইভারজেন্স (Hidden Divergence) (ক) রেগুলার ডাইভারজেন্স (Regular Divergence) রেগুলার ডাইভারজেন্স এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে যে, মার্কেট আপট্রেন্ডে কিংবা, ডাউনট্রেন্ডে যাওয়ার সময়ে অস্কিলেটর সমূহ ট্রেন্ডের Weakness (দূর্বলতা) প্রদর্শন করে থাকে, ফলে একটা নির্দিষ্ট সময়ের পরে মার্কেটে রিভার্সাল ট্রেন্ডের উৎপত্তি ঘটে থাকে, আমরা নীচের অংকিত গ্রাফ দুইটা ভাল করে লক্ষ্য করলেই বুঝতে পারব – উপরে অংকিত মডেল গ্রাফে দেখা যাচ্ছে যে, Regular Bearish Divergence এর ক্ষেত্রে মার্কেটের প্রাইস উপরের দিকে ছুটছে অথচ অস্কিলেটরের গ্রাফ নীচের দিকে নেমে আপট্রেন্ডের দূর্বলতা প্রদর্শন করছে এবং একইভাবে Regular Bullish Divergence এর ক্ষেত্রে মার্কেটের প্রাইস নীচের দিকে নেমে আসছে অথচ অস্কিলেটরের গ্রাফ উপরের দিকে উঠে ডাউনট্রেন্ডের দূর্বলতা প্রদর্শন করছে – আমরা উপরে EUR-USD (1 Hour) চার্ট – এ দুই ধরনের Regular Divergence এর বাস্তব উদাহরণ লক্ষ্য করি । লাল রঙের ট্রেন্ডলাইন বিশিষ্ট ডাইভারজেন্স হচ্ছে Regular Bearish Divergence এবং নীল রঙের ট্রেন্ডলাইন বিশিষ্ট ডাইভারজেন্স হচ্ছে Regular Bullish Divergence । (খ) হিডেন ডাইভারজেন্স (Hidden Divergence) হিডেন ডাইভারজেন্স এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে যে, মার্কেট আপট্রেন্ডে কিংবা, ডাউনট্রেন্ডে যাওয়ার সময়ে অস্কিলেটর সমূহ ট্রেন্ডের Strength (শক্তিমত্তা) প্রদর্শন করে থাকে, ফলে মার্কেটে ট্রেন্ডের কনটিনিউয়েশন ঘটে থাকে, এই কারণে কোনো কোনো এক্সপার্ট ট্রেডার হিডেন ডাইভারজেন্সকে কনটিনিউয়েশন ডাইভারজেন্স হিসেবেও উল্লেখ করে থাকেন । আমরা নীচের অংকিত গ্রাফ দুইটা ভাল করে লক্ষ্য করলেই বুঝতে পারব – উপরে অংকিত বাম দিকের মডেল গ্রাফে দেখা যাচ্ছে যে, Hidden Bearish Divergence এর ক্ষেত্রে মার্কেটের প্রাইস নীচের দিকে নেমে আসছে অথচ অস্কিলেটরের গ্রাফ এই ক্ষেত্রে মার্কেটকে Over-Bought হিসেবে প্রদর্শন করছে, অর্থাৎ মার্কেট ডাউনট্রেন্ডে চলবে । একইভাবে উপরে অংকিত ডান দিকের মডেল গ্রাফে দেখা যাচ্ছে যে, Hidden Bullish Divergence এর ক্ষেত্রে মার্কেটের প্রাইস উপরের দিকে ছুটে চলছে অথচ অস্কিলেটরের গ্রাফ এই ক্ষেত্রে মার্কেটকে Over-Sold হিসেবে প্রদর্শন করছে, অর্থাৎ মার্কেট আপট্রেন্ডে চলবে । আমরা নীচের চার্ট লক্ষ্য করি – আমরা উপরে EUR-USD (1 Hour) চার্ট – এ দুই ধরনের Hidden Divergence এর বাস্তব উদাহরণ লক্ষ্য করি । লাল রঙের ট্রেন্ডলাইন বিশিষ্ট ডাইভারজেন্স হচ্ছে Hidden Bearish Divergence এবং নীল রঙের ট্রেন্ডলাইন বিশিষ্ট ডাইভারজেন্স হচ্ছে Hidden Bullish Divergence । ডাইভারজেন্স থিওরীর জন্য ব্যবহারযোগ্য অস্কিলেটর সমূহঃ ডাইভারজেন্স থিওরীর জন্য মেটা-ট্রেডারের সাথে সংযুক্ত অস্কিলেটর সমূহ যেমন, MACD, Stochastic, CCI, RSI, ইত্যাদি (সবগুলোই) ব্যবহার করা যায় । এছাড়া ইন্টারনেটে ফ্রি-তে পাওয়া Custom Oscillator ডাইভারজেন্স থিওরী এনালাইসিসের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে । ডাইভারজেন্স থিওরী ব্যবহারের সুবিধা-অসুবিধা সমূহঃ ডাইভারজেন্স থিওরীকে ফরেক্স এক্সপার্টগণ Holy Grail (যাদুর কাঠি) হিসেবে উল্লেখ করে থাকেন । এই থিওরী প্রায় ক্ষেত্রেই Moving Average Crossover থিওরী এর বিপরীত সিগন্যাল প্রদান করে থাকে, তাই অনেক ট্রেডারই এই থিওরী ব্যবহার করতে চান না কিংবা, পছন্দ করেন না । তবে, Moving Average Crossover থিওরী যেমন মার্কেটের Peak এবং Bottom পয়েন্টে রিভার্সাল ট্রেন্ডের সময়ে ভুল সিগন্যাল প্রদান করে থাকে, তেমনি ডাইভারজেন্স থিওরী ব্যবহার করে মার্কেটের ট্রেন্ড কনটিনিউয়েশনের সময়ে নতুন ট্রেডারেরা অদক্ষতার কারণে উল্টা বা, বিপরীত ট্রেড যেমন, BUY এর স্থলে SELL কিংবা, SELL এর স্থলে BUY ট্রেড ওপেন করে থাকে । এই ভুলের দুইটা বড় কারণ হচ্ছে, Hidden Divergence সম্পর্কে ভাল জ্ঞান না থাকা আর ডাইভারজেন্স থিওরী শিখে প্র্যাকটিস না করেই রিয়্যাল ট্রেড শুরু করে দেওয়া । অস্কিলেটরের আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ সিগন্যালঃ সাধারণতঃ ডাইভারজেন্স থিওরী এর পাশাপাশি মার্কেটের Over-Bought এবং Over-Sold অবস্থাকে নির্দেশ করার জন্যই অস্কিলেটর সমূহকে ব্যবহার করা হয়ে থাকে, তবে এই দুই ধরনের স্ট্রাটেজী ছাড়া আরও এক বিশেষ ধরনের সিগন্যাল আমরা অস্কিলেটরের মাধ্যমে পেয়ে থাকি, যাকে এক কথায় ট্রেন্ডলাইন ব্রেকআউট বলা হয়ে থাকে, নীচের চার্টের মাধ্যমে এই বিষয়টি সহজ ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করা হল – Divergence Theory.pdf
  12. স্ট্রাটেজী সরাসরি পোস্ট করা কিংবা, ফাঁস করে দেওয়ার কিছু বিপদ আছে ... তবে সেই বিপদগুলো কি কি তার বর্ণনা দেওয়া সম্ভব না ... এতে আমার সাথে ডিলিং ডেস্ক / মার্কেট মেকারের সাংঘার্ষিক পরিস্থিতি তৈরী হবে ... এই কারণে কোন ট্রেডারই এই কাজ করে না ...
  13. স্ট্রাটেজী সরাসরি পোস্ট করা কিংবা, ফাঁস করে দেওয়ার কিছু বিপদ আছে ... তবে সেই বিপদগুলো কি কি তার বর্ণনা দেওয়া সম্ভব না ... এতে আমার সাথে ডিলিং ডেস্ক / মার্কেট মেকারের সাংঘার্ষিক পরিস্থিতি তৈরী হবে ... এই কারণে কোন ট্রেডারই এই কাজ করে না ... ইন্টারনেটে যেই সকল স্ট্রাটেজী পাওয়া যায় কিংবা, যেই সকল ফ্রি ইন্ডিকেটর পাওয়া যায় তার বেশীর ভাগই ১০০% পারফেক্ট না ... এই সকল স্ট্রাটেজী এবং ইন্ডিকেটরকে পরিমার্জন করে স্ট্রাটেজীর জন্য উপযুক্ত করে নিতে হয় ... আমি যেই স্ট্রাটেজী ব্যবহার করি তা মূলতঃ ডাইভারজেন্স থিওরীর উপর ভিত্তি করে তৈরীকৃত ... তবে এর সাথে শ'খানেক আনুষাঙ্গিক স্ট্রাটেজী যুক্ত রয়েছে ... যেমন এইটা না হলে ঐটা, ঐটা না হলে এইটা - এই জাতীয় ... কাজেই আপনাকে আপনার নিজের স্ট্রাটজী নিজেই তৈরী করে নিতে হবে ... আমার অবশ্য ডাইভারজেন্স থিওরী নিয়ে কিছু কথা বাংলায় লিখার ইচ্ছা আছে, তবে লিখতে হলে যেই রকম শারীরিক সামর্থ্য দরকার তার অনেকখানিই এখন আমার মধ্যে অনুপস্থিত, তাই কবে লিখতে পারব জানি না, তবে আমার লিখার ইচ্ছা আছে ... বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ আমার সাথে ডিলিং ডেস্ক / মার্কেট মেকারের সাংঘার্ষিক পরিস্থিতি তৈরী হবে ... এই কথার মানে হচ্ছে ... ডিলিং ডেস্ক / মার্কেট মেকারেরা আমার স্ট্রাটেজীর বিপরীত চার্ট তৈরী করতে তারা বাধ্য হবে ... কারণ তা না হলে আমি প্রফিট করার সাথে তাদের লসও হতে থাকবে ...
  14. একই ইন্ডিকেটর ভিন্ন ভিন্ন একাধিক নামে পাওয়া যায়, কিন্তু একই জাতীয় ইন্ডিকেটরের বেসিক ফর্মূলা একই রকমের হয়ে থাকে, 3Z Semafor ইন্ডিকেটরের বলগুলো হলুদ / সাদা / খয়েরী ইত্যাদি রঙের পূর্ণ বলের আকৃতিতে হয়ে থাকে আর আপনার চাওয়া ইন্ডিকেটরের বলগুলো সূর্য কিংবা, লাল / হলুদ বলের আকৃতিতে হয়ে আছে, আসল কথা হচ্ছে দুইটাই একই জাতীয় ইন্ডিকেটর এবং দুইটাই ব্যবহার করা বিপদজনক, আমার কথা বিশ্বাস না হলে 3Z Semafor ব্যবহার করে লস খেয়ে দেখুন, পুরোপুরি বিশ্বাস হয়ে যাবে ...
  15. আপনার প্রার্থিত ইন্ডিকেটরের নাম হচ্ছে 3Z Semafor, তবে এই ইন্ডিকেটরটি ব্যবহার না করাই ভাল, আমি অনেক আগে (ফরেক্স শিখার ১ম বর্ষে) কিছুদিন ব্যবহার করেছিলাম, এই ইন্ডিকেটর প্রচুর ভুল সিগন্যাল দেয়, আপনি মেটাট্রেডারের ডিফল্ট ইন্ডিকেটর ব্যবহার করে স্ট্রাটেজী তৈরী করে ট্রেড করার চেষ্টা করুন ... ...

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×