Jump to content

NASA

Members
  • Content count

    2
  • Joined

  • Last visited

  • Days Won

    1

NASA last won the day on February 1

NASA had the most liked content!

Community Reputation

2 Neutral

1 Follower

About NASA

  • Rank
    I Love Forex
  1. ডলারের দুর্বল হওয়া বৈশ্বিক অর্থনীতিতে বেশ ভালোভাবেই প্রভাব ফেলছে এবং এর ফলে কমোডিটিগুলোর দাম (তেল, স্বর্ণ, কফি, চিনি ইত্যাদি) বেড়েই চলেছে। ডিসেম্বর থেকে ব্লুমবার্গ কমোডিটি ইন্ডেক্সে বিগত দুই বছরের তুলনায় ১০ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে । (কমোডিটির মূল্য ও আয়, দুই বিবেচনাতেই) যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারীর সেক্রেটারি স্টিভেন মানুচেন বলেন, “যেকোন ট্রেডের জন্য অপেক্ষাকৃত দুর্বল ডলার বেশী কার্যকরী।“ তিনি আরও বলেন যে, “কাঁচামাল, তেল, সোনা এবং লোহার দামও বাড়ছে। তবে এখন পর্যন্ত কৃষিজ পণ্যগুলো এর প্রভাবমুক্ত রয়েছে এবং এই বিষয়গুলো বিগত কয়েক বছর ধরে লক্ষণীয়।“ ডলার ইনডেক্স বর্তমানে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পরবর্তী সর্বনিম্ন পর্যায়ে রয়েছে। কমোডিটি বিশ্লেষকগণ তাই নজর রাখছেন ডলারের মূল্য হ্রাস বৃদ্ধির উপর, কেননা আন্তর্জাতিক বাজারে কমোডিটির বেচাকেনা হয় মূলত ডলারে। কিছু কিছু শস্য যুক্তরাষ্ট্রে উৎপাদিত হলেও, মূলত পুরো বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন শস্য উৎপাদিত হয় বা খনিজ পন্যগুলো আহরিত হয়। তাই, ডলারের দাম কমে গেলে যে আন্তর্জাতিক বাজারে এই কমোডিটিগুলোর দাম বেড়ে যাবে, সেটাই স্বাভাবিক। যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারির সেক্রেটারির সাম্প্রতিক একটি মন্তব্যকে কেন্দ্র করে Currency War বা মূদ্রা অবমূল্যায়নের যুদ্ধ নতুন করে আবার শুরু হতে যাচ্ছে, এই আভাষ মিলছে। সেই পরিপেক্ষিতেই পেট্রোমেট্রিক্স এর ওয়েল (তেল) ট্রেডিং বিষয়ক পরামর্শক ওলিভার জ্যাকব বলেন, “আমরা ডলারকে খুব সুক্ষভাবে পর্যবেক্ষন করছি।“ অন্যতম প্রধান কমোডিটি, অপরিশোধিত তেলের দাম এখন বিগত তিন বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ। মূলত ক্রুড, বেন্ট এবং ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট, এই তিন ধরনের অপরিশোধিত তেল বিশ্বে সবচেয়ে বেশী কেনাবেচা করা হয়। ব্রেন্ট তেলের দাম ২০১৪ সালের পরে আন্তর্জাতিক বাজারে এই প্রথম ৭১ ডলারে উন্নীত হয়েছে। আর ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট ব্যারেলপ্রতি ট্রেড হচ্ছে ৬৬.২২ ডলারে। মূলত ওপেক এবং রাশিয়ার তেলের উৎপাদন কমানোর হার আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের মূল্য বৃদ্ধিকে প্রভাবিত করছে। একদিকে ডলার দুর্বল হচ্ছে, অপরদিকে তেলের এই উৎপাদন হ্রাসের জন্য ২০১৭ সালের মধ্যবর্তী সময় থেকে এখন পর্যন্ত তেলের মূল্য প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। ফলে, তেল ট্রেড করতে, বিশেষ করে তেল কিনতে আগ্রহী ট্রেডারদের সংখ্যা বাড়ছে। তেলের মূল্য বাড়ুক আর কমুক, আপনি যে আপনার ফরেক্স ব্রোকারের সাথে তেল বাই বা সেল, দুটোই করতে পারবেন, সেটাতো জানেন। নাকি?
  2. প্রতি বিটকয়েনের মূল্য এই মুহুর্তে ১১,০০৪ ডলার। অনেক বিশেষজ্ঞ বিটকয়েনের মূল্য ১ মিলিয়ন ডলার ছাড়িয়ে যাবে একসময়, এমন মতামত দিলেও, সাম্প্রতিক ধ্বসের কারনে তা প্রশ্নের মুখে পড়েছে। এমতাবস্থায় ওয়ালস্ট্রীট কি ভাবছে? সিএনবিসি এর মতে, ব্লিকলে এ্যাডভাইজারি গ্রুপের প্রধান বিনিয়োগ কর্মকর্তা পিটার বুকভার বিট কয়েনকে একটি সম্ভাবনাময় মুদ্রা হিসেবে দেখেন এবং তিনি মনে করন এর ফলাফল অনেক দীর্ঘ মেয়াদী। কিন্তু সাম্প্রতিক ধ্বসের পরে বুকভার মনে করেন যে, এই বছর বিট কয়েনের মূল্য ৭০ থেকে ৯০ শতাংশ কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বলেন, “পরবর্তী বছরগুলোতে বিটকয়েনের মূল্য যদি ১০০০ ডলার থেকে ৩০০০ ডলারে নেমে যায় তাহলেও আমি অবাক হবো না।“ এই বিষয়ে বুকভারকে প্রশ্ন করা হয়, বিট কয়েনের মূল্য পড়ে যাওয়ার কারনে যদি শেয়ার বাজার ভেঙ্গে পড়ে? এর উত্তরে তিনি বলেন, যেকোন মূদ্রার পতন হলে সেটা হবে মূলত মনস্তাত্ত্বিক। কারণ বিট কয়েন মূলত ১৯ ট্রিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির সাথে সম্পর্কিত নয়। তিনি আরও বলেন, দক্ষিন কোরিয়া, জাপান এবং আমেরিকায় মানুষ প্রতিনিয়ত ডেবিট কার্ড ঋণ নিচ্ছে ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলোতে বিনিয়োগ করার জন্য। এর কারনে শেয়ার বাজার আক্রান্ত হবে। সিএনবিসিকে বুকভার বলেন, ক্রিপ্টো মার্কেটের এই আকস্মিক বৃদ্ধি বা উন্নতি কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ইজি মানি পলিসিতে আরোপ করা যেতে পারে। এমনটি যদি করা হয় তবে বিনিয়োগকারীদের কাছে বিট কয়েনের মত ক্রিপ্টোকারেন্সিগুলো আরও বেশী আকর্ষণীয় হয়ে উঠবে। যার কারনে তারা অবমূল্যায়ন এবং মুদ্রাস্ফীতি থেকে সীমাবদ্ধ এবং নিরাপদ থাকবে। একটি প্রশ্ন থেকেই যায় যে, বিট কয়েন কি তাহলে আরেকটি ইকোনমিক বাবল? ইয়েলের অর্থনীতিবীদ রবার্ট সিলার ইকোনমিক বাবলের উপর তার অবদানের জন্য ২০১৩ সালে নোবেল পুরষ্কার পান। তিনি ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে বাবলের একটি উদাহরণ হিসেবে বিট কয়েন ব্যাবহার করেন। পরবর্তিতে ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে সিলার বলেন, তিনি জানতেন না যে বিট কয়েন দিয়ে কি করতে হবে। তিনি আরও বলেন , এটা জানতে আরও ১০০ বছর লেগে যেতে পারতো। বিটকয়েন ব্যবহারকারীদের হতাশ হওয়ার আরও কারন আছে। গতকাল দক্ষিন কোরিয়া বিট কয়েনের উপর ২৪% কর আরোপ করেছে। একই পথে হাটতে পারে অন্য দেশগুলোও।

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×