Jump to content

Leaderboard


Popular Content

Showing most liked content on রবিবার 25 ফেব্রু 2018 in all areas

  1. 2 points
    বাংলাদেশ থেকে ট্রেডাররা সবচেয়ে বেশি ট্রেড করে আমার জানামতে XM, Exness, Hotforex, Instaforex ব্রোকারে। ইন্সটাফরেক্স আমার ভাল লাগেনা, তবে XM এ ট্রেড করি এবং ভাল লাগে। ট্রেড করার জন্য একটি ব্রোকার পছন্দ করতে গেলে আমি মনে করি নিচের বিষয়গুলো মাথায় রাখা উচিতঃ ব্রোকারটি আসলেই ভাল কিনা। সারা বিশ্বে কাজ করছে কিনা। কিছু ব্রোকার ২-৩ টি দেশে অনেক মার্কেটিং করে প্রচুর ব্যবসা করে শুধুমাত্র। আবার অনেক ব্রোকার দেখবেন সব বড় বড় দেশে রেপুটেশন নিয়ে ব্যবসা করছে। আপনি চাকরি করতে গেলে যেমন বড় কোম্পানি দেখেন, ট্রেড করতে গেলেও বড় বিশ্বস্ত ব্রোকারের সাথে ট্রেড করা উচিত, কারণ তারা বিশ্বজুড়ে সার্ভিস দিচ্ছে, এবং আপনাকে খারাপ সার্ভিস দিয়ে তাদের সুনাম নস্ট করবে না। ব্রোকারটি কোন কোন শীর্ষ রেগুলেটর দ্বারা নিয়ন্ত্রিত তা চেক করা জরুরী। FCA, ASIC, IFSC, CySec ইত্যাদি লাইসেন্স এবং রেগুলেশন আপনার ব্রোকারের আছে কিনা তা যাচাই করবেন। সবচেয়ে কম স্প্রেড না, সহনীয় স্প্রেড। আমি যখন ফরেক্স শুরু করি, আমি শুধু কম স্প্রেডের ব্রোকার খুঁজতাম। কিন্তু এটা সবচেয়ে বড় ভুল। এটা ঠিক স্প্রেড কম হলে ট্রেড তারাতারি লাভে আসে। কিন্তু এখানে অভিজ্ঞ ট্রেডারদের একটি বাক্য উল্লেখ করতে চাই, ৫০ পিপ্স আর ৪৯ পিপ্স লাভ করা প্রায় একই কথা। তাই ১ পিপস কম স্প্রেডের জন্য খারাপ ব্রোকার বেছে নেবেন না। মাঝারি রকম স্প্রেড দেয় এমন ব্রোকার বেছে নিন। ট্রেড করতে গেলে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হল রিকোটস না দেয়া। রিকোটস দেয়না এমন ব্রোকার বেছে নিতে হবে। এক্সনেসে ট্রেডিং শুধুমাত্র এই কারণেই ছেড়ে দিয়েছি। আর ট্রেড খুব তারাতারি খুলবে এবং বন্ধ হবে। এটাকে ট্রেড এক্সিকিউশন বলে। যে ব্রোকারের ট্রেড এক্সিকিউশন স্পিড যত বেশি, সে ব্রোকারে ট্রেড করে তত আরাম। কারণ অনেক ব্রোকারে বাই/সেল/ক্লোজ দিলে ১০-২০ সেকেন্ড লাগয়ে দেয়। নিউজের সময়ে ঐ সময়ে দ্রুত প্রাইস পরিবর্তনের জন্য লাভের ট্রেডও লসে চলে যায় বা লাভ কমে যায় অনেক সময়। বাংলায় সাপোর্ট বিষয়টি সবচেয়ে জরুরী। ব্রোকার যত ভালই হোক, বিভিন্ন বিষয়ে ব্রোকারের সাহায্য আপনার লাগবেই। অনেক ব্রোকার বাংলাদেশে প্রতিনিধি রেখে তাদের সার্ভিস আর সাপোর্ট অনেক উন্নত করেছে। আমি যেই ব্রোকারে ট্রেড করি, তাদের অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার আমাকে মাঝে মাঝেই ফোন করে কোন সমস্যা হচ্ছে কিনা জিজ্ঞেস করে। অ্যাকাউন্ট ভেরিফাই থেকে শুরু করে দ্রুত উইথড্র ইত্যাদি বিষয়ে আপনার অ্যাকাউন্ট ম্যানেজার যদি সাহায্য করে, আপনিও সেই ব্রোকারে ট্রেড করে মজা এবং সাহস পাবেন। তবে শেষ কথা হল বিচার যাই হোক, তালগাছটা আমার। সবশেষে কিন্তু আপনিই ট্রেড করবেন। তাই সব ব্রোকার যাচাইবাছাই করার পর দেখুন কোনটাতে ট্রেড করে আপনার ভাল লাগে। ভালোর যেমন শেষ নেই, তেমনি চাঁদেও কলঙ্ক থাকবেই। সবকিছু যে আপনার ভাল লাগবে তা নয়। তাই সবকিছু যাচাই করে অবশেষে আপনার পছন্দের ব্রোকারটি বেছে নিন।
  2. 1 point
    স্ট্যাস্টিকস নিউজিল্যান্ড ২৩শে ফেব্রুয়ারি এমটি সময় ১১:৪৫ মিনিটে তাদের দেশের রিটেইল সেলস ঘোষণা করবে। একই সংখ্যা অন্যান্য দেশের তুলনায় পরে প্রকাশনা করা সত্ত্বেও, এটা মার্কেটে প্রবল প্রভাব ফেলে। ফোরকাস্টের চেয়ে যদি প্রকাশিত ফলাফল ভালো হয়, তাহলে NZD এর মূল্য অন্যান্য কারেন্সির তুলনায় বাড়বে।
  3. 1 point
    আজ এনএফপিঃ আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭:৩০ টায় প্রকাশিত হবে এনএফপি নিউজ। প্রতি মাসে ১ম শুক্রবারে সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটে আমেরিকার এই গুরুত্বপূর্ণ নিউজটি প্রকাশিত হয়। গতবার ফলাফল ছিল ১৪৮০০০ (148K) যা প্রত্যাশিত ১৯০০০০ (190K) থেকে কম ছিল। এবার আশা করা হচ্ছে ১৮১০০০ (181K). নিউজের ফলাফল যদি ১৮১০০০ (181K) থেকে বেশী আসে, তবে তা ডলারের জন্য পজিটিভ হতে পারে। আর ১৮১০০০ (181K) এর কম হলে তা ডলারের জন্য নেগেটিভ হতে পারে। এনএফপি নিউজের ফলাফল এক্সপেক্টেড থেকে প্রতি ৭০০০০ (70K) পরিবর্তনের জন্য ৭০ পিপসের মত মুভমেন্ট হতে পারে। ডলারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ নিউজ হওয়ায় এ নিউজটির প্রভাব মেজর কারেন্সিগুলোতে বেশি পড়ে। EURUSD, GBPUSD, USDJPY ইত্যাদি ডলারের পেয়ারগুলো বেশ প্রভাবিত হয়। প্রত্যাশিত ফলাফলের বেশি আসলে EURUSD, GBPUSD ইত্যাদি পেয়ারগুলোর প্রাইস কমতে পারে এবং USDJPY, USDCHF ইত্যাদি পেয়ারগুলোর প্রাইস বাড়তে পারে। প্রত্যাশিত ফলাফলের কম আসলে এর বিপরীত প্রভাব মার্কেটে দেখা যেতে পারে। Non-Farm Employment Change রিপোর্টের বিস্তারিত এবং ফলাফল পাওয়া যাবে সন্ধ্যা ৭:৩০ মিনিটেঃ https://www.forexfactory.com/#detail=86521 পরবর্তী NFP নিউজ পাবলিশ হবে মার্চ মাসের ২য় শুক্রবার ৯ মার্চ, ২০১৮ তারিখে। Non-Farm Employment Change রিপোর্টের পাশাপাশি Average Hourly Earnings m/m এবং Unemployment Rate রিপোর্ট দুটিও মার্কেটে প্রভাব রাখে। এনএফপি রিপোর্ট আসলে কি? হুমায়ূন আহমেদের নিউইয়র্কের নীলাকাশে ঝকঝকে রোদ এর সেই ব্ল্যাক ফ্রাইডে বাস্তবে বছরে মাত্র একবার আসলেও প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবার কোনো না কোনো ফরেক্স ট্রেডারের জন্য ব্ল্যাক ফ্রাইডে। কত শত ট্রেডার যে তাদের ট্রেডিং অ্যাকাউন্টটি শূন্য করে এই দিনে, যে বা না জেনে, তার কোনো ইয়ত্তা নেই। কারন? মজার ব্যাপার হচ্ছে, অধিকাংশ ট্রেডারই অ্যাকাউন্টটা শুন্য করে এই কারনের উত্তর খুঁজে। কারন মূলত একটাই, ইউএস ননফার্ম পেয়-রোল। নামে ননফার্ম হলেও শুধু কৃষি নয়, সাথে সরকারি কর্মচারী, পরিবারের ব্যক্তিগত কর্মচারী আর অলাভজনক প্রতিস্থানগুলোর কর্মচারীদের বাদ দিয়ে মার্কিন শ্রম পরিসংখ্যান ব্যুরো প্রতি মাসের প্রথম শুক্রবার প্রকাশ করে পূর্ববর্তী মাসে যুক্তরাষ্ট্রে চাকরির সংখ্যা কি আগের থেকে বাড়ল না কমল। শুধু তাই না, বাড়লে কয়টা বাড়ল আর কমলেও কয়টা কমলেও সে সংখ্যাটাও। যেহেতু, কৃষি খাতকে বাদ দিয়েই এই হিসাবটা করা হয়, তাই এর নাম হয়েছে ননফার্ম পেরোল। কি আছে এই রিপোর্টে যে তা প্রবলভাবে ফরেক্স মার্কেটকে নাড়া দেয়ার ক্ষমতা রাখে? শুধু ফরেক্স বললে ভুল হবে, স্টক মার্কেট, বন্ড মার্কেটেও বড় ধরনের পরিবর্তন ঘটে ইউএস ননফার্ম পেরোল বা এনএফপি এর কারনে। প্রথমত, দেশটির নাম আমেরিকা। ঋণ করতে অথবা যুদ্ধ বাঁধাতে ওস্তাদ হলেও এখনো বিশ্বের এক নম্বর অর্থনৈতিক শক্তি দেশটি। দ্রুত বর্ধনশীল বিশ্বের দ্বিতীয় অর্থনীতি চীনেরও যুক্তরাষ্ট্রকে ছাড়িয়ে যেতে লাগবে অনেক বছর যদি তারা বর্তমান প্রবিদ্ধি ধরে রাখতে পারে (ইতিমধ্যেই কমতে শুরু করেছে চীনের প্রবিদ্ধি). সবচেয়ে আশাবাদী ব্যক্তিও আগামী দশকের আগে চীন যুক্তরাষ্ট্রকে টপকাতে পারবে এমন আশা করেন না। আর সামরিক শক্তির দিক থেকে তো আমেরিকার ধারে কাছেও কেউ নেই। বলা হয়, আমেরিকা বাদে বিশ্বের শীর্ষ ২০ পরাশক্তির সম্মিলিত সমরশক্তিও এক আমেরিকার সমান নয়। মহাকাশ শাসনেও প্রায় একক আধিপত্য আমেরিকার। গায়ের জোরে ডলারকে বিশ্বের রিজার্ভ কারেন্সিও বানিয়েছে দেশটি। খরচের দিক থেকেও আমেরিকানদের তারিফ করতে হয়, এখানেও এরা এক নম্বর। আর তাই সারা বিশ্বের বড় বড় সকল কোম্পানির শাখা আছে আমেরিকায়। বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় রপ্তানি বাজার হচ্ছে আমেরিকায়, এমনকি আমেরিকার সবচেয়ে বড় প্রতিদ্বন্দ্বী চীনেরও সবচেয়ে বড় রপ্তানির বাজার আমেরিকায়। এখন সেই আমেরিকার অর্থনীতি ঠিকঠাক মত চলছে কিনা সেদিকে নজর রাখা দরকার না? আমাকে আপনাকে কষ্ট না করলেও হবে, এই কাজটি করার জন্য অসংখ্য প্রতিষ্ঠান আছে। বড় বড় কোম্পানিগুলো পাশাপাশি ফরেক্স, ষ্টক ট্রেডাররাও চোখ রাখে আমেরিকার সামগ্রিক অর্থনীতির উপরে। আমেরিকার অর্থনীতি ভালো থাকলে শেয়ার বাজারে সুবাতাস বয় (ডিএসি এর সাথে আবার তুলনা করতে যাবেন না), আর খারাপ হলে ঘটে এর উল্টোটা। প্রভাব পড়ে ফরেক্স মার্কেটেও। এনএফপি গুরুত্বপূর্ণ এই কারনে যে, আমেরিকার চাকরির বাজারের চালচিত্র মোটামুটি বোঝা যায় এই রিপোর্টের কারনে। চাকরীর সংখ্যা বাড়ল না কমল সেটার পাশাপাশি আরও বেশ কিছু বিষয়ের উল্লেখ থাকে এনএফপি রিপোর্টে, যেমনঃ মোট কর্মক্ষম জনশক্তির কত শতাংশ বেকার কোন কোন সেক্টরে চাকরি বেড়েছে বা কমেছে ঘণ্টাপ্রতি গড় বেতন পূর্ববর্তী মাসের এনএফপি রিপোর্টের সংশোধন যেভাবে তৈরি করা হয় এনএফপি রিপোর্টঃ খুব স্বচ্ছ এবং যতটা সম্ভব নিখুঁতভাবে তৈরি করা হয় এনএফপি রিপোর্ট। প্রথমে, সরকারী বেসরকারি উভয় প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীদের তথ্যই যোগাড় করে মার্কিন শ্রম পরিসংখ্যান ব্যুরো। যেহেতু, প্রায় ২৫ কোটি জনসংখ্যা আছে আমারিকায় এবং এই জনসংখ্যার একটি বড় অংশই কর্মক্ষম, তাই আলাদাভাবে প্রত্যেকের উপর জরিপ চালান সম্ভব না প্রতি মাসে। আর তাই, মার্কিন পরিসংখ্যান ব্যুরো বেছে নিয়েছে স্যাম্পল পদ্ধতি (দৈবচয়ন). প্রতি মাসে ১ লক্ষ ৪১ হাজার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের উপর জরিপ চালায় সংস্থাটি আর সরকারি বিভিন্ন এজেন্সি মিলিয়ে প্রতিনিধিত্ব করে প্রায় আরও ৪ লক্ষ ৮৬ হাজার কর্মক্ষেত্র। চিঠি, ইমেইল, ইন্টারনেট অথবা অত্যাধুনিক ইডিআই প্রযুক্তিতে জরিপে অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের কর্মচারীদের তথ্য পাঠায় পরিসংখ্যান ব্যুরোর কাছে। এনএফপি রিপোর্টের প্রকাশের বেলায় প্রথম ঝামেলাটা বাঁধে এখানে। ছোটো বড় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের সাধ্য অনুযায়ী তথ্য পাঠাতে গিয়ে প্রতি মাসে অনেকেই দেরি করে বা সেই তথ্য পেতে দেরি হয় পরিসংখ্যান ব্যুরোর। যেহেতু, এনএফপি রিপোর্ট প্রকাশের তারিখ নির্ধারিত, প্রতি মাসের প্রথম সোমবার, তাই হাতে তা তথ্য আসে তা দিয়েই রিপোর্ট প্রকাশ করে দেয় পরিসংখ্যান ব্যুরো। এই রিপোর্টটি পরে দুইবার সংশোধন করা হয়। প্রথমবার, পরিবর্তী মাসের এনএফপি রিপোর্ট প্রকাশের সময়, দ্বিতীয়বার আরও এক মাস পরে। এছাড়াও পরবর্তীতে ছোটখাটো কিছু পরিবর্তন আনা হলেও সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ চলতি এনএফপি রিপোর্ট ও আগের এনএফপি রিপোর্টের সংশোধন। খুবই ঝামেলার কাজ, তাই না? অথচ দেখুন, এই ঝামেলার কাজটিই কিনা প্রতি মাসে সুন্দরভাবে করে যাচ্ছে মার্কিন পরিসংখ্যান ব্যুরো। এনএফপি এর প্রভাবঃ যেহেতু, প্রতি মাসের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নিউজগুলোর একটি হচ্ছে এনএফপি, তাই অনেক ট্রেডারই অপেক্ষা করে বসে থাকে এনএফপি ট্রেড করার জন্য। প্রায় প্রতিটি এনএফপি এর আগেই একই ঘটনা ঘটে। এনএফপির আগে আগে ট্রেডাররা ট্রেড করতে চান না বলে মার্কেটে মুভমেন্ট বা ভোলাটিলিটি কমে যায়, এনএফপি এর ঠিক আগেই শুরু হয় বড় বড় স্পাইক। সেকেন্ডে মার্কেট পরিবর্তিত হয় ৫-১০ পিপস করে। হঠাৎ করে পাগল হয়ে যাবে মার্কেট। হয় টানা পড়া/বাড়া শুরু করবে অথবা একলাফে ১৫-২০ পিপস করে কমবে/বাড়বে। হারিকেন শুরুর পূর্ব মুহূর্তে সাগর যেমন স্থির থাকে, হটাত করে শুরু হয় বড় বড় ঢেউ এর নাচন, ফরেক্স মার্কেটের অবস্থাও হয় তেমনি। আর এই ঢেউ এ ভেসে গিয়ে সলিল সমাধি ঘটে পিপস সংগ্রহের অভিযানে বের হওয়া মানি মানেজমেন্ট না জানা অসংখ্য ট্রেডারের ট্রেডিং অ্যাকাউন্টটির। সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণঃ অত্যাধিক ঝুঁকি নিয়ে নিউজ ট্রেড করা অসংখ্য ট্রেডিং অ্যাকাউন্টের অকাল মৃত্যুর অন্যতম কারণ।
  4. 1 point
    যারা নেটেলার ব্যবহার করেন তারা নিশ্চই নতুন করে আইডি কার্ড দিয়ে ভ্যরিফিকেশন করার মেইল পেয়েছেন। আমি ভ্যরিফাই করতে গিয়ে আনেক সমস্যার সম্মুখিন হয়েছি।নেটেলারের কাছে একাধিক বার মেইল করেও কোন উত্তর পাই নাই। আমি ডেক্সটপ ব্যবহার করি ও আলাদা ওয়বক্যম আছে। সেটি দিয়ে চেষ্টা করেছি, মেসেজ আসে এইচ ডি ওয়েব ক্যম লাববে, বন্ধুর এইচ ডিওেয়েব ক্যম ব্যবহার করেছি, মেসেজ আসে ডকুমেন্ট আন-রিড এবল। ওয়েবক্যমের কাছে আইডি কার্ড নিলে লেখা আউট-আব ফোকাস হয়ে যায়। দূরে নিলে আইডি কার্ডের লেখা পড়া যায় না। কি করব? আবশেষে আইডি কার্ড স্ক্যন করে এ-ফোর কাগজে বড় করে কালার প্রিন্ট করে ওয়েব ক্যম দিয়ে ছবি তুলে পাঠালাম ভাবলাম এবার হবে কিন্তু না এবার মেসেস দিল স্ক্যন কপি দিয়ে ভ্যরিফিকেশন হবে না। মোবাইল কে ওয়েবক্যম বানিয়ে পাঠালাম তাতেও হল না, নেটেলার থেকে নেটেলার মোবাই এ্যপস নামিয়ে চেষ্টাকরলাম মেসেস দিচ্ছে আননোন ইরর। ্আমি হতাশ হয়ে গেলাম আমার নেটলার একাউন্ট বুঝি বন্ধ হয়ে যাবে। অবশেষে তানভির ভাইকে ফোন করলাম সে জানাল সে তার ল্যপটপদিয়ে ভ্যরিফাই করেছে। আমার ল্যপটপ নাই পরিচত একজনের কাছ থেকে ধার করে ডকুমেন্ট আপলোড করলাম, লেপটপে আইডি কার্ডের লেখা বুঝা যায়, এবার একসেপ্ট করল, মেসেস দিল ভ্যরিফাই হলে মেইল করবে, অপেক্ষায় থাকলাম দু’দিল পরে মেইল এল ইউ আর ফ্যরিভাইড স্বস্থির নিস্বাশ ফেললাম। আমি চাই না আমার মত আপনারাও সাধারন ওয়েবক্যম দিয়ে চেষ্টা করে হয়রান হন। নেটেলার ভ্যরিফিকেশনের জন্য লেপটপ ব্যবহার করুন। এম এ সাদেক
  5. 1 point
  6. 1 point
    আমার এই পোস্ট শুধু তাদের জন্য যারা XM এ একাউন্ট করতে পারছেন না। আনেকেই একটু ভুল করে থাকেন যার জন্য XM এ একাউন্ট খুলতে গিয়ে একটু সমস্যা বোধ করেন বা একাউন্ট খুলতেই পারেন না। যাই হোক আশা রাখি কারো না কারো হয়তো উপকার হবে এই পোস্টির মাধ্যমে। আপনি যদি XM এ একাউন্ট খুলতে চান তাহলে প্রথমে এখানে যান, এখানে আপনার টাইটেল ঠিক করে নেন যদি আপনি পুরুষ হয়ে থাকেন তাবে Mr আর মহিলা হয়ে থাকলে Mrs সিলেক্ট করুন। এর পর আপনার First Name and Last Name দিন। যদি আপনার তিন শব্দের নাম হয় যেমন Md Robiul Islam তাহলে আপনার First Name হবে Md Robiul এখানে Md এর পরে শুধু স্পেস দিবেন ডট দিবেন না কিন্তু ডট দিলে second level এ প্রসেস হবে না। কারন এখানে ডট Allow নাই। ঠিক আমার মত করে দেন। এর পর দেশ, জেলা, ফোন এবং ইমেল দিয়ে Proceed to Step 2 তে ক্লিক করুন। এবার Personal Details এ Date of Birth তে আপনার জন্ম তারিখ দিন, Passport / ID Number / Driver License এ আপনার আইডির নাম্বার দিন যে আইড দিয়ে আপনি আপনার একাউন্ট ভ্যরিফাই করবেন সেই আইডির। এবার Address Details এ Residential Address এ আপনার গ্রাম, পোস্ট, থানা, জেলা দিন। Postal/Zip code এ আপনার পোস্ট কোড দিন। City / Town এও আপনার জেলার নাম দিন। Address Details এ এ্যড্রেস দিতে গিয়ে কোন প্রকার ডট দিবেন না। শুধু কমা আর হাইফেন ব্যবহার করবেন আমার মতো করে। Contact Details আর কিছু দিতে হবে না। Trading Account Details এর Account Type এ আপনি কোন একাউন্ট করতে চান তা সিলেক্ট করুন। সাধারনত আমরা micro account করে থাকি। তাই আপনি আপনার পছন্দ মতো একাউন্ট বাছাই করতে পারেন। তবে সাজেস্ট করবো আমাদের মতো বাংলাদেশিদের জন্য micro একাউন্টই পারফেক্ট। যাই হোক এবার Investment Amount (USD) আপনার ইনভেস্ট কেমন হতে পারে তা সিলেক্ট করুন। Account Base Currency তে USD সিলেক্ট করুন আর Leverage এ আপনি কি পরিমান লিভারেজ নিবেন তা সিলেক্ট করুন পরে আপনি আবারও এটা চেন্জ করতে পারবেন। Investor Information আমার মতো করে সিলেক্ট করতে পারেন বা আপনার নিজের মতো করে সিলেক্ট করতে পারেন। Trading Knowledge কিছু করার দরকার নাই। তবে আপনার কোন অভিজ্ঞতা থাকলে আপনি সিলেক্ট করতে পারেন। এবার Confirmation এ সব গুলোতে টিক দিয়ে Open a Real Account এ ক্লিক দেন ব্যাস হয়ে গেল আপনার একাউন্ট। আপনার একাউন্ট ডিটেলস্‌ আপনার ইমেলে পেয়ে যাবেন।
  7. 1 point
  8. 0 points
    prince2, ইন্টাফরেক্স ব্রোকারের কোন পরিসেবাটি আপনার কাছে বাজে মনে হচ্ছে সেটা জানাবেন। বরং এব্যাপারে আপনার কোন মতামত বা পরামর্শ থাকলে সেটাও উল্লেখ্য করে আমাদেরকে জানান। মুলত আপনার ইন্সটাফরেক্স ব্রোকারের সেবা বা ট্রেডিংয়ের কোন সমস্যা থাকলে, সেটা আমাদের ম্যানেজমেন্টকে সেটা অবহিত করা হবে। আপনার ট্রেডিং শুভ হোক! ধন্যবাদ

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×