Jump to content

ফোরাম ফিড

This stream auto-updates     

  1. Today
  2. ইউরো/ডলার পেয়ারটি এ সপ্তাহের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১০৭০ কাছাকাছি অবস্থান করছে। প্রত্যাশা করা হয়েছিল, ২১ দিন এবং ১০ দিনের এসএমএ অনুযায়ী পেয়ারটি ১.১১৪১/৪৫ প্রাইসে আসতে পারে। বর্তমানে ১.১১৪১/৪৫ প্রাইমে উঠার সম্ভাবনা কমেছে। পেয়ারটি ২০১৯ সালের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.১০২৬ আসার সম্ভাবনা রয়েছে। ইউরো/ডলারের প্রতিদিনেরে চার্ট
  3. I didn't really see a thread devoted to news and announcements related to upcoming Windows 10 releases, reported bugs, etc. So, here's one with the hopes to spread news far and wide regarding the trials and tribulations for those of us running Windows 10.
  4. AUD/USD ইন্ট্রাডে

    USD/CHF পিভট পয়েন্ট : ০.৯৭৯৫ আমাদের রেফারেন্স পেয়ারটি ০.৯৭৯৫ প্রাইসের উপরে আসলে। পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ০.৯৮২০ এবং ০.৯৮৪৫। বিকল্প পদ্ধতি পেয়ারটি ০.৯৭৯৫ প্রাইসের নিচে নামলে, পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ০.৯৭৭০ এবং ০.৯৭৫৫। মন্তব্য পেয়ারটি ০.৯৭৯৫ প্রাইসের উপরে আসতে পারে,তবে সেটা ক্ষনস্থায়ী হতে পারে। USD/CAD পিভট পয়েন্ট : ১.৩৩০৫ আমাদের রেফারেন্স পেয়ারটি ১.৩৩০৫ প্রাইসের উপরে আসলে পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট ১.৩৩৪০ এবং ১.৩৩৭০ হতে পারে। বিকল্প পদ্ধতি পেয়ারটির প্রাইস কমতে শুরু করলে পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ১.৩২৮০ এবং ১.৩২৫৫। মন্তব্য পেয়ারটির প্রাইস ক্রমাগত বাড়ছে, তবে সেটা ধীরগতিতে হতে পারে। AUD/USD পিভট পয়েন্ট : ০.৬৭৬৫ আমাদের রেফারেন্স পেয়ারটি ০.৬৭৬৫ প্রাইসের উপরে উঠলে,পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ০.৬৭৯৫ এবং ০.৬৮৯৫। বিকল্প পদ্ধতি পেয়ারটি ০.৬৭৬৫ প্রাইসের নিচে নামলে,পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ০.৬৭৫০ এবং ০.৬৭৩৫। মন্তব্য RSI অনুযায়ী পেয়ারটি রিবাউন্ড করতে পারে। USD/TRY পিভট পয়েন্ট : ৫.৬২৪০ আমাদের রেফারেন্স পেয়ারটি ৫.৬২৬০ প্রাইসের উপরে উঠলে পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ৫.৬৬৯০ এবং ৫.৬৯৭০। বিকল্প পদ্ধতি পেয়ারটি ৫.৬২৪০ প্রাইস থেকে কমতে শুরু করলে, পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ৫.৬০০০ এবং ৫.৫৭৬০। মন্তব্য RSI অনুযায়ী পেয়ারটি ৫০ প্রাইসের কাছাকাছি নিরপেক্ষ অবস্থানে থাকতে পারে।
  5. AUDUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) মার্কেট ০.৬৭৯৫ সাপোর্ট লেভেলে টেস্টিং করছে।আমরা বাই পজিশন নেওয়ার জন্য কিছু সিগন্যালের অপেক্ষা করছি। পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ০.৬৮১০। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী সাপোর্ট লেভেল : ০.৬৭৭০,০.৬৭৫৫,০.৬৭৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ০.৬৭৯৫,০.৬৮১০,০.৬৮৩৫ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) ট্রেন্ডগুলো খুব দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। সুতরাং এন্ট্রি নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করা ভাল হবে। ট্রেন্ডের ধরণ : অপেক্ষমান। সাপোর্ট লেভেল : ০.৬৭৩০,০.৬৭৯০,০.৬৭২০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ০.৬৮২০,০.৬৮৭০,০.৬৯৬০ USDJPY সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) পেয়ারটি ১০৬.৪০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি ঊর্ধ্বমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১০৬.৪০,১০৬.২০,১০৫.৯০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১০৬.৭০,১০৬.৯০,১০৭.২০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) ট্রেন্ডগুলো খুব দ্রুত পরিবর্তন হচ্ছে। সুতরাং এন্ট্রি নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করা ভাল হবে। ট্রেন্ডের ধরণ : অপেক্ষমান। সাপোর্ট লেভেল : ১০৫.৪০,১০৪.৮০,১০২.৯০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১০৭.০০,১০৭.৯০,১০৯.৩০
  6. কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট কারেন জনের মতে, ইউরো/ডলার পেয়ারটি বর্তমানে ধীরগতিতে ট্রেডিং করছে,তবে পেয়ারের প্রাইস কমছে। গত সপ্তাহে ইউরো/ডলারের প্রাইস কমতে শুরু করেছিল এবং বর্তমানেও পেয়ারটির প্রাইস কমছে। পেয়ারটির বর্তমান টার্গেট হতে পারে ১.১০২৭। পেয়ারের প্রাইস তারপরও কমতে থাকলে পেয়ারটির পরবর্তী টার্গেট হতে পারে ১.০৯৫৫। সর্বশেষ পেয়ারটি ১.০৮১৪ প্রাইসে আসতে পারে। ২০০ দিনের মুভিং এভারেজ অনুযায়ী, পেয়ারটির রেজিস্ট্যান্স লেভেল নির্ধারণ করা হয়েছে ১.১২৮৮। ৫৫ সপ্তাহের মুভিং এভারেজ অনুযায়ী পেয়ারটির পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল হতে পারে ২.১৩৪৩/৬৫। বর্তমানে ৫৫ দিনের মুভিং এভারেজ অনুযায়ী পেয়ারটি ১.১৩৪৩/৬৫ প্রাইসে আসা উচিত।
  7. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) পেয়ারটি ১.১১১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে একটি ঊর্ধ্বমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে বা ১.১০৬০ সাপোর্ট লেভেলে ব্রেক হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিমালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৬০,১.১০৩৫,১.০৯৯০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১১০,১.১১৪০,১.১১৯০ সেল এন্ট্রি : টেক প্রফিট: ১.১০৩৫,১.০৯৯০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) মার্কেট ১ম টেক প্রফিটে পৌঁছেছে। আমরা ট্রেডের ৫০% ক্লোজ করবো এবং ১.১১৬০ প্রফিট লেভেলে স্টপ লস নেব। আশা করছি,মার্কেট খুব তাড়াতাড়ি ২য় টেক প্রফিটে পৌঁছাবে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৫০,১.১০০০,১.০৯৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১৬০, ১.১২২০, ১.১৩২০ সেল এন্ট্রি : ১.১১৬০ স্টপ লস: ১.১১৬০ ট্রেডের সম্ভবনা: মাঝারি টেক প্রফিট: ১.১১২০,১.১০৫০ GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন ) মার্কেট ১.২০৯০ সাপোর্ট লেভেলে টেস্টিং করছে। আমরা বাই পজিশন নেওয়ার জন্য কিছু সিগন্যালের অপেক্ষা করছি বা ১.২১৭৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে ব্রেক হতে পারে। পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ১.২০৪০। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিমালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২০৯০,১.২০৪০,১.২০২০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২১৭৫,১.২২২০,১.২২৯০ টেক প্রফিট : ১.২২২০,১.২২৯০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) মার্কেট ১ম টেক প্রফিটে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে। আমরা ১.২১৫০ সাপোর্ট লেভেলে ট্রেড ক্লোজ করবো। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ১.২০৮০। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিমালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২০৮০,১.২০১০,১.১৯৭০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২১৮০,১.২২২০,১.২২৯০
  8. USD/JPY এর রেসিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে, পতনের সম্ভাবনা রয়েছে! GBPUSD এর প্রথম রেসিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে যেখানে এই লেভেলের নীচে পতনের সম্ভাবনা রয়েছে। এন্ট্রি: 1.2152 এটি ভালো কেন: আনুভূমিক পুলব্যাক রেসিস্ট্যান্স,38.2% ফিবনাচি রিট্রেসমেন্ট স্টপ লস: 1.2358 এটি ভালো কেন: 38.2% ফিবনাচি রিট্রেসমেন্ট টেক প্রফিট: 1.1904 এটি ভালো কেন: আনুভূমিক সুইং লো সাপোর্ট বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  9. জার্মানির পিপিআই প্রকাশের পরে অধিকাংশ প্রধান মুদ্রার বিপরীতে ইউরোর পতন ET সময় মঙ্গলবার 2:00 am, জুলাই মাসের জার্মান উৎপাদক মুল্য এর তথ্য প্রকাশ করেছে। এই নিউজ প্রকাশের পর, ইউরো পাউন্ডের বিপরীতে বৃদ্ধি পেলেও অনাল্য প্রধান বিরোধী মুদ্রাগুলোর বিপরীতে ইউরোর কিছুটা পতন হয়েছে। ET সময় ভোর 2:05 am -তে ইউরো মূল্য ইয়েনের বিপরীতে ছিল 118.10, ডলারের এর বিপরীতে 1.1084, ফ্রাঙ্কের বিপরীতে 1.0870 এবং পাউন্ডের বিপরীতে ছিল 0.9143 । আরো ফরেক্স সংবাদঃ
  10. Market Analysis and News.

    Date : 20th August 2019. MACRO EVENTS & NEWS OF 20th August 2019. FX News Today * Trade talk hopes and expectations of further stimulus measures kept stock markets underpinned during the Asian session. * Treasury yields fell back as hopes of fiscal easing were scaled back somewhat. * The US administration denied plans to cut payroll taxes to support growth and Germany’s reported contingency plan for a fiscal package in case of a deep recession, are clearly not the central scenario for now. * The 10-year rate is down 1.5 bp at 1.591%, JGB yields dipped -0.1 bp to -0.241%. * US President Trump called on the Fed to cut rates by “at least 100 basis points“. Fed’s Rosengren meanwhile pushed back against further rate cuts, saying that he is not convinced that slowing trade and global growth will significantly dent the economy. * Comments from US Commerce Secretary Ross that the US will delay restrictions imposed on some of Huawei’s business operations helped to underpin sentiment, although. * RBA Minutes: The minutes to the early-August RBA policy meeting were released without surprises, affirming its wait-and-see-easing-bias stance while repeating its view that the weaker currency will help exports and tourism. * Italian BTPs are underperforming this morning, ahead of PM Conte’s showdown in the Senate, although it seems Salvini’s attempt at a power grab may be backfiring as his coalition partner is trying to form an alliance with opposition parties. * Topix and Nikkei are currently up 0.7% and 0.5% respectively. The Hang Seng is up 0.09% but the Shanghai Comp down 0.01%. * European stock futures are slightly higher, as are US futures after a largely positive session in Asia. * The WTI future is trading at USD 56.30 per barrel. Charts of the Day Technician’s Corner * The Australian dollar has traded firmer and, to a lesser extent, the New Zealand buck. AUDUSD printed a 5-day high, at 0.6795, as did AUDJPY, at 72.36. Among the other main currencies, there has remained a lack of directional impulse. EURUSD has remained settled in the upper 1.1000s, holding below 1.1100, and USDJPY has become anchored around 106.50. The Dollar hasn’t been much affected by US President Trump’s call for the Fed to cut rates by “at least 100 basis points”. Overall investor sentiment is much less frayed that it was last week, with expectations for stimulus in major economies, along with Trump’s partial climbdown in his trade war with China, assuaging recession fears. Main Macro Events Today * Manufacturing Sales (CAD, GMT 12:30) – Manufacturing sales are anticipated to grow 2.0% in June after a 1.6% rebound in shipment values was revealed during May and following a 0.4% decline in April. The surge in transport equipment sales is consistent with the improving economy and as such fits with the BoC’s overall view that the economy is improving after temporary weakness in Q4/Q1. Support and Resistance levels Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Andria Pichidi Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  11. জুলাই মাসে সুইস রফতানি কমেছে! আজ মঙ্গলবার ফেডারেল কাস্টমস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন এর তথ্য অনুসারে জানা যায়, জুলাই মাসের সুইজারল্যান্ডের রফতানি হ্রাস পেয়েছে। জুনে ২.৩ শতাংশ বৃদ্ধি পাবার পর জুলাই মাসে রফতানি মাসে ১.৮ শতাংশ কমেছে। একই সময়ে জুন মাসে আমদানিতে 0.5% শতাংশ কমে যাবার পরে জুলাইয়ে 1.3 শতাংশ কমেছে। এছাড়াও বিভিন্ন ফরেক্স নিউজগুলো দেখতে ভিজিট করুন: http://bit.ly/IFXnews
  12. EUR/USD পেয়ারের আজকের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস- ২০শে আগষ্ট-২০১৯ বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউন্ট বাই লেভেলঃ 1.1137. স্ট্রং রেসিস্ট্যান্সঃ1.1131. অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1120. ইনার সেল এরিয়াঃ 1.1109. টার্গেট ইনার এরিয়াঃ 1.1083. ইনার বাই এরিয়াঃ1.1057. অরিজিনাল সাপোর্ট:1.1046. স্ট্রং সাপোর্ট:1.1035. ব্রেকআউট সেল লেভেল:1.1029. মন্তব্য: আজ ইউরোপিয়ান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে জার্মান পিপিআই এম/এম ইকোনমিক ডাটাগুলো রিলিজ করবে। এছাড়া আমেরিকান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে কোনইকোনমিক ডাটা রিলিজ করবে না। ফলে ফান্ডামেন্টাল বিশ্লেষন থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটিতে নিন্ম থেকে মধ্যম মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: https://www.instaforex.com/bd/forex_analysis/150483 *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  13. Daily Forex News By XtreamForex

    Technical Overview of USD/CAD, USD/JPY and EUR/USD Currency Pair USD CAD USD traded lower against CAD and closed at 1.3323. Consumer Price Index Core is released by the Bank of Canada. “Core” CPI excludes fruits, vegetables, gasoline, fuel oil, natural gas, mortgage interest, intercity transportation, and tobacco products. These volatile core 8 are considered as the key indicator for inflation in Canada. Generally speaking, a high reading anticipates a hawkish attitude by the BoC, and that is said to be positive (or bullish) for the CAD. According to the Analysis, pair is expected to find support at 1.3270 and a fall through could take it to the next support level of 1.3250. The pair is expected to find its first resistance at 1.3304 and a rise through could take it to the next resistance level of 1.3338. USD JPY USD traded lower against JPY and closed at 106.62. FOMC stands for The Federal Open Market Committee that organizes 8 meetings in a year and reviews economic and financial conditions, determines the appropriate stance of monetary policy and assesses the risks to its long-run goals of price stability and sustainable economic growth. FOMC Minutes are released by the Board of Governors of the Federal Reserve and are a clear guide to the future US interest rate policy. According to the Analysis, pair is expected to find support at 106.36 and a fall through could take it to the next support level of 106.25. The pair is expected to find its first resistance at 106.70, and a rise through could take it to the next resistance level of 106.81. EUR USD EUR traded higher against USD and closed at 1.1087. According to the Analysis, pair is expected to find support at 1.1075 and a fall through could take it to the next support level of 1.1066. The pair is expected to find its first resistance at 1.1105, and a rise through could take it to the next resistance level of 1.1114.
  14. Yesterday
  15. গত সপ্তাহে AUD/USD পেয়ারের ভোলাটিলিটি কম ছিল। এ সপ্তাহে পেয়ারটির জন্য দুইটি ইভেন্ট রয়েছে। এছাড়াও রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়ার মিটিং মিনিট রয়েছে। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং AUD/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। গত সপ্তাহে পেয়ারটির ক্ষেত্রে যে ইভেন্টগুলো মার্কেটে প্রভাব ফেলার সম্ভাবনা ছিল,সে ইভেন্টগুলো কিছুটা ভাল এসেছে। তবে পেয়ারটির প্রাইস তেমন বাড়েনি। বিজনেস এবং কনজিউমার সেক্টর বেশ ভাল করেছিল। NAB কিজনেস কনফিডেন্স জুলাই মাসে ৪ পয়েন্টে উন্নতি হয়েছে। অথচ পূর্বের রিলিজে ২ পয়েন্ট ছিল। Westpac কনজিউমার সেন্টিমেন্ট আগস্ট মাসে শতকরা ৩.৬% বেড়েছে। ফেব্রুয়ারীর পর থেকে এটা সর্বোচ্চ পয়েন্ট। জুন মাসে বেতন (Wage) শতকরা ০.৬% বেড়েছে এবং এটা প্রত্যাশিত লেভেল ০.৫% উপরে এসেছে। গত সপ্তাহটি চাকরি (Employment) রিপোর্ট ইভেন্ট দিয়ে শেষ হয়েছিল,এ রিপোর্টে দেখানো হয়েছে কানাডায় ৪১ হাজার ১শত চাকরির ক্ষেত্র সৃষ্টি হয়েছে। জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার মুদ্রাস্ফীতি এবং কনজিউমার ব্যয় প্রত্যাশিত লেভেল ০.৩% এসেছে। Core CPI যদিও ধীরগতিতে চলছিল,তারপরও প্রত্যাশিত লেভেল ০.২% এসেছে। Retail Sales শতকরা ০.৭% বেড়েছিল,এটা খুব সহজেই প্রত্যাশিত লেভেল ০.৪% অতিক্রম করেছিল। Core retail sales শতকরা ১.০% বেড়েছিল। এটা মার্চ মাসের প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছে। মেনুফেকচারিং সেক্টরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, Philly Fed Manufacturing Index ১৬.৮ দেখানো হয়েছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১০.১ খুব সহজেই অতিক্রম করেছিল। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনা পণ্যের উপর নতুন করে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিল, এটা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও দুই দেশের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়ে ছিল। কিন্তু পুনরায় এটার সূত্রপাত শুরু হয়েছে। AUD/USD প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো ১.RBA Monetary Policy Meeting Minutes মঙ্গলবার,সকাল ০৭:৩০। এ সপ্তাহে রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়া মিটিংয়ে বসবেন। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এ মিটিংয়ে রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়া ১.০% বেঞ্জমার্ক রেট নির্ধারণ করতে পারে। তবে রিজার্ভ ব্যাংক অব অস্টেলিয়ার গর্ভনর ফিলিপ বৈশ্বিক বানিজ্য উত্তেজনা নিয়ে বেশ উদ্ধিগ্ন। এছাড়াও তাদের জাতীয় ইকোনমি তেমন ভাল যাচ্ছে না। তবে এ উত্তেজনা কারণে ব্যাংক তাদের সিদ্ধান্ত থেকে সরে যাবে কিনা, সেটা দেখার বিষয়। ২.MI Leading Index বুধবার, ভোর ০৫:৩০। মেলবোর্ন প্রতিষ্ঠানের ইকোনমি তেমন ভাল যাচ্ছে, এটা গত তিনবার ধরে স্থবির অবস্থার মধ্যে রয়েছে। এবারের রিপোর্টেও একই ধরণের ফলাফল প্রত্যাশা করা হচ্ছে। AUD/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো: আমরা ০.৭১৬৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। এপ্রিলের শুরুর এটা সর্বোচ্চ প্রাইস ছিল। সেপ্টেম্বরে সর্বনিন্ম প্রাইস ছিল ০.৭০৮৫। পরবর্তী প্রাইস ছিল ০.৭০২২। এপ্রিলে সর্বনিন্ম প্রাইস ছিল ০.৬৯৮৮। এপ্রিলে পরবর্তী নিন্ম প্রাইস ছিল ০.৬৮৬৫। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ০.৬৪২৫। (গত সপ্তাহের সাথে সম্পর্কিত) গত সপ্তাহে পেয়ারটি ০.৬৭৪৪ সাপোর্ট লেভেলে এসেছিল। ২০০০ সালের জানুয়ারীতে পেয়ারটির সাপোর্ট লেভেল ছিল ০.৬৬৮৬। ২০০৯ সালের মার্চ মাসে পেয়ারটি ০.৬৬২৭ সাপোর্ট লেভেলে এসেছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ছিল ০.৬৫৩২ এবং পরবর্তীতে ০.৬৪৫৬ সাপোর্ট লেভেলকে অনুসরণ করা হয়। ২০০৩ সালে ০.৬৩৪১ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ছিল। শেষ কথা ফরেক্স বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা ক্রমাগত বাড়ছে। অস্টেলিয়া যেহেতু চীনের সবথেকে বড় ট্রেডিং পার্টনার। তাই বিনিয়োগকারীদের ধারণা করছেন,এর প্রভাব অস্টেলিয়ার ইকোনমির উপর পরবে। সুতরাং এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে।
  16. Market Analysis and News.

    Date : 19th August 2019. Events to Look Out for This Week. Trade worries remain and are expected to keep flip-flopping between risk-off and risk-back-on sentiment. Hopes for more central bank stimulus vies with fears that a number of major economies are simultaneously heading for recession, with a number of developing-world economies with high Dollar debt levels particularly exposed to the shifting financial cycle. Given these fears, further conciliatory remarks are likely from both China and the US with regard to their trade spat. Nevertheless, next week the economic calendar also focuses on the PMI releases globally. Monday – 19 August 2019 Consumer Price Index and Core (EUR, GMT 09:00) – The Euro Area CPI for July is expected to hold at 1.1%y/y in the final July reading from 1.3%y/y in June. Energy price inflation was clearly largely to blame and the core rate fell back to just 0.9%y/y from 1.1%y/y in the previous month. The core is anticipated to remain unchanged as well. With growth slowing down and the improvement on the labour market starting to fizzle out, chances are that inflation will continue to undershoot the ECB’s target range, thus adding to arguments for a comprehensive easing package in September. Tuesday – 20 August 2019 Monetary Policy Meeting Minutes (AUD, GMT 01:30) – The RBA left rates on hold in its last meeting, after back-to-back rate cuts in June and July, which put the cash rate at a record low of 1.00%, while Governor Lowe said that more easing measures could be needed. Minutes are expected to shed further light regarding future easing stance. Manufacturing Sales (CAD, GMT 12:30) – Manufacturing sales are anticipated to grow 2.0% in June after a 1.6% rebound in shipment values was revealed during May and following a 0.4% decline in April. The surge in transport equipment sales is consistent with the improving economy and as such fits with the BoC’s overall view that the economy is improving after temporary weakness in Q4/Q1. Wednesday – 21 August 2019 Consumer Price Index (CAD, GMT 12:30) – Canada’s CPI did not challenge the outlook for steady BoC policy this year. CPI slowed to a 2.0% y/y pace in June from the lofty 2.4% y/y clip in May. Inflation remains around the 2 percent target, with some recent upward pressure from higher food and automobile prices. Core measures of inflation are also close to 2 percent. Even though CPI inflation will likely dip this year because of the dynamics of gasoline prices and some other temporary factors, the annual and monthly numbers for July are expected to remain steady. As slack in the economy is absorbed and these temporary effects wane, inflation is expected to return sustainably to 2 percent by mid-2020. FOMC Minutes (USD, GMT 18:00) – The FOMC minutes, similar to the ECB Reports, provide an assessment as regards the views of the Fed’s policymakers about the interest-setter’s future stance and are usually a cause for FX turbulence. Thursday – 22 August 2019 Jackson Hole Symposium – Day 1 Services and Manufacturing PMI (EUR, GMT 07:30-08:00) – July PMI readings highlighted manufacturing weakness. This picture is likely to be seen again in the preliminary readings for August, as Manufacturing PMI has been forecast at 46.3 from 46.5 last month, still down from 47.6 in June, and indicates a deepening recession in a sector that has been hit very hard by global trade tensions and no-deal Brexit risks. Meanwhile Services PMI is expected to fall to 52.7 from 53.2. Services and Manufacturing PMI (USD, GMT 13:45) – Preliminary Manufacturing are expected to grow in August, to 51.0 from 50.4, as Services PMIs are likely to fall to 51.7 from 53. New Zealand Retail Sales (NZD, GMT 22:45) – Usually considered an index of consumer confidence and overall consumption in the economy, higher retail sales point to higher consumption and hence higher economic growth which is good for the currency. Friday- 23 August 2019 Jackson Hole Symposium – Day 2 Retail Sales ex Autos (CAD, GMT 12:30) – Retail sales are expected to have decreased in Canada, with consensus forecasts suggesting a -0.5% m/m decline should be registered in June and an unchanged ex-autos component at 0.3%. In May, Retail sales were disappointing, falling 0.1% for total sales and declining 0.3% for the ex-autos component. The decline in sales was driven by a 2.0% tumble in food and beverage stores. The report casts some doubt on the resiliency of the consumer sector to the ongoing parade of worrisome geopolitical and trade developments. Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Andria Pichidi Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  17. সূচক বিশ্লেষণ। GBP / USD কারেন্সি পেয়ার (১৯ আগস্ট, ২০১৯ ইং) প্রবণতা বিশ্লেষণ (চিত্র. ১). সোমবার মূল্য প্রবণতা 1.2215 লেভেলের প্রথম লক্ষ্যমাত্রায় চলমান থাকবে - যা 14.6% এর পুলব্যাক লেভেল (হলুদ রঙের ড্যাশযুক্ত লাইন) চিত্র. ১ (দৈনিক চার্ট)। বিস্তারিত বিশ্লেষণ: - সূচকের অবস্থান - ঊর্ধ্বমুখী; - ফিবানচি লেভেল - ঊর্ধ্বমুখী; - ভলিউম - ঊর্ধ্বমুখী; - ক্যান্ডেলস্টিক বিশ্লেষণ - ঊর্ধ্বমুখী; - প্রবণতা বিশ্লেষণ - ঊর্ধ্বমুখী; - বলিঙ্গার লাইন - নিম্নমুখী; - সাপ্তাহিক সূচি - ঊর্ধ্বমুখী। পরামর্শ: সোমবার মূল্য প্রবণতা ঊর্ধ্বমুখী হয়ে চলমান থাকতে পারে। নিম্নমুখী প্রবণতার সম্ভাবনা খুবই কম, তবুও বিষয়টি আমরা বিবেচনায় রাখব। যদি নিম্নমুখী প্রবণতা হয়, সেক্ষেত্রে প্রথম লক্ষ্যমাত্রা থাকবে 1.2058 সাপোর্ট লাইন (লাল মোটা লাইন লাইন)। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  18. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) পেয়ারটি ১.১১১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে একটি ঊর্ধ্বমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে। সে ক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিমালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৫০,১.১০৩০,১.১০০০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১১০,১.১১৩০,১.১১৭০ সেল এন্ট্রি : ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) মার্কেট ১ম টেক প্রফিটে পৌঁছেছে। আমরা ট্রেডের ৫০% ক্লোজ করবো এবং ১.১১৬০ প্রফিট লেভেলে স্টপ লস নেব। আশা করছি,মার্কেট খুব তাড়াতাড়ি ২য় টেক প্রফিটে পৌঁছাবে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৫০,১.১০০০,১.০৯৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১৬০, ১.১২২০, ১.১৩২০ সেল এন্ট্রি : ১.১১৬০ স্টপ লস: ১.১১৬০ ট্রেডের সম্ভবনা : মাঝারি টেক প্রফিট: ১.১১২০,১.১০৫০ GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন ) মার্কেট ১ম টেক প্রফিটে পৌঁছেছে। আমরা ট্রেডের ৫০% ক্লোজ করবো এবং ১.২১৩৫ প্রফিট লেভেলে স্টপ লস নেব। আশা করছি,মার্কেট খুব তাড়াতাড়ি ২য় টেক প্রফিটে পৌঁছাবে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিমালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২১৩৫,১.২০৯৫,১.২০৪০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২১৯০,১.২২৩০, ১.২৩০০ বাই এন্ট্রি : ১.২০৯৫ স্টপ লস : ১.২১৩৫ ট্রেডের সম্ভাবনা: সর্বোচ্চ টেক প্রফিট : ১.২১৯০,১.২২৭০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) মার্কেটের ১.২১৫০ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল এবং ১.২১৫০ বাই সিগন্যাল দেওয়া হয়েছে। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২০৭০,১.২০০০,১.১৮৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২২০০,১.২২৮০,১.২২৯০ বাই এন্ট্রি : ১.২১৫০ স্টপ লস: ১.২০৭০ ট্রেডের সম্ভাবনা: মাঝারি টেক প্রফিট: ১.২২০০,১.২২৮০
  19. অক্টোবরে জাপানের বাণিজ্য ঘাটতি ৪৪৯.৩ বিলিয়ন ইয়েন জাপানের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সোমবার অক্টোবর মাসের ২৪৯.৬ বিলিয়ন ইয়েনের বাণিজ্য ঘাটতি প্রকাশ করেছে। জুনে ৫৮৯.৫ বিলিয়ন ইয়েন ঘাটতি অনুসারে এটি ১৯৪.৫ বিলিয়ন ইয়েন পতনের পূর্বাভাস পূরণে ব্যথ হয়েছে। রপ্তানী বছরের হিসাবে ১.৬ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে, পূর্ববর্তী মাসে সংশোধিত ৬.৬ শতাংশ হ্রাসের পরে (মূলত -৬.৭ শতাংশ)২.৩ শতাংশ হ্রাসের পূর্বাভাসকে ছুতে ব্যর্থ হয়েছে। আমদানি আগের মাসে থেকে ৫.২ শতাংশ পতন হয়েছে যার পূর্বাভাস ছিল ২.৩ হ্রাস, আগে মাসে এটি ১.২ শতাংশের হ্রাস পেয়েছিল। আরো ফরেক্স সংবাদঃ
  20. USD/JPY পেয়ারটির প্রাইস গত সপ্তাহে বেড়েছিল। বিনিয়োগকারীরা এ সপ্তাহে ফেডারেল রিজার্ভের দিকে নজর রাখবেন। জুলাই মাসের মিটিংয়ের বিস্তারিত এ সপ্তাহের মিটিংয়ের মাধ্যমে জানা যাবে। নিচে USD/JPY ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস এবং টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। USD/JPY ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের বানিজ্য যুদ্ধের কাহিনী ক্রমবর্ধমান। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনা পণ্যের উপর নতুন করে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিল, এটা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও দুই দেশের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়ে ছিল। কিন্তু পুনরায় এটার সূত্রপাত শুরু হয়েছে। জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার মুদ্রাস্ফীতি এবং কনজিউমার ব্যয় প্রত্যাশিত লেভেল ০.৩% এসেছে। Core CPI যদিও ধীরগতিতে চলছিল,তারপরও প্রত্যাশিত লেভেল ০.২% এসেছে। Retail Sales শতকরা ০.৭% বেড়েছিল,এটা খুব সহজেই প্রত্যাশিত লেভেল ০.৪% অতিক্রম করেছিল। Core retail sales শতকরা ১.০% বেড়েছিল। এটা মার্চ মাসের প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছে। মেনুফেকচারিং সেক্টরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, Philly Fed Manufacturing Index ১৬.৮ দেখানো হয়েছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১০.১ খুব সহজেই অতিক্রম করেছিল। USD/JPY টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস মে মাসের শেষের দিকে ১০৯.৭৩ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তীতে পেয়ারটি ১৯.৩৫ প্রাইসে ক্লোজ হয়েছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১০৮.৭০। মে মাসের শেষের দিকে ১০৮.১০ সর্বনিন্ম প্রাইস ছিল। আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহে ১০৭.৩০ গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। পরবর্তী লেভেল ছিল ১০৬.৬১। গত সপ্তাহে ১০৫.৫৫ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ১০৪.৬৫। ২০০৮ সালের মে মাসে ১০৪ একটি গুরুত্বপূর্ণ রাউন্ড নাম্বার ছিল। বর্তমান এবং সর্বশেষ সাপোর্ট লেভেল ১০২.৫০। USD/JPY প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইন শেষ কথা বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেছেন, এ সপ্তাহে USD/JPY পেয়ারটির প্রাইস কমতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের বানিজ্য যুদ্ধ জাপানের ইকোনমির উপর প্রভাব বিস্তার করবে। যার ফলে বিনিয়োগকারীরা জাপানী ইয়েনকে নিরাপদ কারেন্সি হিসেবে দেখতে পারেন। যুক্তরাষ্ট্রের মন্দাভাবের কারণে স্টক মার্কেটেও ভোলাটিলিটি বৃদ্ধি পেতে পারে। সুতরাং জাপানী ইয়েন ঊর্ধ্বমূখী অবস্থানে থাকতে পারে।
  21. থাইল্যান্ডের জিডিপি ৫ বছরে মধ্যে সবচেয়ে ধীর গতিতে বেড়েছে! আজ সোমবার থাইল্যান্ডের জাতীয় অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন কাউন্সিল জানিয়েছে যে, থাইল্যান্ডের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি দ্বিতীয় মেয়াদে পাঁচ বছরের মধ্যে সর্ব নিন্ম অবস্থানে নেমে গেছে। দ্বিতীয় মেয়াদে বছরে মোট দেশজ উৎপাদনের পরিমাণ ২.৩ শতাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে, অবশ্য এটি প্রথম মেয়াদের দেখা ২.৮ শতাংশ বৃদ্ধির চেয়ে অনেকটা ধীর। ২০১৪ সালের পর এটি ছিল তৃতীয় মেয়াদের সবচেয়ে দুর্বল প্রবৃদ্ধি। এছাড়াও বিভিন্ন ফরেক্স নিউজগুলো দেখতে ভিজিট করুন: http://bit.ly/IFXnews *মার্কেট এর নিউজ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  22. EUR/USD পেয়ারের এই সপ্তাহের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস- ১৯শে আগষ্ট-২০১৯ বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউন্ট বাই লেভেলঃ 1.1147. স্ট্রং রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1141. অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1130. ইনার সেল এরিয়াঃ 1.1119. টার্গেট ইনার এরিয়াঃ 1.1093. ইনার বাই এরিয়াঃ 1.1067. অরিজিনাল সাপোর্ট: 1.1056. স্ট্রং সাপোর্ট: 1.1045. ব্রেকআউট সেল লেভেল: 1.1039. মন্তব্য: আজ ইউরোপিয়ান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে ফাইনাল কোর সিপিআই ওয়াই/ওয়াই, ফাইনাল সিপিআই ওয়াই/ওয়াই এবং কারেন্ট অ্যাকাউন্ট ইকোনমিক ডাটাগুলো রিলিজ করবে। এছাড়া আমেরিকান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে কোন ইকোনমিক ডাটা রিলিজ করবে না। ফলে ফান্ডামেন্টাল বিশ্লেষন থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটিতে নিন্ম থেকে মধ্যম মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: https://www.instaforex.com/forex_analysis/150382 *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  23. গত সপ্তাহে EUR/USD প্রাইস কমেছিল। এ সপ্তাহের মূল ইভেন্টগুলোর মধ্যে রয়েছে ইউরোজোনের মেনুফেকচারিং পিএমআই (Manufacturing PMIs) এবং সার্ভিস পিএমআই (Services PMIs)। এছাড়াও ইসিবি (ECB) ইভেন্ট মার্কেটে প্রভাব বিস্তার করতে পারে। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং EUR/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। আগস্ট মাসে জার্মান ZEW ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট বেশ খারাপ এসেছে, আগস্টে এ সেক্টর থেকে -৪৪.১ পয়েন্ট এসেছে। ধারাণা করা হয়েছিল -২৭.৮ পয়েন্ট আসবে। সুতরাং এ সেক্টর প্রত্যাশার থেকে বেশি খারাপ এসেছে। এদিকে জার্মান জিডিপি (GDP) রিপোর্টও তেমন ভাল আসেনি। ২য় প্রান্তীকে জার্মান জিডিপি (GDP) শতকরা ০.১% বেড়েছে। গত তিন কোয়াটারের মধ্যে প্রথম বারের মত জিডিপি এত খারাপ এসেছে। ২য় প্রান্তীকে ইউরোজোন ইকোনমিতে স্থবির অবস্থা পরিলক্ষিত হয়, এ প্রান্তীকে ইকোনমি শতকরা ০.২% এসেছে। যেখানে ১ম প্রান্তীকে ০.৪% ছিল। জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার মুদ্রাস্ফীতি এবং কনজিউমার ব্যয় প্রত্যাশিত লেভেল ০.৩% এসেছে। Core CPI যদিও ধীরগতিতে চলছিল,তারপরও প্রত্যাশিত লেভেল ০.২% এসেছে। Retail Sales শতকরা ০.৭% বেড়েছিল,এটা খুব সহজেই প্রত্যাশিত লেভেল ০.৪% অতিক্রম করেছিল। Core retail sales শতকরা ১.০% বেড়েছিল। এটা মার্চ মাসের প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছে। মেনুফেকচারিং সেক্টরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, Philly Fed Manufacturing Index ১৬.৮ দেখানো হয়েছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১০.১ খুব সহজেই অতিক্রম করেছিল। এদিকে যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য যুদ্ধ ক্রমাগত চলছে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনা পণ্যের উপর নতুন করে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিল, এটা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও দুই দেশের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়ে ছিল। কিন্তু পুনরায় এটার সূত্রপাত শুরু হয়েছে। বিশ্বের বৃহত্তম ইকোনমিক দুইটি দেশের মধ্যে এ ধরণের অবস্থা চলতে থাকলে। দেশ দুইটির ইকোনমিক অবস্থা আরও দুর্বল হতে থাকবে। যার প্রভাব ফরেক্স মার্কেট পরার সম্ভাবনা রয়েছে। EUR/USD প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো ১.Current Account সোমবার,দুপুর ০২:০০। মে মাসে ইউরোজোনের অ্যাকাউন্ট ১৯.৭ বিলিয়ন ইউরো বেড়েছিল। এটা গতবারের ২০.৯ বিলিয়নের থেকে বেশি। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, জুন মাসের রিপোর্টেও ঊর্ধ্বমূখী অবস্থান থাকতে পারে এবং ধারণা করা হচ্ছে, জুন মাসে ৩২.২ বিলিয়ন হতে পারে। ২.Eurozone Inflation Data সোমবার, বিকাল ০৩:০০। জুন মাসে ইউরোজোন CPI ১.৩% এসেছিল। এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১.২% উপরে এসেছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, জুলাই মাসে ১.১% আসতে পারে। জুন মাসে Core CPI ১.১% এসেছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবার ০.৯% আসতে পারে। ৩.PMIs বৃহস্পতিবার, ফ্রান্স দুপুর ০১:১৫, জার্মান ০১:৩০ এবং ইউরোজোন ০২:০০ প্রকাশিত হবে। জুলাই মাসে ফ্রান্স সার্ভিস পিএমআই থেকে ৫২.৫ পয়েন্ট এসেছিল। এটা তেমন ভাল অবস্থান নয়। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, আগস্টেও একই ধরণের ৫২.৫ পয়েন্ট আসতে পারে। জুলাই মাসে মেনুফেকচারিং পিএমআই ৫০.০ পয়েন্ট এসেছিল। এটা গতবারের তুলনায় কিছুটা ভাল অবস্থান। ধারণা করা হচ্ছে, আগস্টে ৪৯.৫ পয়েন্ট আসতে পারে। এটা মেনুফেকচারিং সেক্টরকে দুর্বলতার দিকে ইঙ্গিত দিচ্ছে। জার্মান মেনুফেকচারিং সেক্টর ক্রমাগত খারাপ করছে। জুলাই মাসে এ সেক্টর থেকে ৪৩.১ পয়েন্ট এসেছিল। আগস্টেও একই ধরণের পয়েন্ট আসতে পারে। তবে জর্মান সার্ভিস পিএমআই এর দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, এ সেক্টরটি বেশ শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। জুলাই মাসে এ সেক্টর থেকে ৫৫.৪ পয়েন্ট এসেছে। ধারণা করা হচ্ছে, আগস্টে ৫৪.১ পয়েন্ট আসতে পারে। ইউরোজোন মেনুফেকচারিং পিএমআই ক্রমাগত খারাপ করে যাচ্ছে। জুলাই মাসে এ সেক্টর থেকে ৪৬.৪ পয়েন্ট এসেছিল। ধারণা করা হচ্ছে, আগস্টেও এবারের মত ৪৬.৩ পয়েন্ট আসতে পারে। মেনুফেকচারিং পিএমআইয়ের তুলনায় সার্ভিস পিএমআই কিছুটা ভাল অবস্থানে রয়েছে। জুলাই মাসে সার্ভিস পিএমআই ৫৩.৩ পয়েন্ট এসেছিল। ধারণা করা হচ্ছে, আগস্টে ৫৩.০ পয়েন্ট আসতে পারে। ৪.ECB Monetary Policy Meeting Accounts বৃহস্পতিবার,বিকাল ০৫:৩০। বৃহস্পতিবার মনেটারী পলিসি মিটিং হবে এবং প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এ মিটিংয়ে ইসিবি ইন্টারেস্ট রেট নির্ধারণ করবেন। তবে কোন ধরণের Dovish মন্তব্য বা রেট কমানোর ইঙ্গিত পাওয়া গেলে ইউরোর প্রাইস ব্যাপক কমতে পারে। ৫.Consumer Confidence বৃহস্পতিবার, রাত ০৮:০০। ইউরোজোন কনজিউমার সেক্টরে ধীরতা পরিলক্ষিত হচ্ছে। গত ছয় মাসে ছয়টি রিপোর্টের মধ্যে পাঁচটিতে মন্দাভাব দেখা গিয়েছে। ৭ম রিপোর্টেও একই ধরণের ফলাফল প্রত্যাশা করা হচ্ছে। EUR/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো: জানুয়ারি মাসের শেষের দিকে ইউরো/ডলার পেয়ারটির সর্বোচ্চ প্রাইস ছিল ১.১৫১৫। ফেব্রুয়ারীর শুরুর দিকে পেয়ারটির সর্বনিন্ম প্রাইস ছিল ১.১৪৩৫। পেয়ারটির জন্য পরবর্তীতে ১.১৩৯০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল। পরবর্তী লেভেল ছিল ১.১৩৪৫। জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে ১.১২৯০ একটি গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ১.১২৭০ ডাবল বটোম লেভেল ছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.১২১৫। গত সপ্তাহে ১.১১৯ একটি গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। ২০১৭ সালের মে মাসে ১.১০২৫ আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.০৯২৫। ২০১৭ সালের এপ্রিলে ১.০৮২৯ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। সর্বশেষ এবং বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.০৬৯০। শেষ কথা বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে EUR/USD পেয়ারটির প্রাইস কমতে পারে। ইউরোজোনের ইকোনমিক ইঞ্জিন হিসেবে পরিচিত, জর্মানের ইকোনমি বর্তমানে কিছুটা খারাপ অবস্থার মধ্যে রয়েছে। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য যুদ্ধের প্রস্তুতি চলছে। জার্মান এবং ইউরোজোনের মেনুফেকচারিং সেক্টর ক্রমাগত খারাপ করছে। সুতরাং বৈশ্বিক বানিজ্য উত্তেজনা ইউরোর উপর প্রভাব বিস্তার করতে পারে। সুতরাং এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে।
  24. Last week
  25. ইন্সটাফরেক্স প্রতিযোগিতার নিয়মিত রাউন্ডের ফলাফলের সারসংক্ষেপ ইন্সটাফরেক্সের প্রতিযোগিতার ফলাফলগুলি সারসংক্ষেপ করা হয়েছে এবং নিয়মিত ৫ পর্যায়ে বিজয়ী নির্ধারণ করা হয়েছে। আজ আমরা ইন্সটাফরেক্স স্নাইপার, ওয়ান মিলিয়ন অপশন, এফএক্স -১ রেলি এবং লাকি ট্রেডার এর বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করতে প্রস্তুত। ইন্সটাফরেক্স প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের অভিনন্দন জানাচ্ছে এবং সকল প্রতিযোগীদের পরবর্তী প্রতিযোগিতাগুলো চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার জন্য আহব্বান করছি। ইন্সটাফরেক্স স্নাইপার প্রতিযোগিতায় সবচেয়ে দ্রুত এবং সবচেয়ে নির্ভুল ট্রেডারগণ প্রতিযোগিতা করে। ইন্সটাফরেক্স স্নাইপার এর সর্বশেষ পর্যায়ে সর্বোচ্চ স্কোর অর্জন করেছেন সার্বিয়া থেকে SlobodanNovakovic। আমরা বিজয়ীকে অভিনন্দন জানাচ্ছি এবং তাকে আরো বিজয় কামনা করছি। আমরা সকল ট্রেডদারদের তাদের নিখুঁতকতার পরীক্ষারজন্য স্বাগত জানাই - যোগদিন এবং নিবন্ধন করুন! পরবর্তী পর্যায়ের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে ১৯শে অগাস্ট ২০১৯ থেকে ২৩ অগাস্ট ২০১৯ পর্যন্ত চলবে। ওয়ান মিলিয়ন অপশন ওয়ান মিলিয়ন অপশন ইন্সটাফরেক্স প্রতিযোগিতাগুলোর মধ্যে জনপ্রিয়তা সবচেয়ে বেশী। প্রতিটি পর্যায়ে বিপুল সংখ্যক প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করছে এবং তারা সেরা অপশন ট্রেডার শিরোনামের মুকুটের জন্য যুদ্ধ করছে। সর্বশেষ পর্যায়ের, চূড়ান্ত বিজয়ী অর্জন করেছেন বেলারুশের ট্রেডার Vyacheslav Petrovich Starovoitov । আমরা আপনাকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছি এবং স্মরণ করিয়ে দিচ্ছি যে ?ওয়ান মিলিয়ন অপশন প্রতিযোগিতা? প্রতি সপ্তাহের সোমবার ০০.১০ থেকে শুরু হয়ে শুক্রবার ২৩.৫০ অনুষ্ঠিত হয়। এফএক্স-১ রেলি এফএক্স-১ রেলি সাম্প্রতিক পর্যায়ে দূরত্বের সঙ্গে মোকাবেলা করার জন্য বেলারুশের ট্রেডার Alexander Leontyevich Markevich সেরা নৈপুণ্য দেখিয়েছেন। তিনি সেরা ট্রেডিং এবং রেসিং দক্ষতা প্রদর্শন করতে সক্ষম হয়েছিলেন। আমরা তার অসামান্য পারফরম্যান্স এর জন্য অভিনন্দন জানাই এবং পরবর্তী প্রতিযোগিতায় তার সেরা ড্রাইভিংয়ের সন্মান ধরে রাখতে পারবেন বলে আশা করছি! যদি আপনিও আর একটি কঠিন যুদ্ধের রোমাঞ্চকর অনুভুতি উপলদ্ধি করতে চান এবং এর প্রকৃত রোমাঞ্চ অনুভব করার জন্য প্রস্তুত হন, পরবর্তী এফএক্স-১ রেলি সফরের শুরুতে আপনাকে স্বাগত জানাচ্ছি। আপনি পরবর্তী এফএক্স-১ রেলি নিবন্ধন করতে পারেন যা ১৬ অগাস্ট ২০১৯ এর ০০:০০ ঘটিকা ১৬ অগাস্ট ২০১৯ এর ২৩:৫৯ ঘটিকা পর্যন্ত চলবে। লাকি ট্রেডার আত্মবিশ্বাস, দূরদর্শিতা এবং মনোযোগ দ্বারা জয়লাভ এবং চমৎকার ফলাফলের সাফল্য অর্জনের জন্য মূল হল দুই সপ্তাহের ব্যাপি চলমান লাকি ট্রেডার। যদি আপনি দুই সপ্তাহ ব্যাপী কোন ট্রেড পুরোপুরি নিখুঁতভাবে পরিচালনা করেন, তাহলে আপনিও ইউক্রেনের Yevgeny Illarionovich Pelipenko মতো বিজয়ী ছিনিয়ে আনতে পারবেন। কে জানে? আপনিও হতে পারেন পরবর্তী অন্তর্বর্তী টুর্নামেন্ট বিজয়ী। নিশ্চিন্তে পরবর্তী লাকি ট্রেডার প্রতিযোগিতার নিবন্ধন করুন যা ১৯শে অগাস্ট ২০১৯ থেকে শুরু হয়ে ৩০শে অগাস্ট ২০১৯ পর্যন্ত চালু থাকবে। প্রতিযোগিতা সম্পর্কে আরও জানুন ছবি এবং বিজয়ীদের মন্তব্য
  26. গত পাঁচ সপ্তাহের মধ্যে গত সপ্তাহে GBP/USD পেয়ারটির প্রাইস কিছুটা বেড়েছিল। এ সপ্তাহে পেয়ারটির ভোলাটিলিটি কম দেখা যেতে পারে। পেয়ারটির জন্য এ সপ্তাহে মাত্র তিনটি ইভেন্ট রয়েছে। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং GBP/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। যুক্তরাজ্যে চাকরি (employment ) ডাটা মিশ্র অবস্থানে রয়েছে। বেতন (Wage) শতকরা ৩.৭% বেড়েছে। এটা গত ৯ বছরের তুলনায় বেশ ভাল রিপোর্ট। যুক্তরাজ্যে ২৮.০ হাজার বেকার রয়েছে। এটা প্রত্যাশিত লেভেল ৪২.০ হাজারের তুলনায় কম রয়েছে। যুক্তরাজ্যে CPI শতকরা ২.১% বৃদ্ধি পেয়েছে এবং Core CPI ১.৯% বৃদ্ধি পেয়েছে।Retail sales ০.২% কমেছে। জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার মুদ্রাস্ফীতি এবং কনজিউমার ব্যয় প্রত্যাশিত লেভেল ০.৩% এসেছে। Core CPI যদিও ধীরগতিতে চলছিল,তারপরও প্রত্যাশিত লেভেল ০.২% এসেছে। Retail Sales শতকরা ০.৭% বেড়েছিল,এটা খুব সহজেই প্রত্যাশিত লেভেল ০.৪% অতিক্রম করেছিল। Core retail sales শতকরা ১.০% বেড়েছিল। এটা মার্চ মাসের প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছে। মেনুফেকচারিং সেক্টরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, Philly Fed Manufacturing Index ১৬.৮ দেখানো হয়েছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১০.১ খুব সহজেই অতিক্রম করেছিল। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনা পণ্যের উপর নতুন করে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিল, এটা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও দুই দেশের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়ে ছিল। কিন্তু পুনরায় এটার সূত্রপাত শুরু হয়েছে। GBP/USD প্রতিদিনের রেজিস্ট্যান্স এবং সাপোর্ট লাইনগুলো দেওয়া হলো: ১.CBI Industrial Order Expectations মঙ্গলবার, বিকাল ০৪:০০। The Confederation of British Industry এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী, জুলাই মাসে মেনুফেকচারিং অর্ডার কমে -৩৪ এসেছে। প্রত্যাশিত পয়েন্ট -১৫ এর থেকে খারাপ এসেছে। আগস্ট মাসেও এ ধরণের ফলাফলের প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এটা -২৫ এর কাছাকাছি আসতে পারে। ২.Public Sestor Met Borrowing বুধবার,দুপুর ০২:৩০। এ সেক্টরে ঘাটতি ৪.৫ বিলিয়ন থেকে ৬.৫ বিলিয়ন বেড়েছে। আশা করা হচ্ছে, জুলাই মাসে -৩.৭ বিলিয়ন আসবে। ৩.CBI Realized Sales বৃহস্পতিবার,বিকাল ০৪:০০। জুন মাসে সেলস ভলিউম নিন্মগামী অবস্থানে রয়েছে। তবে এটা গতবারের -৪২ এর তুলানায় কিছুটা ভাল এসেছে, এবার -১৬ এসেছে। আশা করা হচ্ছে, জুলাই মাসে -১৩ আসতে পারে। GBP/USD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো আমরা ১.২৫৩৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। জুলাইয়ের মাঝামাঝি পর্যন্ত এটা সর্বোচ্চ লেভেল ছিল। পরবর্তীতে ১.১৪২০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলকে অনুসরণ করা হয়েছিল। বছরের প্রথমার্ধে ১.২৩৩০ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ছিল। তবে জুলাই মাসে এ সাপোর্ট লেভেলকে অতিক্রম করেছিল। পরবর্তীতে ১.২২ একটি রাউন্ড নাম্বার ছিল। ২০১৬ সালের অক্টোবরে ১.১৯০৪ সর্বনিন্ম প্রাইস ছিল। বর্তমান এবং সর্বশেষ রাউন্ড নাম্বার ১.১৮। শেষ কথা ফরেক্স বিশেষজ্ঞরা ধারণা করেছেন, GBP/USD পেয়ারটির প্রাইস এ সপ্তাহে কমতে পারে। গত সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস কিছুটা বেড়েছিল। তারপরও পেয়ারটি এখনও বেশ দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। এছাড়াও বেক্সিট প্রভাব থেকে পাউন্ড এখনও মুক্ত নয়। যার ফলে পাউন্ডের প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে।
  27. গত সপ্তাহে USD/CAD পেয়ারটির প্রাইস বেড়েছিল। এ সপ্তাহে বিনিয়োগকারীরা ভোক্তাদের ব্যয় (Consumer Spending ) এবং মুদ্রাস্ফীতি (Inflation) রিপোর্টের দিকে নজর রাখবেন। এছাড়াও নজর রাখার মত আরেকটি ইভেন্ট হলো মেনুফেকচারিং সেলস রিপোর্ট। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং USD/CAD পেয়ারটির টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। গত সপ্তাহে কানাডিয়ান ডলারের জন্য তেমন কোন গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট ছিল না। ADP nonfarm payrolls ৭৩.৭ হাজার বেড়েছে। এটা মোটামুটি ভাল অবস্থান। মে মাসে কানাডায় ইমপ্লোইমেন্ট ৩.৯৮ বিলিয়ন এসেছিল। এটা প্রত্যাশিত লেভেল ৬.৫৫ বিলিয়নের বেশ নিচে এসেছিল। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনা পণ্যের উপর নতুন করে শুল্ক আরোপের ঘোষণা দিয়েছিল, এটা ১ সেপ্টেম্বর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা রয়েছে। যদিও দুই দেশের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা লাঘব হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়ে ছিল। কিন্তু পুনরায় এটার সূত্র পাত শুরু হয়েছে। জুলাই মাসে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার মুদ্রাস্ফীতি এবং কনজিউমার ব্যয় প্রত্যাশিত লেভেল ০.৩% এসেছে। Core CPI যদিও ধীরগতিতে চলছিল,তারপরও প্রত্যাশিত লেভেল ০.২% এসেছে। Retail Sales শতকরা ০.৭% বেড়েছিল,এটা খুব সহজেই প্রত্যাশিত লেভেল ০.৪% অতিক্রম করেছিল। Core retail sales শতকরা ১.০% বেড়েছিল। এটা মার্চ মাসের প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছে। মেনুফেকচারিং সেক্টরের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, Philly Fed Manufacturing Index ১৬.৮ দেখানো হয়েছিল, এটা প্রত্যাশিত লেভেল ১০.১ খুব সহজেই অতিক্রম করেছিল। USD/CAD পেয়ারটির প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো: ১.Manufacturing Sales মঙ্গলবার,সন্ধ্যা ০৬:৩০। মে মাসে মেনুফেকচারিং সেলস শকতরা ১.৬% বেড়েছিল। এটা প্রত্যাশিত লেভেল অনুযায়ী এসেছিল। তবে জুন মাসে এ সক্টের খারাপ করতে পারে এবং এটা আনুমানিক ১.৮% কমতে পারে। ২.Inflation Data বুধবার,সন্ধ্যা ০৬:৩০। গত ছয় মাসের মধ্যে প্রথমবারের মত জুন মাসে CPI ০.২% এসেছিল। জুলাই মাসে ০.১% বাড়তে পারে। Core CPI গতবারের অবস্থানে থাকতে পারে। ৩.Retail Sales Data শুক্রবার,সন্ধ্যা ০৬:৩০। মে মাসে প্রত্যাশা করা হয়েছিল, রিটেইল সেলস শতকরা ০.৩% বাড়বে, কিন্তু ঐ মাসের বাড়ার পরিবর্তে ০.১% কমেছিল। জুন মাসের রিপোর্টে এ ধরণের একটি খারাপ ফলাফলের প্রত্যাশা করা হচ্ছে। এটা আনুমানিক -০.৩% হতে পারে। Core Retail Sales শতকরা ০.৩% কমতে পারে। USD/CAD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো: আমরা ১.৩৬৬৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি, এটা ২০১৮ সালের সর্বোচ্চ প্রাইস ছিল। পরবর্তী প্রাইস ছিল ১.৩৫৬৫। জুন মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত ১.১৩৪৫ সর্বোচ্চ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তীতে ১.৩৩৮৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেলকে অনুসরণ করা হয়। জুনের মাঝামাঝি পর্যন্ত পেয়ারটি ১.৩৩৫০ প্রাইসে উঠেছিল। পরবর্তীতে ১.৩২৬৫ একটি শক্তিশালী সাপোর্ট লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ছিল ১.৩১৭৫। গত সপ্তাহে ১.৩১২৫ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ছিল। জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে ১.৩০৪৮ আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল। বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.২৯১৬। শেষ কথা বিশেষজ্ঞদের মতে, USD/CAD পেয়ারটির প্রাইস এ সপ্তাহে কমতে পারে। কানাডিয়ান ইকোনমি কিছুটা নাজেহাল অবস্থান মধ্যে থাকলেও বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস বাড়ার সম্ভবনা রয়েছে। কারণ যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য উত্তেজনা নতুন করে শুরু হতে যাচ্ছে। এছাড়াও ফেডের এফওএমসি মিটিংয়ের ফলে মার্কিন ডলারের প্রাইস কমার সমম্ভাবনা রয়েছে।
  28. বিশেষজ্ঞদের মতে এ সপ্তাহে ফেডারেল রিজার্ভের এফওএমসি (FOMC) মিটিং এবং চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েলের কনফারেন্স মার্কেটের উপর বেশ প্রভাব ফেলবে। এ সপ্তাহে মার্কেটে যে ইভেন্টগুলো প্রভাব ফেলবে,সেগুলো সম্পর্কে নিচে সংক্ষেপে আলোচনা করা হলো। জার্মান ইকোনমি তেমন ভাল যাচ্ছে না, যার ফলে ইকোনমিক মন্দাভাব ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। এদিকে চীনের শিল্প-কারখানার উৎপাদন (Industrial Production) কচ্ছপের গতিতে চলছে। চীনের এবারের প্রবৃদ্ধি ২০০২ সালের অবস্থাকে ইঙ্গিত করছে। যুক্তরাষ্ট্রের দিকে তাকালে দেখা যাচ্ছে, যুক্তরাষ্ট্রের রিটেইল সেলস প্রত্যাশার তুলনায় বেশি এসেছে। তবে কনজিউমার কনফিডেন্স খারাপ এসেছে। ১.Canadian Inflation Report বুধবার,সন্ধ্যা ০৬:৩০। কানাডিয়ান কনজিউমার প্রাইস গতবারের তুলায় এবার বেশ ভাল এসেছে। গতবার ‍Media CPI ২.১% এসেছিল এবং এবার Media CPI ২.২% এসেছে। এটা তাদের নির্ধারিত টার্গেট ২% এর উপরে এসেছে। জুলাই মাসে ০.১% বৃদ্ধি পেতে পারে এবং Core Median CPI কমে ২.১% আসতে পারে। এছাড়াও Trimmed CPI ২% এবং Common CPI ১.৮% আসার সম্ভাবনা রয়েছে। ২.FOMC Meeting Minutes বুধবার,সন্ধ্যা ০৬:০০। বর্তমানে বিনিয়োগকারীদের চোখ থাকবে FOMC মিটিংয়ের দিকে। ৩১ জুলাই ইন্টারেস্ট রেট কমানো এবং বাড়ানো নিয়ে ভোট হয়েছিল। এতে দুইজন সদস্য ইন্টারেস্ট রেট কমানোর বিপক্ষে ভোট দিয়ে ছিলেন। সুতরাং ইন্টারেস্ট রেট কমবে নাকি বাড়বে। এটা এ সপ্তাহের মিটিংয়ের মাধ্যমে বিস্তারিত জানা যাবে। সুতরাং ইভেন্টটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ৩.Euro-zone PMIs বৃহস্পতিবার, ফ্রান্স দুপুর ০১:১৫,জার্মান ০১:৩০, ইউরোজোন ০২:০০ প্রকাশিত হবে। ইউরোপিয়ান ইকোনমিতে স্থবির অবস্থা বিরাজ করছে। পরবর্তীতেও কি আমরা এ ধরণের অবস্থান দেখতে পারবো? মার্কিট পরিসংখ্যানের মতে, জার্মানের মেনুফেকচারিং সেক্টর দুর্বল থাকার কারণে ইউরোজোনের মেনুফেকচারিং সেক্টরও ক্রমাগত খারাপ অবস্থানে রয়েছে। যেহেতু ইউরোজোন PMI বর্তমানে তেমন ভাল অবস্থানে নেই। যার ফলে এটা ইউরোর প্রাইস কমাতে কিছুটা সহায়তা করবে। ৪.ECB Meeting Minutes বৃহস্পতিবার, বিকাল ০৫:৩০। ইসিবি যদিও ইন্টারেস্ট রেট কমিয়েছিল। তবে এ সপ্তাহে ইসিবির কনফারেন্স রয়েছে। এটা মার্কেটের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ৫.Jerome Powell Speaks শুক্রবার,রাত ০৮:০০। এফওএমসি মিটিং শেষ হওয়ার পরে, জেরেমি পাওয়েল কনফারেন্স করবেন। এর মাধ্যমে তিনি এফওএমসি মিটিংয়ের বিভিন্ন সিদ্ধান্তের কথা জানাবেন। এর মাধ্যমে তিনি যুক্তরাষ্ট্রের ইকোনমিক বিভিন্ন দিকগুলো তুলে ধরবেন। তবে এখানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ইসিবি ইন্টারেস্ট রেট কমাবে নাকি বাড়াবে এটা। ইন্টারেস্ট রেট কমানোর সিদ্ধান্ত আসলে, ডলারের দাম ব্যাপক কমতে শুরু করতে পারে।
  1. Load more activity

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×