Jump to content

ফোরাম ফিড

This stream auto-updates     

  1. Past hour
  2. পাউন্ড / ডলার পেয়ারটির প্রাইস দুর্বল ডলারের তুলনায় বেড়ে চলেছে এবং ব্রেক্সিট সম্পর্কে সমাধান আশা করা হচ্ছে। তবে টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী পেয়ারটির প্রাইস আপসাইড ট্রেন্ডের দিকে যাওয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। টেকনিক্যাল কনফ্লুয়েন্স ইনডিকেটরে দেখানো হচ্ছে, ক্যাবলটি ১.৩০৬৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেলের কাছাকাছি রয়েছে, যেখানে আমরা সিম্পল মোভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী ৫-১৫ মি,১০-১৫ মি, এবং ১৫-৫০ মিনিটের পিভট পয়েন্টে এক সপ্তাহের রেজিস্ট্যান্স লেভেল ২ দেখতে পাচ্ছি। আমরা এক সপ্তাহের ফিবোনেসিতে ১৬১.৮% অর্থাৎ ১.৩০৭৮ রেজিস্ট্যান্স লেভেল দেখতে পাচ্ছি। বুলিঞ্জার ব্যান্ড ৪ঘ, এবং ১৫ মিনিটে আপার রয়েছে। পেয়ারটি ১.৩২২০ লেভেলের দিকে বেড়ে চলেছে, এটা গত মাসের তুলানায় আপার সাইডে রয়েছে।
  3. Today
  4. ৪ ঘন্টার চার্ট অনুযায়ী ইউরো/ডলারে ব্রেকআউটের পরিবর্তে পেয়ারটির প্রাইস বেড়েছে এবং পেয়ারটি বিয়ারিশ থেকে বুলিশ ট্রেন্ডে পরিবর্তন হয়েছে। সুতরাং , পরবর্তী ১-২ দিন কারেন্সি পেয়ারটির প্রাইস বেড়ে ১.১৪ তে যেতে পারে। ৪ ঘন্টার চার্ট
  5. ৪ ঘন্টার চার্টে ব্রেকআউটের পরিবর্তে ইউরো / ডলারের প্রাইস বেড়ে চলেছে। ইউরো / ডলার ঊর্ধ্বমূখী হওয়ার কারণে ইতিমধ্যে ডলারের সেল পজিশন্স বেড়ে গিয়েছে। ফেড মিনিটস যদি শান্ত এবং সমঝোতামূলক কোন বিবৃতি দেয় তাহলে ডলারের জন্য ভাল হতে পারে। ইউরো / ডলার ঊর্ধ্বমূখী রেজিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে যাচ্ছে। ৪ ঘন্টার চার্টে ব্রেকআউটের পরিবর্তে পেয়ারটি গতকাল ১.১৩৩৩ লেভেলের উপরে উঠেছিল। এই প্যাটার্ন অনুযায়ী বিবেচনা করা হচ্ছে পেয়ারটির প্রাইস বেড়েছে। এই ঊর্ধ্বগতির ব্রেকআউট আপসাইড ট্রেন্ড ১.১৪ এর দিকে হতে পারে এবং আজ রাত ১:০০ ফেডের মিটিং মিনিটে যদি সমঝোতামূলক আলোচনা হয়, তাহলে ১.১৪ লেভেল থেকে পেয়ারটির প্রাইস কমতে পারে। আর এটা ডলারের জন্য ভাল হবে।
  6. Yesterday
  7. বর্তমানে বাংলাদেশে forex business ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।এটি যেমন একটি লাভজনক ব্যবসা তেমনি অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ।কিন্তু আমরা যদি এই ব্যবসার সব নিয়ম কানুন গুলি মেনে ব্যবসা করি তাহলে এখান থেকে এমন পরিমাণ লাভ করা সম্ভব যা অন্য কোন প্রচলিত ব্যবসায় করা সম্ভব নই। কিন্তু আমাদের বাংলাদেশীদের বড় সমস্যা আমরা অত্যন্ত লোভী হয়ে পড়ি এই ব্যবসায়। Forex লস করেছেন এমন trader এর সংখ্যা বাংলাদেশ অসংখ্য।তাদের লস করার একটি উন্নতি কারন লোভ। Forex এ লসের করন সমুহঃ ১.লোভ ২.market এ অধিক সময় দেওয়া। ৩.অধিক trade করা ৪.অসময়ে trade করা ৫.money management না মনা ৬.stop loss ব্যবহার না করা ৭.trade এ loss হলে পরে ঘন ঘন অতিরিক্ত trade করা যাতে তারাতারি loss cover করা যায় আপনি যদি লোভ ত্যাগ করে forex market এর নিয়ম মেনে দিনে মাত্র ২/৩ ঘণ্টা বা তারও কম সময় দিয়ে মাসে অন্তত ১০০০% profit নিয়ে সন্তুষ্ট থাকেন তাহলে আপনাকে আমি forex strategy দিব।trade করুন এবং এই market থেকে আপনার loss তলে নিন ও profit করুন।মনে রাখবেন this is not a money making macine.this is a business.
  8. পেয়ারটির প্রাইস কমে ১.১৩০০ লেভেলের দিকে যাচ্ছে। ফেব্রুয়ারীতে ইএমইউ এর অর্থনৈতিক সেন্টিমেন্ট ১৬.৬ তে উন্নতি হয়। জার্মানের মিশ্র অবস্থার কারণে ইউরো/ ডলার ১.১৩০০ তে রিটার্ন করেছে। জিইডব্লিউ এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী , ইউরো/ ডলার পেয়ারটি আজকে সর্বোচ্চ লেভেল ১.১৩২০ এসেছিল, তবে জার্মানের অর্থনীতিতে মিশ্র অবস্থা থাকার কারণে পেয়ারটি ১.১৩০০ এর কাছাকাছি অবস্থান করেছে । ইউরো/ ডলার পেয়ারটি আজকে সর্বোচ্চ লেভেল ১.১৩২০ তে এসেছে। ইউরো / ডলার পেয়ারটি ১.১৩২০/২৫ লেভেল থেকে সরে পড়েছে জার্মান জিইডব্লিউ সার্ভারি অনুযায়ী, তাদের অর্থনীতিতে মিশ্র অবস্থা আসার কারণে এ মাসের শুরুর দিকে পেয়ারটির প্রাইস কিছু বেড়েছে। জার্মান ইকোনমি সেন্টিমেন্ট ১৩.৪ তে উন্নিত হয়েছিল, তবে বর্তমানে পেয়ারটি ১৫.০ তে কমেছে। বৃহত্তম ইউরো এলাকায় ইকোনমি সেন্টিমেন্ট আশ্চর্যজনকভাবে ১৬.৬ তে এসেছে।
  9. গতকাল পেয়ারটির প্রাইস বাড়ার প্রচেষ্টা ১.১৩৩৫/ ৪০ ব্যান্ডে আটকে যায়। তখন ইউরো / ডলার পেয়ারটি শর্ট টার্মে ১.১৪৮৩ রেজিস্ট্যান্স লাইনের নিচে নেমেছিল , সুতরাং পেয়ারটি আরও নিচে নামার সম্ভাবনা রয়েছে। ২০১৮ সালে পেয়ারটি সর্বনিন্ম ১.১২১৬ লেভেলে নেমেছে। অপর দিকে, ১০০ দিনের এসএমএ অনুযায়ী পেয়ারটি নিচের দিকে ১.১৪০০ কে অতিক্রম করতে পারে। ইউরো/ ডলারের আজকের চার্ট
  10. পেয়ারটি সোমবার অগ্রগতির দিকে ছিল। ডলার ৯৭.০ হ্যান্ডেলে যাওয়ার চেষ্টা করছে। আজকেও ইউরোপিয়ান কারেন্সিগুলো সেল প্রেসারে রয়েছে এবং ইউরো/ ডলার পেয়ারটি ১.১৩০০ তে যেতে পারে। ইউরো/ ডলার ১.১৩০০ এর দিকে যাচ্ছে সপ্তাহের শুরুর দিকে পেয়ারটি ১.১৩৪০ তে ট্রেড শুরু করেছে, বর্তমানে পেয়ারটি পূর্বের তুলনায় নিন্মমূখী ১.১৩০০ এর দিকে ট্রেড করছে। বর্তমানে ডলারের চাহিদা বাড়ছে। পেয়ারটি বাই করা আজকের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হবে যেহেতু যুক্তরাষ্ট্যা এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য আলোচনা চলছে।
  11. আজ পাউন্ড / ডলার পেয়ারটি ইউরোপিয়ান সেশনকে সামনে রেখে ১.২৯০০ এর দিকে ট্রেড করছে সাম্প্রতি যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক নেগেটিভ পিরিস্থিতির কারণে পেয়ারটির প্রাইস নিন্মমূখী। যুক্তরাষ্ট্রে এবং চীনের বানিজ্য চুক্তির আলোচনা হওয়ার কারণে তাদের মাসিক জব রিপোর্ট বেশ ভালোর দিকে যাচ্ছে। ইউরোপিয়ান সেশনকে সামনে রেখে আজকে ডলারের বিরুদ্ধে পাউন্ড নিন্মমূখী প্রাইস ১.২৯০০ এর দিকে যাচ্ছে। সাতজন রাজনীতিবিদ বিরোধী দল লেবার পার্টি থেকে অব্যহতি নিয়েছেন এবং যুক্তরাজ্যের নির্মাতারা ব্রেক্সিট চুক্তি না করার ব্যাপারে বিপর্যয়ের সতর্কতা করার নিউজটি প্রকাশিত হওয়ার পরে, পেয়ারটির প্রাইস ১.২৯২৫ থেকে নেমে এসেছে। রয়টার্স জানিয়েছে , যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে আরকটি ঘাটতি যোগ হয়েছে এবং সাতজন রাজনীতিবিদ বিরোধী দলের প্রধান জেরেমি কারবিনের নেতৃত্বের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। যুক্তরাজ্যের মাসিক জব রিপোর্ট পাউন্ড/ ডলারের ক্ষেত্রে মূল আলোচনার বিষয় হবে। পূর্ভাবাস অনুযায়ী বলা হচ্ছে ডিসেম্বরের বেকারত্বের হার অপরিবর্তনীয় থাকবে এবং একই সময়ে এভারেজ ৩.৪% থেকে ৩.৫% তে বৃদ্ধি হতে পারে । জানুয়ারি মাসে জবের ক্ষেত্র ২০.৮% থেকে ২.৪% পর্যন্ত পরিবর্তন হয়েছে।
  12. Market Analysis and News.

    Date : 19th February 2019. MACRO EVENTS & NEWS OF 19th February 2019. FX News Today Mixed session on Asian stock markets. Japan’s central bank: “We won’t rule out further easing measures.” US-China trade talks resume for an extended second week in Washington after terminating in Beijing last week with “progress” but without resolution. In Europe, Trump’s threat of auto tariffs and Brexit talks dominate ahead of tomorrow’s Fed minutes. President Trump has 90 days to decide whether to act on the probe into whether imported vehicles pose a national security threat. AUDJPY has been the biggest mover in a day of directionally challenged markets, as participants wait on progress from the US-China trade talks. Cable has lodged back above 1.2900. Crude Oil prices meanwhile are trading close to three-month highs. Charts of the Day Main Macro Events Today German ZEW Investor Sentiment – A slight improvement is expected, to -14.0, which is actually a tad more pessimistic than Bloomberg consensus, which expects a rise to -13.5 from -15.0. UK Unemployment – Unemployment rate is expected to come in unchanged at the multi-decade low 4.0% UK Average Earnings – The average household income is anticipated to rise 3.5% y/y in the three months to December, up from 3.3% in the month prior, which would be a new cycle high for this metric. Support and Resistance Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Andria Pichidi Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  13. টেকনিক্যাল আনাল্যসিসঃ USD/JPY এর জন্য ইনট্রাডে লেভেল, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ এশিয়ায়, জাপান আজ চলতি হিসাব এর অর্থনৈতিক ডাটা প্রকাশ করবে। অন্যদিকে আমেরিকাও আজ কিছু অর্থনৈতিক তথ্য প্রকাশ করবে যেমন NAHB হাউজিং মার্কেট ইনডেক্স। সুতরাং, প্রতিবেদনগুলো থেকে দেখা যায়, আজ USD/JPY এর ভোলাটিলিটি নিম্ম থেকে মধ্যম মানের হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজকের দিনের টেকনিক্যাল লেভেলঃ রেসিস্টেন্স. 3: 111.10 রেসিস্টেন্স. 2: 110.88 রেসিস্টেন্স.1: 110.67. সাপোর্ট. 1: 110.41 সাপোর্ট.2: 110.19. সাপোর্ট.3: 109.97. সতর্কতাঃ ফরেক্স ট্রেডিং (বৈদেশিক বিনিময়) এর ক্ষেত্রে মার্জিন উচ্চ ঝুঁকি বহন করে এবং সকল বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত নাও হতে পারে। অধিক লিভারেজ আপনার জন্য অধিক ঝুঁকি বহন করবে আবার অধিক লাভের উৎস হিসাবেও কাজ করবে। ফরেক্সে লেনদেন করার পূর্বে আপনি অবশ্যই আপনার বিনিয়োগের লক্ষ্য, অভিজ্ঞতার স্তর এবং ঝুঁকির প্রবন নির্ধারণ করবেন। এর ফলে লোকসান এবং প্রাথমিক বিনিয়োগ হারানোর সম্ভাবনা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন এবং এমন জায়গায় বিনিয়োগ করবেন না যেখানে সম্পূর্ণ মূলধন হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে। আপনি বিনিয়োগ সম্পর্কিত সকল ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন থাকবেন এবং আপনার যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে একজন অর্থ বিষয়ক পরামর্শকের কাছে পরামর্শ চাইতে দ্বিধা করবেন না। ফরেক্স বিশ্লেষকঃ Arief Makmur, *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  14. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) পেয়ারটি ১.১২৮০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি ন্মিমূখী প্রাইস ‍রিট্রেসমেন্টে সম্ভাবনা রয়েছে । সেক্ষেত্রে বাই পজিশন্স নেওয়া যেতে পারে । ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১২৮০, ১.১২৪০, ১.১১৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১৩৩০, ১.১৩৬০, ১.১৪০০ ট্রেডের সিগন্যাল : বাই ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ সপ্তাহ) মার্কেট ১.১৩৪০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্টিং করছে । আমরা সেল পজিশন্স নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্যান্স লেভেলে কিছু সিগনালের অপেক্ষা করছি । পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.১৪১০। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.১২৩০, ১.১১৮০, ১.১১১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১৩৪০, ১.১৪১০, ১.১৫১০ ট্রেডের সিগন্যাল : সেল GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেট ১.২৮৭৭ সাপোর্ট লেভেলে টেস্টিং করছে । আমরা বাই পজিশন্স নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্যান্স লেভেলে কিছু সিগনালের অপেক্ষা করছি । পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ১.২৮৩৮। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২৮৭৭, ১.২৮৩৮, ১.২৭৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২৯৫০, ১.২৯৯০, ১.৩০৫০ ট্রেডের সিগন্যাল : বাই ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেট ১.২৯৫০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্টিং করছে । আমরা সেল পজিশন্স নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্যান্স লেভেলে কিছু সিগনালের অপেক্ষা করছি । পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.৩০৫০। ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.২৭৬০, ১.২৬৮০, ১.২৫৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২৯৫০, ১.৩০৫০, ১.৩২২০ ট্রেডের সিগন্যাল : সেল টেক প্রফিট : ১.২৬৮০ স্টপ লস : ১.২৫৩০
  15. ব্রেক্সিট নিয়ে যুক্তরাষ্টের মন্ত্রীর মন্তব্যের কারনে পাউন্ডের অগ্রগতি! যুক্তরাষ্টের মন্ত্রী মন্তব্য করেছে ‘যে কোনও চুক্তিতে ব্রেক্সিটের 'অর্থনীতিতে গুরুতর ক্ষতি হবে' এবং ব্রাসেলসের সাথে সাম্প্রতিক আলোচনাগুলি ফলপ্রসূ ছিল। এরপর সোমবার ইউরোপীয় সেশন থেকেই পাউন্ড তার প্রধান প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে উপরে উঠছে। বিবিসি রেডিও 4 এর একটি প্রোগ্রামে ডেভিড লাইডিংটন, ল্যাঙ্কস্টারের ডাচ চ্যান্সেলর কথা বলেছিলেন। তিনি বলেন যে ব্রেক্সিট কোনও চুক্তি হবে না এবং মন্ত্রিপরিষদের কোন সদস্য এটাকে আর দেখতে চায় না। আরো ফরেক্স নিউজ দেখুন: https://goo.gl/FmCiZG
  16. টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস- EUR/USD পেয়ারের ইন্ট্রাডে লেভেল (১৯শে ফেব্রুয়ারী, ২০১৯) বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউট বাই লেভেল: 1.1360. স্ট্রং রেসিস্টেন্স: 1.1354. অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্স: 1.1344. ইনার সেল এরিয়া: 1.1334. টার্গেট ইনার এরিয়া: 1.1311. ইনার বাই এরিয়া: 1.1287. আরিজিনাল সাপোর্ট: 1.1277. স্ট্রং সাপোর্ট: 1.1267. ব্রেকআউট সেল লেভেল: 1.1261. মন্তব্য: আজ ইউরোপিয়ান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে কিছু নিউজ রিলিজ হবে। যেমন: ZEW ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট ও জার্মান ZEW ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট এবং আমেরিকান মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে তারও কিছু ইকোনমিক ডাটা রিলিজ করবে। যেমন: NAHB হাউসিং মার্কেট ইনডেক্স। ফলে ফান্ডামেন্টাল বিশ্লেষন থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটিতে নিন্ম থেকে মাঝাড়ি মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: https://goo.gl/WubZ3S *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  17. পাউন্ড/ ডলার তৃতীয় সপ্তাহের মতো তার নিন্মগতি অব্যাহত রেখেছে , গত সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস ২.৩% তে নেমেছে। এ সপ্তাহের প্রধান ইভেন্টগুলো হলো ওয়েজ প্রবৃদ্ধি এবং বেকারত্বের তালিকা। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট ওভারভিউ এবং পাউন্ড/ ডলারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। গত সপ্তাহে ব্রিটিশ পাউন্ডের প্রাইস কমের দিকে ছিল। ব্রিটিশ অর্থনীতিতে ধীরতা চলমান থাকার কারণে, পাউন্ডের প্রাইস তৃতীয় প্রান্তিকের ০.৬% এর তুলনায় চতুর্থ প্রান্তিকে ০.২% এসেছে। মেনুফেকচারিং প্রডাকশন বিগত ছয় মাসের মধ্যে পঞ্চমবারের মতো নিন্মগামী ০.৭% পয়েন্ট এসেছে। সিপিআই এর রিপোর্ট অনুযায়ী বিগত দুই বছরের ২.০% এর তুলনায় প্রথমবারের মতো মুদ্রাস্ফীতি ১.৮% এসেছে। পাউন্ডের একটি পজিটিভ দিক হতে পারে , যদি রিটেইলস সেলস প্রত্যাশা অনুযায়ী ১.০% তে রিবাউন্স হয়। জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের কনজিউমার ব্যয়ও খারাপ অবস্থার মধ্যে দিয়ে গিয়েছে। রিটেইলস সেলস এবং কোর রিটেইলস সেলস বেশ পরিমানে কমেছে। পাউন্ড / ডলারের রেজিস্ট্যান্স এবং সাপোর্ট লাইন দেওয়া হলো : ১. Rightmove HPI সোমবার সকাল ৬:০১ । গত দুই মাসের তুলনায় হাউজিং মুদ্রাস্ফীতি ফেব্রুয়ারীতে কিছুটা ভাল অবস্থানে রয়েছে। ২. Employment Data মঙ্গলবার দুপুর ৩:৩০। সম্প্রতি এই মাসে ওয়েজ বৃদ্ধি পেয়েছে, এমনকি মুদ্রাস্ফীতিও কমেছ। নভেম্বরে ওয়েজ ৩.৪% বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ডিসেম্বরেও একই রকমের ৩.৫% বৃদ্ধি পেয়েছে। বেকারত্বের হার ডিসেম্বরে কিছুটা কমেছে এবং আশা করা হচ্ছে জানুয়ারিতে আরও কমতে পারে, এর পরিমান ১২.৩ হাজার হতে পারে। ৩.CBI Industrial Order Expections বুধবার বিকাল ৫:০০। ইন্ডাসট্রিয়াল অরডার গত দুইবার ভাল অবস্থানে ছিল। মেনুফেকচার ইনডিকেটর অনুযায়ী , জানুয়ারীতে ১ পয়েন্ট এসেছে। ফেব্রুয়ারীতে মার্কেটে ৫ পয়েন্ট ড্রপ হয়। ৪. Public Sector Net Borrowing বৃহস্পতিবার দুপুর ৩:৩০। আশা করা হচ্ছে যুক্তরাজ্য বাজেট বাড়াবে, এটা ১১.১ বিলিয়ন মূল্যের জিডিপি হতে পারে। পাউন্ডের ক্ষেত্রে এটা ভাল অবস্থান হতে পারে। পাউন্ড/ ডলারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস পাউন্ড/ডলারের প্রাইস সপ্তাহের প্রথম দিকে কমেছিল, তবে শেষের দিকে প্রাইস বেড়ে ১.২৯১০ রেজিস্ট্যান্স লাইনে এসেছে। (গত সপ্তাহে উল্লেখ করা হয়) গুরুত্বপূর্ণ টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচ পর্যন্ত দেওয়া হলো: ১.৩৩৭৫ জুলাই মাসের সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল। সেপটেম্বরে ১.৩৩০০ সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল। জানুয়ারিতে সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল ১.৩২১৭। নভেম্বরের শুরুর দিকে ১.৩১৭০ গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট ছিল। নভেম্বরের মাঝামাঝি ১.৩০৭০ সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল। সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে ১.৩০০০ একটি গুরুত্বপূর্ণ সাপোর্ট লেভেল ছিল। নভেম্বরের শেষের দিকে ১.২৯১০ সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল। নভেম্বরের শেষের দিকে ১.২৮৫০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল। জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে ১.২৭২৮ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল। পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ১.২৬১৬।
  18. Last week
  19. Market Analysis and News.

    Date : 18th February 2019. MACRO EVENTS & NEWS OF 18th February 2019. FX News Today Japanese bond yields increased, outperforming against most other bonds in Asia as stock markets rallied. Trade optimism, improving credit data out of China and better than expected machinery orders in Japan boosted risk appetite and Topix and Nikkei closed with gains of 1.6% and 1.8% respectively. The Hang Seng is up 1.7% as CSI 300 and Shanghai Comp have gained 2.9% and 2.4% respectively so far. US President Trump said over the weekend that talks were “very productive” and China’s President Xi Jinping said the latest round of meetings “achieved important progress in another step”, which fueled optimism that another round of punitive tariffs can be avoided. Improved credit data out of China meanwhile helped to calm concerns about growth prospects in the country. US futures are narrowly mixed and European stock markets marginally higher, so it remains to be seen whether the rally will be sustained. The front end WTI future is trading at USD 55.93 per barrel, after testing highs over USD 56. US markets are closed today and there was no trade in Treasuries. Charts of the Day Main Macro Events Today US Presidents’ Day – US Markets closed today for a public holiday. Support and Resistance Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Dr Nektarios Michail Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  20. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন ) পেয়ারটি ১.১২৭০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি ন্মিমূখী প্রাইস ‍রিট্রেসমেন্টে সম্ভাবনা রয়েছে । সেক্ষেত্রে বাই পজিশন্স নেওয়া যেতে পারে । ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী । সাপোর্ট লেভেল : ১.১২৭০, ১.১২৩০, ১.১২১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১৩৩০, ১.১৩৬০, ১.১৪১০ ট্রেডের সিগন্যাল : বাই ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) মার্কেট ১.১৩৪০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্টিং করছে । আমরা সেল পজিশন্স নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্যান্স লেভেলে কিছু সিগনালের অপেক্ষা করছি । পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.১৪১০ । ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী । সাপোর্ট লেভেল : ১.১২৩০, ১.১১৮০, ১.১১১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১৩৪০, ১.১৪১০, ১.১৫১০ ট্রেডের সিগন্যাল : সেল GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) মার্কেটে অনিশ্চয়তা বিরাজ করছে । ট্রেন্ড খুব তাড়াতাড়ি পরিবর্তন হচ্ছে , তাই মার্কেট অস্থিতিকর অবস্থায় রয়েছে । সুতরাং মার্কেট শান্ত হওয়া পর্যন্ত আমাদের অপেক্ষা করা ভাল হবে । ট্রেন্ডের ধরণ : অপেক্ষমান সাপোর্ট লেভেল : ১.২৮৭৭ , ১.২৮৩৮, ১.২৭৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২৯৪০, ১.২৯৮০, ১.৩০৪০ ট্রেডের সম্ভাব্যতা : অপেক্ষমান ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগন্যাল ( পরবর্তী ৩ দিন ) মার্কেট ১ম টেক প্রফিটে পৌঁছাতে ব্যর্থ হয়েছে এবং ১.২৮৩০ স্টপ লস লেভেলে হিট করেছে । এখন আমরা পরবর্তী ট্রেন্ডের অপেক্ষা করছি । পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.২৯৫০ । ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী । সাপোর্ট লেভেল : ১.২৭৬০, ১.২৬৭০, ১.২৫৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.২৯৫০, ১.৩০৫০, ১.৩২২০ ট্রেডের সিগন্যাল : সেল সিগন্যালের সম্ভাব্যতা : মাঝারি
  21. টেকনিক্যাল আনাল্যসিসঃ USD/JPY এর জন্য ইনট্রাডে লেভেল, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯ এশিয়ায়, জাপান আজ কোর যন্ত্রপাতি আদেশ m/m এর অর্থনৈতিক ডাটা প্রকাশ করবে। অন্যদিকে আমেরিকা আজ কোন অর্থনৈতিক তথ্য প্রকাশ করবে না। সুতরাং, প্রতিবেদনগুলো থেকে দেখা যায়, আজ USD/JPY এর ভোলাটিলিটি নিম্ম থেকে মধ্যম মানের হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজকের দিনের টেকনিক্যাল লেভেলঃ রেসিস্টেন্স. 3: 111.06 রেসিস্টেন্স. 2: 110.84. রেসিস্টেন্স.1: 110.63. সাপোর্ট. 1: 110.36 সাপোর্ট.2: 110.14. সাপোর্ট.3: 109.92. সতর্কতাঃ ফরেক্স ট্রেডিং (বৈদেশিক বিনিময়) এর ক্ষেত্রে মার্জিন উচ্চ ঝুঁকি বহন করে এবং সকল বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত নাও হতে পারে। অধিক লিভারেজ আপনার জন্য অধিক ঝুঁকি বহন করবে আবার অধিক লাভের উৎস হিসাবেও কাজ করবে। ফরেক্সে লেনদেন করার পূর্বে আপনি অবশ্যই আপনার বিনিয়োগের লক্ষ্য, অভিজ্ঞতার স্তর এবং ঝুঁকির প্রবন নির্ধারণ করবেন। এর ফলে লোকসান এবং প্রাথমিক বিনিয়োগ হারানোর সম্ভাবনা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন এবং এমন জায়গায় বিনিয়োগ করবেন না যেখানে সম্পূর্ণ মূলধন হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে। আপনি বিনিয়োগ সম্পর্কিত সকল ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন থাকবেন এবং আপনার যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে একজন অর্থ বিষয়ক পরামর্শকের কাছে পরামর্শ চাইতে দ্বিধা করবেন না। ফরেক্স বিশ্লেষকঃ Arief Makmur, *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  22. যুক্তরাজ্যের বাড়ি ক্রয়ক্ষমতা ৮ বছরের মধ্যে দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পেয়েছে – রাইটমুভ ফেব্রুয়ারীতে যুক্তরাজ্যের বাড়ি ক্রয়ক্ষমতা ৮ বছরের মধ্যে দ্রুত গতিতে বাড়ছে, কিন্তু বার্ষিক বাড়ির দাম বৃদ্ধির হার দুর্বল হয়েছে, সম্পত্তি বাজারের তথ্য প্রকাশক ওয়েবসাইট রাইটমুভ জরিপ সোমবার এই তথ্য জানিয়েছে। জরিপ আরো দেখিয়েছে, ২০১১ সালের পর থেকে যুক্তরাজ্যের গড় মজুরি বৃদ্ধির হার দ্রুততম হারে দাম বাড়িয়েছে ৩.৪ শতাংশ। জানুয়ারিতে ০.৪০ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ার পর ফেব্রুয়ারিতে গড় দাম ০.৭ শতাংশ বেড়েছে। ফেব্রুয়ারিতে পরপর দ্বিতীয় মাসে দাম বেড়েছে। এক বছরের আগের তুলনায় ফেব্রুয়ারি মাসে ঘরবাড়ি দাম বেড়েছে ছিল ০.২ শতাংশ, যা ২০০৯ সালের পর থেকে থেকে সবচেয়ে কম ছিল। আরো ফরেক্স সংবাদঃ
  23. গত সপ্তাহে ইউরো / ডলারের প্রাইস কমেছিল এবং ২০১৭ সালের জুন মাসের পর প্রথম বারের মতো, পেয়ারটি ১.১৩ এর নিচে ট্রেড করেছে । গত সপ্তাহ জার্মানের সিপিআই এবং জিডিপি রিপোর্ট রিলিজ নিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে ছিল । এ সপ্তাহের মূল ইভেন্টগুলো হল , জার্মান এবং ইউরোজনের পিএমএসআই । এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট ওভারভিউ এবং ইউরো / ডলারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস নিয়ে আলোচনা করা হলো । ইউরোজনের বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ জার্মানের প্রিলিমিনারি জিডিপি ০.০% পয়েন্ট এসেছে । ইউরোজন ফ্ল্যাশ জিডিপি মোটামুটি ০.২% পয়েন্ট এসেছে । যুক্তরাষ্ট্রের কনজিমার ডাটা বেশ হতাশাজনক । মুদ্রাস্ফীতিও দুর্বল অবস্থানে রয়েছে । রিটেইলস সেলস এবং কোর রিটেইলস সেলস উভয়ই কমেছে । গত সপ্তাহে ইউরোর ঝুঁকি বেড়েছিল , তবে এখনও ইউরো ভাল অবস্থানে আসতে পারেনি । এখানে দুটো পজিটিভ নিউজ রয়েছে যা বিনিয়োগকারীদের উত্সাহী করবে এবং মার্কেটকে ভাল অবস্থানে নিয়ে আসতে সহায়তা করবে । যুক্তরাষ্ট্রের আইনপ্রনেতারা একটি প্রস্তাবে রাজি হয়েছে যা সরকারের শার্টডাউনকে বাধা প্রদান করবে এবং প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চুক্তিতে রাজি হয়েছে । গত সপ্তাহে চীন এবং যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বানিজ্য নিয়ে তৃতীয় রাউন্ড আলোচনা শেষ হয়েছে । যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি সেক্রেটারি স্টেভেন মুচীন বলেছে আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে । মূল আলোচনার বিষয় ছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ১ মার্চ চীনে নতুন শুল্কে আরোপের সময়সীমা স্থগিত করবেন কিনা । যুক্তরাষ্ট্র ২০০ বিলিয়ন মূল্যের চীনা পণ্যের উপর ১০% থেকে ২৫% এ শুল্ক বাড়নোর হুমকি দিয়েছে । ট্রাম্প আরও বলেছেন , আলোচনার মাধ্যমে এই ডেডলাইন পরিবর্তন হতে পারে । এখানে ইউরো / ডলারের প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইন দেওয়া হল : ১. Current Account মঙ্গলবার দুপুর ৩:০০ । নভেম্বরে ইউরোজনে সংকীর্ন আকারে ২০.৩ বিলিয়ন ইউরো বৃদ্ধি পেয়েছিল । এটা তাদের প্রত্যাশার তুলনায় কম ছিল । ২. German ZEW Economic Sentiment মঙ্গলবার বিকাল ৪:০০ । অ্যানালাইসিস্টগন এবং বিনিয়োকারীরা জার্মানের অর্থনৈতিক আউটলুক সম্পর্কে হতাশার মধ্যে রয়েছে , যদিও ডাটা কিছুটা উন্নতি হয়েছে । জানুয়ারিতে ১৫.০ পয়েন্ট এসেছে এবং ফ্রেব্রুয়ারীর পূর্ভাবাসে ১৪.১ পয়েন্ট বলা হয়েছে । ইউরোজোন থেকে জানুয়ারিতে ২০.৯ পয়েন্ট এসেছিল এবং ফেব্রুয়ারীতে প্রজেক্ট থেকে ১৮.২ পয়েন্ট এসেছে । ৩. German PPI বুধবার দুপুর ১:০০ । পিপিআই এর রিপোর্ট অনুযায়ী ডিসেম্বরে ০.৪% ডেটা এসেছে । এটা তুলনামূলক কম ছিল । পূর্ভাবাস অনুযায়ী জানুয়ারিতে আরেকটি কম ডাটার আশঙ্কা করা হচ্ছে , এর পরিমান ০.২% হতে পারে। ৪. German Final CPI বৃহস্পতিবার দুপুর ১ :০০ । ইউরোজোনের বৃহত্তম অর্থনৈতিক দেশ জার্মানের অর্থনৈতিক কার্যবলি নমনীয় হওয়ার কারণে , মুদ্রাস্ফীতিও বেশ দুর্বল অব স্থানে রয়েছে । জার্মানের প্রিলিমিনারি রিলিজে , মুদ্রাস্ফীতি ০.৮% এসেছে এবং আশা করা হচ্ছে ফাইনাল রিলিজেও এর কোন পরিবর্তন হবে না । ৫. French Final CPI বৃহস্পতিবার দুপুর ১:৪৫ । ফ্রান্সের প্রিলিমিনারি রিলিজে মুদ্রস্ফীতি ০.৫% এসেছে এবং আশা করা হচ্ছে পরবর্তী রিলিজেও এর পরিবর্তন হবে না । ৬. Flash PMIs ফ্রান্সের সময় শুক্রবার দুপুর ২:১৫ ,জার্মানে ২:৩০ এবং ইউরোজোনের সময় ২:০০ । মার্কিটের পরিসংখ্যান অনুযায়ী জানুয়ারিতে জার্মান এবং ইউরোজনের মেনুফেকচারিং একটিভিটি নমনীয় ছিল , যেহেতু বৈশ্বিক অর্থনীতি দুর্বল ছিল , তাই জার্মানের পণ্যের রপ্তানির চাহিদা কম ছিল । পিএমআই অনুযায়ী জার্মানের সার্ভিস কিছুটা ভাল অবস্থানে রয়েছে , তবে ইউরোজোন এবং ফ্রান্সের সার্ভিস তেমন ভাল অবস্থানে নেই , তাই সার্ভিস সেক্টর বেশ চাপের মধ্যে রয়েছে । ৭. ECB Monetary Policy Meeting Accounts বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬:৩০ । ইউরোপীয়ান কেন্দীয় ব্যাংকের ইনটারেস্ট রেট বাড়ানোর দিকে বিনিয়োগকারীরা নজর রাখবেন । ৮. German Final GDP শুক্রবার দুপুর ১:০০ । এই মাসের শুরুর দিকে জার্মান প্রিলিমিনারি রিপোর্ট প্রকাশ করা হয়েছে, এতে জার্মান জিডিপি ০.০% এসেছে । জার্মানের অর্থনৈতিক এই অবস্থা ইউরোর উপর বেশ প্রভাব ফেলবে । ৯. German Ifo Business Climate শুক্রবার দুপুর ৩:০০ । বিজনেস কনফিডেন্স পাচঁ মাস ধারাবহিক সফলতা অব্যাহত থাকার পরে, এ মাসে বিজনেস ধীরগতিতে চলছে । জার্মান অর্থনীতি আউটলুক সম্পর্কে বিজনেস সেক্টরে উদ্ধিগ্নতা বৃদ্ধি পাচ্ছে । ইনডিকেটর অনুযায়ী আশা করা হচ্ছে, ফেব্রুয়ারিতে ৯৯.০ পয়েন্ট আসতে পারে । ১০. Eurozone CPI Data শুক্রবার রাত ৮:০০ । ইউরোজোনের সিপিআই ডাটা চতুর্থ প্রান্তিক থেকে কম আসছে এবং আশা করা হচ্ছে জানুয়ারিতেও কম আসতে পারে , এর পরিমান ১.৪% হতে পারে । কোর সিপিআই ডাটা দুইবার ভাল অবস্থানে অর্থাৎ ১.০% তে ছিল । পূর্ভাবাস অনুযায়ী জানুয়ারিতে ১.১% আসতে পারে । ইউরো / ডলারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস : টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হল । ১.১৬২০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লাইন এবং পরবর্তী লাইন ১.১৫৭০ । জানুয়ারির শেষের দিকে ১.১৫১৫ হাই পয়েন্ট ছিল । ফেব্রুয়ারীর শুরুর দিকে ১.১৪৩৫ লো পয়েন্ট ছিল । জানুয়ারির শেষের দিকে ১.১৩৯০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল । জানুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে ১.১৩৪৫ লো লেভেল ছিল । একই সময়ে ১.১২৯০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লো লেভেল । ২০১৮ সালের ডিসেম্বরে ১.১২৭০ একটি ডাবল বটোম এবং ২০১৮ সালের পরবর্তী লো লেভেল ১.১২১৫ । ১.১১১৯ লেভেলকে অনুসরণ করা হয় । বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.১০৬৪ । মুদ্রাস্ফীতি , জিডিপি এবং মেনুফেকচারিংয়ে ডাটা কিছুটা খারাপ অবস্থানে থাকার কারণে জার্মান এবং ইউরোজনের অর্থনীতিতে ধীরতা বিরাজ করছে । যদি যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে সংঘাত নিরসন হয় , তাহলে ইউরোর উন্নতি হতে পারে । যাহোক, বর্তমানে মার্কেট ডলারের অনুকূলে রয়েছে ।
  24. বাণিজ্য আলোচনার আশায় মার্কিন ডলারের দরপতন! মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে গত সপ্তাহের অনুষ্ঠিত আলোচনায় পর কিছুটা অগ্রগতি হয়েছিল, যদিও এই সপ্তাহের শুরুতে আবারও বাণিজ্য আলোচনার অপেক্ষায় থাকার কারণে আজ সোমবার এশিয়ান সেশনে মার্কিন ডলারের তার সবচেয়ে বড় কারেন্সীন্সীগুলোর বিপরীতে অনেকটাই অবনতি হয়েছে। হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই সপ্তাহে উচ্চ প্রতিনিধি লেভেলের মার্কিন-চীন বাণিজ্য আলোচনায় "দুই পক্ষের মধ্যে অগ্রগতি" ঘটেছে, তবে আরো উল্লেখ করা হয়েছে যে " এখনো অনেক কাজ বাকি আছে।" আরো ফরেক্স নিউজ দেখুন: https://goo.gl/FmCiZG
  25. টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস- EUR/USD পেয়ারের ইন্ট্রাডে লেভেল (১৮ই ফেব্রুয়ারী, ২০১৯) বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউট বাই লেভেল: 1.1346. স্ট্রং রেসিস্টেন্স: 1.1340. অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্স: 1.1329. ইনার সেল এরিয়া: 1.1318. টার্গেট ইনার এরিয়া: 1.1292. ইনার বাই এরিয়া: 1.1266. আরিজিনাল সাপোর্ট: 1.1255. স্ট্রং সাপোর্ট: 1.1244. ব্রেকআউট সেল লেভেল: 1.1238. মন্তব্য: আজ ইউরোপিয়ান বা আমেরিকান কোন মার্কেটে ট্রেডিং শুরু হলে কোন ইকোনমিক ডাটা রিলিজ করবে না। ফলে কোন ফান্ডামেন্টাল বিশ্লেষন না থাকায় থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটিতে খুবই কম মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: https://goo.gl/y9nuuf *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  26. গত সপ্তাহে ডলার/ইয়েনের (USD/JPY) প্রাইস বেড়েছে। মধ্য-ডিসেম্বরের পর প্রথম এ সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস এত বাড়লো। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে চুক্তি বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আশা জাগানোর কারণে স্টকগুলোর দাম বেড়েছে। ডলার / ইয়েনের ফান্ডামেন্টাল অ্যানালাইসিস : তৃতীয় প্রান্তিকে জাপানি প্রবৃদ্ধি ০.৬% কমার পর, চতুর্থ প্রান্তিকে ০.৩% বৃদ্ধি পেয়েছে । বিজনেস এবং কনজিউমার স্পেন্ডিং বৃদ্ধি অর্থনীতিকে সম্প্রসারিত করতে সহায়তা করছে । চতুর্থ প্রান্তিকে ০.৯% রপ্তানি বৃদ্ধি পেয়েছে , যা এ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে তৃতীয় পর্যায়ের বৈঠক হয়। ট্রেজারি সেক্রেটারি স্টেভিন মুচিনের মতে আলোচনা বেশ ফলপ্রসূ ছিল । মূল আলোচনার বিষয় ছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চীনে নতুন শুল্ক আরোপের জন্য ১ মার্চের সময়সীমা স্থগিত করবেন কিনা। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ২০০ বিলিয়ন মুল্যের চীনা পণ্যের উপর ১০% থেকে ২৫% এ শুল্ক উন্নীত করার হুমকি দিয়েছেন। তবে ট্রাম্প আরও বলেছেন, আলোচনার মাধ্যমে এই ডেডলাইন পরিবর্তিত হতে পারে। ডলার / ইয়েনের টেকনিক্যার অ্যানালাইসিস : ডলার / ইয়েনের প্রাইস গত সপ্তাহে বেড়েছে। পেয়ারটির গুরুত্বপূর্ণ টেকনিক্যাল লেভেলগুলো হলঃ নভেম্বরে সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল ১১৪.২৫ । রাউন্ড নম্বর ছিল ১১৪ এবং এই লেভেল থেকে পেয়ারটির প্রাইস কমতে শুরু করেছিল । নভেম্বরে ১১৩.৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল । জুনের পূর্বে ১১৩.১৫ সর্বোচ্চ পয়েন্ট ছিল । ডিসেম্বরের শুরুর দিকে ১১২.২৫ সাপোর্ট লেভেল এবং ১১২ আাত্মরক্ষামূলক লেভেল ছিল । অক্টোবরে ১১২.৭৩ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল । ডিসেম্বরের শুরুর দিকে ১১২.২৫ সাপোর্ট লেভেল হিসেবে কাজ করেছে অক্টোবরে ১১১.৬৫ একটি লো লেভেল এবং অক্টোবরে আরেকটি লো লেভেল হলো ১১১.৪০ পেয়ারটি ১১০.৪০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে ব্রেক করেছিল ( গত সপ্তাহে উল্লেখ করা হয় ), আগস্টের শেষের দিকে ১১০.৪০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল এপ্রিলের শুরুর দিকে ১০৭.৫০ একটি গুরুত্বপূর্ণ লেভেল ছিল ডলার / ইয়েনের প্রতিদিনের চার্ট : USDJPY পেয়ারটির প্রাইস কমার ভাল সম্ভাবনা রয়েছে। এর অন্যতম মুল কারণ হল চায়নার অর্থনৈতিক ধীরতা জাপানের অর্থনীতির ওপরঅ প্রভাব ফেলছে। জাপান হল চায়নার সর্ববৃহৎ ব্যবসায়িক পার্টনার। অর্থনৈতিক ধীরতার কারনে চায়নায় জাপানের গাড়ির যন্ত্রাংশ এবং ইলেক্ট্রনিকস রপ্তানি কিছুটা অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছে। আর এই ব্যবসায়িক সংঘাত যদি চলতে থাকে, জাপান নিজেও অর্থনৈতিক মন্দার সম্মুখীন হতে পারে। এছাড়াও, বানিজ্য উত্তেজনা বাড়লে জাপানিজ ইয়েন সেফ হেভেন কারেন্সি হিসেবে বিনিয়োগকারীদের কাছে আকর্ষণ হারাতে পারে। সব মিলিয়ে বিশেষজ্ঞরা ধারনা করছেন পেয়ারটি এ সপ্তাহে নিম্নমুখী হবে।
  27. গত সপ্তাহে ডলারের প্রাইস বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে । পরবর্তীতে কি হতে পারে ? ফেডের অন্যান্য ইভেন্টগুলোর মধ্যে এ সপ্তাহের অন্যতম ইভেন্ট হলো মিটিং মিনিট । এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট ওভারভিউ পর্যালোচনা করা হলো । ১ . UK Jobs Report মঙ্গলবার দুপুর ৩:৩০ । ব্রেক্সিটের অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও লেবার মার্কেট ঊর্ধ্বমূখী অবস্থানে রয়েছে । নভেম্বরে বেকারত্বের হার ৪% কমেছে , তখন বার্ষিক ওয়েজ ৩.৪% বৃদ্ধি পেয়েছিল । এ বৃদ্ধি তাদের প্রত্যাশার থেকে ভাল ছিল । ক্লাইমেন্ট কাউন্ট চেঞ্জ এর রিপোর্ট অনুযায়ী ডিসেম্বরে যুক্তরাজ্যে ২০.৮ হাজার চাকরি ক্ষেত্র বৃদ্ধি পেয়েছে । এখন আমরা জানুয়ারির পরিসংখ্যানের অপেক্ষা করবো । ২. US FOMC Meeting Minutes বৃহস্পতিবার রাত ০১ :০০ । ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক জানুয়ারির শেষের দিকে ইন্টারেস্ট রেট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এবং ইনটারেস্ট রেট বাড়ানোর পরিবর্তে , তারা একটি সহনশীল পলিসি তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন । ফেড ব্যালেন্স শীট রিডাকশন প্রোগ্রাম পরিবর্তনের দ্বারকে উন্মুক্ত রেখেছেন । মিনিট মিটিংয়ে চেয়্যারম্যান পাওয়েল এবং তার সহকর্মীরা যুক্তরাষ্ট্র ও বিদেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে কতটা উদ্বিগ্ন থাকবেন তা দেখার বিষয় । ব্যালেঞ্জ শীটের আলোচনা স্টক মার্কেটের উপর প্রভাব ফেলবে এবং মুদ্রাস্ফীতি সম্পর্কে মন্তব্য সম্ভবত ডলারের ইনটারেস্ট রেট বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে । ৩. Australian Jobs Report বৃহস্পতিবার সকাল ০৬:৩০ । গত তিন বারের অস্টেলিয়ান জব রিপোর্ট তাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী হয় , ডিসেম্বরে অস্টেলিয়ায় ২১.৬ হাজার জব ক্ষেত্র বৃদ্ধি পেয়েছে । বেকারত্বের হার ৫% কমেছে , আর পরবর্তীতে তাদের জব ক্ষেত্র আরও বৃদ্ধি পেতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে । এখন আমরা জানুয়ারির পরিসংখ্যানের অপেক্ষা করছি । ৪. Euro – Zone PMIs বৃহস্পতিবার , ফ্রান্সের সময় দুপুর ০২:১৫ , জার্মানের ০২:৩০ এবং ইউরোজনের ০৩:০০ । পারসিং ম্যানেরজার ইনডিকেটর , তাদের পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে এবং তারা ইউরোজনের অর্থনৈতিক মন্দা সম্পর্কে উদ্বিগ্নতা অতি গুরুত্বের সাথে প্রকাশ করেছে । পিএমআই এর ডেটা প্রাথমিকভাবে সতর্কতা প্রকাশ করতে পারে । জানুয়ারির পূর্বে , পিএমআই অনুযায়ী ফ্রান্সের মেনুফেকচারিং পয়েন্ট ৫১.২ পার্সেন্ট এসেছে । মার্কিটের পরিসংখ্যান অনুযায়ী , সার্ভিস সেক্টর কমে ৪৭.৮ পয়েন্টে এসেছে । জার্মানের পরিসংখ্যান এর বিপরীত ছিল : মেনুফেকচারিং কমে ৪৯.৭ পয়েন্ট এবং মার্ভিস সেক্টর সম্প্রসারিত হয়ে ৫৩ পয়েন্টে এসেছে। ইউরোজনের পিএমআই ৫০.৫ পয়েন্ট এবং সার্ভিস পিএমআই ৫১.২ পার্সেন্ট ছিল । ৫. US Durable Goods Orders বৃহস্পতিবার বিকাল ০৬ :৩০ । যুক্তরাষ্ট্রের সরকারের শার্টডাউনের কারণে পণ্য অডারের ডেটা প্রকাশে বিলম্বিত হচ্ছে । নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের বিক্রি ০.৮% বৃদ্ধি পেয়েছে এবং ডিসেম্বরেও একই পরিমাপে বৃদ্ধি পেয়েছে । কোর অর্ডার , প্রকল্প থেকে পূর্বের ০.৩% এর পরে বর্তমানে ০.২% বৃদ্ধি পেয়েছে । ৬. US Existing Home Sales বৃহস্পতিবার রাত ১০ :০০ । যুক্তরাষ্ট্রের হাউজিং সেক্টরে কিছুটা ধীরগতি বিরাজ করছে । ডিসেম্বরের বার্ষিক হিসাব অনুযায়ী , সেল ৪.৯৯ বিলিয়ন কমেছে এবং এটা আরও বিছুদিন থাকতে পারে ।
  28. Report post Posted 5 minutes ago Technical analysis on all major pairs | 18th February 2019 Technical parameters| (18th-22nd) February 2019 Possible entry point with critical support and resistance level. But when you trade this level make sure that you are using price action confirmation signal. We have prepared these key support and resistance level based on the Fibonacci retracement levels,100&200 SMA, key swings point and chart patterns formed in the higher time frame. Focus on GBPUSD technical analysis. EURUSD Look for selling opportunity near the critical resistance. First critical Resistance: click here (https://forextradingforyou.com/technical-analysis-on-all-major-pairs-18th-february-2019) Second critical Resistance: 1.181111 First critical Support: click here (https://forextradingforyou.com/technical-analysis-on-all-major-pairs-18th-february-2019) Second Critical Support: 1.12201 Overall Sentiment: Slightly bearish For GBPUSD, AUDUSD, NZUSD, and GBPJPY analysis Visit www.forextradingforyou.com All the technical parameters are applicable from 18th February to 22nd February 2019. The overall sentiment indicates the prevailing trend of the market. We highly recommend you to trade in favor of the market sentiment (overall sentiment) to reduce the risk exposure in trading. Trade the critical support and resistance level with price action confirmation signal. If you want to get the technical chart analysis along with logical explanations, feel free to contact us. We provide high-quality Forex trading signals, trading consultancy, and price action trading course. Please feel free to contact us for any query. A simple 5-minute conversation with our expert will change your trading career. Source: www.forextradingforyou.com
  29. Technical parameters| (18th-22nd) February 2019 Possible entry point with critical support and resistance level. But when you trade this level make sure that you are using price action confirmation signal. We have prepared these key support and resistance level based on the Fibonacci retracement levels,100&200 SMA, key swings point and chart patterns formed in the higher time frame. Focus on GBPUSD technical analysis. EURUSD Look for selling opportunity near the critical resistance. First critical Resistance: click here (https://forextradingforyou.com/technical-analysis-on-all-major-pairs-18th-february-2019) Second critical Resistance: 1.181111 First critical Support: click here (https://forextradingforyou.com/technical-analysis-on-all-major-pairs-18th-february-2019) Second Critical Support: 1.12201 Overall Sentiment: Slightly bearish For GBPUSD, AUDUSD, NZUSD, and GBPJPY analysis Visit www.forextradingforyou.com All the technical parameters are applicable from 18th February to 22nd February 2019. The overall sentiment indicates the prevailing trend of the market. We highly recommend you to trade in favor of the market sentiment (overall sentiment) to reduce the risk exposure in trading. Trade the critical support and resistance level with price action confirmation signal. If you want to get the technical chart analysis along with logical explanations, feel free to contact us. We provide high-quality Forex trading signals, trading consultancy, and price action trading course. Please feel free to contact us for any query. A simple 5-minute conversation with our expert will change your trading career. Source: www.forextradingforyou.com
  1. Load more activity

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×