Jump to content

ফোরাম ফিড

This stream auto-updates     

  1. Past hour
  2. AUDUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) পেয়ারটি ০.৬৮২০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে। ০.৬৮৪০ প্রাইস লেভেল ভেঙ্গে নিচে নামলে বিয়ারিশ ট্রেন্ড পরিবর্তন হতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ০.৬৮২০,০.৬৮১০,০.৬৭৯৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ০.৬৮৪০,০.৬৮৫৫,০.৬৮৭৫ সেল এন্ট্রি: ০.৬৮২০ স্টপ লস: ০.৬৮৪০ ট্রেডের সম্ভাবনা: মাঝারি টেক প্রফিট: ০.৬৮১০,০.৬৭৯৫ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেট আপট্রেন্ডে রয়েছে। আমরা বাই পজিশন নেওয়ার জন্য ০.৬৮৬০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে কিছু সিগন্যালের অপেক্ষা করছি। ০.৬৮১০ প্রাইস লেভেল ভেঙ্গে নিচে নামলে বুলিশ ট্রেন্ড পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া হলো। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ০.৬৮১০,০.৬৭৮৫,০.৬৭৪৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ০.৬৮৬০,০.৬৮৯০,০.৬৯৩০ বাই এন্ট্রি: ০.৬৮১০ স্টপ লস: ০.৬৮৪০ ট্রেডের সম্ভাবনা: মাঝারি টেক প্রফিট: ০.৬৮৯০,০.৬৯৩০ USDJPY সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। পেয়ারটি ১০৮.৭০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলের দিকে একটি ঊর্ধ্বমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া যেতে পারে। সাপোর্ট লেভেল: ১০৮.৪০,১০৮.২০,১০৭.৯০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১০৮.৭০,১০৮.৮৫,১০৯.১০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগন্যাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেট ডাউনট্রেন্ডে রয়েছে। আমরা সেল পজিশন নেওয়ার জন্য ১০৮.৪০ সাপোর্ট লেভেলে কিছু সিগন্যালের অপেক্ষা করছি। ১০৯.০০ প্রাইস লেভেল ভেঙ্গে উপরে উঠলে বিয়ারিশ ট্রেন্ড পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১০৮.৪০,১০৮.০৫,১০৭.৫০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১০৯.০০,১০৯.৩০,১০৯.৭৫ সেল এন্ট্রি: ১০৮.৪০ স্টপ লস: ১০৯.০০ ট্রেডের সম্ভাবনা: মাঝারি টেক প্রফিট: ১০৮.০৫,১০৭.৫০
  3. জার্মান ট্রেড ডেটার কারনে ইউরোতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া! আজ সোমবার সকাল 2.00 টায়, ডাস্টাটিস জার্মানির বৈদেশিক বাণিজ্যের তথ্য প্রদান করেছে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে অক্টোবরে রফতানি 0.3 শতাংশ এবং আমদানি 0.1 শতাংশ হ্রাস পাবার ফোরকাষ্ট দেওয়া হয়েছে। এই তথ্য জানার আগেই, ইউরো তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী কারেন্সীগুলোর বিপরীতে মিশ্র ট্রেডিং করছে। ইউরো পাউন্ডের বিপরীতে দাম কমার পরে, এটি অন্যান্য বড় কারেন্সীগুলোর বিপরীতে দাম বেড়েছে, বর্তমানে ইউরো গ্রিনব্যাকের বিপরীতে 1.1062, ইয়েনের বিপরীতে 120.13, ফ্রাঙ্কের বিপরীতে 1.0958 এবং পাউন্ডের বিপরীতে 0.8397 ডলারে ট্রেডিং করছে। ইকোনমিক নিউজগুলো পেতে ভিজিট করুন: https://www.instaforex.org/forex-news
  4. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেট ১.১০৭০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্টিং করছে। আমরা সেল পজিশন নেওয়ার জন্য কিছু সিগন্যালের অপেক্ষা করছি বা ১.১০৩৫ সাপোর্ট লেভেলে ব্রেক হতে পারে। পরবর্তী গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১.১০৯০। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.১০৩৫,১.১০২০,১.০৯৯৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.১০৭০,১.১০৯০,১.১১২০ টেক প্রফিট: ১.১০২০,১.০৯৯৫ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ সপ্তাহ) পেয়ারটি ১.১০৪০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে বা ১.১১১৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে ব্রেক হতে পারে। সেক্ষেত্রে বাই পজিনশ নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.১০৪০,১.১০০০,১.০৯৪০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.১১১৫,১.১১৬০,১.১২৪০ টেক প্রফিট: ১.১০২০,১.০৯৯৫ GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেটের ১.৩১৭০ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল এবং ১.৩১৭০ বাই পজিশন দেওয়া হয়েছে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.৩১১০,১.৩০৭০,১.৩০০০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.৩২০০,১.৩২৫০,১.৩৩৩০ বাই এন্ট্রি: ১.৩১৭০ স্টপ লস: ১.৩১১০ ট্রেডের সম্ভাবনা: মাঝারি টেক প্রফিট : ১.৩২০০,১.৩২৫০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ সপ্তাহ) পেয়ারটি ১.৩০৮০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট নিন্মমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.৩০৮০,১.৩০৩০,১.২৯৫০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.৩২০০,১.৩২৬০,১.৩৩৬০
  5. Today
  6. EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস (৯ই ডিসেম্বর, ২০১৯) বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউন্ট ক্রয় লেভেলঃ 1.1111, স্ট্রং রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1105, অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1094, ইনার সেল এরিয়াঃ 1.1083, টার্গেট ইনার এরিয়াঃ 1.1057, ইনার বাই এরিয়াঃ 1.1031, অরিজিনাল সাপোর্টঃ 1.1020, স্ট্রং সাপোর্ট: 1.1009, ব্রেকআউট সেল লেভেল: 1.1003, মন্তব্য: ট্রেডারারা ইউরোপিয়ান ট্রেডিং সেশনে সেন্টিক্স ইনভেস্টর কনফিডেন্স এবং জার্মান ট্রেড ব্যালান্স ইকোনমিক ডাটাগুলো পাওয়া যাবে। এছাড়াও আমেরিকান ট্রেডিং সেশনে কোন ইকোনমিক ডাটা পাওয়া যাবে না। ফলে ফান্ডামেন্টাল নিউজ থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটি নিন্ম মধ্যম মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: tiny.cc/93jfhzমার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  7. কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট কারেন জনের মতে, পাউন্ড/ডলার পেয়ারটি মে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.৩১৮৭ তে ক্লোজ হতে পারে। পাউন্ড/ডলার পেয়ারটি ১.৩১৫০ প্রাইসের উপরে অবস্থান করছে। পেয়ারটির ক্ষেত্রে পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল হবে ১.৩১৫৬। পেয়ারটি ১.৩১৫৬ প্রাইসকে অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.৩১৬৭ প্রাইসে বাধাপ্রাপ্ত হয়ে, পুনরায় প্রাইস বাড়তে পারে। সেক্ষেত্রে প্রত্যাশা করা হচ্ছে, আজকের সেশনে পেয়ারটি মে মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.৩১-তে ক্লোজ হতে পারে। পেয়ারটির প্রাইস কমতে শুরু হলে পেয়ারটির বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.২৯৫১।
  8. USD/CAD রেসিস্ট্যান্সের নিচে রয়েছে এবং নিম্নমুখী প্রবণতার সম্ভাবনা রয়েছে। ট্রেডিংয়ের পরামর্শ প্রবেশ: 1.32701 প্রবেশের কারণ: 61.8% ফিবানচি রিট্রাসমেন্ট, গ্রাফিক্যাল সুইং হাই মুনাফা গ্রহণ : 1.32270 মুনাফা গ্রহণ লেভেল নির্ধারণের কারণ: 38.2% ফিবানচি রিট্রাসমেন্ট স্টপ লস: 1.33270 এখানে স্টপ লস নির্ধারণের কারণ: অনুভূমিক সুইং হাই *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  9. সুইস বেকারত্বের ডাটা প্রকাশের পরে ফ্রাঙ্ক আংশিক পরিবর্তন মঙ্গলবার ET সময় 1:45 টায় সুইজারল্যান্ডের স্টেট সেক্রেটারিয়ার ফর ইকোনমিক এফেয়ার্সের ত্রৈমাসিক অর্থনৈতিক পূর্বাভাস প্রকাশ করেছে। এর ডাটা প্রকাশের পর, সুইস ফ্রাঙ্ক তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী মুদ্রাগুলোর বিপরীতে আংশিক পরিবর্তন হয়েছে। ET সময় 1:50 am এর দিকে ফ্রাঙ্কের বিপরীতে ইয়েনের 109.62 তে, ইউরোর 109.62 তে, পাউন্ডের বিপরীতে 1.3048, এবং ডলারের বিপরীতে 0.9935 তে লেনদেন হয়। আরো ফরেক্স সংবাদঃ
  10. USDJPY পেয়ারটির প্রাইস গত সপ্তাহে কমেছিল। এ সপ্তাহে পেয়ারটিকে প্রভাবিত করতে পারে জাপানের জিডিপি, যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রাস্ফীতি এবং ফেডারেল রিজার্ভ রেট ডিসিশন। USDJPY ফান্ডামেন্টাল নিউজ জাপানের কনজিউমার সেক্টর কিছুটা অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে। সেপ্টেম্বরে জাপানের কনজিউমার সেক্টরে শতকরা ৫.১% কমেছে। ২০১৯ সালে প্রথমবারের মতো এ সেক্টরটি খারাপ করেছে। গত কয়েকবারের রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং সেক্টর খারাপ করলেও সার্ভিস সেক্টর তুলনামূলকভাবে ভাল করছে। নভেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ISM মেনুফেকচারিং সেক্টর থেকে ৪৮.১ পয়েন্ট এবং নন-মেনুফেকচারিং পিএমআই থেকে ৫৩.৯ পয়েন্ট এসেছে। তবে শুক্রবারের ইমপ্লোইমেন্ট ডাটা মার্কিন ডলারকে পুনরায় শক্তিশালী করেছে। এবারের ইমপ্লোইমেন্ট রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার জব যোগ হয়েছে। এটা গতবারের ১ লক্ষ ২৮ হাজারের তুলনায় বেশ ভাল এসেছে। বেতন (ওয়েজ) প্রত্যাশিত ০.৩% থেকে কমে ০.২% এসেছে এবং বেকারত্বের হার ৩.৬% থেকে কমে ৩.৫% এসেছে। এটা প্রত্যাশিত ৩.৬% এর নিচে এসেছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে এটা কিছুটা সহায়ক ছিল। কনজিউমার সেন্টিমেন্ট ৯৫.৭ থেকে বেড়ে ৯৯.২ এসেছে। USDJPY টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আমরা ১১২.২৫ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। এপ্রিল মাসের শেষের দিকে ১১১.৬২ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১১০.৬২। পেয়ারটির জন্য পরবর্তীতে ১০৯.০৭ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পেয়ারটির বর্তমান রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১০৮.৭০ এবং পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ১০৮.১০। অক্টোবরের শরুর দিকে ১০৭.৩০ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ১০৬.৬১। আগস্ট মাসের শেষের দিকে ১০৫.৫৫ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। পেয়ারটির বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১০৫.৫৫। USDJPY প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো শেষ কথা বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে USDJPY নিরপেক্ষ অবস্থানে থাকতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের মধ্যে বানিজ্য নিয়ে এখনও অনিশ্চয়তা বিরাজ করছে। বানিজ্য সম্পর্কে যে কোন চুক্তি ইয়েনের উপর প্রভাব ফেলতে পারে। এছাড়াও জাপানী ইকোনমি বেশ দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এ সপ্তাহে পেয়ারটি নিরপেক্ষ অবস্থানে থাকতে পারে।
  11. Market Analysis and News.

    Date : 9th December 2019. Events to Look Out For Next Week 9th December 2019. *Following the OPEC meeting this week and the surprisingly strong US payroll data, three interest rate decisions are scheduled next week. Other than Central Banks, the event of the week is the UK Parliamentary Election on Thursday. Monday – 09 December 2019 * RBA’s Governor Lowe speech (AUD, GMT 22:05) – Due to speak at the AusPayNet Summit, in Sydney. Tuesday – 10 December 2019 * Consumer Price Index (CNY, GMT 01:30) – September’s Chinese CPI is seen unchanged at 0.7% while the PPI figure is expected to decline further to -1.2%. The overall reading for CPI is estimated to post a gain up to 2.9% y/y. * ZEW Economic Sentiment (EUR, GMT 10:00) – Economic Sentiment for October is projected at -27 from the -22.5 seen last month, as the current conditions indicator for Germany turned negative. The overall Eurozone reading though is expected to decline slightly further to -33.0 from -22.4. A lower than expected outcome, ties in with the stagnation in market sentiment at the start of the month. Wednesday – 11 December 2019 * Inflation Rate (USD, GMT 13:30) – A 0.2% November headline CPI rise is expected with a 0.2% core price increase, following respective October readings of 0.4% and 0.2%. As-expected gains would result in a headline y/y increase of 2.0%, up from 1.8% last month. Core prices should set a 2.3% pace for a second consecutive month. We expect an up-tilt in y/y gains into Q1 of 2020 due to harder comparisons and some lift from tariff increases that should leave gains in the 2.4% area, which may help ease concerns about persistent inflation undershoots of the Fed’s 2% objective. * Interest Rate decision and conference (USD, GMT 19:00) – The FOMC is widely seen on hold even after the robust payroll data, with no shift in rate policy for the foreseeable future. Indeed, the data validated the pause and left policymakers in a state of Fed Nirvana, at least for now. Fed Chair Powell will reiterate the economy and policy are in a “good place.” There is little risk of any downside “material changes” in the outlook anytime soon given the solid path for jobs growth. And, GDP will likely continue to modestly outpace the official Fed estimates, just as a benign inflation trajectory caps risk of rate hikes from the Fed as well. Hence, the focus will be on the Fed’s quarterly forecast update (SEP) and Chair Powell’s press conference. Thursday- 12 Decemmber 2019 * Parliamentary Election – Brexit will be a focal point with the December 12 election. While the Conservative party with a working majority is the clear odds-on favourite outcome of the election, the outcome of the general election is by no means a sure-fire certainty, however, especially in light of the predictive failures of pollsters and betting markets at elections in the UK and elsewhere in recent years. * SNB Interest Rate Decision and Conference (EUR, GMT 08:30) – The central bank is widely expected to keep policy settings unchanged as ongoing uncertainty on the global growth outlook, along with weakness in the Eurozone economy, support the view that the central bank’s negative interest rate and the threat of ad hoc currency interventions remain necessary to keep the franc under control, and prevent inflation from falling. The central bank has kept the door to additional measures open as it keeps a close eye on geopolitical trade tensions and Brexit developments. * ECB Interest Rate Decision and Conference (EUR, GMT 12:45 &13;30) – Lagarde’s first press conference. The “risk” is that it will be equally uneventful as her testimony before the European Parliament. It is very likely on Thursday, to be confirmed that: The ECB remains ready to act again and tweak all its measures if necessary, but has already done a lot and now needs to keep an eye on the side effects of the very expansionary monetary policy, while politicians need to do their bit to support the economy.The ECB won’t be reducing the degree of stimulus any time soon and we effectively see the central bank on hold through next year, unless there is a major change in circumstance. Friday – 13 December 2019 * Retail Sales and Industrial Production (USD, GMT 13:30) – A gain is expected up to 0.3% November for both the retail sales headline and the ex-auto figures, following a 0.3% October headline with a 0.2% ex-auto figure. There’s considerable uncertainty, however, given seasonal distortions around the holidays, especially including Black Friday and Cyber Monday swings, and with six fewer shopping days between Thanksgiving and Christmas. Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Click HERE to access the full HotForex Economic calendar. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Click HERE to register for FREE! Click HERE to READ more Market news. Andria Pichidi Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  12. GBPUSD পেয়ারটির জন্য গত সপ্তাহটি বেশ ভাল ছিল। গত সপ্তাহে পেয়ারটির প্রাইস বেড়ে ১.৩১৬৫-তে এসেছিল।এ সপ্তাহের গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্টগুলোর মধ্যে রয়েছে, ব্রিটিশ জিডিপি এবং মেনুফেকচারিং প্রডাকশন। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং GBPUSD পেয়ারটির টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। ব্রিটিশ মেনুফেকচারিং পিএমআই দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। এছাড়াও ব্রিটিশ সার্ভিস সেক্টর ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। তবে ব্রিটিশ রাজনৈতিক কারণে গত সপ্তাহে পাউন্ডের প্রাইস বেড়েছিল। গত কয়েকবারের রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং সেক্টর খারাপ করলেও সার্ভিস সেক্টর তুলনামূলকভাবে ভাল করছে। নভেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ISM মেনুফেকচারিং সেক্টর থেকে ৪৮.১ পয়েন্ট এবং নন-মেনুফেকচারিং পিএমআই থেকে ৫৩.৯ পয়েন্ট এসেছে। তবে শুক্রবারের ইমপ্লোইমেন্ট ডাটা মার্কিন ডলারকে পুনরায় শক্তিশালী করেছে। এবারের ইমপ্লোইমেন্ট রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার জব যোগ হয়েছে। এটা গতবারের ১ লক্ষ ২৮ হাজারের তুলনায় বেশ ভাল এসেছে। বেতন (ওয়েজ) প্রত্যাশিত ০.৩% থেকে কমে ০.২% এসেছে এবং বেকারত্বের হার ৩.৬% থেকে কমে ৩.৫% এসেছে। এটা প্রত্যাশিত ৩.৬% এর নিচে এসেছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে এটা কিছুটা সহায়ক ছিল। কনজিউমার সেন্টিমেন্ট ৯৫.৭ থেকে বেড়ে ৯৯.২ এসেছে। GBPUSD প্রতিদিনের রেজিস্ট্যান্স এবং সাপোর্ট লাইনগুলো দেওয়া হলো ১.GDP মঙ্গলবার,বিকাল ০৩:৩০। গতবারের রিপোর্টে ব্রিটিশ জিডিপি শতকরা ০.১% ছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, অক্টোবরেও জিডিপি ০.১% আসতে পারে। ২.Manufacturing Production মঙ্গলবার,বিকাল ০৩:৩০। গত চারবারের রিপোর্টের মধ্যে মেনুফেকচারিং প্রডাকশন তিন বারের মতো খারাপ করেছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, অক্টোবরে এ সেক্টর থেকে ০.১% আসতে পারে। ৩.RICS House Price Balance বৃহস্পতিবার,ভোর ০৫:০১। হাউজিং সেক্টর গত কয়েকবারের রিপোর্টে খারাপ অবস্থানে রয়েছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবারও সেক্টরটি ডাউনট্রেন্ডে থাকতে পারে। ৪.Parliamentary Elections ব্রিটিশ ইকোনমির অনেকাংশ নির্ভর করছে ব্রেক্সিটের উপর। এ নির্বাচনে বরিস জনসন জিতবে নাকি করবিন জিতবে এ নিয়ে ভোটারদের মধ্যে অস্থিরতা বিরাজ করছে। সুতরাং এর উপর ব্রিটিশ ইকোনমির অনেকাংশ নির্ভর করছে। ৫.Consumer Inflation Expectations শুক্রবার, বিকাল ০৩:৩০। অক্টোবরে এ সেক্টরে ৩.১% পয়েন্ট থেকে বেড়ে ৩.৩% এসেছে। ‍প্রত্যাশা করা হচ্ছে, নভেম্বরে সেক্টরটি আপট্রেন্ডে থাকবে। ৬.CB Leading Index শুক্রবার,রাত ০৮:৩০। সেপ্টেম্বরে এ সেক্টরে ০.৪% কমেছিল। বর্তমানে আমরা নভেম্বরের ডাটার অপেক্ষা করছি। GBPUSD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো আমরা ১.৩৫০০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। মার্চ মাসের শুরুর দিকে ১.৩৩৭৫ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.৩২১৭। গত সপ্তাহে পেয়ারটি ১.৩১৭০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্ট করেছিল। ২০১৮ সালের নভেম্বরে ১.৩০৭০ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। অক্টোবরের মাঝামাঝিতে ১.৩০০০ গুরুত্বপূর্ণ একটি রাউন্ড নাম্বার ছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ছিল ১.২৯১০। পরবর্তীতে ১.২৮৫০ সাপোর্ট লেভেলকে অনুসরণ করা হয়। অক্টোবরের মাঝামাঝিতে ১.২৭২৮ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.২৭২৮। শেষ কথা এ সপ্তাহে GBPUSD পেয়ারটি নিরপেক্ষ অবস্থানে থাকতে পারে। ১২ ডিসেম্বরের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে পাউন্ড বেশ শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাশা করছেন, এবারের নির্বাচনে কনজার্ভ পার্টি বিজয় লাভ করতে পারে। বরিস জনসনের বিজয় নিয়ে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। এর ফলে পাউন্ড বেশ শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। তবে নির্বাচনে লেবার পার্টি বিজয় হলে পাউন্ড/ডলার পেয়ারটির প্রাইস কমার সম্ভাবনা রয়েছে।
  13. গত সপ্তাহের শেষের দিকে ইউরো/ডলারের প্রাইস কমলেও সাপ্তাহিক চার্টে পেয়ারটি আপট্রেন্ডে ছিল। এ সপ্তাহে পেয়ারটির জন্য ছয়টি ইভেন্ট রয়েছে। ইভেন্টগুলো মধ্যে অন্যতম ইসিবি (ECB) রেট ডিসিশন। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং EURUSD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। জার্মান এবং ইউরোজোন মেনুফেকচারিং পিএমআই নেতিবাচক অবস্থানে রয়েছে। নভেম্বরে জার্মান ও ইউরোজোনের মেনুফেকচারিং পিএমআই থেকে যথাক্রমে ৪৪.১ এবং ৪৬.৯ পয়েন্ট এসেছিল। সার্ভিস সেক্টর কিছুটা ভাল অবস্থানে ছিল, কারণ সার্ভিস সেক্টর ৫০ পয়েন্টের উপরে রয়েছে। ইউরোজোনের অন্যান্য ডাটাগুলো নেতিবাচক অঞ্চলে ছিল। যেমন ইউরোজোন রিটেইল সেলস ০.৬% কমেছে এবং জার্মান ইন্ডাস্ট্রীয়াল প্রডাকশন ১.৭% কমেছে। গত কয়েকবারের রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং সেক্টর খারাপ করলেও সার্ভিস সেক্টর তুলনামূলকভাবে ভাল করছে। নভেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ISM মেনুফেকচারিং সেক্টর থেকে ৪৮.১ পয়েন্ট এবং নন-মেনুফেকচারিং পিএমআই থেকে ৫৩.৯ পয়েন্ট এসেছে। তবে শুক্রবারের ইমপ্লোইমেন্ট ডাটা মার্কিন ডলারকে পুনরায় শক্তিশালী করেছে। এবারের ইমপ্লোইমেন্ট রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার জব যোগ হয়েছে। এটা গতবারের ১ লক্ষ ২৮ হাজারের তুলনায় বেশ ভাল এসেছে। বেতন (ওয়েজ) প্রত্যাশিত ০.৩% থেকে কমে ০.২% এসেছে এবং বেকারত্বের হার ৩.৬% থেকে কমে ৩.৫% এসেছে। এটা প্রত্যাশিত ৩.৬% এর নিচে এসেছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে এটা কিছুটা সহায়ক ছিল। কনজিউমার সেন্টিমেন্ট ৯৫.৭ থেকে বেড়ে ৯৯.২ এসেছে। EURUSD প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো ১.German Trade Balance সোমবার,দুপুর ০১:০০। জার্মান ট্রেড ব্যালেঞ্জ গত কয়েকবারের রিপোর্টে বেশ ভাল অবস্থানে রয়েছে। সেপ্টেম্বরে ট্রেড ব্যালেঞ্জ ১৮.১ বিলিয়ন থেকে বেড়ে ১৯.২ বিলিয়নে এসেছে। অক্টোবরেও আমরা এ ধরণের একটি রিপোর্টের অপেক্ষা করছি। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবার ১৯.০ বিলিয়ন আসতে পারে। ২.Sentix Investor Confidence সোমবার,বিকাল ০৩:৩০। এ সেক্টরটি কিছুটা মন্দা অবস্থার মধ্যে রয়েছে। অক্টোবরে এ সেক্টরে -১৬.৮ পয়েন্ট এসেছিল। নভেম্বরে -৪.৫ পয়েন্ট এসেছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ডিসেম্বরে -৫.৪ পয়েন্ট আসতে পারে। ৩.German ZEW Economic Sentiment মঙ্গলবার, বিকাল ০৪:০০। নভেম্বরে জার্মান ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট -২২.৮ থেকে কমে -২.১ পয়েন্ট এসেছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, ডিসেম্বরে বেড়ে ১.১ পয়েন্ট আসতে পারে। এটা জার্মান একানমির জন্য একটি পজিটিভ দিক। ৪.German Final CPI বৃহস্পতিবার, দুপুর ০১:০০। ইউরোজোন মুদ্রাস্ফীতি দুর্বল অবস্থানে রয়েছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, জার্মান ফাইনাল CPI এবার -০.৮% আসতে পারে। ৫.Industrial Production বৃহস্পতিবার, বিকাল ০৪:০০। সেপ্টেম্বরে মেনুফেকচারিং প্রডাকশন ০.৪% থেকে কমে ০.১% এসেছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, অক্টোবরে ০.২% আসতে পারে। ৬.ECB Rate Decision বৃহস্পতিবার,বিকাল ০৬:৪৫। ইসিবি (ECB) ইন্টারেস্ট রেট অপরিবর্তনীয় রাখতে পারে। ইসিবি রেট ডিসিশনের সময় ইউরো/ডলার পেয়ারটির মুভমেন্ট বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। সুতরাং বিনিয়োগকারীদের জন্য এটা গুরুত্বপূর্ণ একটি ইভেন্ট। EURUSD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো জুন মাসে ১.১৩৯০ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.১৩৪৫। জুলাই মাসের শুরুর দিকে পেয়ারটি ১.১২৯০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলে টেস্ট করেছিল। পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.১২১৫। নভেম্বরের শুরুর দিকে ১.১১১৯ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল। গত সপ্তাহে পেয়ারটির জন্য ১.১০২৫ গুরুত্বপূর্ণ রেজিস্ট্যান্স লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে ১.০৮২৯ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.০৬৯০। শেষ কথা বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে EURUSD পেয়ারটির প্রাইস কমতে পারে। জার্মান ইকোনমি বর্তমানে নমনীয় অবস্থানে রয়েছে। এছাড়াও জার্মান ইকোনমিতেও তেমন অগ্রগতি পরিলক্ষিত হচ্ছে না। ইউরোজোনের তুলনায় যুক্তরাষ্ট্রের ইকোনমি তুলনামূলকভাবে ভাল করছে। সুতরাং এ সপ্তাহে ইউরোর প্রাইস কমতে পারে।
  14. Yesterday
  15. গত সপ্তাহে USDCAD পেয়ারটির ক্ষেত্রে কিছুটা ভোলাটিলিটি দেখা গিয়েছিল।গত সপ্তাহে মার্কিন ডলারের বিরুদ্ধে কানাডিয়ান ডলার কিছুটা শক্তিশালী অবস্থানে থাকলেও পরবর্তীতে কারেন্সিটির প্রাইস পুনরায় কমতে থাকে।এ সপ্তাহে পেয়ারটিকে প্রভাবিত করার মতো কানাডিয়ান তেমন কোন ইভেন্ট নেই। তবে যুক্তরাষ্ট্রের ডাটাগুলো পেয়ারটিকে প্রভাবিত করতে পারে। এখানে এ সপ্তাহের মার্কেট আউটলুক এবং USDCAD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস আলোচনা করা হলো। অক্টোবরে কানাডিয়ান পিএমআই ৪৮.২ পয়েন্ট আসলেও নভেম্বরে বেড়ে ৬০.০ পয়েন্ট এসেছে। এটা প্রত্যাশিত ৪৯.৩ পয়েন্টকে খুব সহজেই অতিক্রম করেছে। গত সপ্তাহে ডানাডিয়ান ডলারের প্রাইস বাড়লেও পরবর্তীতে জব ডাটার কারণে কারেন্সিটির প্রাইস কমেছিল। নভেম্বরে কানাডার ইমপ্লোইমেন্ট ডাটা কমে ৭১ হাজার ২০০ এসেছে। যেখানে প্রত্যাশা করা হয়েছিল এর থেকে আরও ১০ হাজার বেশি আসবে।২০১৮ সালের জানুয়ারির পর প্রথমবারের মতো এ সেক্টরটি এতো খারাপ এসেছে। গতবারের রিপোর্টে কানাডায় বেকারত্বের হার ছিল শতকরা ৫.৫%। তবে এবারের রিপোর্টে বেড়ে ৫.৯% এসেছে। গত কয়েকবারের রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং সেক্টর খারাপ করলেও সার্ভিস সেক্টর তুলনামূলকভাবে ভাল করছে।নভেম্বর মাসে যুক্তরাষ্ট্রের ISM মেনুফেকচারিং সেক্টর থেকে ৪৮.১ পয়েন্ট এবং নন-মেনুফেকচারিং পিএমআই থেকে ৫৩.৯ পয়েন্ট এসেছে। তবে শুক্রবারের ইমপ্লোইমেন্ট ডাটা মার্কিন ডলারকে পুনরায় শক্তিশালী করেছে। এবারের ইমপ্লোইমেন্ট রিপোর্টে যুক্তরাষ্ট্রে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার জব যোগ হয়েছে। এটা গতবারের ১ লক্ষ ২৮ হাজারের তুলনায় বেশ ভাল এসেছে।বেতন (ওয়েজ) প্রত্যাশিত ০.৩% থেকে কমে ০.২% এসেছে এবং বেকারত্বের হার ৩.৬% থেকে কমে ৩.৫% এসেছে।এটা প্রত্যাশিত ৩.৬% এর নিচে এসেছে। মার্কিন ডলারের প্রাইস বৃদ্ধিতে এটা কিছুটা সহায়ক ছিল। কনজিউমার সেন্টিমেন্ট ৯৫.৭ থেকে বেড়ে ৯৯.২ এসেছে। USDCAD প্রতিদিনের সাপোর্ট এবং রেজিস্ট্যান্স লাইনগুলো দেওয়া হলো ১.Housing Starts সোমবার,রাত ০৭:১৫। সেপ্টেম্বরে কানাডায় ২ লক্ষ ২২ হাজার বাড়ি নির্মাণ শুরু হলেও, অক্টোবরে কমে ২ লক্ষ ২ হাজারে এসেছে। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, নভেম্বরের রিপোর্টে কিছুটা পরিবর্তন হয়ে ২ লক্ষ আসতে পারে। ২.Building Permits সোমবার, রাত ০৭:৩০।সেপ্টেম্বরে কানাডায় বিল্ডিং অনুমোধন ৬.৫% কমেছে। যেখানে প্রত্যাশা করা হয়েছিল ১.৯% কমবে।অ্যানালাইসিস্টগণ প্রত্যাশা করেছেন, অক্টোবরে বিল্ডিং অনুমোধন বেড়ে ৩.৫% আসতে পারে। ৩.NHPI বৃহস্পতিবার,রাত ০৭:৩০। সেপ্টেম্বরে এ সেক্টরে শতকরা ২.০% বেড়েছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, অক্টোবরেও এ সেক্টরটি আপট্রেন্ড অব্যাহত রাখতে পারে। USDCAD টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস টেকনিক্যাল লাইনগুলো উপর থেকে নিচে দেওয়া হলো আমরা ১.৩৬৬০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল থেকে শুরু করছি। পরবর্তীতে ১.৩৫৫০ রেজিস্ট্যান্স লেভেলকে অনুসরণ করা হয়। জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে ১.৩৪৪৫ গুরুত্বপূর্ণ একটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল।পরবর্তী রেজিস্ট্যান্স লেভেল ছিল ১.৩৩৮৫। পরবর্তীতে পেয়ারটি ১.৩৩০০ প্রাইস থেকে কমতে শুরু করে।পেয়ারটির ক্ষেত্রে পরবর্তীতে ১.৩২৬৫ এবং ১.৩১৫০ গুরুত্বপূর্ণ দুইটি রেজিস্ট্যান্স লেভেল হিসেবে কাজ করেছিল। অক্টোবরের শেষের দিকে ১.৩১০০ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। পরবর্তী সাপোর্ট লেভেল ১.৩০৪৮ এবং ১.৩০০। ২০১৮ সালের অক্টোবরের শেষের দিকে ১.২৯১৬ গুরুত্বপূর্ণ একটি সাপোর্ট লেভেল ছিল। বর্তমান সাপোর্ট লেভেল ১.২৯১৬। শেষ কথা ফরেক্স বিশেষজ্ঞদের মতে, এ সপ্তাহে USDCAD পেয়ারটি নিরপেক্ষ অবস্থানে থাকতে পারে। যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের বানিজ্য আলোচনা নিয়ে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে কনফিউজ রয়েছে। এছাড়াও এ সপ্তাহে ওপেক তেলের উৎপাদন কমাতে পারে। এর ফলে কানাডিয়ান ডলারের প্রাইস কমতে পারে।
  16. ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ডলারের প্রাইস কিছুটা কমেছিল। তবে এ সপ্তাহে গুরুত্বপুর্ণ ইভেন্টগুলোর মধ্যে ফেড এবং ইসিবি ডিসিশন অন্যতম। এছাড়াও প্রত্যাশিত ব্রিটিশ নির্বাচনে জনসন নাকি করবিন জিতবে। এ নিয়ে কিছু প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে জন সাধারণের মনে। সুতরাং এ সপ্তাহে মার্কেটে মুভমেন্ট বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। নিচে এ সপ্তাহের প্রধান ইভেন্টগুলো সম্পর্কে আলোচনা করা হলো। গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের মেনুফেকচারিং সেক্টর প্রত্যাশিত লেভেলের নিচে এসেছিল। এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ড্রাস্ট্রীয়াল সেক্টর কিছুটা নমনীয় অবস্থানে ছিল। আমেরিকা এবং চীনের বানিজ্য আলোচনা থেমে রয়েছে। এ সপ্তাহের প্রধান ইভেন্টগুলোর মধ্যে রয়েছে। ১.UK GDP মঙ্গলবার, দুপুর ০৩:৩০। তৃতীয় প্রান্তীকে ব্রিটিশ জিডিপি শতকরা ০.৩% বেড়েছিল। তবে গত দুই মাস যেমন আগস্ট এবং সেপ্টেম্বর যথাক্রমে ০.২%,০.১% কমেছিল। এবারও জিডিপি খারাপ আসলে পাউন্ডের উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে। ২.German ZEW Economic Sentiment মঙ্গলবার,বিকাল ০৪:০০। যুক্তরাষ্ট্রের জিডিপির মতো জার্মান ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট ইউরো/ডলার পেয়ারটির জন্য গুরুত্বপূর্ণ। নভেম্বরে জার্মান ইকোনমিক সেন্টিমেন্ট -২.১ এসেছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবার এ সেক্টরটি গতবারের তুলনায় কিছুটা ভাল করতে পারে। ৩.US Inflation বুধবার, সন্ধ্যা ০৭:৩০। যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রাস্ফীতি বেশ কয়েক মাস আগে শক্তিশালী অবস্থানে থাকলেও গতবার মুদ্রাস্ফীতি ফেড নির্ধারিত টার্গেট ২% এর নিচে নেমে ১.৬% এসেছিল। তবে কোর সিপিআই শতকরা ০.২% বেড়েছিল। প্রত্যাশা করা হচ্ছে, এবারও গতবারের মতো আসতে পারে। ৪.Fed decision বুধবার,রাত ০১:০০। কনফারেন্স ০১:৩০। কয়েকদিন আগে ফেডারেল রিজার্ভ চেয়ারম্যান জেরেমি পাওয়েল বলেছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের ইকোনমি বর্তমানে ভাল অবস্থানে রয়েছে। তবে গতবার বেশ কিছু ইভেন্ট প্রত্যাশিত লেভেলের নিচে এসেছিল। যেমন মেনুফেকচারিং এবং মুদ্রাস্ফীতি রিপোর্ট। তবে নন ফার্ম পে-রোলস রিপোর্ট কিছুটা ভাল করেছিল। সুতরাং এবার ফেডারেল রিজার্ভ ইন্টারেস্ট রেট কমাবে নাকি বাড়াবে সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। ৫.UK elections বৃহস্পতিবার,রেজাল্ট পাওয়া যাবে শুক্রবার। যুক্তরাজ্যে চতুর্থ বারের মতো পার্লামেন্ট নির্ধারিত সময়ে পূর্বে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিনিয়োগকারীরা প্রত্যাশা করছেন, এবারের নির্বাচনে বরিস জনসনের বিজয়। তার বিজয়ের ফলে ব্রিটিশ ইকোনমি স্বাভাবিক অবস্থানে থাকবে। ৬.Swiss Rate decision বৃহস্পতিবার,বিকাল ০৫:৪৫। সুজারল্যান্ড ব্যাংক গত পাঁচ বছরের মতো ইন্টারেস্ট রেট অপরিবর্তনীয় রেখেছে। এবারও ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেটে কোন ধরণের পরিবর্তন আনলে মার্কেটে বড় ধরণের মুভমেন্ট হতে পারে। ৭.ECB decision বৃহস্পতিবার, বিকাল ০৫:৪৫, কনফারেন্স ০৬:৩০। ক্রিস্টিয়ান লেগার্ড ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংকের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পর প্রথমবারের মতো এটা রেট ডিসিশন। এবার ইউরোপিয়ান কেন্দ্রীয় ব্যাংক ইন্টারেস্ট রেট কমাবে নাকি বাড়াবে সেটা দেখার বিষয়। ৮.US retail ales শুক্রবার, সন্ধ্যা ০৭:৩০। অক্টোবরে যুক্তরাষ্ট্রের রিটেইল সেলস শতকরা ০.৩% বেড়েছিল। কোর রিটেইল সেলস শতকরা ০.২% বেড়েছিল। তবে এবারের রিপোর্টে কি আসবে সেটা দেখার বিষয়।
  17. Last week
  18. Market Analysis and News.

    Date : 6th December 2019. Happy Non-Farm Friday – 6th December 2019. Happy Non-Farm Friday – The Dollar majors have remained comfortably within their respective ranges from yesterday, ahead of trade talks, NFP and the OPEC+ decision. Always trade with strict risk management. Your capital is the single most important aspect of your trading business. Please note that times displayed based on local time zone and are from time of writing this report. Click HERE to access the full HotForex Economic calendar. Want to learn to trade and analyse the markets? Join our webinars and get analysis and trading ideas combined with better understanding on how markets work. Click HERE to register for FREE! Click HERE to READ more Market news. Andria Pichidi Market Analyst HotForex Disclaimer: This material is provided as a general marketing communication for information purposes only and does not constitute an independent investment research. Nothing in this communication contains, or should be considered as containing, an investment advice or an investment recommendation or a solicitation for the purpose of buying or selling of any financial instrument. All information provided is gathered from reputable sources and any information containing an indication of past performance is not a guarantee or reliable indicator of future performance. Users acknowledge that any investment in FX and CFDs products is characterized by a certain degree of uncertainty and that any investment of this nature involves a high level of risk for which the users are solely responsible and liable. We assume no liability for any loss arising from any investment made based on the information provided in this communication. This communication must not be reproduced or further distributed without our prior written permission.
  19. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। মার্কেটের ১.১০৬৫ একটি সাপোর্ট লেভেল এবং ১.১০৯০ বাই এন্ট্রি দেওয়া হয়েছে। ১.১০৬৫ প্রাইস লেভেল ভেঙ্গে নিচে নামলে বুলিশ ট্রেন্ড পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া যেতে পারে। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৬৫,১.১০৪০,১.১০১০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১১৫,১.১১৪৫,১.১১৯৫ সেল এন্ট্রি: ১.১০৯০ স্টপ লস: ১.১০৬৫ ট্রেডের সম্ভাবনা: হাই টেপ প্রফিট: ১.১১৪৫,১.১১৯৫ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) ট্রেন্ডের ধরণ : মার্কেট ঊর্ধ্বভাবে শক্তিশালী। পেয়ারটি ১.১০৬০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে ।সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। সাপোর্ট লেভেল : ১.১০৬০,১.১০৩০,১.০৯৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.১১২০,১.১১৫০,১.১২০০ GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট ( ১ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন ) পেয়ারটি ১.৩১০০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে ।সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল : ১.৩১০০,১.৩০৭০,১,৩০২০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল : ১.৩২০০,১.৩২৩০,১.৩২৮০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল ( পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ) পেয়ারটি ১.৩০৮০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে ।সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.৩০৮০,১.৩০৩০,১.২৯৫০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.৩২০০,১.৩২৬০,১.৩৩৬০
  20. Daily Forex News By XtreamForex

    Technical Overview of GBP/USD and USD/JPY Currency Pair GBP USD GBP traded higher against USD and closed at 1.3155. • Flat in a 1.3153/1.3161 range, but decent interest once Asia fully opened • EUR/GBP saw modest volumes with a very tight 0.8438/0.8341 range • Conservative election victory expectations attracted fresh demand this week • Initial significant resistance at 1.3168/90, 50% 2018/19 fall and May high • 1.3168 capped in NY, but is under pressure - strong resistance into 1.3200 • Close above 1.3200 would be a strong positive into the election next week • Sustained 1.3200 break would open the door to the 1.3380 2019 high in March • Close below the prior 1.3000 range high needed to undermine topside bias According to the Analysis, pair is expected to find support at 1.3120 and a fall through could take it to the next support level of 1.3105. The pair is expected to find its first resistance at 1.3166 and a rise through could take it to the next resistance level of 1.3181. USD JPY USD traded lower against JPY and closed at 108.75. USD/JPY's CTA positioning and notes that it's mainly close to neutral and sidelined around current levels. "CTAs having held back on going long in the USD/JPY market (buying USD and selling yen) during the recent risk-on phase, they have managed to avoid simultaneous stock selling and yen buying. CTAs' USD/JPY positions are close to neutral at present, and they are not currently moving either to buy or to sell. "With the latent risk of yen appreciation being suppressed, if fundamentals-oriented investors begin tentatively dip-buying below 23,000, this downward move by the Nikkei 225 could be brought to a close relatively soon. According to the Analysis, pair is expected to find support at 108.66 and a fall through could take it to the next support level of 108.58. The pair is expected to find its first resistance at 108.92, and a rise through could take it to the next resistance level of 109.00. Important Economic Events of the day • JPY: Household Spending y/y • USD: Nonfarm Payrolls • USD: Baker Hughes US Oil Rig Count • CAD: Employment Change For More information about the release time of news and its impact visit Economic Calendar Page!
  21. টেকনিক্যাল আনাল্যসিসঃ USD/JPY এর জন্য ইনট্রাডে লেভেল, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯ এশিয়ায়, জাপান আজ শীর্ষস্থানীয় সূচক, গৃহস্থালী ব্যয় y/y, এবং গড় নগদ উপার্জন y/y এর অর্থনৈতিক ডাটা প্রকাশ করবে। অন্যদিকে আমেরিকা আজ কিছু অর্থনৈতিক তথ্য প্রকাশ করবে যেমন, গ্রাহক ঋণ m/m, প্রিলিম ইউওএম মুদ্রাস্ফীতি প্রত্যাশা, চূড়ান্ত পাইকারী ইনভেন্টরিজ m/m, প্রিলিম ইউওএম গ্রাহক সংবেদন, বেকারত্বের হার, বেসরকারি কর্মসংস্থান পরিবর্তন, এবং গড় প্রতি ঘন্টা আয়ের পরিমাণ m/m। সুতরাং, প্রতিবেদনগুলো থেকে দেখা যায়, আজ USD/JPY এর ভোলাটিলিটি নিম্ম থেকে মধ্যম মানের হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজকের দিনের টেকনিক্যাল লেভেলঃ রেসিস্ট্যান্স. 3: 109.30. রেসিস্ট্যান্স. 2: 109.08 রেসিস্ট্যান্স. 1: 108.87 সাপোর্ট.1: 108.61 সাপোর্ট 2: 108.40 সাপোর্ট. 3: 108.18 সতর্কতাঃ ফরেক্স ট্রেডিং (বৈদেশিক বিনিময়) এর ক্ষেত্রে মার্জিন উচ্চ ঝুঁকি বহন করে এবং সকল বিনিয়োগের জন্য উপযুক্ত নাও হতে পারে। অধিক লিভারেজ আপনার জন্য অধিক ঝুঁকি বহন করবে আবার অধিক লাভের উৎস হিসাবেও কাজ করবে। ফরেক্সে লেনদেন করার পূর্বে আপনি অবশ্যই আপনার বিনিয়োগের লক্ষ্য, অভিজ্ঞতার স্তর এবং ঝুঁকির প্রবন নির্ধারণ করবেন। এর ফলে লোকসান এবং প্রাথমিক বিনিয়োগ হারানোর সম্ভাবনা সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন এবং এমন জায়গায় বিনিয়োগ করবেন না যেখানে সম্পূর্ণ মূলধন হারানোর সম্ভাবনা রয়েছে। আপনি বিনিয়োগ সম্পর্কিত সকল ঝুঁকি সম্পর্কে সচেতন থাকবেন এবং আপনার যদি কোন সমস্যা হয় তাহলে একজন অর্থ বিষয়ক পরামর্শকের কাছে পরামর্শ চাইতে দ্বিধা করবেন না। ফরেক্স বিশ্লেষকঃ Arief Makmur, *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  22. দুপুর ০১:০০ টার দিকে জার্মান ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রডাকশন রিপোর্ট প্রকাশিত হবে। বেশ কয়েকবারের রিলিজে ইউরোজোন এবং জার্মানের মেনুফেকচারিং সেক্টরে তেমন অগ্রগতি পরিলক্ষিত হয়নি। মেনুফেকচারিং সেক্টর ক্রমাগত ৫০ পয়েন্টের নিচে অবস্থান করছে। যেহেতু মেনুফেকচারিং সেক্টর খারাপ অবস্থানে রয়েছে। তাই ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রডাকশন রিপোর্টও গত কয়েকবার ধরে খারাপ অবস্থানে রয়েছে। সেপ্টেম্বরে জার্মান ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রডাকশন শতকরা ০.৬% কমেছিল। তবে প্রত্যাশা করা হচ্ছে, অক্টোবরে শতকরা ০.১% বাড়তে পারে। বাৎসরিক রিপোর্ট অনুযায়ী, সেপ্টেম্বরে প্রডাকশন শতকরা- ৪.৩% কমেছিল। অক্টোবরে গতবারের তুলনায় কিছু কমে- ২.৮% আসতে পারে। ইউরো/ডলার পেয়ারটি বর্তমানে ১.১১০০ প্রাইসের উপরে অবস্থান করছে।জার্মান ইন্ডাস্ট্রিয়াল প্রডাকশন মার্কেটে তেমন প্রভাব ফেলার সম্ভাবনা নেই।তবে ইভেন্টকে কেন্দ্র করে পেয়ারটির প্রাইস কিছুটা কমে ১.১০৯৭ প্রাইসে আসতে পারে। পরবর্তীতে পেয়ারটি পুনরায় ১.১১০০ প্রাইসের উপরে আসতে পারে।রিপোর্টটি প্রত্যাশিত লেভেলের উপরে বা নিচে আসলে মার্কেটে মুভমেন্ট কিছুটা বৃদ্ধি পেতে পারে। সেক্ষেত্রে ট্রেডারদের ইভেন্টগুলোর প্রতি নজর রাখা প্রয়োজন।
  23. EURUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) মার্কেটের ১.১০৬৫ একটি সাপোর্ট লেভেল এবং ১.১০৯০ বাই সিগন্যাল দেওয়া হয়েছে। ১.১০৬৫ প্রাইস লেভেল ভেঙ্গে উপরে উঠলে বুলিশ ট্রেন্ড পরিবর্তন হতে পারে। সেক্ষেত্রে সেল পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.১০৬৫,১.১০৫০,১.১০৩০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.১১১৫,১.১১৪৫,১.১১৯৫ বাই এন্টি: ১.১০৯০ স্টপ লস: ১.১০৬৫ ট্রেডের সম্ভাবনা: হাই টেক প্রফিট: ১.১১৪৫,১.১১৯৫ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার ) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ সপ্তাহ) পেয়ারটি ১.১০৫০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেন্টের সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাই পজিনশ নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.১০৫০,১.১০২০,১.০৯৮০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.১১২০,১.১১৫০,১.১২০০ GBPUSD সিগন্যাল ৬০ মিনিট (১ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ দিন) পেয়ারটি ১.৩০৬০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.৩০৬০,১.৩০২০,১.২৯৭০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.৩১৪০,১.৩১৭০,১.৩২২০ ২৪০ মিনিট (৪ ঘন্টার) চার্টের সিগনাল (পরবর্তী ৩ সপ্তাহ) পেয়ারটি ১.৩০২০ সাপোর্ট লেভেলের দিকে একটি নিন্মমূখী প্রাইস রিট্রেসমেমেন্টর সম্ভাবনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে বাই পজিশন নেওয়া যেতে পারে। ট্রেন্ডের ধরণ: মার্কেট ঊর্ধ্বমূখীভাবে শক্তিশালী। সাপোর্ট লেভেল: ১.৩০২০,১.২৯৭০,১.২৯০০ রেজিস্ট্যান্স লেভেল: ১.৩১৫০,১.৩২০০,১.৩২৮০
  24. NZD/USD পেয়ারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার সম্ভাবনা! ট্রেডিংয়ের পরামর্শ প্রবেশ: 0.65400 যে কারণে গুরুত্বপূর্ণ: 23.6% ফিবানচি রিট্রাসমেন্ট, অনুভূমিক ওভারল্যাপ সাপোর্ট মুনাফা গ্রহণ: 0.65800 মুনাফা গ্রহণ লেভেল নির্ধারণের কারণ: 61.8% ফিবানচি এক্সটেনশন স্টপ লস: 0.65040 স্টপ লস এর কারণ: গ্রাফিক্যাল সুইং লো 38.2% ফিবানচি রিট্রাসমেন্ট *মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না। বিভিন্ন পেয়ারের ফরেক্স আনাল্যসিসগুলো পেতে এই লিঙ্কটি ভিজিট করুন
  25. কমার্জব্যাংক অ্যানালাইসিস্ট কারেন জনসের মতে, পাউন্ড/ডলার পেয়ারটির প্রাইস বেড়ে ১.৩১৫৬ এর দিকে যাচ্ছে। কারেন জনসের মতে পেয়ারটি ১.৩১৫৬ প্রাইসকে অতিক্রমের পরবর্তীতে ১.৩১৬৭ এবং ১.৩১৬৭ প্রাইসে আসতে পারে। অপরদিকে পেয়ারটির প্রাইস কমতে শুরু হলে পেয়ারটি অক্টোবর মাসের সর্বোচ্চ প্রাইস ১.৩০১৩ আসতে পারে। ২০ দিনের মুভিং অ্যাভারেজ অনুযায়ী ১.২৯১৬ প্রাইসে আসতে পারে। পেয়ারটির ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে নভেম্বর মাসের সর্বনিন্ম প্রাইস ১.২৭৬৮ প্রাইসে আসতে পারে। আজকের সেশনে পেয়ারটির প্রাইস কমার থেকে বাড়ার সম্ভাবনা বেশি।
  26. জার্মান কারখানা আদেশ প্রকাশের পরে ইউরোর আংশিক পরিবর্তন বৃহস্পতিবার ET সময় 2.00 am, ডেস্টাটিস জার্মানির অক্টোবর মাসের কারখানা আদেশ এর রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। এই তথ্য পরে, ইউরো তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী মুদ্রাগুলোর বিপরিতে আংশিক পরিবর্তন হয়েছে। ET সময় 2:02 am, তে ইউরোর বিপরীতে ইয়েনের বিপরীতে 120.57, ফ্রাঙ্কের বিপরীতে 1.0942, পাউন্ডের বিপরীতে 0.8451 এবং ডলারের মুল্য ছিল 1.1081 । আরো ফরেক্স সংবাদঃ
  27. জার্মান ফ্যাক্টরি অর্ডার রির্পোটের পরে ইউরোতে সামান্য পরিবর্তিত হয়েছে! আজ বৃহস্পতিবার সকাল 2.00 টায় ডাস্টাটিস অক্টোবরের জন্য জার্মানির ফ্যাক্টরি অর্ডার রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। এই ডেটার পর ইউরো তার বিপরীতে অন্যান্য মেজর কারেন্সীগুলোর কাছে দাম সামান্য পরিবর্তন হয়েছে। ইউরো পাউন্ডের বিপরীতে 0.8451, ইয়েনের বিপরীতে 120.57, ফ্র্যাঙ্কের বিপরীতে 1.0942 এবং গ্রিনব্যাকের বিপরীতে 1.1081তে ট্রেডিং করছে। ইকোনমিক নিউজগুলো পেতে ভিজিট করুন: https://www.instaforex.org/forex-news
  28. EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস (৫ই ডিসেম্বর, ২০১৯) বিশ্লেষণ করেছেন বিশেষজ্ঞ Arief Makmur (ইন্সটা ফরেক্স টিম) আজকের EUR/USD পেয়ারের টেকনিক্যাল লেভেলঃ ব্রেকআউন্ট ক্রয় লেভেলঃ 1.1136, স্ট্রং রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1130, অরিজিনাল রেসিস্ট্যান্সঃ 1.1119, ইনার সেল এরিয়াঃ 1.1108, টার্গেট ইনার এরিয়াঃ 1.1082, ইনার বাই এরিয়াঃ 1.1056, অরিজিনাল সাপোর্টঃ 1.1045, স্ট্রং সাপোর্ট: 1.1034, ব্রেকআউট সেল লেভেল: 1.1028, মন্তব্য: ট্রেডারারা ইউরোপিয়ান ট্রেডিং সেশনে ফ্রেঞ্চ ১০-বছরের বন্ড অকশন, স্প্যানিশ ১০-বছরের বন্ড অকশন, রেভিসিডি জিডিপি কিউ/কিউ, রিটেলস্ সেলস এম/এম, ফাইনাল এমপ্লয়মেন্ট চেঞ্জ কিউ/কিউ এবং জার্মান ফ্যাক্টরি অর্ডারস এম/এম ইকোনমিক ডাটাগুলো পাওয়া যাবে। এছাড়াও আমেরিকান ট্রেডিং সেশনে ন্যাচারাল গ্যাস স্টোরেজ, ফ্যাক্টরি অর্ডারস এম/এম, আনএমপ্লয়মেন্ট ক্লাইম্স, ট্রেড ব্যালান্স এবং চ্যালেঞ্জের জব কাট ওয়াই/ওয়াই ইকোনমিক ডাটাগুলো পাওয়া যাবে। ফলে ফান্ডামেন্টাল নিউজ থেকে আশা করা যায় মার্কেটে EUR/USD পেয়ারটি নিন্ম মধ্যম মাত্রার ভোলাটিলিটি থাকতে পারে। আরো ফরেক্স বিশ্লেষন দেখুন: tiny.cc/cy69gz মার্কেট বিশ্লেষণ ট্রেডিং সম্পর্কে আপনার সচেতনতা বৃদ্ধি করবে, কিন্তু আপনাকে ট্রেডিং সম্পর্কিত নির্দেশ প্রদান করবে না।
  29. ব্রিটিশ নির্বাচনের সময় যত কাছাকাছি আসছে পাউন্ড/ডলারের প্রাইস ততো বাড়ছে। নির্বাচনে কোন ধরণের নেতিবাচক প্রভাব পড়লে পাউন্ড/ডলারের ‍প্রাইস কমতে পারে। কনফ্লুয়েন্স ইনডিকেটর এবং ১৫ মিনিটের বুলিঞ্জার ব্যান্ড অনুযায়ী, পেয়ারটির প্রাইস বেড়ে ১.৩১২১ এর দিকে যেতে পারে। পেয়ারটির আপট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ১.৩২৪৩ প্রাইসে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। একদিনের ৬১.৮% ফিবোনাসি এবং একদিনের বুলিঞ্জার ব্যান্ড অনুযায়ী, পেয়ারটির প্রাইস কমতে শুরু হলে ১.৩০৩২ সাপোর্ট লেভেলে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। পেয়ারটির ডাউনট্রেন্ড অব্যাহত থাকলে ৫ দিনের এসএমএ অনুযায়ী ১.২৯৮৫ সাপোর্ট লেভেলে আসতে পারে।
  1. Load more activity

বিডিপিপস কি এবং কেন?

বিডিপিপস বাংলাদেশের সর্বপ্রথম অনলাইন ফরেক্স কমিউনিটি এবং বাংলা ফরেক্স স্কুল। প্রথমেই বলে রাখা জরুরি, বিডিপিপস কাউকে ফরেক্স ট্রেডিংয়ে অনুপ্রাণিত করে না। যারা বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, শুধুমাত্র তাদের জন্যই বিডিপিপস একটি আলোচনা এবং অ্যানালাইসিস পোর্টাল। ফরেক্স ট্রেডিং একটি ব্যবসা এবং উচ্চ লিভারেজ নিয়ে ট্রেড করলে তাতে যথেষ্ট ঝুকি রয়েছে। যারা ফরেক্স ট্রেডিংয়ের যাবতীয় ঝুকি সম্পর্কে সচেতন এবং বর্তমানে ফরেক্স ট্রেডিং করছেন, বিডিপিপস শুধুমাত্র তাদের ফরেক্স শেখা এবং উন্নত ট্রেডিংয়ের জন্য সহযোগিতা প্রদান করার চেষ্টা করে।

×